বিজ্ঞাপন
Megabyte - Walk in motion আগরতলায় প্রথমবার নিয়ে এসেছে মডেলিং এবং এক্টিং জগতের বন্ধুদের জন্য এক সুবর্ণ সুযোগ । মডেলিংএর জগতে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে এবং ভারতের বিশিষ্ট সেলিব্রিটিদের সঙ্গে কাজ করার বিরাট সুযোগ এনে দিয়েছে Mega Byte - Walk in motion organized by Polonius EMS Pvt. Ltd. এবং Agartala Promotion Partner: Zoom Ad Agency । আগ্রহীরা সরাসরি চলে আসতে পারেন আগামী ১৭ই অক্টোবর হোটেল উয়েলকাম পেলেসে দুপুর ১টা থেকে যার অডিশন চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত । এবং গ্রেন্ড ফিনালে হবে গৌহাটিতে । শুধুমাত্র ১৮ থেকে ২৭ বছরের ছেলেমেয়েরাই এই অডিশানে অংশগ্রহণ করতে পারবেন । এই প্রতিযোগিতায় দুজন বিজেতাদের জন্য থাকছে ১ লক্ষ টাকা করে প্রাইজ মানি । ৫ দিনের বিদেশ সফর । Mega Byte এর সাথে ১ বছরের মডেলিং কন্ট্রাক্ট ছাড়াও আরও অনেক আকর্ষণীয় পুরস্কার । বিশদ জানতে যোগাযোগ করুনঃ 8876174868 / 9774425328 / 8194855445

  • শ্রম দপ্তরে সূচনা হল অনলাইন রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি
  • চিনের পণ্য বর্জন আহ্বানেব মোর্চার মিছিল
  • ফাঁসিতে ঝুলন্ত গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার
  • বাম শাসনে রাজ্যে আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি অবনতি, মুক্তির পথ খুঁজছে মানুষ: বিপ্লব দেব
  • ট্রায়াল রানে লামডিং পর্যন্ত গেল রাজধানী এক্সপ্রেস
  • ভোটমুখী তৎপরতা মহাকরণে, দুই মাসের লক্ষ্যে পূরণে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ
  • নরক গুলজারে পরিণত জিবি হাসপাতাল
  • গন্ডাছড়া মহকুমার প্রত্যন্ত এলাকায় ম্যালেরিয়ার প্রকোপ
  • খোয়াই কলেজে গুন্ডারাজ, অধ্যাপককে কেরানির হত্যার হুমকি
  • গাড়ি চালক নিখোঁজ তদন্তে পুলিশের নীটফল শূন্য
  • বাজারে টিকে থাকার লড়াইয়ে নেমেছে বিএসএনএল
  • রাজনীতিতে আসছেন এটিটিএফ জঙ্গি নেতা রঞ্জিত দেববর্মা?
  • ক্যাগ'র ২৬ অনিয়মিত কর্মীর বরখাস্তের স্থগিতাদেশ হাইকোর্টে
  • বিলোনীয়ায় মহিলা খুন
  • ভীমরতি: নাবালিকাকে শ্লীলতাহানি এক বৃদ্ধার
  • আজ রাজধানী এক্সপ্রেসের ট্রায়াল রান
  • গরু পাচার রোধে আক্রান্ত বিএসএফ কমান্ডেন্ট, সোনামুড়ায় সীমান্তে উত্তেজনা
  • কাশীপুরে বাইক এবং গাড়ি সংঘর্ষে উত্তেজনা, মামলা পাল্টা মামলা
  • ধর্মনগরে উট দেখতে জলঢল
  • ১০ হাজার যাত্রীর উপযোগী করে নির্মাণ হচ্ছে আগরতলা নতুন টার্মিনাল
  • বামফ্রন্ট সরকারের বিরুদ্ধে জনদরবারে চার্জশিট দাখিল করলো বিজেপি
  • সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশিক্ষণ দিতে রাজ্যে এলেন রামমাধব

