• সাব্রুমে তরল গ্যাসীয় উদগিরন জারি
  • নেশা কারবারিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবার ইঙ্গিত মুখ্যমন্ত্রীর
  • খোয়াইয়ের সিপিআইএম কার্যালয় গুলিতে শ্মশানের স্তব্ধতা
  • আবার বিশেষ সহায়তার জন্য দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী
  • রাজ্যের রেল গুলিতে চালু হচ্ছে ই-কেটারিং পরিষেবা
  • সাংবাদিকদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করবে না বর্তমান সরকার: মুখ্যমন্ত্রী
  • মহাভারত যুগে ইন্টারনেট, মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়ালেন রাজ্যপাল
  • পুষ্পবন্ত প্রাসাদ রূপ নেবে আধুনিক সংগ্রহ শালায়
  • পুজা অর্চনার পর নতুন রাজভবনের দারোঘাটন
  • সাব্রুমে মাটি থেকে লাভা নিঃসরণ, আতঙ্ক চরমে
  • নেতৃত্বের বিরুদ্ধে তোপ দাগালেন বর্ষীয়ান সিপিআইএম নেতা
  • রাজ্যে পালিত হচ্ছে স্বচ্ছ ভারত দিবস
  • কুখ্যাত বৈরী গ্রেফতার
  • গোমতী জলে তলিয়ে যাওয়া ৭ বছরে শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার
  • অক্ষয় তৃতীয়ায় সরকারী আবাসে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, রাজ্যপালও যাচ্ছেন নতুন আবাসে
  • পুরনিগম হাত ছাড়া হতে চলেছে শঙ্কিত সিপিআইএম
  • জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে স্থান পাচ্ছে ত্রিপুরার কুইন ভ্যারাইটি আনারস
  • নিগম গুলিকে রাজনীতি মুক্ত বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান করার উদ্যোগ সরকারের
  • গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, চাঞ্চল্য
  • নববর্ষের প্রথম দিনে ভবঘুরেদের মধ্যাহ্নভোজন, নজির সৃষ্টি করল বিলোনীয়ার কতিপয় যুবক
  • নাটকীয় ভাবে ঘরে ফিরলেন কাউন্সিলার
  • ট্রান্সফরমার নিয়ে বিস্তর অভিযোগ, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ
  • গায়ক বিপ্লব কুমার দেব, জনপ্রিয়তা তুঙ্গে উঠছে মুখ্যমন্ত্রীর
  • ওডিসি নৃত্যের ইতিহাস জেনে নিন
  • ধর্ষকদের ফাঁসির আদেশ দেওয়ার পক্ষে আবেদন জানাল নির্ভয়ার পরিবার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ View All
  • সাব্রুমে তরল গ্যাসীয় উদগিরন জারি
  • নেশা কারবারিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবার ইঙ্গিত মুখ্যমন্ত্রীর
  • খোয়াইয়ের সিপিআইএম কার্যালয় গুলিতে শ্মশানের স্তব্ধতা
  • আবার বিশেষ সহায়তার জন্য দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী
  • সোনামুড়ায় বাঘের আতঙ্ক, বনদপ্তরের মতে চিতা বেড়াল

ত্রিপুরা খবর

রাজ্যের রেল গুলিতে চালু হচ্ছে ই-কেটারিং পরিষেবা

আগরতলা, ১৯ এপ্রিল (এ.এন.ই ): রাজ্যের রেল গুলিতে চালু হচ্ছে ই-কেটারিং পরিষেবা। একই সাথে ৬টি স্টেশনেও চালু হবে এই পরিষেবা। আগরতলা 

স্টেশন থেকে দূরপাল্লার ট্রেন গুলিতে পাওয়া যাবে ই-কেটারিং পরিষেবা। এখন থেকে যাত্রীরা নিজ পছন্দ  মতো খাবার পাবেন বলে একথা জানিয়েছেন 

উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ের জনসংযোগ আধিকারিক প্রণবজ্যোতি শর্মা। 
তিনি জানান, উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেল৯ওয়ের ৮টি স্টেশনের জন্য ইতিমধ্যে এই পরিষেবা চালু কড়া হয়েছে। এই স্টেশনগুলিতে ১৩টি সংস্থা আইআরসিটিসি 
মাধ্যমে খাবার যাত্রীদের মধ্যে পৌঁছে দেবে। যাত্রীরা তারা তাদের খাবারের জন্য অগ্রিম বুকিং করতে পারবেন। সেটা হল, 

www.ecatering.irctc.co.in। এভাবে এসএমএস'র মাধ্যমেও খাবার বুকিং কড়া যাবে। এসএমএস পাঠাতে হবে MEAL (PNR) 

