• বিশ্ব বিদ্যালয়ের কাণ্ডে ক্ষুব্ধ কংগ্রেসও
  • এসকর্টের ধাক্কায় গুরুতর আহত বৃদ্ধা
  • রাজ্যে আটক তিন বিদেশী অনুপ্রবেশকারী
  • কেরালায় বিজেপি কর্মীদের পাশে দাঁড়ালো ত্রিপুরা রাজ্য কমিটি
  • বিশ্ব বিদ্যালয় কাণ্ডে বেসামাল কর্তৃপক্ষ, বহিষ্কার ১
  • কদমতলায় আবাসিকে ষষ্ট শ্রেণীর ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু, এলাকায় চাঞ্চল্য
  • গর্তে পরে শিশুর মৃত্যু
  • সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিশ্ব বিদ্যালয়ের কার্যকলাপ নিয়ে রাজ্যপালের ক্ষোভ
  • কলঙ্কিত ত্রিপুরা বিশ্ব বিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠান
  • ভারতীয়দের ডিএনএফএ ধর্মনিরপেক্ষতা: উপরাষ্ট্রপতি
  • ত্রিপুরায় সাংবাদিক হত্যাকাণ্ডে প্রশস্থ হল সিবিআই তদন্তের পথ
  • বন্যার পর নদীর ভাঙ্গনে অস্তিত্ব সংকটে বহু মানুষ
  • স্ত্রী, সন্তানদের পুরিয়ে মারার চেষ্টা কনস্টেবলের
  • জলাশয় থেকে এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ
  • জি বি বাজারে বিলেতি মদ ভাসল নর্দমায়
  • দূর্নীতি গ্রস্থ কর্মী আধিকারিকদের কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর
  • ত্রিপুরার দ্রুত উন্নয়নে আশাবাদী কেন্দ্রীয় রাষ্ট্রমন্ত্রী
  • দ্রুত উন্নয়নের পথে ত্রিপুরার সহায় কেন্দ্র
  • উদয়পুরে উদ্ধার হল অজগর সাপ
  • ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে উদ্ধার ফেন্সিডিল এবং গাজা
  • রাজধানীতে আক্রান্ত এক যুবক
  • প্রাইভেট টিউশন শেষে বাড়ি ফেরার পথে অপহরণ স্কুল ছাত্রী
  • মঙ্গলবার থেকে সূচনা হল আগরতলায় দ্বি-সাপ্তাহিক হামসফরের
  • প্রকাশিত হল উচ্চ মাধ্যমিকের বিজ্ঞান বিভাগের ফল, পাশের হার ৮৪.৩১ %
  • চন্ডিপুর সিপিআইএম এর পার্টি অফিস থেকে অস্ত্র উদ্ধার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

এন্টারটেনমেন্ট

শুরু হয়েছে রাজ্য ব্যাপী নৃত্য ও ফ্যাশন প্রতিযোগীতা, ৬ মে আগরতলায় অডিশন

আগরতলা, ৩ মে (এ.এন.ই ): শুরু হয়ে গেছে দ্য রয়েলস ড্যান্স স্টুডিওর উদ্যোগে আয়োজিত অল ত্রিপুরা ডান্স এন্ড ফ্যাশান চ্যাম্পিয়নশিপ ২০১৮'র অডিশন। ইতিমধ্যেই রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে এই ডান্স এন্ড ফ্যাশন চ্যাম্পিয়নশিপের অডিশন শেষ হয়েছে। আগামী ৬ই মে আগরতলার প্রেস ক্লাবে অডিশন শুরু হবে সকাল ১০টা থেকে। জানা গেছে, আগামী ১৮ মে আগরতলার মাতঙ্গিনী প্রীতিলতা ভবনে মেগা অডিশন হবে। এবং আগামী ৯ জুন ফাইনাল প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে। তাছাড়া দ্য রয়েলস ড্যান্স স্টুডিওর উদ্যোগে নৃত্য কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৭ এবং ৯ জুন। দ্য রয়েলস ড্যান্স স্টুডিওর উদ্যোগে এই নৃত্য কর্মশালা ও ফ্যাশন প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহণের জন্য ইচ্ছুক প্রতিযোগীদের নাম নথিভুক্তিকরণও শুরু হয়েছে। এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে 8787765002, 8257923776 নম্বরে যোগাযোগ করতে সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

03-05-2018 03:01:13 pm

কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলা : বিদেশে যাওয়ার অনুমতি পেলেন সলমন খান

যোধপুর, ১৭ এপ্রিল (এ.এন.ই ): বিদেশ সফরে যাওয়ার অনুমতি পেলেন বলিউড অভিনেতা সলমন খান| ‘ভাইজান’-কে বিদেশ সফরে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে যোধপুর জেলা ও সেশন আদালত| সূত্রের খবর, আগামী ২৫ মে থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত কানাডা, নেপাল এবং আমেরিকা সফরে যাবেন বলিউড অভিনেতা সলমন খান| কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় কিছুদিন আগেই জামিন পেয়েছেন সলমন খান| এর আগে বিদেশ সফরে যাওয়ার অনুমতি চেয়ে যোধপুর জেলা ও সেশন আদালতের দ্বারস্থ হন সলমন খান| মঙ্গলবার সলমনের আবেদনে সম্মতি জানিয়েছে যোধপুর জেলা ও সেশন আদালত| সূত্রের খবর, আগামী ২৫ মে থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত কানাডা, নেপাল এবং আমেরিকা সফরে যেতে পারবেন সল্লু মিঞা| উল্লেখ্য, ১৯৯৮ সালে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শ্যুটিংয়ের সময় রাজস্থানের যোধপুরের কাঙ্কানি গ্রামে দু’টি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ উঠেছিল সলমনের বিরুদ্ধে| সম্প্রতি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ডের সাজা হয়েছিল বলিউড অভিনেতা সলমন খানের| যোধপুর জেলে পরপর দুই রাত কাটানোর পর ২৫,০০০ টাকার বন্ডে শর্তসাপেক্ষে জামিন পান ভাইজান।

17-04-2018 06:27:22 pm

ভারতে সলমন খানের বিপরীতে অভিনয় করবেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

মুম্বই, ১৭ এপ্রিল (এ.এন.ই ): বলিউডে কামব্যাক করতে চলেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। প্রায় দুই বছর ধরে টিভি সিরিজ কোয়ান্টিকোতে অভিনয় করার জন্য আমেরিকার নিউ ইয়র্কে ছিলেন প্রিয়াঙ্কা। সেখানে বেওয়াচ ছবি দিয়ে হলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। কিন্তু প্রায় দুই বছর আমেরিকায় কাটানোর পরেও হলিউডে খুব একটা দাগ কাটতে পারেননি । তাই ফের ‘ভারত’ ছবি দিয়ে ফের বলিউডে কামব্যাক করতে চলেছেন প্রিয়াঙ্কা। ভারতে সলমন খানের বিপরীতে অভিনয় করবেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। আগে জল্পনা শোনা গিয়েছিল যে সলমন খানের বিপরীতে ক্যাটরিনা কাইফ অভিনয় করবেন। কিন্তু সমস্ত জল্পনাকে নস্যাৎ করে দিয়ে ভারতের নির্মাতারা প্রিয়ঙ্কা চোপড়াকে বেছে নিয়েছেন সলমন খানের বিপরীতে। ছবিটি পরিচালনা করবেন আলি আব্বাস জাফর। বলিউডে নিজের কামবেক সম্পর্কে বলতে গিয়ে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জানিয়েছেন, সলমনের সঙ্গে কাজ করার জন্য এবং ছবিটিতে অভিনয় করার জন্য আমি মুখিয়ে আছি। এর আগে আমি ওনাদের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি। অন্যদিকে প্রায় ১০ বছর পর সলমনের বিপরীতে অভিনয় করতে দেখা যাবে প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে। এর আগে সালামে-এ-ইশক এবং গড তুসি গ্রেট হোতে দুইজনে একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন। ২০১৬ সালে জয় গঙ্গাজলে ছবিতে শেষ দেখা গিয়েছিল প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে। দুই বছর আগে যখন আমেরিকায় পাড়ি দিয়েছিলেন তখন বলিউডের এক নম্বর নায়িকা ছিলেন তিনি। কিন্তু এই দুই বছরের মধ্যে বলিউডে অনেক কিছু পাল্টে গিয়েছে। পদ্মাবতের সৌজন্যে এক নম্বর স্থানে বর্তমানে রয়েছেন দীপিকা পাডুকোন।

