Maintenance
We are upgrading our server . We apologize for the inconvenience

  • ত্রিপুরায় গভীর সংকটে তৃনমূল কংগ্রেস, উপনির্বাচনের দুই প্রার্থী বিজেপিতে সামিল
  • আনোয়ারা ইস্যুতে পুলিশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের অভিযোগ
  • ত্রিপুরায় তৃনমূল কংগ্রেস কে গ্রাস করে নিচ্ছে বিজেপি
  • মেডিক্যাল কাউন্সিল অব ইন্ডিয়ার ডাক্তারদের জেনেরিক ওষুধ লেখার নির্দেশ জারি
  • মেডিক্যাল কাউন্সিল অব ইন্ডিয়ার ডাক্তারদের জেনেরিক ওষুধ লেখার নির্দেশ জারি
  • ত্রিপুরা ধর্মনগরে বিজেপির গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক শুরু
  • ২৮শে মে ত্রিপুরা বন্ধের ডাকে ত্রিপুরা প্রদেশ যুব কংগ্রেস ও এন.এস.ইউ.আই এর পদযাত্রা
  • ত্রিপুরা মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুললো বিজেপি
  • সারা দেশের সাথে রাজ্যেও ১লা মে নিষিদ্ধ হচ্ছে মন্ত্রীদের গাড়িতে লালবাতি, খুশি আমজনতা
  • প্রধানমন্ত্রী বিরুদ্ধেই উষ্মা জাহির ত্রিপুরা জমিয়ত উলামা হিন্দের
  • রেলে কাঁটা পরে এক যুবকের মৃত্যু
  • কালবৈশাখীর ঝড়ে বিধ্বস্ত কল্যাণপুর
  • ত্রিপুরার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে আরো দুটি সীমান্ত হাটের প্রস্তাব অনুমোদিত
  • আনোয়ারা মৃত্যুর সুষ্ঠু তদন্ত এবং প্রকৃত রহস্য উন্মোচনের দাবিতে ছাত্র আন্দোলন, বিক্ষোভ অব্যাহত
  • দীর্ঘ ৭মাস পর অলকের দেহ বিলোনিয়ার বাড়িতে ফিরল
  • স্বামীর চিকিৎসার স্বার্থে শিশু সন্তান বিক্রী
  • রাজ্য সরকারের দীর্ঘ বঞ্চনায় আন্দোলনে নামলো ত্রিপুরা রাবার শ্রমিক
  • নাবালিকার বিয়ে আটকে দিয়ে দিল প্রশাসন
  • লক্ষাধিক টাকা সহ ধৃত পুলিশ কনস্টেবল
  • ত্রিপুরা সহ উত্তরপূর্বাঞ্চলকে সর্বাধিক প্রাধান্য দিচ্ছে বিজেপির সর্বভারতীয় নেতৃত্ব
  • ভাষণ বিতর্কের জবাবে ত্রিপুরার বিজেপির সভাপতি পার্টিতে স্বাগত জানালেন মানিক, বিজন, গোতমবাবুদের
  • চা-বাগানের লক আউট, অনাহারের সন্মুখিন পরিবারসহ শ্রমিকরা
  • অমরপুরে যুবতী অপহরণ, তদন্তে পুলিশ
  • চিটফান্ড ইস্যুতে এবার ত্রিপুরায় পথে নামছে বিজেপি
  • বুধবার ত্রিপুরা সফরে আসছেন রূপা গাঙ্গুলী

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

লাইফস্টাইল

হোটেল, রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে বাধ্যতামূলক নয় পরিষেবা কর, নির্দেশিকা কেন্দ্রের

নয়াদিল্লি, ২ জানুয়ারি (এ এন ই) : এবার থেকে হোটেল, রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে বাধ্যতামূলক নয় পরিষেবা কর| সোমবার কেন্দ্রীয় সরকার নতুন নির্দেশ জারি করে এমটাই জানিয়ে দিল | কেন্দ্রের নির্দেশ অনুযায়ী, যদি আপনি হোটেল বা রেস্তোরাঁর পরিষেবায় খুশি হন, তাহলেই একমাত্র দিতে পােরন সার্ভিস ট্যাক্স | এ ব্যাপারে পুরো স্বাধীনতাই উপভোক্তার | এতদিন হোটেল, রেস্তোরাঁয় খেতে বা থাকতে গেলে বিলের ওপর লাগত অতিরিক্ত পরিষেবা কর | যার পরিমাণ অনেক সময়ই মাত্রারিক্ত হতো | এমনকী, হোটেল বা রেস্তোরাঁর সার্ভিস ভালো না হলেও, আপনি বাধ্য হতেন সার্ভিস ট্যাক্স দেওয়ার জন্য | সেই নিয়মেই এবার বাধ সাধল কেন্দ্র সরকার | পরিষেবা করকে একেবারেই উপভোক্তার ইচ্ছের জায়গায় নিয়ে গেল কেন্দ্রের নতুন নির্দেশে|