অ্যান্ড সেন্ডিং ১৩৯ নম্বরে। 
উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ের জনসংযোগ আধিকারিক আরো বলেন, যে ৮টি স্টেশনের মধ্যে এই সার্ভিস চালু হয়েছে সেই গুলি হল কাটিহার, কিষাণগঞ্জ, নিউ 

জল্পাইগুড়ি, নিউ বংগাইগাও, গুয়াহাটি, লামডিং, ডিমাপুর এবং নিউ তিনসুকিয়া। তিনি বলেন আরো বেশ কয়েকটি স্টেশনে ই-কেটারিং পরিষেবা চালু হবে। 

শুধু তাই নয় এখন থেকে খুব সহসাই আগরতলা স্টেশন থেকে দূরপাল্লার ট্রেনে চালু হতে চলেছে যাত্রীদের নিজ পছন্দ সই খাবার। তিনি বলেন ভারতীয় 

রেয়ের ৪০৯টি স্টেশনে এই পরিষেবা চালু রয়েছে।   

19-04-2018 03:03:23 pm

সাংবাদিকদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করবে না বর্তমান সরকার: মুখ্যমন্ত্রী

আগরতলা, ১৯ এপ্রিল (এ.এন.ই ): সাংবাদিক কাজে কোন ধরনের প্রভাব সৃষ্টি করা হবে না বলে মুখ্যমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। সম্প্রতি সচিবালয়ে 

প্রবেশাধিকার নিয়ে  সৃষ্ট বিতর্কের জের ধরে মুখ্যমন্ত্রী এই মন্তব্য করেন।  সম্প্রতি সচিবালয়ের সুরক্ষিত বলয়ে এক অপরিচিত অনাহূত ব্যক্তির করা সুরক্ষা 

বেষ্টনীর নানান ছল চাতুরী মাধ্যমে অতিক্রম করে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ এলাকা গুলিতে চলে যায়। বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টিতে আসে অনেক পরে। ততক্ষণে 

বিষয়টি নিয়ে অনেক জটিলতা ? হয়। এরপর রাজ্যের  মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশে সচিবালয়ে যাতায়তের নিষেধাজ্ঞার উপর আরো বেশি গুরুত্ব 

আরোপ করা হয়। কিন্ত এক আধিকারিক অনাহূতদের আটকাতে গিয়ে সাংবাদিকদের উপরেও তা প্রয়োগ করে দেয়। লিখিত  কোন নির্দেশ নামা না বের 

হলেও সচিবালয়ে ভিতরে সাংবাদিকদের গতিরোধ করা হয়। বিষয়টির সম্পর্কে জানতে পেরে মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং তৎপর হন। এবং কোন অবস্থাতেই সাংবাদিকদের 

কাজে যাতে কেউ হস্তক্ষেপ না করে সে বিষয়ে কড়া নির্দেশ দেন। এরপরেই সাংবাদিকদের  সচিবালয়ের প্রবেশাধিকার নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা র অবসান ঘটে। 

মুখ্যমন্ত্রী সরাসরি জানিয়ে দিয়েছেন তার সরকার কোন অবস্থাতেই সাংবাদিকদের কাজে হস্তক্ষেপ করবে না। এবিষয়ে কারোর তরফেই কোন ধরনের প্রভাব 

সৃষ্টি করার চেষ্টা হলেও তা বরদাস্ত কড়া হবে না। 

19-04-2018 02:21:25 pm

মহাভারত যুগে ইন্টারনেট, মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়ালেন রাজ্যপাল

আগরতলা, ১৯ এপ্রিল (এ.এন.ই ): মহাভারতের যুগে ইন্টারনেট থাকার বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট বিতর্কের বিরুদ্ধে মুখ্যমন্ত্রী করা জবাব 