স্পেশাল আর্টিকেল

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

লাইফস্টাইল

আর্থিক সংকটে পরলে কী করবেন আপনি ? জেনেনিনি

জীবনে চলার পথে আর্থিক সংকট দেখা দিতেই পারে। জীবন সবসময় একইরকম ভাবে চলেনা। খারাপ ও ভাল দুটি সময়ই আমাদের জীবনে আসতে পারে। আর জীবনে ভাল করে চলতে গেলে প্রয়োজন অর্থের। কিন্তু জীবনে চলার পথে যদি দেখা দিয়ে থাকে আর্থিক সংকট, তখন বিষণ্ণতায় ডুবে না গিয়ে পজিটিভ মানসিকতা নিয়ে মোকাবেলা করুন এই দুঃসময়ের। অবশ্যই জয়ী হবেন। জেনে নিন এমন সময়ে কী করতে পারেন আপনি। ১। দৈনন্দিন জীবনের প্রয়োজনীয় ও অপ্রয়োজনীয় খরচের একটি তালিকা বানিয়ে ফেলতে পারেন। তালিকা বানানোর সময় পরিবারের সকলকে সেখানে উপস্থিত থাকতে বলুন। অপ্রয়োজনীয় খরচ কমিয়ে দিতে সবাইকে বলুন, তবে উত্তেজিত হয়ে না ঠাণ্ডা মাথায়। যারা ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেন তাঁরা আর্থিক সংকট চলাকালীন সময়ে কার্ড ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকাই উত্তম কাজ হবে। ২। আপনার যদি ব্যাংকে কোন ডিপিএস থাকে সেই ক্ষেত্রে ব্যাংকের কতৃপক্ষের সাথে কথা বলে নিন আপনার সমস্যা সম্পর্কে। কারণ যেহেতু আপনি এখন আর্থিক সমস্যায় আছেন স্বাভাবিক ভাবেই ব্যাংকের একাউন্টটে টাকা জমা রাখতে আপনার সমস্যা হবে, তাই আগেই ব্যাংক কতৃপক্ষকে জানিয়ে রাখলে আপনার জন্যই ভাল। চেষ্টা করবেন একেবারে ঠেকায় না পড়লে সঞ্চয়টি না ভাঙার জন্য। ৩। বাড়িতে চুপচাপ বসে না থেকে নিজেকে কোন না কোন কাজে ব্যস্ত রাখুন। যদি চাকরি হারিয়ে থাকেন তখন সেই সময়টুকু পরিবারকে সঙ্গ দিন। অযথা মন খারাপ করে বসে থাকলে তা আপনার জন্য ক্ষতিকর এবং এই সময়টিতে উচিত পুরো পরিবারের উচিত মিলেমিশে একে অপরকে যতটা সম্ভব সাহায্য করা। ৪। মনে রাখবেন, আর্থিক সমস্যা জীবনে হতেই পারে। তাই সঞ্চয়ী হওয়া খুব প্রয়োজন। তাহলে যখন যে মুহূর্তে আপনি কোন আর্থিক সমস্যায় পড়বেন, তখন সঞ্চয়ের টাকাই আপনাকে সমস্যা কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করবে। ৫। খুব সমস্যায় পড়লে আত্মীয়-স্বজনদের কাছ থেকে আর্থিক সাহায্য নিতে পারেন। তবে খুব সত্যি কথাটি হল বিপদের সময় অনেক আত্মীয়ই পিছিয়ে যান। তাই বলে সবাই না, কাউকে না কাউকে ঠিকই পাশে পাবেন। আপনাকে যে সাহায্য করবে তাঁর অর্থ যতটা দ্রুত সম্ভব ফিরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করুন যেন আপনার প্রতি আত্মীয়ের সহানুভূতি থাকে এবং অন্য কোন সময় বিপদে তাঁর কাছ থেকে সাহায্য নিতে পারেন।

10-06-2016 02:04:36 pm

এই গরমে ত্বকের কালসেটে দাগ দূর করার উপায়

৮ই জুন (এ.এন.ই) প্রচণ্ড রোদে ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হয়। বিশেষ করে রোদের কবলে পড়ে ত্বকে পোড়া দাগ পড়ে যায়। কিন্তু ঘরোয়াভাবেই এ দাগ দূর করা যায়। সেইসঙ্গে যথাসম্ভব রোদ এড়িয়ে চলার চেষ্টা করতে হবে। নিচে রোদের পোড়া দাগ দূর করার উপায় নিয়ে আলোচনা করা হলো : ১. ঠাণ্ডা জল দিয়ে চান করতে হবে। ২. ১/২ কাপ ভিনেগার চানের জলে মিশিয়ে নিন। তারপর ওই জল দিয়ে চান করে নিন। ভিনেগার আছে এসিড বা অ্যাল্কানিটি যা দাগযুক্ত জায়গা গুলোতে pH এর মাত্রা সামঞ্জস্য ঠিক এবং শরীরকে ঠাণ্ডা করে। ৩. অ্যালোভেরা লোশন ব্যবহার করতে পারেন যা আপনার ত্বককে আর্দ্র করবে। ৪. একটি পাত্রে শীতল দুধ নিন একটি তোয়ালে দিয়ে ভিজিয়ে দাগযুক্ত স্থানে লাগান। দুধে আছে প্রোটিন যা রোদে পোড়া স্থানের জ্বালা থেকে থেকে আরাম দেয়। ৫. ভিটামিন 'ই'যুক্ত তেল ব্যবহার করতে পারেন। ভিটামিন 'ই' এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহে চামড়ার র‍্যাশ দূর করতে সাহায্য করবে। যদি কেউ তেল হাতের কাছে না পান তাহলে ভিটামিন 'ই' ক্যাপসুলও খেতে পারেন। ৬. শশাতে আছে প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং বেদনানাশক বৈশিষ্ট্য। একটি শশা ধুয়ে নিন এটিকে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে আক্রান্ত স্থানে ২০-২৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ৭. ওটমিল সামান্য জলে মিশিয়ে চানের আগে পুরো শরীরে ম্যাসাজ করুণ। এতে পোড়া ত্বকের সমস্যার সমাধান হবে। ৮. বাসায় ফিরে আলু ব্লেন্ড করে মুখে লাগান। এতে কালচে ভাব দূর হবে এবং পুড়ে যাওয়ার কারণে ত্বকে যে জ্বালাপোড়া করে সেটিও দূর হবে। ৯. চায়ের জলে ত্বকের পোড়া দাগ দূর করে সহজেই। গরম জলের মধ্যে টি ব্যাগ কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। এবার এই জল ঠাণ্ডা করে মুখে লাগান। ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফল পেতে নিয়মিত এভাবে চায়ের জল দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন।