20-03-2017 12:20:14 pm

সম্প্রতি এদেশে লঞ্চ হতে চলেছে ডমিনার ৪০০ বাইক

৬ই জানুয়ারী (এ.এন.ই ): বজাজ অটো সম্প্রতি এদেশে লঞ্চ করেছে নতুন ডমিনার ৪০০। ভারতীয় মুদ্রায় ১.৩৬ লক্ষ এবং এবিএস ভার্সনের দাম ১.৫০ লক্ষ টাকা। এই মুহূর্তে বজাজ অটো ব্র্যান্ডের সবচেয়ে শক্তিশালী বাইক হিসেবেই প্রচালর করা হচ্ছে এই প্রিমিয়াম বাইকটিকে। খুব স্বাভাবিকভাবেই নতুন এই বাইকটির সঙ্গে তুলনা টানা হচ্ছে রয়্যাল এনফিল্ড, কেটিএম ২০০/ ৩৯০ ডিউক, নতুন মাহিন্দ্রা মোজো এবং সদ্য নতুন রূপে আপডেট হওয়া হন্ডা সিবিআর২৫০আর। যাঁরা সাধ্যের মধ্যে একটা ভাল পারফরম্যান্স ট্যুরার চাইছেন, তাঁদের কাছে এই বাইকটির লঞ্চ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই বাইকটির অ্যাসেম্বলি লাইন ছিল শুধুমাত্র মহিলা ইঞ্জিনিয়রদের নিয়ে তৈরি। অর্থাৎ এই বাইকের ফাইনাল অ্যাসেম্বলিং করেছেন মহিলা ইঞ্জিনিয়ররা। কোম্পানির এই উদ্যোগ প্রশংসনীয় তো বটেই। অনেকে বলছেন অবশ্য যে, এটা পাবলিসিটি স্টান্ট। এতদিন বজাজ যতগুলি বাইক লঞ্চ করেছে, তার মধ্যে ডিজাইন ও লুকসের দিক থেকে সেরা বলা যায় ডমিনার ৪০০-কে। বজাজের এটি প্রথম মডেল যেখানে ফুল এলইডি হেডলাইটস রাখা হয়েছে। এমনকী, এই প্রথম বজাজ-এর কোনও বাইকে ডিজিটাল এলসিডি ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার ব্যবহার করা হল। জান গেছে এবছরের এপ্রিল মাস থেকে দেশে টু হুইলার সেফটি প্রোটোকলে বেশ কিছু বদল আসতে চলেছে। অনেক নতুন বিষয় সংযোজন করা হয়েছে। নতুন সেফটি প্রোটোকলটি অক্ষরে অক্ষরে মেনেই ডিজাইন করা হয়েছে ডমিনার ৪০০। অটোমেটিক হেডল্যাম্প, ডুয়াল চ্যানেল অ্যান্টি-লক ব্রেকিং সিস্টেম ছাড়াও এই বাইকে রয়েছে বিএস ফোর। এবার আসা যাক এই বাইকের পাওয়ার অ্যাসপেক্টের প্রসঙ্গে। কেটিএম ডিউক ৩৯০ ইঞ্জিন আর ডমিনার ৪০০ ইঞ্জিনের মধ্যে একটাই পার্থক্য এবং তা হল এফিসিয়েন্সির। কেটিএম ৩৯০ ইঞ্জিনের ব্রেক হর্সপাওয়ার ৪৩ কিন্তু ডমিনার ৪০০-র ব্রেক হর্সপাওয়ার ৩৫। তাই নতুন ডমিনারের লিনিয়র পাওয়ার ডেলিভারি অনেকটাই ভাল ডিউক ৩৯০-র তুলনায়। ডমিনারের ইঞ্জিনটি এমনভাবেই রিটিউন করা হয়েছে। ট্যুরিংয়ের জন্য তাই এই বাইকটি অত্যন্ত ভাল। তা বাদ দিয়ে ডমিনার ৪০০-এ রয়েছে টেলিস্কোপিক ফ্রন্ট ফর্ক এবং মোনোশক সাসপেনশন সেটআপ। এছাড়া বাইকটির সামনে ও পিছনে রয়েছে ডুয়াল চ্যানেল এবিএস-সহ উচ্চশক্তিসম্পন্ন ডিস্ক ব্রেক। এই স্পেকস পড়েই অভিজ্ঞ রাইডাররা আন্দাজ করতে পারেন ঠিক কেমন হবে ডমিনার ৪০০ রাইডিংয়ের অভিজ্ঞতা। অ্যাডভান্স বুকিং শুরু হয়েছিল গত মাস থেকেই আর এই মাস থেকে ডেলিভারিও শুরু হয়ে যাওয়ার কথা। অনলাইনেও বুক করা যাবে এই বাইক। কিছুদিনের মধ্যেই বজাজ-এর বড় ডিলার আউটলেটগুলিতে টেস্ট রাইডের সুবিধাও পাওয়া যাবে। ভারতীয় রাইডারদের একটা বিরাট অংশ এনফিল্ড-ভক্ত। নতুন ডমিনার যেভাবে তৈরি হয়েছে তাতে এনফিলন্ডকে টক্কর দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। কিন্তু নতুন প্রজন্মের এই স্পোর্টস ট্যুরার কি পারবে এনফিল্ডকে টপকে যেতে? সেটা অবশ্য সময়ই বলবে।