দিয়েছেন। অন্যদিকে রাজ্যের রাজ্যপালও এই বিষয়ে  মুখ্যমন্ত্রীকে  ভাষায় সমর্থন করেছেন। রাজ্যপাল এই ইস্যুতে বেশ কিছু যুক্তির অবতারণাও করেছেন।
সম্প্রতি একটি সরকারী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব মহাভারতের যুগেও ইন্টারনেট পরিষেবা থাকার কথা বলেছেন। কিন্তু 

তার এই বক্তব্যকে কেন্দ্র করে পরবর্তী সময়ে বামপন্থি কিছু  বুদ্ধিজীবী বেশ জোড়ে বিতর্কের সৃষ্টি করেন। বিষয়টিকে কিউ ভাবে এনো করা হয়। 
রাজভবনে আয়োজিত এক বিশেষ অনুষ্ঠানে একান্ত সাক্ষাৎকারে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে  করা হলে তিনি তার বক্তব্যে পুনরাবৃত্তি করেন।  তিনি সঠিক 

ভাবেই বলেছেন, আগামী দিনে এর সত্যতা প্রমাণিত হবে। যদি ইন্টারনেট না থাকত তাহলে মহাভারতের যুদ্ধে ধারাবিবরণী প্রচার সম্ভব হত না। ভগবান 

শ্রীকৃষ্ণের বক্তব্যে অর্জুনকে সামনে রেখে জগতের সবার উদ্দেশ্যে দেওয়া উপদেশ এইভাবে লিপিবদ্ধ করা যেতনা। বিষয়টি যথেষ্ট প্রাসঙ্গিক। মানা না মানাটা 

ব্যক্তিগত বিষয়। কিন্তু অনেক কিছুই এখন প্রমাণ হচ্ছে। কন্যাকুমারী থেকে শ্রীলঙ্কা পর্যন্ত সমুদ্রে নিমজ্জিত রাম সেতুও এখন স্যাটেলাইটে ধরা পড়েছে। ফলে 

সমালোচকরা সমালোচনা করতে পারেন। আমরা আমাদের দেশ নিয়ে গর্বিত। দেশকে আমরা মা বলে পূজা করি। আর দেশ মাতৃকায় গৌরবান্বিত হওয়ায় যে 

কোন অর্থাৎ সমৃদ্ধ বিষয় আমরা চড়া গলায় প্রচারও করবো। তাতে কে কি সমালোচনা  করে তাতে আমাদের কিছু যায় আসে না। 
অন্যদিকে রাজ্যপাল তথাগত রায় এবিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, মুখ্যমন্ত্রী যে বক্তব্য রেখেছেন, তা সোয়ার সত্য। এনিয়ে কোন 

বিতর্কের স্থান নেই। যারা দেশের গৌরবে গৌরবান্বিত বোধ করে না তাদের বিষয়টি অবশ্য আলাদা। সে যুগে ইন্টারনেট ছিল, কম্পিউটারও ছিল। আজ থেকে 

৭০ বছর আগেও কেউ জানত না ইন্টারনেট রয়েছে। তার মানে কম্পিউটার অথবা ইন্টারনেট  নেই এমনটা বলা  যায় না। কেউ নতুন  কিছু সৃষ্টি করতে 

পারেন না। সবটাই অবিস্কার। এই জগতে সবকিছুই আছে। শুধু আবিষ্কার করাটাই মূল বিষয়। রামায়ণ মহাভারতের যুগে মুনি ঋষিরা মানুষের জীবনকে উন্নত 

করার জন্য শরীর স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্য, চিন্তা চেতনা প্রসার ঘটানোর জন্য অনেক আর সেটাই তাদের সামাজিক দায়িত্বও ছিল। মুখ্যমন্ত্রী এসব বিষয়ে যা 

বলেছেন তা সম্পূর্ণ সত্য। এবং অতীত ইতিহাসে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ক্রমাগত প্রমাণিত হচ্ছে। 
তবে মুখ্যমন্ত্রীর সরকারী অনুষ্ঠানে বক্তব্যকে ঘিরে অনেকেই বিরুদ্ধ মত যেমন করেছন ঠিক তেমনেই অনেকে আবার পক্ষেও মত রাখেন। বিষয়টি শুধু মাত্র 

রাজ্যেই নয় বহিরাজ্যে বিভিন্ন মহলে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। 