08-06-2016 03:33:39 pm

আকর্ষণীয় ঠোঁটের বিভিন্ন উপায় জেনে নিন

৬ই জুন (এ.এন.ই) মেইকাপের ক্ষেত্রে ঠোঁটের একটা আলাদা কদর আছে। বিশেষ করে মেয়েরা যখন মেইকাপ করে তখন সেই ক্ষেত্রে ঠোঁটের শেইপের উপর নির্ভর করে আপনার চেহেরার সুন্দয্য। কারোর ঠোঁট হয় বড়, কারোর হয় পাতলা, কারোর হয় মোটা, আবার কারোর নিচের ঠোঁট হয় মোটা। তবে এই নিয়ে আপনি একদম চিন্তা করবেন না। আপনি আপনার ঠোঁটের শেপ অনুযায়ী মেকআপ করবেন। প্রথমে অবশ্যই লিপস্টিক লাগানোর আগে ঠোঁটে লিপ লাইন করে নেবেন তারপর লিপস্টিক লাগাবেন। তবে আপনি কোথায় যাচ্ছেন তার উপরেও নির্ভর করছে আপনি কিভাবে লিপস্টিক লাগাবেন। একটা কথা রাখবেন ঠোঁট যেমনই হোক না কেন লিপকালার লাগনর আগে দরকার সঠিক আউট লাইন। তাই লিপকালার লাগানোর আগে খুবই যত্ন সহকারে আউট লাইন করে নেবেন এতে করে দেখবেন আপনার চেহেরা আরও বেশে সুন্দর হয়ে উঠেছে।

06-06-2016 05:15:24 pm

লিপস্টিকঃ এবার রাশি অনুযায়ী আপনি ব্যাবহার করতে পারেন

৬ই জুন (এ.এন.ই) নারীর সাজের অন্যতম উপকরণ হলো লিপস্টিক। যারা রাশি নিয়ে আগ্রহী তাদের জন্য চমকপ্রদ তথ্য রয়েছে। রাশি অনুযায়ী লিপস্টিকের রং নির্বাচন করতে পারেন আপনি। আপনার রাশির সাথে মিলিয়ে জেনে নিন কোন লিপস্টিক লাগাবেন: মেষ: যাদের মেষ রাশি তাঁরা লাল রঙের লিপস্টিক ব্যাবহার করতে পারেন। আরও দুটি রঙের লিপস্টিকও লাগাতে পারেন। যথা: বাদামি ও কমলা। তবে গাঢ় রং-ই আপনার জন্য সেরা। আর এড়িয়ে চলুন হালকা গোলাপি রঙের লিপস্টিক। বৃষ : মিষ্টি গোলাপী বেছে নিন। বৃষ রাশির নারীদের এটি লাকি কালার। তাছাড়াও বেগুনি, খয়েরি ও প্যাস্টেল শেডের লিপস্টিক পরতে পারেন। এড়িয়ে চলুন লাল রং। মিথুন: কমলা রঙ আপনার জন্য লাকি। আর গোল্ডেন ব্রাউন কালারও পরতে পারেন। তবে কখনোই লাল নয়। কর্কট : হালকা বাদামী (ব্রাউন) রং আপনার জন্য সেরা। মেটালিক রং পরলেও সমস্যা নেই। আপনি এড়িয়ে চলুন প্যাস্টেল শেড। সিংহ : কমলা শেডের লিপস্টিক পরুন। এই রং আপনার জন্য লাকি। এছাড়া গাঢ় লাল, পার্পল, কোরাল বা মেটালিক শেডের লিপস্টিকেও ঠোঁট রাঙাতে পারেন। এড়িয়ে চলুন ফ্যাকাসে বা প্যাস্টেল রং। কন্যা : কন্যা রাশির জাতিকাদের জন্য লাকি রং অর্কিড। এছাড়া খয়েরি, নেভি ব্লু, খাকি, হালকা হলুদ রঙ নিয়েও এক্সপেরিমেন্ট করতে পারেন। তুলা: হালকা শেডের লিপস্টিক আপনার জন্য লাকি। হালকা গোলাপি, পার্পল শেডের লিপস্টিক পরতে পারেন। বৃশ্চিক: বৃশ্চিকের জাতিকাদের জন্য গাঢ় গোলাপি বা লাল লাকি। তাছাড়াও বার্গেন্ডি, মেরুন, পার্পল শেডের লিপস্টিক পরতে পারেন। যেকোনও হালকা রঙ এড়িয়ে চলুন। ধনু : পার্পল শেডের লিপস্টিক আপনার জন্য পারফেক্ট। তাতে হালকা রূপালি টাচ রাখতে পারেন। গাঢ় লাল রঙের লিপস্টিক না পরাই ভালো। মকর: বেগুনিই আপনার জন্য লাকি শেড। মেটালিক ভায়োলেট ছাড়া অন্য কোনও রকম আপনার জন্য লাকি নয়। কুম্ভ: খয়েরি বা ব্রোঞ্জ শেডের লিপিস্টিক আপনার জন্য সেরা। এড়িয়ে চলুন কমলা রঙের লিপস্টিক। মীন: অ্যাকোয়া ব্লু আপনার জন্য লাকি। বেগুনি রঙের লিপস্টিকও পরতে পারেন। এড়িয়ে চলুন গাঢ় শেডের লিপস্টিক।