06-01-2017 12:40:35 pm

ত্বক ভালো রাখে গোলাপজল জেনেনিন তাঁর উপকারিতা

২৯শে নভেম্বর (এ.এন.ই ): ত্বক ভালো রাখতে কত কিছুই না করি আমরা। ত্বকে একটু ব্যতিক্রম কিছু চোখে পড়লেই কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়ে। তাই বলে রূপচর্চা ছাড়লে তো চলবে না। বাড়িতে গোলাপজল রয়েছে নিশ্চয়ই!‌ বুঝেশুনে ব্যবহার করলেই হাতেনাতে ফল পাবেন। জেনে নিন গোলাপজলের উপকারিতা- ১) ‌ত্বকের পি এইচ ব্যালেন্স করতে সাহায্য করে গোলাপজল। মুখ ধোয়ার পর তুলায় ভিজিয়ে মুখে লাগিয়ে রাখুন। এটি টোনারের কাজ করে। ২) ত্বকের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনে গোলাপ জল। ১০–১৫টা তুলসী পাতা বেটে নিন। ২০০ মিলি গোলাপজল মিশিয়ে একটি বোতলে ভরে ফ্রিজে রেখে দিন। দিনে একবার মুখে লাগান। ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকবেই, ট্যানও দূর করে। ৩) গোলাপজলে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান রয়েছে। কেটে ছিঁড়ে গেলে লাগাতে পারেন। ৪) এতে অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট উপাদান রয়েছে। কোষ ভাল রাখে। ৫) শীতকালে ঠোঁট ফাটে?‌ একটি বিট নিয়ে ছোট ছোট টুকরো করুন। কিছুদিন রোদে শুকিয়ে নিন। ভাল করে গুঁড়া করে এক চামচ গোলাপজল মেশান। ঠোঁটে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন। ঠোঁট নরম হবে। লিপস্টিকেরও দরকার হবে না। ৬) রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ময়শ্চারাইজার লাগান!‌ তার সঙ্গে দু’‌ফোঁটা গোলাপজল মিশিয়ে নিন। ভাল ফল পাবেন।

29-11-2016 02:17:50 pm

ঠোঁটের কালচেভাব দূর করার কিছু উপায় জেনে নিন

২৫শে আগস্ট (এ.এন.ই) আমাদের মুখের সৌন্দর্য অনেকাংশে নির্ভর করে ঠোঁটের রঙের ওপর। কিন্তু ঠোঁটের কালচে রঙের কারণে অনেকেই অস্বস্তিতে ভোগেন। ঠোঁট নিয়ে এমন সমস্যায় পড়তে পারেন নারী বা পুরুষ যে কেউ-ই। তবে মন খারাপের কিছু নেই। ঠোঁটের কালো রং দূর করার জাদু রয়েছে আপনারই হাতে। চলুন জেনে নিই ঠোঁটের কালচেভাব দূর করার কিছু উপায়- ১) একটা লেবুর অর্ধেক কেটে তার উপর দুই ফোঁটা মধু দিয়ে বৃত্তাকারে ঠোঁটে ম্যাসাজ করতে হবে। এরপর বরফ জলে ঠোঁট ধুয়ে নিলে ভালো ফল পাবেন। ২) সকালে দাঁত ব্রাশ করার সময় সাবধানে ঠোঁটও ব্রাশ করতে পারেন। এতে ঠোঁটের মরা কোষ ঝরে যায়। ৩) লেবুর রসের সঙ্গে মধু মিশিয়ে ঠোঁটে লাগাতে পারেন। এতে ঠোঁটের কালোভাব দূর হবে। ৪) ধনেপাতার রস ঠোঁটের কালোভাব দূর করতে খুব বেশি কার্যকরী। তাই নিয়ম করে ঠোঁটে ধনেপাতার রস লাগাত পারেন। ৫) প্রতিদিন গ্লিসারিন, অলিভ অয়েল, মধু ও গোলাপজল একসঙ্গে মিশিয়ে লাগালে ঠোঁটের উজ্জ্বলতা ফিরে আসবে। ৬) রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে নারিকেলের তেলের সঙ্গে বাদাম তেল মিশিয়ে ঠোঁটে লাগান। সপ্তাহে দু’দিন এই প্যাকটি ব্যবহার করুন। কালো দাগ দূর হবে। ৭) মুলতানি মাটি, কয়েক ফোঁটা মধু ও কাঁচা দুধ মিশিয়ে ঠোঁটে লাগালে ঠোঁটের কালচে ভাব দূর হবে। ৮) শসা ও পাতিলেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে দিনে ৩ থেকে ৪ বার ঠোঁটে লাগান। ঠোঁটের কোনা কালো হয়ে গেলে উপকার পাবেন। ৯) ঠোঁটে লিপিস্টিক বা অন্য কিছু ব্যবহারের আগে তার মান সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে নিন। ১০) আপনার যদি ধূমপানের অভ্যাস থাকে, তবে তা ছাড়তে হবে সবচেয়ে আগে। যেকোনো ধরনের অ্যালকোহল এড়িয়ে চলুন এবং খুব বেশি চা বা কফি খাওয়ার অভ্যাসও আপনার ঠোঁটের রঙের শত্রুতে পরিণত হতে পারে। তাই সুন্দর ঠোঁট পেতে অভ্যাসকে শিথিল করা জরুরি।