19-04-2018 02:17:12 pm

জাতীয় খবর

১৯৯৩ সালের মুম্বই বিস্ফোরণের অন্যতম মূলচক্রী তাহির মার্চেন্ট প্রয়াত

মুম্বই, ১৯ এপ্রিল (এ.এন.ই ): হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল ১৯৯৩-এর মুম্বই বিস্ফোরণ কাণ্ডের অন্যতম মূল ষড়যন্ত্রকারী তাহির মার্চেন্ট ওরফে তাহির টাকলার। বুধবার ভোররাত ৩টে নাগাদ বুকে তীব্র যন্ত্রণা নিয়ে পুণের সাসুন হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাহির মার্চেন্ট ওরফে তাহির টাকলাকে। সেখানেই ৩.৪৫ মিনিট নাগাদ চিকিৎসা চলাকালীন শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে যাওয়ার কারণে মৃত্যু হয়েছে তাহিরের। ১৯৯৩ সালে মুম্বইয়ে একাধিক বিস্ফোরণ ঘটনার জন্য জঙ্গিদের আর্থিক মদত দিয়েছিল তাহির মার্চেন্ট। ২০১০ সালে আবু ধাবি থেকে তাহির মার্চেন্টকে বন্দি প্রত্যার্পণ চুক্তির মাধ্যমে ভারতে আনা হয়েছিল। পরে পুণের এরওয়াদা কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে তাকে বন্দি করে রাখা হয়। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বিশেষ আদালত তাহির মার্চেন্ট এবং ফিরোজ খানকে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করে। মৃত্যুদণ্ডের খবর পাওয়া মাত্রই আদালত চত্বরে হতাশায় ভেঙে পড়েছিলেন তাহির মার্চেন্ট। মুম্বই বিস্ফোরণকে কার্যকর করার জন্য দুবাইতে বসে টাইগার মেননসহ একাধিক ব্যক্তিদের সঙ্গে বৈঠক করে ষড়যন্ত্র কষেছিলেন তাহির। জঙ্গিদের পাকিস্তানে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থাও করে দিয়ে ছিলেন তিনি। প্রসঙ্গত, ১৯৯৩ সালের মুম্বই বিস্ফোরণে নিহত হয়েছিলেন ২৫৭ এবং গুরুতর আহতের সংখ্যা ৭০০-র বেশি ছিল। প্রায় ২৭ কোটি টাকার সম্পত্তি নষ্ট হয়ে গিয়েছিল।

19-04-2018 11:56:29 am

দিল্লিতে মানসিক ভারসাম্যহীন নাবালিকাকে ধর্ষণের ঘটনায় ধৃত ৩

নয়াদিল্লি, ১৮ এপ্রিল (এ.এন.ই ): কাঠুয়া, উন্নাও, এটাহের পরে এবার দিল্লির রোহিণী এলাকা। নাবালিকাদের প্রতি যৌন নির্যাতন অব্যাহত। ১৪ বছরের মানসিক ভারসাম্যহীন এক নাবালিকাকে ধর্ষণের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল পশ্চিম দিল্লির রোহিণী এলাকায়। অভিযোগের তির প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে। শুধু ধর্ষণ করেই থেমে থাকেনি ওই যুবক। তার দুই বন্ধুকে দিয়ে ওই নাবালিকার আপত্তিজনক ছবি মোবাইল ক্যামেরার তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দেয়। গত শনিবার নিজের মেয়ের আপত্তিজনক ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখতে পেয়ে চমকে যান ওই নাবালিকার বাবা-মা। তৎক্ষণাৎ খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। এই ধর্ষণকাণ্ডের তদন্তে নেমে পুলিশ বছর ৩২-এর বান্টি নামে এক যুবক ও তার দুই বন্ধুকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ সূত্র থেকে জানা গিয়েছে আপত্তিজনক ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে বাণ্টি নামে ওই যুবক একাধিকবার ওই মানসিক ভারসাম্যহীন নাবালিকাকে ধর্ষণ করত। বান্টি ওই মানসিক ভারসাম্যহীন নাবালিকার পরিবারের পূর্ব পরিচিত। সেই সুযোগে ফাঁকা বাড়িতে ঢুকে ওই নাবালিকা অন্য একটি জায়গায় নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। ধৃতদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি, পকসো আইন এবং তথ্যপ্রযুক্তির একাধিক আইনের মামলা দায়ের করেছে। যে মোবাইল ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করা হয়েছিল তা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