06-06-2016 12:34:10 pm

গরমের দিনে কি ধরনের ড্রেস পরবেন সমস্যা হচ্ছে তাঁর সমাধানের বিভিন্ন উপায়

৫ই জুন (এ.এন.ই) গ্রীষ্মের এই পরন্ত বেলায় রোদের প্রচণ্ড দাবদাহে কোনখানে যেতে ইচ্ছে করে না অথচ না গেলে নাই হয় যেমন পার্টিতে হোক কিংবা বন্ধুর বাড়িতে কিংবা কাছের মানুষটির সাথে ডেটিং যেতে কিংবা সিনেমা দেখতেই হোক। তখন আমরা সিলেক্টশান করতে পারিনা কোন ড্রেস টা পরে যাব তবে এই ক্ষেত্রে ছেলেদের তুলনায় মেয়েদেরেই একটু অসুবিধা হয়ে থাকে। ভাবনা কিসের অসুবিধা যেমন আছে তেমনেই তাঁর সমাধান ও আছে। এক্ষেত্রে আমাদের এমন কিছু ড্রেস সিলেক্ট করতে হবে সেটা আমাদের কে দেখতে খুব সুন্দর লাগবে এবং গরম কম লাগবে। আজকে আমরা শারীর কথা বলব। শারী কিন্তু আপনারা সব জায়গায় পরে যেতে পারেন তবে এক্ষেত্রে সেটা চয়েস করতে হবে আপনাদের পরিবেশ অনুযায়ী। আপনি কোথায় যাবেন কোন পার্টিতে যাবেন না পরিবারের সাথে কোন বিয়ের অনুষ্ঠানে যাবেন না বয়ফ্রেন্ড সাথে ডেটিং যাবেন। যদি মনে করেন আপনার শারি পরতে খুব ভাল লাগে তাহলে এইক্ষেত্রে আপনি খুব উজ্জ্বল শারী পরবেন না হালকা শারী পরবেন বিশেষ করে সাদা, হালকা সবুজ এই ধরনের শারী পরবেন। এতে আপনাকে দেখতে ও ভাল লাগবে এবং এই গরমের দিনেও আপনার গরম ও কম লাগবে। তবে আপনি যদি পার্টি যান তখন একটু উজ্জ্বল শারী পরা উচিত কিন্তু আপনি ;টা পরতে ইচ্ছুক নন তাতেও কোন অসুবেধে নেই এই ক্ষেত্রে আপনি হালকা শারী পরুন ব্লাউজ টা একটু উজ্জ্বল পরুন দেখবেন দেখতে ভাল লাগবে। তবে গরমের দিনে শারীর পরার সাথে সাথে আপনার মেইকাপ কিন্তু সেই রকমই হওয়া উচিত একদম হালকা দেখতে আপনা কে সুন্দর লাগবে। আর হেঃ অবশ্যই এই গরমের দিনে আপনি আপনার ব্যাগের মধ্যে চিরুনি, টিসু পেপার, সান ক্রিম লোশান্‌, ছাতা এবং জলের বোতল রাখবেন। আপনি দিনের বেলায় যখন কোনখানে বের হবেন তখন অবশ্যই সান ক্রিম লোশন ব্যাবহার করবেন। অবশ্যই সানগ্লাস পরবেন এবং শারির সাথে ম্যাচ করে জুতো পরবেন পার্টির ক্ষেত্রে একটু হাই হিলের জুতো পরবেন তবে দেখবেন এমন জুতো পরবেন যাতে করে আপনার চলা ফেরা করতে সুবিধে হয়।

05-06-2016 02:42:35 pm

সুখী দাম্পত্যের জীবনের কিছু অজানা তথ্য জেনে নিন

৪ঠা জুন (এ.এন.ই) বড় বাড়ি, দামী গাড়ি, দামী দামী গয়না, সুইজাল্যান্ডে ঘুরতে যাওয়া এই সবই কি একটা সুখী দাম্পত্যের জীবনে অনেক সুখ এনে দিনে পারে। না এই গুলি সুখ এনে দিতে পারে না হয়তো জীবনে সাময়িক সুখ ও শান্তি এনে দিতে পারে। সত্যি কথা বলতে একটা সুখী দাম্পত্যের জীবনে তখনই সুখ ও শান্তি আসবে যেখানে থাকবে একে অপরের প্রতি বিশ্বাস, ভালোবাসা। মানুষের ব্যস্ততা তো সবসময় ছিল, আছে আর থাকবেই। তবে এই ব্যস্ততার মাঝেও আপনাকে ঠিক সময় খুঁজে বের করতে হবে আপনার সঙ্গীর জন্য। আপনার সঙ্গী কে একটু সময় দিতে হবে। এরফলে আপনার এই কথা বলতে চাওয়ার ইচ্ছে আর মনোভাবটাই আপনার সঙ্গীকে জানান দেবে যে আপনি তাকে কতটা ভালোবাসেন। হয়তো খুব একটা কঠিন কিছু নয় এটি। তবে এই খুব সহজ কাজটি না করার কারণেই কিন্তু তৈরি হয় প্রচন্ড জটিল অনেক সমস্যা। ভেঙে যায় সম্পর্ক! নিজের অনুভূতি ও ভাবনা নিয়ে কথা বলুন। আপনার সঙ্গী কিন্তু আপনার সম্পর্কে কখনোই সবটা জানতে পারবে না। ঠিক তেমনটি পারবেন না আপনিও। আর তাই যেকোন ব্যাপরে নিজের চাওয়া-পাওয়ার কথা জানান তাকে। নিজেও তারটা জানুন। এতে করে হয়তো নতুন অনেক কিছু জানতে পারবেন আপনারা নিজেদের সম্পর্কে। খুব সামান্য একটা মিথ্যে হয়তো আপনি কখনো বলছেন এখন আপনার সঙ্গীকে। তারমানে কিন্তু এই নয় যে সেটার কোনরকম কোন প্রভাব পড়ছে না কোথাও। এখন হয়তো পড়ছে না। কিন্তু কে জানে! হয়তো পরবর্তী কোন একসময় সত্যিটা জেনে গেলে সে। আর মিথ্যে যত ছোটই হোক না কেন সেটা মিথ্যেই। আর তাই সত্যি বলুন। মন খুলে বলুন। এতে করে আপনাদের একে অপরের দুরত্ব অনেক কমে আসবে। কেবল নিজেই না বলে অন্যকেও বলতে দিন। কথা বলা মানে এই নয় যে কেবল নিজেই বলে চলা। কথা বলার ভেতরে খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ হচ্ছে অন্যকেও বলতে দেওয়া। আর তাই সঙ্গীকেও বলতে দিন আর তার কথা মন দিয়ে শুনুন। এমনিতে হয়তো এই ছোট্ট ব্যাপারটিকে খুব একটা দরকারী মনে হচ্ছে না আপনার। কিন্তু বাস্তবে এই ছোট্ট একটি উপাদানই বছরের পর বছর ধরে আরো বেশি মিষ্টি করে তুলছে সম্পর্কগুলোকে। দেখুন না একটু চেষ্টা করে।