25-08-2016 03:27:20 pm

ত্বকের যত্নে ফেসিয়ালের বিকল্প নেই জেনে নিন

২৪শে আগস্ট (এ.এন.ই) ত্বকের যত্নে ফেসিয়ালের বিকল্প নেই। সুস্থ ও সুন্দর ত্বকের জন্য প্রয়োজন নিয়মিত ফেসিয়াল করার। কিন্তু সঠিক উপায়ে ফেসিয়াল না করলে তা ত্বকের জন্য হতে পারে হুমকিস্বরূপ। ভুল নিয়মে ফেসিয়াল করলে মুখের চামড়া ঝুলে যাওয়া বা ত্বকে বলিরেখাও দেখা দিতে পারে। তাই ফেসিয়াল করার আগে এর সঠিক নিয়ম জেনে নেওয়া জরুরি। ক্লিঞ্জিং: প্রথমে ক্লিঞ্জিং দিয়ে মুখ ধোয়ার পূর্বে প্রথমে গরম ভাপ নিয়ে নিন। এটি আপনার মুখের লোমকুপগুলো খুলে দিতে সাহায্য করবে। ভাপ নেয়া হয়ে গেলে ক্লিঞ্জার দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন ভালো করে। দুধে তুলা ভিজিয়ে ত্বক পরিস্কার করে নিতে পারেন। ক্রিম ম্যাসাজ: ফেসিয়াল ক্রিম দিয়ে ১০ মিনিট ত্বকে হালকা হাতে ম্যাসাজ করে নিন। স্ক্র্যাবিং: এবার স্ক্র্যাব দিয়ে মুখ আলতো ভাবে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ঘষুন। তারপর উষ্ণ তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে ফেলুন। উজ্জ্বল ত্বকের জন্য চালের গুঁড়া, সুজি অথবা চিনি হতে পারে সবচেয়ে ভালো স্ক্র্যাব। টোনিং: শসার রস, এক কাপ ওটমিল ও এক টেবিল চামচ দই একসঙ্গে মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন। এবার এই মিশ্রণটা পুরো মুখে মেখে তিরিশ মিনিট রেখে হালকা গরম জলে ধুয়ে নিন। একটা ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে অর্ধেক লেবুর রস মিশিয়ে এই মিশ্রণটা ২০ মিনিট মুখে রেখে ধুয়ে ফেলুন। একটি টমেটো ভালো করে চটকে নিন। সঙ্গে আধা চা চামচ মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এই প্যাক নিয়মিত ব্যবহারে আমাদের ত্বকের দাগগুলো সব মিলিয়ে যাবে। সমপরিমাণ ভিনেগার ও গোলাপ জল মিশিয়ে তৈরি করতে পারেন টোনার। যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে খুবই উপযোগী। তুলা দিয়ে টোনার মুখে লাগান কিন্তু ভুলেও ঘষবেন না। চোখের কাছে লাগাবেন না। এই পর্যায়ে ফেসিয়াল যে কোনো একটি মাস্ক প্রস্তুত করুন। ফুটন্ত গরম জলে ১ চামচ গ্রিন টি কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। ১টি বাটিতে ২ চামচ মুলতানি মাটি নিন। তাতে ২-৩ চামচ গ্রিন টি ভেজানো জল মেশান। অ্যালোভেরার আবরণ সরিয়ে রস বের করে নিন। এবার মুলতানি মাটি ও গ্রিন টির মিশ্রণে মিলিয়ে নিন। প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট রাখুন, তারপর পরিষ্কার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। একটা শসা কুড়িয়ে, সেটা থেকে রসটা বের করে এক চামচ চিনি ভাল করে মিশিয়ে কিছুক্ষণ ফ্রিজে রেখে দিন। ত্বকে মেখে দশ মিনিট রেখে ধুয়ে নিন। শসার রস ত্বককে হাইড্রেট করে, ফলে ত্বক অনেক মসৃণ ও উজ্জ্বল হয়। দু’চামচ মসুর ডাল সারারাত ভিজিয়ে রেখে পরদিন সকালে মসুর ডাল বেটে তার মধ্যে অল্প দুধ ও আমণ্ড তেল মিশিয়ে একটা মিশ্রণ তৈরি করে নিন। এই প্যাকটা মুখে মেখে দশ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার জল দিয়ে ঘষে ঘষে ধুয়ে নিন।

24-08-2016 04:36:26 pm

ফ্ল্যাট স্যান্ডেল বা জুতোতে রয়েছে কিছু স্বাস্থ্য ঝুঁকি জেনে নিন

২২শে আগস্ট (এ.এন.ই) হিল জুতো পরলে পায়ের হাড়ে ব্যথা, হাঁটুর জয়েন্ট ক্ষয়ে যাওয়া সহ আরও নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় বলে আমরা জানি। আর এ কারণে অনেকেই ফ্ল্যাট স্যান্ডেল বা জুতো পরেন। তবে একেবারে ফ্ল্যাট স্যান্ডেল বা জুতোরও রয়েছে কিছু স্বাস্থ্য ঝুঁকি যা হয়তো আপনি জানেন না। আজকে জেনে নিন সবসময় ফ্ল্যাট জুতো ও স্যান্ডেল পরার অজানা কিছু স্বাস্থ্য ঝুঁকি সম্পর্কে। ফ্ল্যাট জুতো পড়লে পা মাটি, জল বা রাস্তার খুব কাছাকাছি থাকে। এতে করে খুব সহজেই পায়ের নখ এবং আঙুল ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হতে পারে। খুব সহজেই পায়ে ব্যাকটেরিয়া প্রবেশ করে। সুতরাং একেবারে ফ্ল্যাট জুতো পড়ার ব্যাপারে দ্বিতীয়বার চিন্তা করুন। অন্তত বর্ষাকালের সময়টাতে। দীর্ঘদিন ধরে পাতলা সোলের জুতো পড়ার ফলে পায়ের পাতার স্থায়ী ক্ষতি হতে পারে। হ্যামার টো নামক সমস্যা অর্থাৎ পায়ের পাতা বাঁকা হয়ে যাওয়ার প্রবণতা ফ্ল্যাট জুতো পড়ার কারণেই মূলত হয়ে থাকে। ফ্ল্যাট জুতো পড়লে পায়ের পুরো পাতার উপরেই চাপ পড়ে। এতে চাপ কিছুটা কমলেও পায়ের পেছনের অংশের উপরেই চাপটা বেশি পড়ে থাকে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয় হয় পেশী। পায়ের পাতা ছড়িয়ে যাওয়ার সমস্যাও দেখা দেয় ফ্ল্যাট জুতোর ব্যবহারে। আপনি যখন ফ্ল্যাট জুতো পড়েন তখন পা ফেলার সময় পুরো পায়ের পাতা সমান ভাবে পড়ে। এবং ব্যাল্যান্স ধরে রাখার জন্য পায়ের পাতা যতোটা সম্ভব ছড়িয়ে পড়ে। দীর্ঘদিন ফ্ল্যাটজুতো ব্যবহারের কারণে পায়ের আকৃতি নষ্ট হয়ে যায়। সারাদিন হাঁটাচলা করতে হলে অনেকেই ফ্ল্যাট জুতো বেছে নেন। কিন্তু আমরা যখন সারাদিন হেঁটে বা দাঁড়িয়ে কাজ করে থাকি তখন হাঁটাহাঁটি করার ফলে আমাদের পায়ের পাতা পা পায়ের তলার সাথে এই ফ্ল্যাট জুতোর ঘর্ষণ বেশি হয় এবং পায়ের পাতার তালুতে জ্বলুনি ও ফোসকার সৃষ্টি হয় যা খুবই যন্ত্রণাদায়ক। তাই একেবারে ফ্ল্যাট স্যান্ডেল বা জুতো না পড়ে সাধারণ দেড় থেকে দুই ইঞ্চির হিল জুতো পড়ুন। আর দীর্ঘক্ষণ ফ্ল্যাট না পড়ে জুতো ঘুরিয়ে ফিরিয়ে পড়ার অভ্যাস করুন। পায়ের যত্নে একটু সতর্ক হোন।

