• আরএসএস প্রচারকদের অপহরণ কান্ডের তদন্তে গঠিত সিট
  • পথের ধারে শিশুর মৃতদেহ ঘিরে চাঞ্চল্য
  • বিদ্যালয় শিক্ষায় শিক্ষক নিয়োগে জটিলতা কাটাতে কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপ চাইল রাজ্য
  • বাম জামানায় কেলেঙ্কারির তদন্তে রাজ্যে আসছে সিবিআই
  • দেবাদিদেব মহাদেবের বাবা গড়িয়া রূপের রাজসিক শাক্তমতে পূজা ত্রিপুরায়
  • অক্ষয় তৃতীয়ার উপলক্ষে জমজমাট ভিড় পি.সি. চন্দ্র জুয়েলারিতে
  • বাম নিয়ন্ত্রণ মুক্ত হল টিসিএ
  • কাল বৈশাখীর তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড কল্যাণপুর
  • সুপ্রিয়া মগ মৃত্যুর তদন্ত শুরু সিটের
  • জলাশয়ের স্রোতে মৃত্যু এক শিশুর
  • হত্যা নয় আত্মহত্যাই করেছেন সিপিআইএম নেতারা
  • আনারস চাষিদের সঙ্গে সরাসরি কথা বললেন মন্ত্রিসভার সদস্যরা
  • ত্রিপুরায় রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ জারি, শিশু ও মহিলা ধৃত ১৮
  • খুব শীঘ্রই চালু হচ্ছে আগরতলা-দেওঘর এক্সপ্রেস ট্রেন
  • সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতির মৃত্যু মামলা ঘিরে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধীদের কটাক্ষ
  • সাব্রুমে তরল গ্যাসীয় উদগিরন জারি
  • নেশা কারবারিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবার ইঙ্গিত মুখ্যমন্ত্রীর
  • খোয়াইয়ের সিপিআইএম কার্যালয় গুলিতে শ্মশানের স্তব্ধতা
  • আবার বিশেষ সহায়তার জন্য দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী
  • রাজ্যের রেল গুলিতে চালু হচ্ছে ই-কেটারিং পরিষেবা
  • সাংবাদিকদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করবে না বর্তমান সরকার: মুখ্যমন্ত্রী
  • মহাভারত যুগে ইন্টারনেট, মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়ালেন রাজ্যপাল
  • পুষ্পবন্ত প্রাসাদ রূপ নেবে আধুনিক সংগ্রহ শালায়
  • পুজা অর্চনার পর নতুন রাজভবনের দারোঘাটন
  • সাব্রুমে মাটি থেকে লাভা নিঃসরণ, আতঙ্ক চরমে