04-06-2016 07:14:22 pm

চুলের যত্নে নারিকেল তেলের উপকারিতা জেনে নিন

৪রা জুন (এ.এন.ই): চুলের যত্নে নারিকেল তেলের কোনো বিকল্প নেই। যুগ যুগ বাংলার নারী পুরুষ বিশেষ করে নারীরা এই তেল ব্যবহার করছে। তবে শুধু চুলের যত্নে নয়, স্বাস্থ্য সুরক্ষায়ও নারিকেল তেলের জুড়ি নেই। যুগ যুগ ধরে চুলের যত্ন থেকে শুরু করে মানসিক ক্লান্তি দূর, হজমে সহায়তা, ত্বকের যত্মে, কর্মক্ষমতা বৃদ্ধিসহ কাঁটা-ছেড়ার চিকিৎসায়ও প্রাথমিক পথ্য হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে এই তেল। নারিকেল তেলে রয়েছে অধিক মাত্রায় ফাইবার, খনিজ পদার্থ এবং ভিটামিন। তবে অনেকেই হয়তো জানেন না, নারিকেল তেল পরিপাক প্রক্রিয়াকে নিয়ন্ত্রণ করে অতিরিক্ত মেদও দূর করতে সহায়তা করে। এতে পরিমিত মাত্রায় ফ্যাটি এসিড থাকে যা অত্যাধিক ওজন এবং পেটের চর্বি কমাতে সাহায্য করে। অতিরিক্ত মেদ বা চর্বি কমাতে কীভাবে নারিকেল তেল ব্যবহার করবেন তা নিয়ে নিচে আলোচনা করা হলো : ১. মাখনের পরিবর্তে নারিকেল তেল দিয়ে তৈরি রুটি পেটের অতিরিক্ত মেদ কমাতে সাহায্য করে। ২. ভুট্টার খইয়ের সঙ্গে নারিকেল তেল খেতে পারেন। ভুট্টা আর নারিকেল তেল দুটোই ফ্যাটমুক্ত। এই খাবার ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারে। ৩. ক্যালোরির পরিমাণ কমাতে খাবারের ওপর ভিনেগার ও অন্য তেলের সঙ্গে নারিকেল তেল দিতে পারেন। যেমন অলিভ অয়েলের পরিমাণ অর্ধেক কমিয়ে বাকি অর্ধেক নারিকেল তেল দিতে পারেন। এতে করে খাবারে ক্যালরির পরিমাণ অনেক কমে যাবে। ৪. শাক-সবজি রান্নার ক্ষেত্রেও এই তেল ব্যবহার করতে পারেন। প্রয়োজনে এর সঙ্গে লেবুর রস, সুগন্ধি মেশাতে পারেন।

04-06-2016 12:15:47 pm

''সেলফি'' তুলে অনলাইনে শপিং করা যাবে জানালেন শপিং সাইট ''এ্যামাজন''

