• রাজ্যের শিক্ষকদের চাকরি বাঁচাতে রাজ্য সরকারের নেতিবাচক ভূমিকায় শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগের দাবী
  • রাজ্য বিজেপি'র সদরে মিলন সভায় নবাগত নেতাদের গেরুয়ার পাঠ দিলেন দেওধর
  • লাইব্রেরী অ্যাসিস্ট্যান্ট পদে নিয়োগে বঞ্চনায় যোগ্যদের ক্ষোভ বাড়ছে
  • চক্রান্তকারী পুলিশের মদতে গন্ডাছড়ায় জেল দাঙ্গা, আহত
  • মুখ্যমন্ত্রী মুণ্ডু কাটার ফতোয়ার তদন্তের দায়িত্ব নিয়ে ঠেলাঠেলি কাণ্ড
  • পুলিশের বিনা অনুমতিতেই মুড়াবাড়িতে আইপিএফটি'র জনসভা ঘিরে চাঞ্চল্য
  • ফের ধৃত দুই বাংলাদেশি যুবক
  • মঙ্গলবার দেশ জুড়ে ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে দ্য ইউনাইটেড ফোরাম অফ ব্যাঙ্ক ইউনিয়নস
  • ত্রিপুরা থেকে বিজেপি'র একজন নেতাকে রাজ্যসভার পাঠাচ্ছে বিজেপি
  • সময়ের অপেক্ষা, রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থা ভেঙে পরার মুখে
  • পূর্বের রিপোর্ট চেপে রেখে ফের ২৩শে আইপিএফটি-র সভার অনুমতি
  • মহারাজা বীরবিক্রম কিশোর মাণিক্য বাহাদুরের জন্মবার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা
  • হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা মামলায় ১০ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ, ত্রিপুরায় আলোড়ন
  • ধৃত বাংলাদেশি পালাল পুলিশের সামনে থেকে
  • মুখ্যমন্ত্রীর বিতর্কিত ভাষণ, পাল্টা আন্দোলনে নামছে বিজেপি
  • আন্তর্জাতিক রেল প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়ে ২৮ আগস্ট ঢাকায় পর্যালোচনা বৈঠক
  • বিষাক্ত গ্যাসের বলি দুই মৃত্যু সঙ্গে পাল্লা লড়ছেন আরও দুই
  • উন্নয়নের একধাপ এগিয়ে গেল জোলাইবাড়ি আর ডি ব্লক
  • জম্পুইয়ে ভূমিপুত্রদের গণহারে খ্রিস্টান ধর্মে ধর্মান্তরকরণ অব্যাহত
  • সরকারি হাসপাতালে এখন থেকে সরবরাহ করা হবে জেনেরিক মেডিসিন
  • স্ত্রীকে মেরে স্বামীর আত্মহত্যা
  • নিয়মিত করণের দাবীতে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে দ্বারস্থ অনিয়মিত বনকর্মীরা
  • উপাচার্যের বিরুদ্ধে আবারও অভিযোগ গেলো মানব সম্পদে
  • মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ফতোয়া নিয়ে পুলিশ দিশেহারা
  • পুলিশের দুর্বলতায় জামিনে মুক্তি পেল তিন অভিযুক্ত

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

স্বাস্থ্য

00310
0057
0057
0057
0057
অতিরিক্ত খাবার থেকে নিজেকে ঠিক রাখার উপায়

৭ই জুলাই (এ.এন.ই) খেতে অনেকেই খুব ভালবাসেন তবে অতিরিক্ত খাবার খেলে শরিরের পক্ষে ক্ষতিকারক। ওজন বেড়ে গেছে আশঙ্কাজনকভাবে। অনেকের ডায়েটের বারোটা বেজে যায়, যাদের ডায়াবেটিস বা হৃদরোগের মতো রোগ আছে আছে তারা হয়ে পড়েন অসুস্থ। এই পরিণতি না চাইলে দেখে নিন খাওয়া দাওয়া নিয়ন্ত্রণের কিছু কৌশল। ১) যাবার আগে খেয়ে যান। অদ্ভুত শোনাচ্ছে, তাই না? আমরা তো বরং নিমন্ত্রনে যাবার আগে পেট একেবারে খালি করে যাই যাতে ভালোভাবে খেতে পারি। কিন্তু তা করলে আপনার অতিরিক্ত খাওয়া হবে নিশ্চিত। এই কারণে নিমন্ত্রনে যাবার আগে স্বাস্থ্যকর কোনো হালকা খাবার খেয়ে নিন। ২) শুরু করুন সবজি দিয়ে। প্রোটিন বা কার্বোহাইড্রেটের আগে সবজিগুলো খেয়ে ফেলুন। এতে আপনার পুষ্টির চাহিদা পূরণ হবে। পাশপাশি সবজির ফাইবার আপনার পেট অনেকটা ভরিয়ে ফেলবে। ফলে আপনি ভারি খাবারগুলো বেশি খেতে পারবেন না। ৩) প্রতি ৪ ঘন্টা পর পর খান। আগেই বলা হয়েছে বেশি ক্ষুধার্ত অবস্থায় নিমন্ত্রনে গেলে আপনার বেশি খাওয়া হয়ে যাবে। এই একই কারণে সব সময় ক্ষুধার লাগাম টেনে রাখুন। প্রতি ৪ ঘন্টায় একবার করে ক্ষুধা নিবারন করুন পরিমিত খাবারে। তাতে আপনার ক্ষুধা থাকবে নিয়ন্ত্রণে। ৪) প্লেট নির্বাচন। বড় আকৃতির প্লেট হলে আপনার খাওয়া বেশি হবে, আর একটু ছোট প্লেট হলে খাওয়া কম হবে, এটাই যুক্তিযুক্ত। কিন্তু অতিরিক্ত ছোট প্লেটে খাওয়া আবার সমস্যা, কারণ তাহলে ইচ্ছে করবে বারবার খাবার নিতে। মাঝারি একটি প্লেটে খান। এছাড়াও সম্ভব হলে লাল রঙের প্লেটে খান। কারণ লাল প্লেটে খাওয়া কম হয়। ৫) খাওয়ার মাঝে বিরতি দিন। ৬) বসে, মনোযোগ দিয়ে খান। খেতে খেতে আত্মীয় স্বজন বা বন্ধুবান্ধবের সাথে গল্পে মশগুল। এভাবে যে কখন অতিরিক্ত খাওয়া হয়ে যাচ্ছে আপনি টেরও পাবেন না। অন্য সব কিছু বাদ দিয়ে শুধু খাওয়ার দিকে মনোনিবেশ করুন। কিছুক্ষন খাওয়ার পর নিজেকে প্রশ্ন করুন যথেষ্ট খাওয়া হয়েছে কিনা, পেট ভরেছে নাকি আরও খেতে হবে। এভাবে খাবার এবং ক্ষুধার দিকে মনোযোগ থাকলে আপনি অতিরিক্ত খাওয়া থেকে নিজেকে ঠেকাতে পারবেন।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.