17-04-2018 05:54:46 pm

হলিউডে পারি দিতে চলেছেন রাধিকা আপ্তে

মুম্বই, ১৭ এপ্রিল (এ.এন.ই ): অভিনয় দক্ষতার গুণে এবার হলিউডে পারি দিতে চলেছেন রাধিকা আপ্তে ৷ শীঘ্রই তাঁকে দেখা যাবে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকে কেন্দ্র করে তৈরি একটি স্পাই ড্রামা ছবিতে৷ নিজের ট্যুইটার হ্যন্ডেলে তিনি পোস্ট করলেন এই সুখবর৷ সত্যঘটনা অবলম্বনে তৈরি হতে চলেছে এই ছবি৷ উইনস্টাইন চার্চিলের ‘সিক্রেট আর্মি’কে সেলুলয়েডের রূপ দেবেন পরিচালক লিডিয়া ডিন পিলচার৷ রাধিকার সহ-অভিনেত্রী হিসেবে থাকছেন স্ট্যানা ক্যাটিক, সারা মেগান থমাস৷ ছবিতে রাধিকা অভিনয় করবেন নূর ইনায়াত খানের চরিত্রে৷ অন্যদিকে, ব্রিটিশ ইন্টেলিজেন্স অফিসার ভেরা অ্যাটকিনসের ভূমিকা চিত্রায়ন করবেন স্ট্যানা যে তাঁর বসের অ্যাসাইন করা মিশনকে সম্পূর্ণ করার প্রচেষ্টা চালাবেন৷ এবং একজন আমেরিকান মহিলার চরিত্রে থাকছেন সারা, ছবিতে তাঁর একটি পা কাঠের৷

17-04-2018 11:39:12 am

ওডিসি নৃত্যের ইতিহাস জেনে নিন

আগরতলা, ১৬ এপ্রিল (এ.এন.ই ): উড়িষ্যা পুরাতন সাহিত্যেও ওডিসি নামেও পরিচিত, একটি প্রাচীন প্রাচীন ভারতীয় ভারতীয় নৃত্য যা উড়িষ্যার হিন্দু মন্দিরের একটি পূর্ব উপকূলে অবস্থিত। ওডিসি তার ইতিহাসে প্রধানত মহিলাদের দ্বারা সম্পাদিত হয় এবং ধর্মীয় গল্প এবং আধ্যাত্মিক ধারণাগুলি প্রকাশ করেন বিশেষত বৈষ্ণবধর্ম (বিষ্ণু হিসাবে জগন্নাথ)। উড়িষ্যা পারফরমেন্স এছাড়াও অন্যান্য ঐতিহ্য যেমন হিন্দু দেবতা শিবা এবং সূর্য, সেইসাথে হিন্দু দেবী (Shaktism) সম্পর্কিত যারা মতামত প্রকাশ করেছে। অভিনেতা শিল্পের প্রাচীন হিন্দু সংস্কৃত পাঠের নাট্য শাস্ত্রে ওডিসির ভিত্তি পাওয়া যায়। নৃত্যশাস্ত্রে বর্ণিত মৌলিক নৃত্য ইউনিটগুলি, তাদের মধ্যে ১০৮ টি ওডিশিতে যারা অভিন্ন। আধুনিক ওডিসি শিশুদের এবং প্রাপ্তবয়স্ক দ্বারা সঞ্চালিত হয়, একাকী বা হিসাবে গ্রুপ। প্রাচীন সংস্কৃত পাঠ নাট্য শাস্ত্রের অদাসির সন্ধানের তাত্ত্বিক ফাউন্ডেশন, নৃত্য দ্বারা প্রমাণিত পুরাতনতার অস্তিত্ব উড়িষি হিন্দু মন্দিরের ভাস্কর্যগুলিতে ভেসে উঠেছে এবং হিন্দুধর্ম, বৌদ্ধ ধর্ম ও জৈনধর্ম সম্পর্কিত প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান। ওসিসি নাচ ঐতিহ্য ইসলামী শাসনের যুগেই এবং ব্রিটিশ শাসনের অধীনে দমন করা হয়। ভারতীয়রা ঔপনিবেশিক শাসন থেকে স্বাধীনতা অর্জনের পর তার পুনরুত্থান, পুনর্গঠন এবং সম্প্রসারণের পরে দমন করা হয়। ঐতিহ্যগতভাবে একটি অভিনব শিল্পের নৃত্য-নাটক, যেখানে শিল্পী ও সঙ্গীতশিল্পীরা একটি পৌরাণিক কাহিনী, হিন্দু গ্রন্থে হিন্দু গ্রন্থে আধ্যাত্মিক বার্তা বা ভক্তিমূলক কবিতা, শারীরিক আন্দোলন, অভিনীয় (অভিব্যক্তি) ব্যবহার করে। ) এবং মুদ্রা (ইশারা এবং সাইন ভাষা) প্রাচীন সংস্কৃত সাহিত্যে সেট আউট। ওড়িশি শেখানো হয় এবং ভাঁজ নামে পরিচিত মৌলিক নৃত্য মোটিফের যৌগ হিসেবে কাজ করে (সমান্ত্রিক শরীরের বেন্ড, স্ট্যাক্স)। এটি নিখুঁত (পাদদেশ), মধ্য (ঢাল) এবং ঊর্ধ্ব (হাত এবং মাথা) নিখুঁত অভিব্যক্তি এবং জ্যামিতিক সমাহার এবং rhythmic বাদ্যযন্ত্র অনুরণন সঙ্গে শ্রোতাদের প্রবৃত্তির তিনটি উত্স হিসাবে জড়িত। একটি ওডিসিআই কর্মক্ষমতা নান্দনিক অন্তর্ভুক্তি, নৃত্য (বিশুদ্ধ নাচ), নৃত্য (প্রকাশমূলক নাচ), নাট্য (নাটক) এবং মোক্ষ (আত্মা এবং আধ্যাত্মিক প্রকাশের স্বাধীনতা connoting নৃত্য পর্বতারোহী) অন্তর্ভুক্ত। ঐতিহ্যবাহী ওডিসি দুটি প্রধান শৈলিতে বিদ্যমান, প্রথম নারী দ্বারা নিখুঁত এবং গুরুতর, আধ্যাত্মিক মন্দিরের নাচ (মোহরিস) উপর ফোকাস; মেয়েদের পোশাক পরা মেয়েদের দ্বারা পরিচালিত। দ্বিতীয় যা অ্যাথলেটিক এবং অ্যাক্রোব্যাটিক চক্রগুলি অন্তর্ভুক্ত করার জন্য বৈচিত্রপূর্ণ এবং মন্দিরের উত্সব অনুষ্ঠানগুলি থেকে সাধারণ ফোস্কি বিনোদন পর্যন্ত সঞ্চালিত হয়। ভারতীয় শিল্পীদের আধুনিক ওডিসি প্রযোজনার বিভিন্ন উপায়ে পরীক্ষামূলক ধারণা, সংস্কৃতি সংযোজন, থিম এবং নাটক উপস্থাপন করেছে।