৩১মে (এ.এন.ই): ''লেলেরে লেলেরে তু সেলফি তু লেলেরে'' হ্যাঁ এবার কিন্তু সেলফি তুলে অনলাইনে শপিং করা যাবে এমনটাই জানালেন বিশ্বখ্যাত অনলাইন শপিং সাইট এ্যামাজন। এ্যামাজন জানিয়েছে, পাসওয়ার্ডের জায়গায় সেলফি ব্যবহার করেই ক্রেতারা তাদের সাইট থেকে কেনাকাটা করতে পারবেন। এর আগে মাস্টারকার্ডও এ ধরনের পাসওয়ার্ড ব্যবহারের ঘোষণা দিয়েছিল। প্রচলিত পাসওয়ার্ডের চেয়ে সেলফি ব্যবহার করা অনেক বেশি নিরাপদ। হ্যাকাররা হয়তো আপনার পাসওয়ার্ড নকল করতে পারবেন কিন্তু চেহারাটি তো আর নকল করা সম্ভব নয়। এ্যামাজনের ‘ফেসিয়াল রিকগনিশন সিস্টেম’ ব্যবহারকারীকে তার সেলফি দেখে চিনে নেবে, ফলে চোরও আপনার ফোন বা ল্যাপটপ দিয়ে কেনাকাটা করতে পারবে না। অবশ্য সেলফি তোলার বদলে ছোট্ট একটা ভিডিও আপলোড করেও এই কাজ করা যাবে। এ্যামাজনের কর্তাব্যক্তিদের বক্তব্য হলো, স্মার্টফোনের ছোট্ট টাচপ্যাডে বড়সড় পাসওয়ার্ড টাইপ করা একটি কঠিন কাজ। তাছাড়া পাসওয়ার্ড টাইপ করার সময় সাবধানে থাকতে হয় যাতে পাশের কেউ না জেনে ফেলে। এই সব সমস্যা দূর করার জন্যই তারা এই সেলফির সুবিধা চালু করেছে। তবে ঠিক কবেনাগাদ এই সুবিধা চালু করা হবে তা জানায়নি এ্যামাজন কর্তৃপক্ষ।

31-05-2016 04:47:38 pm

এবার অ্যাপই বলে দেবে কবে মা হওয়ার ঝুঁকি নেই

আগরতলা,২৭,মে (এ.এন.ই): কোন দিনে যৌন সঙ্গম করলে গর্ভবতী হওয়ার ঝুঁকি থাকবে না, এই হিসেব সবসময় ঠিক ফল দেয় না। তাই 'টেনসন ফ্রি' হতে মহিলারা বেছে নেন কন্ট্রাসেপটিভ পিল। কিন্তু সেখানেও থেকে যায় ঝুঁকি। এবার এইসব চিন্তা থেকে মুক্তি দিতে এসে গেছে অ্যাপ। অ্যাপই এবার বলে দেবে কোন দিনটা আপনার জন্য 'রাইট টাইম'। কোন দিনে থাকবে না কোনও ঝুঁকি। অ্যাপ্লিকেশনসের দুনিয়ায় আসছে নতুন অ্যাপ, 'ন্যাচরাল সাইকেলস'। এই ফার্টিলিটি অ্যাপ আপনাকে আগাম জানিয়ে দেবে কোন দিনে যৌন সঙ্গম করলে থাকবে না গর্ভবতী হওয়ার ঝুঁকি। প্রতিদিন সকালে এই অ্যাপ মহিলাদের শরীরের তাপমাত্রা যাচাই করে বানিয়ে ফেলবে ফার্টিলিটি ডেটা প্ল্যান। এই ডেটা প্ল্যান বলে দেবে কোনদিন মা হওয়ার জন্য আদর্শ আর কোন দিন 'Infertile'। ডেটা প্ল্যান হাতে পাওয়ার পর বিশেষ দিনগুলিতে সাবধানতা অবলম্বন করলেই আর থাকবে না অনিচ্ছাকৃত মাতৃত্বের ঝুঁকি। থাকবে না নিয়মিত কন্ট্রাসেপ্টিভ নেওয়ার ঝামেলাও।