18-04-2018 02:01:30 pm

স্মৃতি ইরানিকে উত্যক্ত করায় দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের চার পড়ুয়ার বিরুদ্ধে চার্জশিট পেশ

নয়াদিল্লি, ১৮ এপ্রিল (এ.এন.ই ): কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিকে উত্যক্ত করার অভিযোগে ধৃত দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের চার পড়ুয়ার বিরুদ্ধে চার্জশিট দিল দিল্লি পুলিশ। মঙ্গলবার মেট্রপলিট্যান ম্যাজিস্ট্রেট স্নিগ্ধা সাওয়ারিয়ার এজলাসে চার্জশিট পেশ হলে তিনি সেটি গ্রহণ করে ১৫ অক্টোবর শুনানির দিন স্থির করেন। এরা জামিনে রয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিকে উত্তক্ত করার অভিযোগে ধৃত চার পড়ুয়ার বিরুদ্ধে চার্জশিট দিল দিল্লি পুলিশ। গত বছর দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে নিজের বাড়ি চাণক্যপুরীতে আসছিলেন স্মৃতি ইরানি৷ তখনই ঘটনাটি ঘটে৷ ডাক্তারি পরীক্ষার পর দেখা যায়, ওই ৪ জনই মদ্যপছিল৷ যখন তারা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর গাড়ি ফলো করছিল, তখন মদের নেশায় বুঁদ হয়ে ছিল তারা৷ ঘটনাটি ঘটে ২০১৭ সালের এপ্রিলে৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি প্রথমে একটি পিসিআর কল করেন৷ তারপর সাধারণ অভিযোগ দায়ের করেন৷ চাণক্যপুরী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন তিনি৷ তারপরই ওই ৪ পড়ুয়াকে আটক করা হয়৷ তারপরই ওই ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়৷ ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪ ডি (উত্তক্ত করা) ও ৫০৯ (শ্লীলতাহানি) ধারায় তাদের বিরিদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়৷ কিন্তু তারা জামিনে মুক্তি পায়৷ ওই ঘটনায় মঙ্গলবার মেট্রপলিট্যান ম্যাজিস্ট্রেট স্নিগ্ধা সাওয়ারিয়ার এজলাসে চার্জশিট পেশ হলে তিনি সেটি গ্রহণ করে ১৫ অক্টোবর শুনানির দিন স্থির করেন।

18-04-2018 01:56:23 pm

বিশ্ব খবর

প্রয়াত প্রাক্তন ফার্স্ট লেডি বারবারা বুশ, শোকস্তব্ধ আমেরিকা

হিউস্টন, ১৮ এপ্রিল (এ.এন.ই ): প্রয়াত হলেন আমেরিকার প্রাক্তন ফার্স্ট লেডি বারবারা বুশ| মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সময় অনুযায়ী মঙ্গলবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি| বুশ পরিবার সূত্রের খবর, মঙ্গলবার টেক্সাসের হিউস্টনে ৯২ বছর বয়সে জীবনাবসান হয়েছে প্রাক্তন ফার্স্ট লেডি বারবার বুশ-এর| আমেরিকার ৪১ তম প্রেসিডেন্ট জর্জ হার্বার্ট ওয়াকার বুশের স্ত্রী ছিলেন বারবারা| বারবারা হলেন একমাত্র মহিলা যিনি স্বামী এবং ছেলেকে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট পদে দেখেছেন| আমেরিকার সময় অনুযায়ী, গত রবিবার বুশ পরিবারের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বারবারা বুশের শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হচ্ছে| তিনি আর কোনও চিকিত্সা করাতে ইচ্ছুক নন| এরপর মঙ্গলবার বুশ পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ৯২ বছর বয়সে প্রয়াত হয়েছেন প্রাক্তন ফার্স্ট লেডি বারবারা বুশ| প্রাক্তন ফার্স্ট লেডির প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করেছেন আমেরিকার ৪৩ তম রাষ্ট্রপতি এবং বারবারা-পুত্র জর্জ ওয়াকার বুশ| শোকবার্তায় জর্জ ডব্লু বুশ জানিয়েছেন, ‘আমার মা ৯২ বছর বয়সে প্রয়াত হয়েছেন| লরা, বারবারা, জেনা এবং আমি আজ খুবই দুঃখিত, কিন্তু আত্মা বিচলিত নয় কারণ আমরা জানি আমাদের মা শান্তিতে মারা গিয়েছেন|’ এছাড়াও প্রাক্তন ফার্স্ট লেডির প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করেছেন আমেরিকার বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা| এখানেই শেষ নয়, আমেরিকার রাজনৈতিক মহলও বারবারা বুশের জীবনাবসানে শোকপ্রকাশ করেছে| ১৯৮৯-১৯৯৩ সাল পর্যন্ত বারবার স্বামী তথা আমেরিকার ৪১ তম প্রেসিডেন্ট জর্জ হার্বার্ট ওয়াকার বুশ হোয়াইট হাউসে থাকাকালীন বারবারা ছিলেন আমেরিকার ফার্স্ট লেডি| পরিবারের মধ্যে ‘দ্য সিলভার ফক্স’ নামে পরিচিত ছিলেন বারবারা।