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

স্বাস্থ্য

00310
0057
0057
0057
0057
জেনে নিন আমলকি খাওয়ার কিছু উপকারিতা

৪ ডিসেম্বর (এ.এন.ই ): আমলকি এক প্রকার ভেষজ ফল। সংস্কৃত ভাষায় এর নাম - আমালিকা। এর স্বাদ প্রথমে কষাটে লাগলেও খাওয়া শেষে মুখে মিষ্টি ভাব আসে। আমলকির অনেক ভেষজ গুণ রয়েছে। আমলকিতে প্রচুর ভিটামিন সি থাকে। পুষ্টি বিজ্ঞানীদের মতে, আমলকিতে পেয়ারা ও কাগজি লেবুর চেয়ে ৩ গুণ ও ১০ গুণ বেশি ভিটামিন সি রয়েছে। আমলকিতে কমলার চেয়ে ১৫ থেকে ২০ গুণ বেশি, আপেলের চেয়ে ১২০ গুণ বেশি, আমের চেয়ে ২৪ গুণ এবং কলার চেয়ে ৬০ গুণ বেশি ভিটামিন সি রয়েছে। তাহলে চলুন জেনে নিই আমলকি খাওয়ার কিছু উপকারিতা সম্পর্কে- ১. প্রথমত আমলকিতে আপেলের তুলনায় ১২০ গুণ বেশি ভিটামিন সি রয়েছে। আর তাই ভিটামিন সি'র ঘাটতি পূরণে এটি ১২০গুণ বেশি কার্যকর। ২. আমলকী চুলের টনিক হিসেবে কাজ করে এবং চুলের পরিচর্যার ক্ষেত্রে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এটি কেবল চুলের গোড়া মজবুত করে তা নয়, এটি চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে। এটি চুলের খুসকির সমস্যা দূর করে ও পাকা চুল প্রতিরোধ করে। ৩. আমলকীর রস কোষ্ঠকাঠিন্য ও পাইলসের সমস্যা দূর করতে পারে। এছাড়াও এটি পেটের গোলযোগ ও বদহজম রুখতে সাহায্য করে। ৪. এক গ্লাস দুধ বা পানির মধ্যে আমলকী গুঁড়ো ও সামান্য চিনি মিশিয়ে দিনে দু’বার খেতে পারেন। এ্যাসিডেটের সমস্যা কম রাখতে সাহায্য করবে। ৫. আধা চূর্ণ শুষ্ক ফল এক গ্লাস পানিতে ভিজিয়ে খেলে হজম সমস্যা কেটে যাবে। খাবারের সঙ্গে আমলকীর আচার হজমে সাহায্য করে। প্রতিদিন সকালে আমলকীর রসের সঙ্গে মধু মিশে খাওয়া যেতে পারে। এতে ত্বকের কালো দাগ দূর হবে ও ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে। ৬. আমলকীর রস দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। এছড়াও চোখের বিভিন্ন সমস্যা যেমন চোখের প্রদাহ। চোখ চুলকানি বা পানি পড়ার সমস্যা থেকে রেহাই দেয়। আমলকী চোখ ভাল রাখার জন্য উপকারী। এতে রয়েছে ফাইটো-কেমিক্যাল যা চোখের সঙ্গে জড়িও ডিজেনারেশন প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। ৭. এছাড়াও প্রতিদিন আমলকির রস খেলে নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর হয় এবং দাঁত শক্ত থাকে। আমলকীর টক ও তেতো মুখে রুচি ও স্বাদ বাড়ায়। রুচি বৃদ্ধি ও খিদে বাড়ানোর জন্য আমলকী গুঁড়োর সঙ্গে সামান্য মধু ও মাখন মিশিয়ে খাওয়ার আগে খেতে পারেন। ৮. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং মানসিক চাপ কমায়। কফ, বমি, অনিদ্রা, ব্যথা-বেদনায় আমলকী অনেক উপকারী। ব্রঙ্কাইটিস ও এ্যাজমার জন্য আমলকীর জুস উপকারী। শরীর ঠাণ্ডা রাখে, শরীরের কার্যক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে, পেশী মজবুত করে। ৯. এটি হৃদযন্ত্র, ফুসফুসকে শক্তিশালী করে ও মস্তিষ্কের শক্তিবর্ধন করে। আমলকীর আচার বা মোরব্বা মস্তিষ্ক ও হৃদযন্ত্রের দুর্বলতা দূর করে। শরীরের অপ্রয়োজনীয় ফ্যাট ঝরাতে সাহায্য করে। লোহিত রক্তকণিকার সংখ্যা বাড়িয়ে তুলে দাঁত ও নখ ভাল রাখে। ১০. এর এ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান ফ্রি র‌্যাডিকালস প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। বুড়িয়ে যাওয়া ও সেল ডিজেনারেশনের অন্যতম কারণ এই ফ্রি র‌্যাডিকালস। সর্দি-কাশি, পেটের পীড়া ও রক্তশূন্যতা দূরীকরণে বেশ ভালো কাজ করে। ব্লাড সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে রেখে ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। কোলেস্টেরল লেভেলেও কম রাখাতে যথেষ্ট সাহায্য করে।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.