22-08-2016 04:24:13 pm

বাজারে এসেছে টুইনমোস ব্র্যান্ডের ট্যাবলেট পিসি

৯ই আগস্ট (এ.এন.ই) দেশের বাজারে এসেছে টুইনমোস ব্র্যান্ডের ওয়াই-ফাই সুবিধার একিউ ৭১ মডেলের নতুন ট্যাবলেট পিসি। ৭ ইঞ্চি আকৃতির এই ট্যাবলেটটিতে রয়েছে ১ জিবি ডিডিআর-থ্রি র‌্যাম, ৮ জিবি মেমোরি, ললিপপ ৫.১.১ অপারেটিং সিস্টেম, ২.০ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা, ০.৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা এবং ২৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। ৪ হাজার ৫০০ টাকা মূল্যের টুইনমোসের এই ট্যাবলেট পিসি বাজারে এনেছে দেশের অন্যতম শীর্ষ প্রযুক্তি পণ্যের প্রতিষ্ঠান স্মার্ট টেকনোলজিস (বিডি) লিমিটেড।

09-08-2016 03:18:46 pm

আসতে চলেছে বিশ্বের প্রথম ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর যুক্ত ল্যাপটপ

৯ই আগস্ট (এ.এন.ই) এবছরই বাজারে আসছে অ্যাপলের নতুন ল্যাপটপ ম্যাকবুক প্রো। এই ল্যাপটপ নিয়ে জল্পনা কল্পনার শেষ নেই। শোনা গেছে, এই ল্যাপটপ হবে সুরক্ষিত। ল্যাপটপের সুরক্ষার জন্য ব্যবহৃত হচ্ছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। এর আগে কোনো প্রতিষ্ঠানই তাদের ল্যাপটপেই ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর সংযোজন করতে পারেনি। অ্যাপল যদি তাদের ল্যাপটপে ফিঙ্গার প্রিন্ট সিকিউরিটি সিস্টেম সংযুক্ত করতে পারে তবে এটাই হবে বিশ্বের প্রথম ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর যুক্ত ল্যাপটপ। ৯টু ৫ম্যাকের তথ্য মতে, অ্যাপল তাদের নতুন ম্যাকবুক প্রো নোটবুকে টাচ আইডি বাটন সংযোজন করছে। এই বাটনের মাধ্যমে ল্যাপটপটিকে আনলক করা যাবে। এই টাচ আইডি সেন্সর থাকবে পাওয়ার বাটনের সঙ্গে। যদিও আইফোন, আইপ্যাডের টাচআইডি সেন্সর পাওয়ার বাটনের সঙ্গে সংযুক্ত নেই। অ্যাপলের ম্যাকবুকে প্রো অন্য সব ম্যাকবুকের চেয়ে পাতলা হবে। ওজনেও হবে হালকা। এতে থাকছে রিভার্সিবল ইউএসবি সি পোর্ট।

09-08-2016 03:03:59 pm

সেপ্টেম্বরে বাজারে আসছে অ্যাপলের আইফোন ৭

২৫শে জুলাই (এ.এন.ই) আগামী সেপ্টেম্বরে বাজারে আসছে অ্যাপলের নতুন প্রজন্মের আইফোন ৭। ফোনটি বাজারে আসার সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করেছে ১৬ সেপ্টেম্বর। প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইটগুলোর বরাত দিয়ে জানা যায়, ১৬ সেপ্টেম্বর অ্যাপল তাদেরে ইভেন্টে আইফোনের তিনটি মডেল অবমুক্ত করবে। এগুলো হলো আইফোন ৭, আইফোন ৭ প্লাস এবং আইফোন ৭ প্রো। প্রযুক্তির খবর রটানোকারী টিপস্টার ইভান ব্লাস টুইটারে এক বার্তায় জানিয়েছে, অ্যাপল তাদের পরবর্তী প্রজন্মের ফোন আইফোন ৭, ১৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার অবমুক্ত করতে যাচ্ছে। অ্যাপলের নতুন ফোনে ডুয়েল ক্যামেরা থাকবে। এছাড়াও নতুন ফোনের ডিজাইনেও কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে।