18-04-2018 01:58:18 pm

তুরস্ক থেকে ৭০ আইএস জঙ্গি গ্রেফতার

আঙ্কারা, ১৬ এপ্রিল (এ.এন.ই ): তুরস্কের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ৭০ জন আইএস জঙ্গিকে গ্রেফতার করল তুরস্কের পুলিশ৷ শনিবার এদের গ্রেফতার করা হয়৷ এরা তুরস্কের বিভিন্ন প্রান্তে জঙ্গি মডিউল তৈরি করার কাজে যুক্ত ছিল বলে জানা গিয়েছে৷ ধৃতদের মধ্যে ১০ জনে বিদেশী৷ মধ্য তুরস্ক থেকে গ্রেফতার হওয়া এই ১০ জনের মধ্যে একজন আইএসের অন্যতম প্রধান বলে খবর৷ এসকিসেইর এলাকার সেন্ট্রাল অ্যানাতোলিয়ান থেকেই সবচেয়ে বেশি গ্রেফতারি হয়েছে বলে খবর৷ ধৃতদের মধ্যে বেশিরভাগই ইরাকের বাসিন্দা৷ এদিন অন্য একটি পৃথক ঘটনায় ইস্তানবুলে ৫১ জন আইএস জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়৷ এরা প্রত্যেকেই বিদেশি বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে৷ ছটি জেলা জুড়ে পুলিশ তল্লাশি চালায়৷ প্রচুর নথি, আগ্নেয়াস্ত্র ও ডিজিটাল যন্ত্রপাতি উদ্ধার করা হয়েছে বলে খবর৷ এর আগে, তুরস্ক পুলিশ ১২ জন সন্দেহভাজন আইএস জঙ্গিকে গ্রেফতার করে। রাজধানী আঙ্কারাতে জঙ্গিদের খোঁজে তল্লাশি চলানোর সময় তাদের আটক করা হয়। এ ব্যাপারে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আটকরা সকলেই বহিরাগত। তারা আইএস জঙ্গি সংগঠনে নাম লেখানোর কাজ করছিল। তাদের সঙ্গে সিরিয়া ও ইরাকের আইএস জঙ্গিদের যোগাযোগ আছে।

16-04-2018 11:40:05 am

কাঠুয়া গণধর্ষণকাণ্ডে উদ্বেগ প্রকাশ করল রাষ্ট্রসঙ্ঘ

রাষ্ট্রসঙ্ঘ, ১৪ এপ্রিল (এ.এন.ই ): কাঠুয়া গণধর্ষণকাণ্ডে এবার উদ্বেগ প্রকাশ করলেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের সেক্রেটারি জেনারেল অ্যান্টোনিও গুটেরেস। বিষয়টিকে ‘ভয়ঙ্কর’ আখ্যা দিয়ে সেক্রেটারি জেনারেলের মুখপাত্র স্টেফান দুজারিক শুক্রবার জানিয়েছেন, ‘সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট থেকে শিশু কন্যাকে খুন এবং ধর্ষণ ঘটনাটি জানার পরে আমি মনে করি প্রশাসন অপরাধীদের বিরুদ্ধে বিচারব্যবস্থার মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।’ কাঠুয়া গণধর্ষণকাণ্ড যে সারা দেশের সঙ্গে গোটা বিশ্বেও হিল্লোল তুলেছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সেক্রেটারি জেনারেলের মন্তব্য থেকেই তা স্পষ্ট। ২০১২ সালের নির্ভয়া কাণ্ডের মতো কাঠুয়া ধর্ষণকাণ্ডও আম জনতার মনে অনেক ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে। অন্যদিকে ভোটের মুখে এই বিষয়টিকে রাজনীতির রঙ চড়িয়ে ফায়দা তুলতে চাইছে কংগ্রেস। যদিও শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছিলেন, ‘এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত কাউকে রেয়াত করা হবে না। আমাদের মেয়েরা বিচার পাবেই।’ এদিকে ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়েছে। বিশেষ তদন্তকারীদল গঠন করা হয়েছে।