28-05-2016 01:54:40 pm

ঠোঁট কি করে সুন্দর রাখবেন? জেনে নিন

২২ মে (এ.এন.ই): বাড়ি থেকে বের হওয়ার আগে অনেকেই মুখে এবং শরীরের বিভিন্ন অংশে ভালো করে সানস্ক্রিন লাগিয়ে শরিরের যত্ন নেয়। কিন্তু আমরা কি আমাদের ঠোঁটের ক্ষেত্রে কোন যত্ন নিয়ে থাকি ? শরীরের অন্য অংশের মতোই আপনার ঠোঁটকেও সূর্যের কড়া রশ্মির হাত থেকে বাঁচানো খুব দরকার। আমাদের ঠোঁটের চামড়া শরীরের অন্য অংশের থেকে অনেক পাতলা তাই এর ক্ষতির প্রবণতাও অনেক বেশি। রোজ তাই সূর্যের রশ্মি লেগে কোলাজেন উৎপাদন কমে যায়, এবং এর ফলে ঠোঁট আরো শুষ্ক হয়ে যায়। এছাড়াও ঠোঁটে কালো ছোপ পড়াও খুব সাধারণ ঘটনা। আসুন দেখে নিন আপনার ঠোঁট কে কীভাবে ঠিক রাখবেন : ১. সকালে অফিস যাওয়ার আগে হোক বা ছুটি কাটাতে কোন সমুদ্রের ধারে হোক বাড়ি থেকে বেরোনোর আগে অবশ্যই ব্রড স্প্যেকট্রাম লিপ বাম লাগান। ব্রড স্প্যেকট্রাম লিপ বাম মানে এটা আপনাকে UVA এবং UVB রশ্মির থেকে সুরক্ষা দেয়। লিপ বাম কেনার আগে অবশ্যেই দেখে নিন তাতে যেন অন্তত SPF 15 থাকে। দিনে অন্তত তিন বার ঠোঁটে লিপ বাম লাগান। ২. অনেক লিপস্টিকে আজকাল এসপিএফ থাকে। এছাড়াও অনেক লিপস্টিকে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও থাকে। তাই লিপস্টিক কেনার আগে এইগুলো দেখে নিন। এছাড়াও যদি পারেন প্যারাফিন দেওয়া লিপস্টিক কেনার চেষ্টা করুন। এর ফলে ঠোঁটের ময়শ্চার সহজে উড়ে যায় না। ৩.এছাড়াও খুব চকচকে লিপ গ্ল্যস বা পেট্রলিয়াম জেলি এড়িয়ে চলুন। কারণে এরা সহজেই সূর্যের রশ্মি কে আকর্ষণ করে। এই একই কারণের জন্য হাই গ্ল্যস লিপস্টিকও এড়িয়ে চলুন। তবে ঘরে তৈরি এই লিপ গ্ল্যস ব্যবহার করতেই পারেন। বাড়িতে লিপ গ্ল্যস তৈরি করার পদ্ধতি : যা যা লাগবে : ১) ২ চা চামচ মধু‚ আমন্ড তেল এবং ভিটামি E তেল। ২) ৩ চা চামচ স্ট্রবেরী পাল্প সবগুলো ভালো করে মিশিয়ে নিন। একটা গাঢ় পেস্ট তৈরি করুন। একটা পরিষ্কার ছোট বোতলে এই মিশ্রণ রেখে দিন। দিনে তিন থেকে চারবার লাগান। এই ঘরে তৈরি লিপ গ্ল্যস ফ্রিজে রাখলে এক সপ্তাহ অবধি ঠিক থাকে। ওপরের পদ্ধতিগুলো মেনে চলেও যদি দেখেন যে সূর্যের রশ্মির কারণে আপনার ঠোঁট পুড়ে গেছে তাহলে চিনি আর অলিভ অয়েল একসঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে ঠোঁটের ওপর আলতো করে ম্যাসাজ করুন। এর ফলে মৃত কোষ সহজেই উঠে যাবে। এবং আপনার ঠোঁট আবার নরম এবং কোমল হয়ে উঠবে। যদি এতেও ফল না হয় তাহলে অবশ্যই কোন ডারমাটোলজিস্টের সাহায্য নিন।

22-05-2016 03:36:37 pm

দাত সুন্দর রাখার গুণাবলী জেনে নিন

২০ মে (এ.এন.ই): সুন্দর দাত কে না চায়? কিন্তু আমরা অনেকেই নিজের দাত কে সুন্দর রাখী না এবং রাখার চেষ্টা ও করি না। অনেকেই খাওয়ার পর দাঁত পরিষ্কার রাখতে ব্রাশ করে থাকেন। এটি তবে দাঁতের উপকার করে নাকি ক্ষতি করে এ বিষয়ে অনেকেরই সন্দেহ রয়েছে। কিন্তু চিকিৎসকরা এ বিষয়ে কী বলেন? চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অতিরিক্ত ব্রাশ করায় দাঁতের উপকারের চেয়ে ক্ষতি বেশি করতে পারে। তবে এটি যদি খাওয়ার পর হয়? অনেকেই প্রতি বেলায় খাওয়ার পর ব্রাশ করে থাকেন। এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা বলেন, অতিরিক্ত দাঁত ব্রাশ করা উচিত নয়। এক কাপ কফি কিংবা যে কোনো খাবার খাওয়ার পরই যদি আপনার দাঁত ব্রাশ করা অভ্যাস থাকে তাহলে তা দাঁতের ক্ষতি করতে পারে। চিকিৎসকদের মতে ‘আমাদের দিনে দুই বার করে ব্রাশ করা উচিত। প্রতিবার খাওয়ার পরে ব্রাশ করার প্রয়োজন নেই। এছাড়া আমরা কোন ধরনের খাবার খেয়েছি তার ওপরও অনেক বিষয় নির্ভর করে। আমরা যদি কোলা কিংবা লেবুজাতীয় এসিডিক খাবার খাই তাহলে তা দাঁতের এনামেলকে ক্ষয় করে দেয়। আর এর পর পরই আপনি যদি দাঁত ব্রাশ করেন তাহলে সে এসিডকে আপনি দাঁতের আরও ভেতরে ঢুকিয়ে দেবেন। তাই এ ধরনের খাবার খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দাঁত ব্রাশ করা উচিত নয়।’ চিকিৎসকরা বলছেন, এনামেলের বিষয়টি চিন্তা করে খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই দাঁত ব্রাশ করা উচিত নয়। কারণ খাওয়ার পর দাঁতের এনামেল ক্ষয় হয়ে যায়। এক্ষেত্রে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর দাঁত ব্রাশ করা উচিত।