16-04-2018 03:04:13 pm

ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্যের মধ্যে অন্যতম একটি নৃত্য কুচিপুড়ি

নয়াদিল্লি ১৬ এপ্রিল (এ.এন.ই ): দেশের একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় এবার ধর্ষকদের যাতে ফাঁসির আদেশ দেওয়া হয় সেব্যাপারে আবেদন জানাল নির্ভয়ার পরিবার। রবিবার নির্ভয়ার পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে দেশ প্রগতির পথে এগিয়ে গেলেও সমাজে এখনও মহিলারা সুরক্ষিত নয়। প্রসঙ্গত দেশের রাজধানী দিল্লিতে ২০১২ সালে ২৩ বছরের প্যারামেডিক্যালের ছাত্রী নির্ভয়াকে কিছু দুর্বৃত্ত ধর্ষণ করে এবং শারীরিক ভাবে অত্যাচার করে। এর পর তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ওই বছরের ২৯ ডিসেম্বর তার মৃত্যু হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেশজুড়ে প্রতিবাদের সরব হন দেশের নাগরিক সমাজ। এদিন নির্ভয়ার মা দিল্লির জাতীয় মহিলা কমিশনের সভাপতি স্বাথী মালিওয়ালের নেতৃত্বে অনির্দিষ্ট কালের জন্য ডাকা হরতালে সামিল হন। সেখানে নির্ভয়ার মা জানিয়েছেন, দুর্ভাগ্যের বিষয় বর্তমানে আমাদের দেশ ও সমাজ প্রগতির দিকে অনেক এগিয়ে গিয়েছে, কিন্তু সেই সমাজে আমাদের বাড়ির মেয়েদের এখনও কোনও সুরক্ষা নেই। উল্লেখ্য, কাশ্মীরের কাঠুয়া এবং উত্তরপ্রদেশের উন্নাও ঘটনার প্রতিবাদের মালীওয়াল হরতাল শুরু করে| সেই হরতালে যোগ দিয়ে নির্ভয়ার মা ধর্ষকদের যাতে ফাঁসির আদেশ দেওয়া হয় তার আবেদন করেন।

16-04-2018 02:49:19 pm

ঘোষিত হল ৬৫ তম জাতীয় পুরস্কার, সেরা অভিনেতা ঋদ্ধি সেন, মরণোত্তর পুরস্কার পেলেন শ্রীদেবী

মুম্বাই, ১৩ এপ্রিল (এ.এন.ই ): ঘোষিত হল ৬৫ তম জাতীয় চলচ্চিত্রের পুরস্কার। এবছর জাতীয় পুরস্কার মঞ্চে বাংলার জয়জয়কার৷ অভিনয়ের গুণে সারা দেশকে মুগ্ধ করে, সেরা অভিনেতা হিসেবে এবছর জাতীয় পুরস্কার জিতলেন ঋদ্ধি সেন।‘নগরকীর্তন’ ছবির জন্য এ সম্মান পেলেন ফোয়ারা। সেরা বাংলা ছবির সম্মান এসেছে অতনু ঘোষের ‘ময়ূরাক্ষী’র ঝুলিতে। এদিকে সেরা হিন্দি ছবির খেতাব গেল রাজকুমার রাও ‘নিউটন’-এর ঝুলিতে। সেরা অভিনেত্রী হিসাবে মরণোত্তর জাতীয় পুরস্কার পেলেন শ্রীদেবী। সৌজন্যে মম৷ এদিন ৬৫ তম জাতীয় পুরস্কারের ঘোষণা হয় নয়াদিল্লির শাস্ত্রী ভবনে। জুরি সদস্যরা এদিন একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে এবছরের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের তালিকা ঘোষণা করেন। সেরা জনপ্রিয় ছবির তকমা পেল 'বাহুবলী ২'। সেরা সঙ্গীত পরিচালক হিসাবে সম্মানিত এ আর রহমন। 'মম' ছবির জন্য এই সম্মান পেলে তিনি। উল্লেখ্য, ঋদ্ধির নাম উচ্চারণের সময় তাঁর ভূয়সী প্রশাংসা করেন জুরি প্রধান শেখর কাপুর। ঋদ্ধির প্রশংসা করে এদিন শেখর কাপুর বলেন, গত ১০ বছরে এরকম অভিনেতা দেখা যায়নি। প্রতিক্রিয়ায় ঋদ্ধি জানান, এই সাফল্যের জন্য অনেকটাই কৌশিক গঙ্গোপাধ্য়ায়, ঋত্বিক চক্রবর্তীর কাছে তিনি কৃতজ্ঞ। পাশপাশি ঋদ্ধির কেরিয়ারে তাঁর মায়ের অবদানের কথাও এদিন উল্লেখ করেন এই তরুণ অভিনেতা। চলচ্চিত্র পরিচালক শেখর কাপুরের নেতৃত্বাধীন ১০ জন জুরি সদস্যদের মধ্যে ছিলেন বাঙালি পরিচালক অনিরুদ্ধ রায়চৌধুরি সহ স্ক্রিন রাইটার ইমতিয়াজ হুসেন, রুমি জাফরি, রাজেশ মাপুরসাকর প্রমুখরা। আগামী ৩রা মে ২০১৮ -তে প্রাপকদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। প্রসঙ্গত, পুরস্কারের তালিকার মধ্যে ঘোষিত হয়েছে দাদাসাহেব ফালকে সম্মানও। এবছর দাদাসাহেব ফালকে সম্মান পাচ্ছেন বিনোদ খান্না। সেরা পরিচালকের তকমা পেলেন মলায়ালম পরিচালক জয়রাজ। শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর শিরোপা শ্রীদেবী পাওয়ার পাশাপাশি,পার্শ্বচরিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠত্বের তাজ জিতলেন দিব্যা দত্ত। স্প্যেশাল এফেক্টসে সেরার তাজ পেলন বাহুবলী।