25-07-2016 05:09:56 pm

‘ভ্রু প্লাক করার পর কী করা উচিত এবং কী উচিত নয় জেনে নিন

২০শে জুলাই (এ.এন.ই) ‘ভ্রু প্লাক’ করার পর কী করা উচিত এবং কী উচিত নয় তার কিছু দিক তুলে ধরা হয়। এখানে ওই বিষয়গুলো উল্লেখ করা হল। ভ্রু প্লাক করার পর মুখ অবশ্যই ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। এতে খুলে পাওয়া লোমকূপগুলো সংকুচিত হয়ে আসবে এবং ত্বকের লালচে-ভাব দূর হবে। ত্বকে জ্বলুনি অনুভূত হলে অ্যালোভেরার জেল বা গোলাপ জল লাগালে উপকার পাওয়া যাবে। ভ্রু প্লাক করার পরপরই যতটা সম্ভব তীব্র সূর্যালোক এড়িয়ে চলতে হবে। গরম ভাপ এবং ক্লোরিন সমৃদ্ধ জলও এড়িয়ে চলতে হবে পরবর্তী ২৪ ঘন্টা। ভ্রু প্লাক করার পর ত্বক অত্যন্ত সংবেদনশীল হয়ে যায়। তাই সূর্যের আলো, অতিরিক্ত তাপ ও ক্লোরিন সমৃদ্ধ জলের কারণে ত্বকে জ্বালাপোড়া অনুভূত হতে পারে। প্লাক করার পর ত্বকের ওই অংশগুলোতে বারবার হাত না লাগানো ভালো। কারণ এতে হাতে লেগে থাকা ব্যাক্টেরিয়া ছড়িয়ে পড়তে পরে। আর যেহেতু প্লাক করার পর লোমকূপ খোলা থাকে তাই সংক্রমণের ঝুঁকিও বেশি থাকে। প্লাক করার পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা মেইকআপ ব্যবহার থেকেও বিরত থাকা উচিত। নাইট ক্রিম বা অ্যান্টি-এইজিং ক্রিমও ওই অংশের ত্বকটুকু এড়িয়ে লাগানো উচিত। কারণ খোলা লোমকূপ ভারী ক্রিমের কারণে বন্ধ হয়ে যেতে পারে। তবে ত্বক বেশি শুষ্ক হয়ে গেলে জ্বলুনি অনুভূত হতে পারে। তাই হালকা কোনো ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নেওয়া উচিত।

20-07-2016 05:40:58 pm

সঠিক দিকে ঘুমানোর উপায় জেনে নিন

২০শে জুলাই (এ.এন.ই) কোন দিকে মাথা রেখে ঘুমাবেন- এ বিষয়ে মার কাছে বিস্তর পরামর্শ ও ব্যাখ্যা ছোটবেলা থেকেই জেনেছেন। কিন্তু সময় তো পাল্টে গেছে। জ্ঞান বিজ্ঞানে এগিয়েছে পৃথিবী। তাই মাথা সঠিক দিকে রেখে ঘুমিয়ে অদৃষ্টকে রোখা যায় না। এ বিষয়য়ে বিজ্ঞানের ব্যাখ্যা সমেত যুক্তি রয়েছে। কোন দিকে মাথা রেখে ঘুমাবেন? এ বিষয়ে চিকিৎসকরা জানান, সব সময় একেবারে সমতল জায়গায় শুয়ে ঘুমানো উচিত। কিন্তু তেমন জায়গা পাওয়া মুশকিল। কারণ বাড়ির প্রতিটি ঘরের মেঝে থেকে জল বের করার জন্য একদিকে ঢাল করা হয়। ঢাল মেঝের ওপর খাট পাতলে তাও সেই দিকেই ঢাল হয়ে যায়। তাই সব সময় ঢালের যে দিক উঁচু সেই দিকে মাথা দিয়ে শোয়া উচিত। এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়ে চিকিৎসকরা বলেন, ‘কারণ ঘুমানোর সময় মাথা যদি ঢালের দিকে থাকে তবে ক্রমশ মস্তিষ্কে রক্তের চাপ বাড়তে থাকে। এর ফলে ধীরে ধীরে মস্তিষ্কের ধমনী ফুলে গিয়ে রক্তক্ষরণ (স্ট্রোক) ঘটাতে পারে। হতে পারে পক্ষাঘাত।’

20-07-2016 05:33:11 pm

চোখের নিচের কালো দাগ দূর করার বিভিন্ন উপায় জেনে নিন

২০শে জুলাই (এ.এন.ই) চোখের নিচের কালো দাগ জানান দেয় অনেক রোগের লক্ষণ। তাছাড়া অনিদ্রা, ধূমপান, মানসিক চাপ হতে পারে চোখের নিচে কালো দাগের কারণ। চলুন জেনে নেই এর কাছে থেকে মুক্তির উপায়সমূহ- পুদিনাপাতাঃ ত্বক শীতল রাখতে এবং যেকোনো জ্বালাপোড়া ও ফোলাভাব কমাতেও পুদিনাপাতা বেশ উপকারী। ত্বকে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করতেও সাহায্য করে এই পাতা। প্রয়োজনীয় পরিমাণে পুদিনাপাতা নিয়ে পেস্ট তৈরি করে চোখের নিচের ত্বকে লাগিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। কাঠবাদামের তেলঃ এই তেলে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন ই যা ত্বকের আর্দ্রতার মাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে। এমনকি চোখের নিচে পাতলা ত্বকের যত্নের জন্যও এই তেল বেশ উপযোগী। নিয়মিত চোখের নিচের ত্বকে এই তেল ব্যবহারে কালচে দাগ দূর হবে এবং বলিরেখাও কমে আসবে। রাতে ঘুমানোর আগে চোখের নিচে ও উপরে হালকাভাবে মালিশ করে তেল লাগিয়ে ঘুমাতে হবে, সকালে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে উপকার পাওয়া যাবে। টমেটোঃ এতে আছে লাইকোপেন, ভিটামিন সি এবং রেটিনল যা রক্তসঞ্চালন বৃদ্ধি করে এবং কোষ গঠনে সহায়তা করে। তাছাড়া ত্বকের রং উজ্জ্বল করে ও ত্বকের কালচেভাব দূর করতে সাহায্য করে টমেটো। এক টেবিল চামচ টমেটোর রস, আধা চামচ লেবুর রস, এক চিমটি হলুদ গুড়া এবং এক চিমটি চালের গুড়া মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে ১০ থেকে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে উপকার পাওয়া যাবে।