14-04-2018 06:29:15 pm

খেলাধূলা

বাবা রামদেবের সঙ্গে দেখা করলেন কমনওয়েলথের সোনাজয়ী কুস্তিগীর সুশীল কুমার

নয়াদিল্লি, ১৭ এপ্রিল (এ.এন.ই ): গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমস থেকে ৭৪ কিলোগ্রাম বিভাগে সোনা জিতে দেশে ফিরে যোগগুরু বাবা রামদেবের সঙ্গে দেখা করলেন সুশীল কুমার। দুইজনের মধ্যে দীর্ঘক্ষণ সৌজন্যমূলক বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের কাছে বাবা রামদেব বলেন, ‘আমরা সবাই সুশীলের জন্য গর্বিত। সুমিত এবং ও দেশকে কমনওয়েলথ গেমস ২০১৮তে গর্বিত করেছে। আমি তরুণ প্রজন্মের কাছে অনুরোধ করব এর থেকে যেন তারা অনুপ্রাণিত হয়।’ ২০১৬ সালের অলিম্পিকের প্রসঙ্গ তুলে বাবা রামদেব বলেন, 'অলিম্পিকে অংশগ্রহণ করা থেকে যদি তাঁকে(সুশীল কুমারকে) আটকানো না হতো। তা হলে ভারতের ঝুলিতে আরও একটি সোনার পদক আসত।' অন্যদিকে সুশীল কুমার জানিয়েছেন, ‘আপাদের সবার আর্শীবাদ এবং শুভেচ্ছা ছিল। পাশাপাশি স্বামীজির(বাবা রামদেব) আর্শীবাদ ছিল বলেই আমি এত ভাল করতে পেরেছি।’ কমনওয়েলথে সোনা জেতার পরে এখনই যে তিনি অবসর নিচ্ছেন না সেই বিষয়ে স্পষ্ট করে দিয়ে সুশীল কুমার জানিয়েছেন, 'আমি আশা করব আগামীদিনেও সমস্ত ভারতীয়দের শুভেচ্ছা এবং আর্শীবাদ আমার পাশে থাকবে যাতে করে এমনই ভাল খেলে যেতে পারি। আমি ভারতের হয়ে খেলতে এবং জিততে চাই। ২০১৬ সালে অলিম্পিকের প্রসঙ্গ আমি ভুলে গিয়েছি। ওখান থেকে আমি বহু পথ পেরিয়ে এসেছি। ওটা (২০১৬ অলিম্পিক) যদি ভুলে না যেতাম তবে আমি সোনা জিততে পারতাম না।'