13-04-2018 06:46:42 pm

শাস্ত্রীয় নৃত্যের বিভিন্ন রূপ

আগরতলা, ১৩ এপ্রিল (এ.এন.ই ): ভারতনাট্যম ভারতীয় তামিলনাড়ুতে উৎপন্ন ভারতীয় নৃত্যের একটি প্রধান ধারা। ঐতিহ্যগতভাবে, ভরতানট্যম একটি একা নৃত্য ছিল যা নারীদের দ্বারা বিশেষভাবে পরিচালিত হয়েছিল। এবং দক্ষিণ ভারতীয় ধর্মীয় ও আধ্যাত্মিক ধারণাগুলি বিশেষত শৈবধর্মের, কিন্তু বৈষ্ণববাদ ও শক্তিবাদকেও প্রকাশ করেছিল। ভারতশাস্ত্রের তাত্ত্বিক ভিত্তিটি ভরত মুনি, নাট্যশাস্ত্রের প্রাচীন সংস্কৃত পাঠের সন্ধান, দ্বিতীয় শতাব্দীর প্রাচীন শতাব্দীর প্রাচীন তামিল মহাকাব্যের মধ্যে সল্যাপাপাতিকামে উল্লিখিত হয়, তবে ষষ্ঠ থেকে নবম শতাব্দীর মন্দিরের ভাস্কর্যগুলি এটি একটি সুবিন্যস্ত পারফর্ম্যান্স মধ্য প্রথম সহস্রাব্দই দ্বারা শিল্প। ভারতনাট্যম ভারতের সবচেয়ে প্রাচীন নৃত্যচর্চা। শৈলীটি তার নির্দিষ্ট উপরের ধাপের জন্য উল্লিখিত, পা দৃঢ় বা ঘন হাঁটানো দর্শনীয় ফুটওয়ার্ক, হাত, চোখ এবং মুখ পেশী অঙ্গিকার উপর ভিত্তি করে সাইন ভাষা একটি অত্যাধুনিক শব্দভাণ্ডার সঙ্গে মিলিত। নৃত্য সঙ্গীত এবং একটি গায়ক, এবং সাধারণত তার গুরু অভিনেতা এবং শিল্প পরিচালক এবং কন্ডাক্ট হিসাবে উপস্থিত হয়। নৃত্য ঐতিহ্যগতভাবে হিন্দু গ্রন্থে পৌরাণিক কিংবদন্তি এবং আধ্যাত্মিক ধারণাগুলির একটি ব্যাখ্যামূলক রূপের রূপ রূপ ধারণ করেছে। অন্যান্য শাস্ত্রীয় নাচগুলির মতো ভারতনাট্যমের পারফরমেন্স তালিকা, নৃত্য (বিশুদ্ধ নাচ), নৃত্য (একক ভাববাদী নাচ) এবং নাট্য (গ্রুপ নাটকীয় নাচ) অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ভারতনাট্যম ১৯ শতকের মধ্য দিয়ে হিন্দু মন্দিরের কাছে একনিষ্ঠ ছিলেন, ১৯১০ সালে ঔপনিবেশিক ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক নিষিদ্ধ করা হয়। ভারতীয় সম্প্রদায় নিষিদ্ধের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানায় এবং ২০ শতকের মন্দিরগুলির বাইরে তা বর্ধিত করে। ভারতনাট্যম এর আধুনিক মঞ্চ প্রযোজনাগুলি প্রযুক্তিগত কর্মজীবন, অধর্মীয় ধারণা এবং সংযোজন থিমের উপর ভিত্তি করে বিশুদ্ধ নাচ অন্তর্ভুক্ত করেছে। কথাকলি: কথাকলি ভারতীয় ভারতীয় নৃত্যের প্রধান রূপ। এটি একটি "কাহিনী" প্যাটার্ন শিল্প, কিন্তু ঐতিহ্যগতভাবে পুরুষ অভিনেতা-নর্তকী পরিধান করে এমন সুশৃঙ্খল রঙিন মেক-আপ, পোশাক এবং মুখোমুখি দ্বারা পৃথক করা হয়। কথাকলি প্রাথমিকভাবে ভারতের মালেয়ালাম ভাষী দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলে (কেরালা) একটি হিন্দু পারফরম্যান্স শিল্প হিসেবে গড়ে উঠেছিল। কথাকলি মহানিত্যের অনুরূপ। কথাকলি এর শিকড়গুলি স্পষ্ট নয়। ১৭ শতকের প্রায় চারপাশে কথাকলি সম্পূর্ণরূপে নির্মিত শৈলীর জন্ম হয়, তবে এর শিকড়গুলি মন্দির ও লোকশিল্প (যেমন কুটিয়াত্তম এবং দক্ষিণ-পশ্চিম ভারতীয় উপদ্বীপের ধর্মীয় নাটক), যা অন্তত প্রথম সহস্রাব্দে ধরা পড়ে। একটি কথাকলি পারফরম্যান্স, যেমন ভারতের সমস্ত ক্লাসিক্যাল নৃত্য শিল্প, ধারণাগুলি প্রকাশ করার জন্য সঙ্গীতের সঙ্গীত, কণ্ঠস্বর, কণ্ঠশিল্প এবং হাত এবং মুখের অঙ্গভঙ্গি সংশ্লেষণ করা। যাইহোক, কথাকলি পৃথক করে দেয় যে এটি দক্ষিণ ভারতীয় প্রাচীন ভারতীয় মার্শাল আর্ট এবং অ্যাথলেটিক ঐতিহ্যের আন্দোলনকেও অন্তর্ভুক্ত করে। হিন্দু মন্দির ও মঠের বিদ্যালয়গুলিতে প্রধানত উন্নত অন্যান্য নৃত্যশিল্পের বিপরীতে, কট্টরপন্থী হিন্দু প্রথাগতদের আদালতে এবং থিয়েটারে নির্মিত শিল্পকর্মের কাঠামো এবং বিশদের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। কথাকলি ঐতিহ্যবাহী থিমগুলি হিন্দু মহাকাব্য এবং পুরাণ থেকে স্থানীয় পৌরাণিক কাহিনী, ধর্মীয় উপাখ্যান এবং আধ্যাত্মিক ধারণা। কণ্ঠ্য কর্মক্ষমতা ঐতিহ্যগতভাবে সংস্কৃত মালয়েশিয়ায় সঞ্চালিত হয়। আধুনিক রচনাগুলিতে, ভারতীয় কুষাণ চক্রগুলি নারী শিল্পীদের অন্তর্ভুক্ত। পাশাপাশি পশ্চিমা কাহিনী এবং অভিনয় যেমন শেক্সপীয়ার এবং খ্রিস্টীয়দের দ্বারা অভিনয় করে। ঐতিহ্যবাহী থিমগুলি হিন্দু মহাকাব্য এবং পুরাণ থেকে স্থানীয় পৌরাণিক কাহিনী, ধর্মীয় উপাখ্যান এবং আধ্যাত্মিক ধারণা। কণ্ঠ্য কর্মক্ষমতা ঐতিহ্যগতভাবে সংস্কৃত মালয়েশিয়ায় সঞ্চালিত হয়। আধুনিক রচনাগুলিতে, ভারতীয় কুষাণ চক্রগুলি নারী শিল্পীদের অন্তর্ভুক্ত। পাশাপাশি পশ্চিমা কাহিনী এবং অভিনয় যেমন শেক্সপীয়ার এবং খ্রিস্টীয়দের দ্বারা অভিনয় করে।

13-04-2018 04:34:09 pm

মুক্তি পেল স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার ২ ছবির পোস্টার

মুম্বাই, ১২ এপ্রিলস (এ.এন.ই ): মুক্তি পেল স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার ২ ' ছবির পোস্টার । আগের 'স্টুডেন্ট ইফ দ্য ইয়ার' ছবিতে অভিষেক ঘটেছিল বরুণ ধওয়ান ও আলিয়া ভাটের। এবার অভিষেক ঘটতে চলেছে চাঙ্কি পাণ্ডের মেয়ে আনন্যার। ছবির পোস্টার মুক্তি পেতেই পড়ে যায় শোরগোল। ছবির পোস্টার অনন্যাকে দেখা যাচ্ছে। অনন্যাকে ঘিরে রয়েছে দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক কৈতূহল। অনন্যা ছাড়াও ছবিতে রয়েছেন তারা সুতারিয়া ও টাইগার শ্রফ। স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার২ ছবিটি , একটি প্রেমের কাহিনি। ২৩ নভেম্বর মুক্তি পাচ্ছে ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার ২’।