20-07-2016 05:26:18 pm

ত্বকের যত্ন নেওয়ার বিভিন্ন উপায় জেনে নিন

৭ই জুলাই (এ.এন.ই) ত্বকের যত্ন নিন। রান্না ঘরের তেল-কালিও ত্বকের জন্যে ক্ষতিকারক। তাই স্নান করা খুব দরকার। স্নানের সময় বেবি বাথ সোপ ব্যবহার করতে পারেন। বেসনও ব্যবহার করতে পারেন। স্বাভাবিক ত্বক যত্নে খুব বেশি পরিচর্যার প্রয়োজন পড়ে না। ঘুমনোর আগে বেবি সোপ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। মুখ ধোয়ার পর স্কিনটনিক ও ফ্রেশনার লাগাবেন। সপ্তাহে কম করে তিনদিন ফেসপ্যাক লাগাবেন। ডিমের কুসুম অলিভ অয়েলের প্যাক লাগান। ১০ মিনিট পর ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলে ক্রিম লাগান। ঘুমনোর আগে মুখ গোলাপজলে তুলো ভিজিয়ে সারা মুখে লাগান। হাল্কা ওভার নাইটক্রিম লাগান। তৈলাক্ত ত্বক ঘুমনোর আগে মাইন্ড ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধোবেন। পুদিনা পাতার রস ও গোলাপজল মিশিয়ে মুখে লাগান। ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। শুষ্ক ত্বকে সাবান ব্যবহার করবেন না। ক্লেনিজং মিল্ক দিয়ে মুখমণ্ডল পরিষ্কার করুন। দুধের সর ও গোলাপ মিশিয়ে মুখে ম্যাসাজ করুন। পাঁচ মিনিট পর কুসুম গরম জলে তুলো ভিজিয়ে মুখ মুছে ফেলুন। ওভার নাইট ক্রিম লাগান। শুকনো ঠোঁটে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে নরম কাপড় দিয়ে আস্তে আস্তে ম্যাসাজ করুন। মরা চামড়া উঠে আসবে। এবার লিপ বাম লাগিয়ে নিন। ঠোঁট নরম রাখতে দুধের সর লাগান। হাতের যত্নে সপ্তাহে একদিন গোলাপজল আর গ্লিসারিন মিশিয়ে ঘুমনোর আগে দুই হাত ম্যাসাজ করুন। ভিটামিন 'ই' অয়ের বা আমন্ড-নখ এবং তার চারপাশে লাগান। নখ মজবুত হবে। যাদের হাত শক্ত এবং রুক্ষ হয়ে যাচ্ছে তারা হাতে ভাল করে পেট্রোলিয়াম জেলি মেখে টিস্যু পেপার দিয়ে মুছে শুতে যান। চুলের যত্নে রাতে শ্যাম্প করার অভ্যাস থাকলে ঘুমানোর আগে চুল ভাল করে শুকিয়ে নিন। চুল শুকিয়ে গেলে ভাল করে আঁচড়ে হাল্কা বিনুনি বা পনি টেল বেঁধে শুতে যান।

07-07-2016 03:35:29 pm

মেহেন্দী লাগানোর বিভিন্ন উপায় জেনে নিন

৭ই জুলাই (এ.এন.ই) চলছে বিয়ের উৎসব তাই অনেকেই পরিকল্পনা করে রেখেছেন হাত-পায়ে বা শরীরের বিভিন্ন অংশে মেহেন্দী দেবেন। এ জন্য বাজার ঘুরে সবচেয়ে ভাল মেহেন্দীটা কেনা হল। কিন্তু একদিন যেতে না যেতেই সেই মেহেন্দী রং ফিকে যায়! কিন্তু জানেন কি, মেহেন্দী রং ফিকে হওয়ার জন্য অনেকাংশে আমরা নিজেরাই দায়ী! খুব অবাক হচ্ছেন? মেহেন্দী দেওয়ার পর আমরা এমন কিছু কাজ করে ফেলি যার জন্য মেহেন্দী রং ফিকে হয়ে যায়। জেনে নেই এমন কিছু কাজ যা মেহেন্দী দেওয়ার সময় কখনোই করা যাবে না। ১। মেহেন্দী দেওয়ার পর অনেকে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে থাকেন যা কখনোই করবেন না। সাবানের ক্ষারীয় উপাদান মেহেন্দী রং কে ফিকে করে দেয়। ২। মেহেন্দী দেওয়ার কিছুক্ষণ পরই হাত ধুয়ে ফেলবেন না। কমপক্ষে ৬ ঘণ্টা মেহেন্দী হাতে রাখার চেষ্টা করুন। সম্ভব হলে রাতে মেহেন্দী দিয়ে পরের দিন সকালে তা তুলে ফেলুন। মেহেন্দী দেওয়ার পূর্বেই স্থান শেষ করে ফেলুন। মনে রাখবেন মেহেন্দী যত বেশি সময় হাতে রাখবেন তত বেশি গাঢ় রং হবে। ৩। চিনি, লেবুরজল মেহেন্দীর রং কে গাঢ় করে থাকে। কিন্তু খুব বেশি ব্যবহারে মেহেন্দী খয়েরি রং হয়ে যায়। যা দেখতে একদমই ভাল না। ৪। মেহেন্দী শুকানোর জন্য কখনই হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করবেন না। এতে আপনার ডিজাইন নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। প্রাকৃতিকভাবে মেহেন্দী শুকাতে দিন। প্রয়োজন হলে ফ্যান ব্যবহার করতে পারেন মেহেদি শুকানোর জন্য। ৫। মেহেন্দী দেওয়ার আগে খুব বেশি জল বা জল জাতীয় খাবার খাবেন না। ৬। হালকা বা আবছা আলোর মধ্যে মেহেন্দী দিবেন না। ভাল মেহেন্দী ডিজাইনের জন্য পর্যাপ্ত আলোর প্রয়োজন। ৭। লেবুতে যাদের এলার্জি তারা অনেক সময় সরিষার তেল ব্যবহার করে থাকেন মেহেন্দীর রং গাঢ় করার জন্য। তেল ব্যবহারে হাতের শুষ্কতা অনেকটাই কমে যায়। তবে তেল ব্যবহারের আগে এর মান সম্পর্কে নিশ্চত হয়ে নেবেন। ৮। অনেকে মেহেন্দী তেল ব্যবহার করেন। মেহেন্দী তেল কেনার পূর্বে এর মেয়াদ এবং তৈরির উপাদান দেখে নিবেন। এটি মেহেন্দী লাগানোরে আগে ব্যবহার করতে হয়। কখনোই মেহেন্দী লাগানোর পর এই তেল ব্যবহার করবেন না।