17-04-2018 01:04:32 pm

ইংলিশ প্রিমিয়র লিগে ওয়েস্ট ব্রমউইচের কাছে হার ম্যান ইউদের

ম্যাঞ্চেস্টার, ১৬ এপ্রিল (এ.এন.ই ): ইংলিশ প্রিমিয়র লিগে ওয়েস্ট ব্রমউইচের কাছে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড হেরে কার্যত ম্যাঞ্চেস্টার সিটিকে লিগ চ্যাম্পিয়ন করে দিল৷ এমনিতে ম্যান সিটির প্রিমিয়র লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়া কেবল সময়ের অপেক্ষা ছিল৷ তবু প্রত্যাশিত সময়ের আগেই গুয়ার্দিওলাদের চ্যাম্পিয়ন করার সুযোগ করে দিল রেড ডেভিলসরা৷ ব্রমউইচের কাছে হারের পর দ্বিতীয় স্থানে থাকা ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড লিগের বাকি সবক’টি ম্যাচ জিতলেও আর ম্যান সিটিকে আর ছোঁয়া সম্ভব নয়। শেষ রাউন্ডে টটেনহ্যামকে ৩-১ গোলে পরাস্ত করে লিগ জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে যায় ম্যন সিটি৷ পয়েন্ট ব্যবধানের নিরিখে চ্যাম্পিয়ন হতে গুয়ার্দিওলাদের প্রয়োজন ছিল ৯০ পয়েন্ট৷ ৩৩ রাউন্ডের শেষে সিটির সংগ্রহ ৮৭ পয়েন্ট৷ আর একটা ম্যাচ জিতলেএই ইপিএলের ট্রফি ঘরে তুলত তারা৷ ইউনাইটেডের অবাক হারে তার আর প্রয়োজন পড়বে না৷ ওয়েস্ট ব্রমউইচের কাছে হারের পর ৩৩ ম্যাচে মোরিনহোদের খাতায় রয়েছে ৭১ পয়েন্ট৷ ৩৮ রাউন্ডের পর কোনওভাবেই ৮৭ পয়েন্টে পৌঁছান অার সম্ভব নয় রেড ডেভিলসদের পক্ষে৷ সুতরাং বাকি সবক’টি ম্যাচ হারলেও ম্যান সিটির লিগ জয় করবে নিরাপদেই৷

16-04-2018 06:39:31 pm

লা লিগায় মালাগার বিরুদ্ধে সহজ জয় রিয়াল মাদ্রিদের

মালাগা, ১৬ এপ্রিল (এ.এন.ই ): লা লিগায় মালাগার বিরুদ্ধে জয় তুলে নিল রিয়াল মাদ্রিদ৷ ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডে ও গ্যারেথ বেল-র মত তারকাদের সাময়িক বিশ্রাম দিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ অ্যাওয়ে ম্যাচে ২-১ গোলে জয় তুলে নিতে কোনও সুবিধা হয়নি৷ ঘরের মাঠে জুভেন্তাসের বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ কোয়ার্টারের কঠিন ম্যাচের পর রোনাল্ডে ও গ্যারেথ বেলকে সাময়িক বিশ্রাম দেন কোচ জিদান৷ অার মালাগার বিরুদ্ধে মার্সেলো ও টনি ক্রুজকেও বেঞ্চে রেখে দল নামান রিয়াল কোচ৷ প্রথম একাদশে এমন বড়সড় বদল এনেও অবনমনের আওতায় থাকা মালাগার বিরুদ্ধে শেষ পাঁচটি অ্যাওয়ে ম্যাচে একটানা জয় তুলে নিল রিয়াল৷ নিজের পুরনো ক্লাবের বিরুদ্ধে এদিন ফ্রি-কিক থেকে দুরন্ত গোল করেন ইসকো৷ পাশাপাশি ক্যাসেমিরোকে একটি গোলের পাস বাড়ান তিনি৷ ম্যাচের ২৯ মিনিটে সেটপিস থেকে বাঁকানো শটে গোল করে রিয়ালকে ১-০ এগিয়ে দেন ইসকো৷ চলতি মরশুমে রিয়ালের এটি ২৫ তম ফ্রি-কিক গোল৷ লা লিগার আর কোনও ক্লাবই চলতি মরশুমে এত সেটপিস গোল করতে পারেনি৷ প্রথমার্ধে আর কোনও গোল না হওয়ায় ম্যাচের ফল ছিল রিয়ালের অনুকূলে ১-০৷ দ্বিতীয়ার্ধে ক্যাসেমিরোকে গোলের সুযোগ করে দেন ইসকোই৷ ৬৩ মিনিটে মালাগার জালে বল জড়িয়ে ক্যাসেমিরো মাদ্রিদের ব্যবধান বাড়িয়ে ২-০ করেন৷ যদিও ম্যাচের একেবারে শেষ মুহূর্তে একটি গোল শোধ করতে সক্ষম হয় মালাগা৷ মালাগার বিরুদ্ধে জয়ের সুবাদে ৩২ ম্যাচে ৬৭ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের তৃতীয় স্থানে উঠে আসে রিয়াল৷ আর ৮২ পয়েন্ট নিয়ে যথারীতি পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে মেসিদের বার্সেলোনা৷ ৭১ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে জায়গা ধরে রেখেছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ৷

16-04-2018 06:27:34 pm


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.