12-04-2018 03:16:30 pm

ভারতীয় ক্লাসিক্যাল নাচের কথকের উৎপত্তি

৯ এপ্রিল (এ.এন.ই ): কথক ভারতীয় ক্লাসিক্যাল নাচের দশটি প্রধান ধরনের মধ্যে একটি। কথকের উৎপত্তি ঐতিহ্যগতভাবে প্রাচীন উত্তর ভারতের ভ্রমণকণ্ঠকে ক্যাটাকর বা কাহিনী হিসাবে পরিচিত করে। শব্দকোষ শব্দটি বৈদিক সংস্কৃত শব্দ কহে় থেকে এসেছে, যার অর্থ "গল্প" এবং কথক যার অর্থ "যে একটি গল্প বলে" অথবা "গল্পের সাথে কাজ করে"। ভ্রাম্যমাণ কাতাকস প্রাচীন গ্রীক থিয়েটারের অনুরূপ একটি উপায়ে নৃত্য, গান এবং সঙ্গীত মাধ্যমে মহান মহাকাব্য এবং প্রাচীন পুরাণ থেকে গল্পের সাথে যোগাযোগ করেছেন। বিশেষ করে হিন্দু কৃষ্ণ কৃষ্ণের শৈশব ও কাহিনী, পাশাপাশি উত্তর ভারতীয় রাজ্যের আদালতের অন্তর্ভুক্ত, ভক্তি আন্দোলনের সময় কুতক রচনা করেন। কথক নৃত্যচর্চায় উদ্ভূত বিভিন্ন শহরগুলির নামকরণ করা হয় - জয়পুর, বানরস এবং লখনৌ। স্টাইলিস্টিকভাবে, কথক নৃত্যশৈলী লৈঠক পায়ে চলাচলের উপর জোর দেয়, যা ছোট ঘঞ্জ (ঘুঙ্গুও) এবং সংগীত দ্বারা সুসংগঠিত আন্দোলন। পায়ে এবং ধোলাই সাধারণত সিদ্ধ হয়, এবং অস্ত্রটি এবং উপরের শরীরের আন্দোলনের অঙ্গভঙ্গির উপর ভিত্তি করে একটি উন্নত শব্দভাণ্ডারের মাধ্যমে গল্পটি বলা হয়, মুখের অভিব্যক্তি, মঞ্চের আন্দোলন, ঘেউ এবং মোড়। নাচ এর প্রধান ফোকাস চোখ এবং পায়ের আন্দোলন হয়ে ওঠে। চোখ নাটকটি যোগাযোগ করার চেষ্টা করছে গল্পের যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে কাজ করে। ভ্রু সঙ্গে নর্তকী বিভিন্ন মুখের এক্সপ্রেশন দেয়। উপ-ঐতিহ্যের মধ্যে পার্থক্য অভিনেতা বনাম পাদদেশের মধ্যে আপেক্ষিক জোর, লখনৌয়ের শৈলী অভিনয় ও জয়পুর শৈলীতে তার দর্শনীয় ফুটওয়ার্কের জন্য বিখ্যাত হয়ে ওঠে। একটি পারফরম্যান্স আর্ট হিসেবে কথক একটি মৌখিক ঐতিহ্য হিসেবে বেঁচে গিয়েছিলেন এবং এক প্রজন্মের মধ্য থেকে অন্যটি মৌখিকভাবে এবং অনুশীলনের মাধ্যমে আবিষ্কার করেছেন। ১৬ তম ও ১৭ শতকের বিশেষত আকবর, বিশেষ করে আকবর ও ঔপনিবেশিক ব্রিটিশ যুগে হঠাৎ করে মুগল শাসনব্যবস্থার স্বাদ গ্রহণ এবং সংযোজন করা হয় তারপর ভারত পুনরুদ্ধারের ফলে ভারত স্বাধীনতা লাভ করে এবং তার প্রাচীনতম আবিষ্কারের চেষ্টা করে। শিকড় এবং শিল্প মাধ্যমে জাতীয় পরিচয় একটি ধারনা। কথকের নামকরণ: কথক শব্দটি বেদিক শব্দটি (সংস্কৃত: कथा) যা মূলত "গল্প, কথোপকথন, ঐতিহ্যগত গল্প"। কথক মূলত উত্তর ভারতে পাওয়া একটি প্রধান নৃত্যচর্চাকে নির্দেশ করে, দক্ষিণ ভারতে ভারতনাট্যমের অনুরূপ একটি ঐতিহাসিক প্রভাব, পূর্ব ভারতের ওডিশি এবং দক্ষিণ এশিয়ায় পাওয়া অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ নৃত্য। এটি ভারতীয় উপমহাদেশের উত্তর ও অন্যান্য অংশে পাওয়া অসংখ্য লোক নৃত্যের ফরম্যাট থেকে পৃথক। প্রাচীন ভারতে কাঁঠার নৃত্যশিল্পী, দরজায় যাত্রা করছিলেন এবং পরিচিত ছিলেন। কথক বা কাঠঠোর। কথক সাহিত্য আঞ্চলিক বৈচিত্র্যকে অনুপ্রাণিত করেছে, যেমন ভভা - হিন্দু দেবীর ক্তি) কাহিনীতে কেন্দ্রিক গ্রামীণ থিয়েটারের একটি রূপ এবং মধ্যযুগের যুগে আবির্ভূত একটি, বর্তমানে গুজরাট, রাজস্থান এবং মধ্য প্রদেশে পাওয়া যায়। প্রাচীন কথক থেকে আবির্ভূত আরেকটি রূপ হল ঠু্মরি।  