07-07-2016 03:22:32 pm

সেলফি তোলার সময় নিজেকে সুন্দর দেখার কিছু টিপস জেনেনিন

২০শে জুন (এ.এন.ই) ফেসবুকের যুগে সেলফি জ্বরে আক্রান্ত গোটা দুনিয়া। আর এটা করতে গিয়ে বিভিন্ন সময় দুর্ঘটনার খবর পাওয়া গেলেও সেটা মাথায় রাখেন না কেউই। কিন্তু যে সেলফির জন্য এতকিছু, সেটি আসলে আকর্ষণীয় হচ্ছে কি তা নিয়ে মানুষের দুশ্চিন্তার কমতি নেই। অনেকে আছেন, সেলফি তুলতে ভালোবাসের কিন্তু নিজের ছবি দেখে খুশি হতে পারেন না? আয়নার সামনে যখন দাঁড়ায় তখন বেশ সুন্দর দেখালেও‚ সেলফি বা ছবি তোলার পর তা কিন্তু সম্পূর্ণ অন্যরকম দেখায়। তাই আপনাদের জন্য আজকে রইলো পারফেক্ট সেলফি তোলার কিছু টিপস : ১) একটু কাত হয়ে ছবি তুলুন, ২) ঠোঁট অল্প একটু ফাঁক করে হেসে ছবি তুলুন ৩) আপনার দাঁত এবং মাড়ি সুস্থ রাখুন, ৪) সঠিক ভাবে হাসা প্রাকটিশ করুন, ৫) সবশেষে, খুব বেশি উজ্জ্বল আলোতে বা অন্ধকার জায়গায় ছবি তুলবেন না।

20-06-2016 04:19:55 pm

আসতে চলেছে লিইকো ৮ জিবি র‌্যামের ফ্লাগশিপ ফোন

চীন ১৯ই জুন (এ.এন.ই) চীনের প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান লিইকো ৮ জিবি র‌্যামের ফ্লাগশিপ ফোন বাজারে আনার ঘোষণা দিয়েছে। শক্তিশালী র‌্যামের পাশাপাশি এতে শক্তিশালী প্রসেসরও থাকবে। কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৮২১ প্রসেসর নতুন এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হবে। সম্প্রতি লিইকো লি ম্যাক্স নামে একটি ফোন বাজারে ছাড়ে। এই ফোনটি ছিল ৬ জিবি র‌্যামের। গিজচায়না জানিয়েছে, লিইকো নতুন ভার্সনের ফোন বাজারে আনতে কাজ করছে। এই ফোনটি হবে লি ম্যাক্স ১ এর নতুন ভার্সন। নতুন এই ফোনতে ৮ জিবি র‌্যাম থাকবে। ফোনটির বাদবাকি কনফিগারেশন সম্পর্কে তথ্য পাওয়া যায়নি।

19-06-2016 03:12:48 pm

আপনার প্রিয় ফোনটি হারিয়ে গেলে কি ভাবে খুঁজে পাবেন

আগরতলা,১১ জুন (এ.এন.ই):মোবাইল ফোন সেট হারিয়ে গেলে দুশ্চিন্তার শেষ থাকে না। এখানে-ওখানে খুঁজতে থাকেন হারানো ফোনটি। কিন্তু কোথায় খুঁজলে উদ্ধার করা যাবে হারানো ফোনে থাকা গুরুত্বপূর্ণ সব তথ্য বা ফোনটির অবস্থান? এ সমস্যার সমাধান দিতে এগিয়ে এসেছে গুগল। গুগল সম্প্রতি একটি মজার টুল উন্মুক্ত করে, যা হারানো ফোন সেট খুঁজে দিতে পারে। এ ফিচার ব্যবহার করতে ব্যবহারকারীকে গুগলে গিয়ে শুধু ‘I lost my phone’ কথাটি টাইপ করতে হবে। সার্চ পেজটিতে একটি বিশেষ পেজ দেখাবে গুগল, যাতে গুগলের সঙ্গে সিনক্রোনাইজ থাকা ফোনের তথ্য দেখাবে। ব্যবহারকারীকে তার হারানো ফোনটির ওপর ক্লিক করতে হবে। হারানো ফোনটির অবস্থান জানার পাশাপাশি দূর থেকে হারানো ফোনটির স্ক্রিন লক করে দেওয়ার সুবিধা থাকছে। এ ফিচার শুধু অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের জন্য প্রযোজ্য।

11-06-2016 02:03:56 pm


Copyright © 2012 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.