09-04-2018 05:09:54 pm

ভারতের শাস্ত্রীয় নৃত্যের রূপরেখা

আগরতলা, ৭ এপ্রিল (এ.এন.ই ): ভারতীয় জাতীয়তাবাদী নৃত্য বা শাস্ত্রীয় নৃত্য, ধর্মীয় হিন্দু বাদ্যযন্ত্র থিয়েটারের শৈলীতে রচিত বিভিন্ন পারফর্মিং আর্টসগুলির জন্য একটি ছাতা শব্দ, যার তত্ত্ব ও অনুশীলনের সংস্কৃত পাঠ নাট্যশাস্ত্রের সন্ধান পাওয়া যায়। উত্স এবং পণ্ডিতের উপর নির্ভর করে আটটি থেকে আরো বেশি স্বীকৃত ক্লাসিক্যাল নৃত্যের সংখ্যা। সংগীত নাটক একাডেমী আটজনকে স্বীকৃতি দেয় - ভারতনাট্যম, কথ্যক, কুচিপুডি, ওডিসি, কথাকলি, সস্ত্রিয়, মণিপুরী এবং মোহিনীঅট্টম। ড্রুন্ড উইলিয়ামসের মতো পণ্ডিত ব্যক্তিদের তালিকাতে ছাউ, ইয়াকগাগানা ও ভাগবত মেলা যোগ করেন। ভারত সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় তার শাস্ত্রীয় তালিকায় ছাউ অন্তর্ভুক্ত। এই নৃত্যগুলি ঐতিহ্যগতভাবে আঞ্চলিক, তাদের মধ্যে স্থানীয় ভাষা বা সংস্কৃত ভাষায় সঙ্গীত এবং পঠন অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, এবং তারা শৈলী, পোশাক এবং অভিব্যক্তির বৈচিত্র্যের মধ্যে মূল ধারণাগুলির একত্বকে প্রতিনিধিত্ব করে। ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্য ভারত থেকে তৈরি করা হয় এবং বিভিন্ন নাটকগুলি দ্বারা নৃত্যচর্চা হয়। নাট্যশাস্ত্র ভারতবর্ষের শাস্ত্রীয় নৃত্যগুলির জন্য মূলত গ্রন্থ এবং এই পাঠটি প্রাচীন পণ্ডিত ভারতীয় মুনিকে দেওয়া হয়। এর প্রথম সম্পূর্ণ সংকলনটি ২00 খ্রিষ্টপূর্বাব্দ। এর মধ্যবর্তী তারিখের সাথে সাথে ইজারা 500 খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে 500 খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত হতে পারে। নাট্যশাস্ত্র গ্রন্থের সর্বাধিক অধ্যয়নকৃত সংস্করণে 36 টি অধ্যায়ের মধ্যে প্রায় 6000 আয়াত রয়েছে। এই পাঠ্যাংশটি নাতালিয়া লিডোভা বলে, তাভাভ নৃত্যের (শিভা) তত্ত্ব, ভূমির রস, অভিব্যক্তি, অঙ্গভঙ্গি, অভিনয় কৌশল, মৌলিক পদক্ষেপ, স্থায়ী দৌরাত্ম্য - যা ভারতীয় জাতীয় নৃত্যের অংশ। নৃত্য এবং পারফর্মিং আর্টস, এই প্রাচীন পাঠ্যাংশটি বলে, আধ্যাত্মিক ধারণা, গুণাবলী এবং ধর্মগ্রন্থের সারাংশের অভিব্যক্তি। নাট্যশাস্ত্র হিন্দু ঐতিহ্য মধ্যে সম্মানিত প্রাচীন পাঠ্য হয়, যদিও, অন্যান্য অন্যান্য প্রাচীন এবং মধ্যযুগীয় সংস্কৃত নাট্য নাট্য সম্পর্কিত গ্রন্থে যে আরও আলোচনা এবং পারফর্মিং আর্ট, যেমন Abhinaya Darpanana, Abhinaba Bharti, Natya এর শাস্ত্রীয় রেকর্ডের প্রসারিত উপর আছে দর্পণ, ভভা প্রকাশ এবং আরও অনেকে। শব্দ "শাস্ত্রীয়" (সংস্কৃত: "শাস্ত্রী") Natya Shastra- ভিত্তিক পারফর্মিং আর্টস ইঙ্গিত। পাঠ্য নাট্যশাস্ত্র ধর্মীয় কলাগুলিকে মার্গি রূপে রূপান্তরিত করে, বা "আধ্যাত্মিক ঐতিহ্যবাহী পথ" যা আত্মাকে মুক্তি দেয়, যখন লোক বিনোদনকে দেশীয় বলা হয় অথবা "আঞ্চলিক জনপ্রিয় অনুশীলন" হয়। ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্যগুলি ঐতিহ্যগতভাবে ধর্মীয় পারফরম্যান্স আর্টের বৈষ্ণবধর্ম, শৈবধর্ম, শক্তিধর, প্যান হিন্দু মহাকাব্য এবং বৈদিক সাহিত্য, বা সংস্কৃতি বা সাহিত্য থেকে গল্প-কাহিনী সহ একটি অসাধারন উপাদানের সাথে সম্পর্কিত একটি বহির্মুখী নাটক-নাটক হিসেবে অভিহিত হয়। আঞ্চলিক ভাষা নাটক। একটি ধর্মীয় শিল্প হিসাবে, তারা হয় একটি হিন্দু মন্দিরের ঘরের ভিতরে বা এর কাছাকাছি সঞ্চালিত হয়। গান্ধী উপাসনালয় বা কোনও গ্রীষ্মমন্ডল, বিশেষত গ্রামাঞ্চলে শিল্পীদের ট্রাংয়ে ভ্রমণের মাধ্যমে ফোল্কি বিনোদনও করা যেতে পারে। ঐতিহ্যগতভাবে, তারা উৎসবের সময় রাজকীয় আদালতের বা পাবলিক স্কোয়ারের হলের ভিতরে সঞ্চালিত হয়েছে। নাট্য শাস্ত্রে প্রবর্তিত প্রাচীন নৃত্যনাট্যের চারটি প্রভাত্রিত (প্রচলিত রীতি-নীতি) উল্লেখ করা হয়েছে, যখন এটি রচনা করা হয়েছিল - অবধি (উজ্জয়, কেন্দ্রীয়), দক্ষিণিত্য (দক্ষিণ), পঞ্চালি (উত্তর, পশ্চিমে) এবং ওড়রা-মগধী (ওড়িশা-বিহার- বঙ্গ, পূর্ব)। সোর্স তাদের ভারতীয় নৃত্য নৃত্যের তালিকায় ভিন্ন। এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা ছয় নাচ উল্লেখ করেছে। সংগীত নাটক একাডেমি আটটি ভারতীয় নৃত্যকে স্বীকৃতি দিয়েছে। ভারত সরকার সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় এগারো নৃত্য ফর্ম অন্তর্ভুক্ত। ড্রইং উইলিয়ামস এবং অন্যান্যদের মতো পণ্ডিতরা সঙ্গীত নাটক আকাদেমি তালিকায় আট শ্রেণির ভারতীয় নৃত্যের ছাউ, ইয়াকাসাগানা ও ভাগবত মেলা অন্তর্ভুক্ত করেছেন। সঙ্গীত নাটক আকাদেমী এবং সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের স্বীকৃত ক্লাসিক্যাল নৃত্য হল: 1. Bharatanatyam, from Tamil Nadu 2. Kathak, from Northern and Western India 3. Kathakali, from Kerala 4. Kuchipudi, from Andhra Pradesh and Telangana 5. Odissi, from Odisha 6. Sattriya, from Assam 7. Manipuri, from Manipur 8. Mohiniyattam, from Kerala

07-04-2018 05:07:41 pm

চলে গেলেন বিশিষ্ট অসমিয়া চলচ্চিত্র নির্মাতা মুনিন বরুয়া

গুয়াহাটি, ৭ এপ্রিল (এ.এন.ই ): চলে গেছেন অসমিয়া চলচ্চিত্র নির্মাতা মুনিন বরুয়া। শুক্রবার রাত ১.৫৫ মিনিটে কাহিলিপাড়ায় তাঁর নিজের বাড়িতে পরলোক গমন করেছেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব বরুয়া। মৃত্যুর সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। তিনি রেখে গেছেন পত্নী মঞ্জুলা বরুয়া এবং পুত্র মানস বরুয়া এবং এক কন্যা। বেশ কিছুদিন ধরে বিশিষ্ট এই চিত্র পরিচালক রোগে আক্রান্ত ছিলেন। তিনি ‘বমানদা’ বলে সর্বজনপরিচিত ছিলেন। বহু পুরস্কার প্রাপ্ত মুনিন বরুয়ার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে শোকস্তব্ধ হয়ে পড়েছে রাজ্যের সাংস্কৃতিক মহল। স্বনামধন্য চলচিত্র পরিচালকের মৃত্যুসংবাদ ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে-সঙ্গে বহু বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব প্রয়াতের বাড়িতে ভিড় করে তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন। আজ শনিবার বিকেল তিনটেয় স্থানীয় নবগ্রহ শ্মশনে তাঁর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হবে বলে পারিবারিক সূত্রে জনা গেছে। জানা গেছে, স্বনামধন্য চলচ্চিত্র পরিচালকের শেষকৃত্য তাঁর ছেলে মানস বরুয়া ছাড়াও বলিউড, বাংলা তথা অসমিয়া জনপ্রিয় গায়ক জুবিন গার্গ এবং অসমিয়া অভিনেতা যতীন বরার হাত দিয়ে সম্পন্ন হবে। প্রখ্যাত অসমিয়া চলচ্চিত্র পরিচালক মুনিন বরুয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক ব্যক্ত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়াল, বিজেপি, অগপ, কংগ্রেস-সহ সারা অসম ছাত্র সংস্থা ইত্যাদি বহু রাজনৈতিক দলের নেতা, অরাজনৈতিক সংগঠনের কর্তাব্যক্তি। ১৯৮৭ সালে অসমিয়া ছায়াছবি ‘প্রতিমা’র মাধ্যমে তাঁর চলচ্চিত্র পরিচালনার যাত্রা শুরু। মোট ২১টি অসমিয়া ছায়াছবির চিত্রনাট্য তিনি লিখেছিলেন। প্রয়াত বরুয়া-পরিচালিত কয়েকটি জনপ্রিয় চিত্রনাট্য যথাক্রমে ‘বোয়ারি’ (বউ), ‘ঘর সংসার’, ‘মন মন্দির’ ইত্যাদি। তাছাড়া তাঁর পরিচালিত জনপ্রিয় ছায়াছবি ‘নায়ক’, ‘হিয়া দিয়া নিয়া’ (হৃদয় দেয়া-নেয়া), ‘দাগ’, ‘কন্যাদান’, ‘পিতাপুত্র’, ‘পাহাড়ি কন্যা’, ‘প্রভাতি পাখির গান’, ‘বিধাতা’, ‘রং’, ‘দীনবন্ধু’, ‘রামধেনু’, ‘প্রিয়ার প্রিয়’ ইত্যাদি। ভ্রাম্যমান থিয়েটারের জন্য লিখেছিলেন বহু জনপ্রিয় নাটক। দূরদর্শনের ধারাবাহিক ‘পাপু নিকুর সংবাদ’-এরও পরিচালনা করেছিলেন যশস্বী মুনিন বরুয়া। ‘দীনবন্ধু’ ছায়াছবির জন্য ‘রজত কমল পুরস্কার’ করেছিলেন মুনিন বরুয়া। এছাড়া ২০১৭ সালে লাভ করেছিলেন জীবনব্যাপী সাধনা পুরস্কার ‘প্রাগ সিনে অ্যাওয়ার্ড’। রাজ্যের শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবেও কয়েকটি পুরস্কার অর্জন করেছিলেন তিনি।

07-04-2018 03:49:59 pm

‘ভাইজান’সলমন খানকে দেখতে যোধপুর জেলে তারকা অভিনেত্রী প্রীতি জিন্টা

যোধপুর, ৭ এপ্রিল (এ.এন.ই ): কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার দায়ে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড প্রাপ্ত বলিউড ‘ভাইজান’ সলমন খানকে দেখতে যোধপুর এলেন বলিউড তারকা অভিনেত্রী প্রীতি জিন্টা। শুক্রবার একটি সাদা রঙের টুপি পরে প্রীতি যোধপুরে আসেন। সংবাদমাধ্যমকে এড়িয়ে যোধপুর সেন্ট্রাল জেলে ঢুকে পড়েন। ক্যামেরা বন্দি এড়ানোর জন্য গাড়ির জানালা কাগজ দিয়ে ঘেরা ছিল। প্রীতির ছবি ধরা পড়েনি। জানা গিয়েছে, প্রায় আধঘন্টা জেলে সলমনের কাছে ছিলেন প্রীতি। সলমনের সঙ্গে প্রীতির বন্ধুত্ব সবারই জানা। প্রথম সেলিব্রিটি হিসেবে প্রীতি সলমনের সঙ্কটের সময়ে সলমনের পাশে দাঁড়াতে যোধপুর সেন্ট্রাল জেলে আসেন। এদিকে এদিন যোধপুরের দায়রা আদালতে জামিন পাননি কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড প্রাপ্ত সলমন খান। আগামীকাল শনিবার সলমনের জামিনের আর্জি নিয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে আদালত। সলমনের কারাদণ্ড নিয়ে দুঃখপ্রকাশ করেছেন বলিউড তারকা সহ অনুরাগীরাও। এরইমধ্যে সলমনকে দেখতে যোধপুরে আসেন বলিউড নায়িকা প্রীতি জিন্টা। সলমনের সঙ্গে একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন প্রীতি। এই সংকটের সময় সহ অভিনেতার প্রতি সহমর্মিতা জানাতে গেলেন প্রীতি। এমনিতে দাদার পাশে থাকতে দুই বোন আলভিরা ও অর্পিতা যোধপুরেই রয়েছেন। বৃহস্পতিবার আদালতে যখন কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় সলমনের সাজা ঘোষণা হয়, তখন মুম্বইয়ের বান্দ্রায় তাঁর গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টে ছিলেন ভাই সোহেল ও আরবাজ, বোনের স্বামী আয়ুষ শর্মা সহ পরিবারের অন্য লোকজন। সাজা ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে গিয়ে পৌঁছান কংগ্রেস নেতা বাবা সিদ্দিকি। পরে আরবাজের প্রাক্তন স্ত্রী মালাইকা অরোরা খান ও তাঁর বোন অমৃতা অরোরা, রেস ৩ নির্মাতা রমেশ নৌরানি, স্নেহা উলাল, ডেইজি শাহ, সোনাক্ষী সিনহাও সলমনের বাড়িতে যান।

07-04-2018 11:50:34 am

সম্পূর্ণ সুস্থ জনপ্রিয় দক্ষিণী অভিনেত্রী জয়ন্তী, ছেড়ে দেওয়া হল হাসপাতাল থেকে

বেঙ্গালুরু, ৬ এপ্রিল (এ.এন.ই ): দিন দশেক হাসপাতালে চিকিত্সাধীন থাকার সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেছেন দক্ষিণ ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়ন্তী| শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় শুক্রবার তাঁকে হাসপাতালে থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে| শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার কারণে গত ২৬ মার্চ বেঙ্গালুরুর বিক্রম হাসপাতালে ভর্তি করা হয় জনপ্রিয় দক্ষিণী অভিনেত্রী জয়ন্তীকে| গত ১০ দিন ধরে চিকিত্সকদের একটি বিশেষ টিম প্রবীণ অভিনেত্রীর শারীরিক অবস্থার দিকে সর্বদা নজর রেখেছে| শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় শুক্রবার তাঁকে বেঙ্গালুরুর বিক্রম হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে| চিকিত্সক সতীশ জানিয়েছেন, সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেছেন অভিনেত্রী জয়ন্তী| তবে, আগামী বেশ কয়েকদিন তাঁকে সম্পূর্ণ বিশ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে| প্রসঙ্গত, দক্ষিণ ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন জয়ন্তী| কন্নড়, তামিল ও তেলুগু ছবিতে অভিনয় করার পাশাপাশি হিন্দি, মালায়ালাম ও মারাঠি ছবিতেও তিনি অভিনয় করেছেন।

06-04-2018 06:55:09 pm

শুক্রবার নয়, সলমনের জামিনের আবেদনের শুনানি শনিবার

যোধপুর, ৬ এপ্রিল (এ.এন.ই ): শুক্রবার নয়, সলমন খানের জামিনের আবেদনের শুনানি হবে শনিবার, ৭ এপ্রিল| অর্থাত্ শুক্রবার রাতেও যোধপুর সেন্ট্রাল জেলেই কাটাতে হবে সল্লু মিঞাকে| আদালত সূত্রের খবর, শুক্রবার জামিনের ফয়সালা হবে না, তাই শুনানি হবে শনিবার| ১৯৯৮ সালে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শ্যুটিংয়ের সময় যোধপুরে ছিলেন সলমন খান, সৈইফ আলি খান, সোনালি বেন্দ্রে, তাব্বু ও নীলম| অভিনেতাদের বিরুদ্ধে ১৯৯৮ সালের ১ ও ২ অক্টোবরের মধ্যবর্তী রাতে যোধপুরের কাঙ্কানি গ্রামে দু’টি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ উঠেছিল| সলমনের বিরুদ্ধে ওয়াইল্ড লাইফ প্রোটেকশন অ্যাক্টের অন্তর্গত ৫১ নম্বর ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছিল| বৃহস্পতিবার ১৯৯৮ সালের কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় রায় ঘোষণা করেন যোধপুর জেলা প্রিসাইডিং আধিকারিক দেলকুমার খাত্রি| কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলিউড অভিনেতা সলমন খানকে| বৃহস্পতিবার বিকেলেই যোধপুর সেন্ট্রাল জেলে নিয়ে যাওয়া হয় ভাইজানকে| সলমন খানের জামিনের আবেদনের শুনানির জন্য শুক্রবার সকালেই যোধপুর দায়রা আদালতে পৌঁছে যান সলমনের আইনজীবী মহেশ ভোরা| কিন্তু, সলমনের জামিনের আবেদনে রায়দান স্থগিত রাখে আদালত| সলমনের আইনজীবী জানিয়েছেন, মামলা সংক্রান্ত যাবতীয় নথিপত্র তলব করেন বিচারপতি| এই কারণে তিনি মোট ৫১ পাতার জামিনের আবেদন আদালতে জমা দেন| সব কাগজপত্র খুঁটিয়ে দেখতে সময় লাগবে বলে আদালত শনিবার পর্যন্ত শুনানির জেরে রায়দান স্থগিত রেখেছে| অর্থাত্ সলমন খানকে আরও একরাত জেলে কাটাতে হবে| এদিকে, জেলে গিয়ে প্রথম রাতটা না খেয়েই কাটালেন সল্লু মিঞা| জেলের খাবার মুখে তোলেননি মহাতারকা| যোধপুর সেন্ট্রাল জেলের ১০৬ নম্বর কয়েদি সলমনকে রাতে অন্যান্য বন্দিদের মতোই রুটি, ডাল এবং তরকারি খেতে দেওয়া হয়| কিন্তু, সলমন তা খাননি| তিনি বাইরে থেকে কোনও খাবার আনাননি| রাতে ঘুমানোর জন্য সলমনকে সাধারণ একটি চৌকি, একটি তোষক এবং কুলার দেওয়া হয়।

06-04-2018 06:44:41 pm

কান উৎসবে প্রিমিয়ারে সিনেমা

কলকাতা, ৬ এপ্রিল (এ.এন.ই ): ৭১ তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে সুদীপ রঞ্জন সরকারের তৈরি সিনেমা ‘লাস্ট’-এর প্রিমিয়ার হতে চলেছে। ‘লাস্ট’ সুদীপের তৃতীয় ছবি। ছবির বিশেষত হল এটি সাদা-কালো একটি সিনেমা। গোটা সিনেমাতে কোথাও কৃত্রিম কোনও আলোর ব্যবহার করা হয়নি। ন্যাচেরাল লাইটে শ্যুট করা হয়েছে। এটি একটি ফিচার ইংলিশ মুভি। এছাড়া এই সিনেমাটিতে মিউজিক দিয়েছেন সঞ্জীব সরকার। টাইটেল সংগটি গেয়েছেন আইরিশ গ্রীক গায়িকা অ্যান-মেরি ও’স্যালিভেন। সিনেমার বেশকিছু দৃশ্যের শ্যুট করা হয়েছে আইফোন সিক্স-এস-এ। অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যত তিন কাল নিয়ে আবর্তিত হবে সিনেমার কাহিনি। কান-এর পর ইউরোপ ও নিউ ইয়র্কের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে ছবিটি। একই সঙ্গে রিলিজ করে ডিজিট্যাল প্ল্যাটফর্মেও। বাংলার মুখ উজ্জ্বল করলেন সুদীপ। ঘরের ছেলে এমন সাফল্যে গর্বিত আজ এ শহর। ৮ মে থেকে ১৯ মে চলবে এ বারের কান চলচ্চিত্র উৎসব। প্রতিযোগিতার ‘শর্ট ফিল্ম’ বিভাগে দেখান হবে বাংলাদেশের জসীম আহমেদের ‘এ পেয়ার অফ স্যান্ডাল’। এটি রহিঙ্গাদের নিয়ে তৈরি ছবি।

06-04-2018 03:36:55 pm

যোধপুর সেন্ট্রাল জেলে প্রথম রাত কাটালেন সলমন খান

যোধপুর, ৬ এপ্রিল (এ.এন.ই ): কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় সাজা প্রাপ্ত সলমন খান যোধপুর সেন্ট্রাল জেলে প্রথম রাত উদ্বেগের মধ্যে দিয়ে কাটালেন| সূত্রের খবর, প্রথম রাত কাটানোর পর তাকে দেখে মনেই হচ্ছিল জামিন পাওয়ার জন্য তিনি ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন| জেল সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার মাঝ রাত পর্যন্ত তিনি ঘুমোননি| রাত ১২ টা পর্যন্ত তিনি জেলের মধ্যে হাটাচলা করেছেন| এর পর সকালে ৬.৩০ মিনিটে ঘন্টা বাজার আগেই তিনি উঠে পড়েন| সকালে জেলের জল খাবারের মেনু হিসেবে তাকে দালিয়া খেতে দেওয়া হয়| কিন্তু, তার পছন্দ না হওয়ায় তিনি তা খাননি| রাতেও সলমন জেলের খাবার খাননি| রাতে জেলের পক্ষ থেকে তাকে রুটি, বাদাকপির তরকারী এবং ছোলার ডাল খেতে দেওয়া হয়েছিল| কিন্তু, এই খাবার দেখে সলমন খাবার খেতে অস্বীকার করেন| সলমনের পরিবারের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবারই জেলের ক্যান্টিনে ৪০০ টাকা জমা করা হয়েছিল যাতে সে তার পছন্দ অনুযায়ী খাবার খেতে পারে| সলমন জেলের জলখাবার না খেলেও এদিন সকাল ৭.৩০ মিনিট নাগাদ নিজের পছন্দ অনুযায়ী জেলের ক্যান্টিন থেকে রুটি এবং দুধের অর্ডার দেন| গত কাল থেকে সলমন নিজের জামা-কাপড়ও পরিবর্তন করেননি| গত কাল যে পোশাকে তিনি আদালতে গিয়েছিলেন জেলে সারারাত সেই পোশাক পড়েই তিনি ছিলেন| জেলের কাপড় পড়তে তিনি অস্বীকার করেন| সূত্রের খবর, সারা রাত সলমন জেলের মধ্যে প্রচন্ড উদ্বেগের মধ্যে ছিলেন এবং তিনি অধীর আগ্রহে জামিন পাওয়ার জন্য অস্থির হয়ে পড়েন| সলমনের আইনজীবী গত কালই সেশন কোর্টে জামানতের জন্য আবেদনপত্র জমা দিয়েছেন| যার ওপর শুক্রবার সাড়ে ১০ টায় শুনানি হবে।

06-04-2018 03:28:11 pm


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.