21-05-2016 03:56:45 pm

মোবাইল ফোন থেকে হতে পারে ব্রেন টিউমার

২০ মে (এ.এন.ই): মোবাইল ফোনই ৪৪ বছর বয়সে প্রাণ নিল ব্রিটেনের ইয়ান ফিলিপসের। মাথায় ছোট্ট একটি টিউমার ছিল, চিকিৎসকরা সারিয়েও দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, বেশিক্ষণ ফোনে কথা বললে ফিরে আসতে পারে টিউমার। অপারেশনের পরে তাই টিউমার নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে, বন্ধুকে নিয়ে একটি সংগঠন তৈরি করেছিলেন তিনি। সংগঠনের মাধ্যমে তোলা টাকা ক্যান্সার চিকিৎসার ফান্ডে পৌঁছে দিতেন। সচেতনতা বাড়াতে অনুষ্ঠানও করতেন। কিন্তু, স্বাস্থ্য পরামর্শদাতা হিসেবে কর্মরত ফিলিপসকে দিনে প্রায় ৬ ঘণ্টা ফোনে কথা বলতে হত। বাধ্য হয়েই একটা সময়ের পর আলাদা রিসিভার ব্যবহার করতে শুরু করেছিলেন তিনি। তেজস্ক্রিয়তা এড়াতে মোবাইলে লাগিয়ে নিতেন সেই রিসিভার। কিন্তু মরণব্যধি ছাড়েনি তাঁকে। ফোনের তেজস্ক্রিয়তায় ফিরে এল টিউমার। চিকিৎসকরা বলছেন, ফিলিপসের মৃত্যুর একমাত্র কারণ অতিরিক্ত ফোন ব্যবহার। সারা পৃথিবী জুড়েই মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে বাড়ছে ব্রেন টিউমার। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে কমবয়সীরা। তাদের স্নায়ুতে তেজস্ক্রিয়তার প্রভাব পড়ছে সবচেয়ে বেশি।‌

21-05-2016 03:37:06 pm

কোচিং সেন্টারের বাড়বাড়ন্ত ঠেকাতে আই আই টি অ্যাপ আনছে কেন্দ্র

নয়াদিল্লি, ১৮ মে (এ.এন.ই): আই আই টি ভর্তির পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য দেশে গজিয়ে উঠেছে গুচ্ছের কোচিং সেন্টার। তাদের এই বাড়বাড়ন্ত ঠেকাতে কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক নিয়ে আসছে অভিনব আই আই টি অ্যাপ। মোবাইল ভিত্তিক এই অ্যাপের মাধ্যমে ডাউনলোড করে দেখা যাবে বিভিন্ন বিষয়ে আই আই টি শিক্ষকদের পাঠ এবং ৫০ বছরের আই আই টিতে পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের সমাধান। বুধবার বেসরকারি ডিমড বিশ্ববিদ্যালয়গুলির সংগঠন ই পি এ এফ টিতে জানালেন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি। শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণে উদ্বেগ জানিয়ে স্মৃতি বলেন, বাইরের কোচিং সেন্টারের সাহায্য নেওয়াটা ছাত্রদের কাছে সবচেয়ে বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এজন্যই আগামী দুই মাসের মধ্যে সরকার এই আই আই টি পোর্টাল এবং মোবাইল ফোনের উপযোগী আই আই টি আ্যাপ আনতে চলেছে। এখানে আই আই টির শিক্ষকদের মাধ্যমে অনেক কিছু বিষয়ে অতিরিক্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় জানার সুযোগও পাবে ছাত্ররা। এই অ্যাপ এবং পোর্টালে বিভিন্ন বিষয়ে আইআইটি-র শিক্ষকদের লেকচার এবং প্রবেশিকা পরীক্ষার পুরনো প্রশ্ন পাওয়া যাবে| সারা দেশের পড়ুয়াদের কথা মাথায় রেখে ১৩টি ভাষায় লেকচার ও প্রশ্ন থাকবে। এরই সঙ্গে পড়ুয়াদের সুবিধার জন্য আইআইটি-র প্রবেশিকা পরীক্ষার প্রশ্নপত্র দ্বাদশ শ্রেণির সিলেবাসের সঙ্গে সঙ্গতি বজায় রেখেই করা হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানী। স্মৃতি বলেছেন, কোচিং ভীতির ফলে ছাত্র-ছাত্রীদের উপর মারাত্মক চাপ থাকে। সেই কারণেই সরকার পড়ুয়াদের সাহায্য করতে চাইছে। এই অ্যাপে যেমন বিনামূল্যে আইআইটি প্রবেশিকা পরীক্ষার প্রস্তুতির বিষয়ে সাহায্য পাওয়া যাবে, ঠিক তেমনই গত ৫০ বছরের প্রবেশিকা পরীক্ষার প্রশ্ন পাওয়া যাবে। ভুয়ো বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করার জন্য রাজ্য সরকারগুলিকে উদ্যোগী হওয়ার অনুরোধ করেছে কেন্দ্র। যে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে অন্যায়ভাবে অতিরিক্ত অর্থ নিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্মৃতি। তিনি জানান, আই আই টি কাউন্সিল এখন ঠিক করেছে, ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র হবে বারো ক্লাসের পাঠক্রম অনুসারে। বেশ কিছু বেসরকারি প্রযুক্তি কলেজের কাজকর্মে উষ্মা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আমরা সকলেই জানি ক্যাপিটেশন ফি নেওয়া নিষিদ্ধ| পাঠবর্ষের মাঝখানে হঠা করে ছাত্রদের থেকে টাকা চাওয়া যায় না| তৱুও কিছু প্রতিষ্ঠান এমন সব বেআইনি কাজ করে চলেছে।

18-05-2016 09:39:58 pm

ঘুম থেকে উঠে যে কাজ গুলো ভুলেও করবেন না আপনি

আগরতলা, ১৮ মে (এ.এন.ই): ঘুম থেকে ওঠার পরে কী কী করা যেতে পারে সেই বিষয়ে হয়ত অনেক সময় ভেবেছেন। কিন্তু জানেন কি, ঘু‌ম থেকে ওঠার পরে কী কী করা উচিত নয়? জীবনকে আর একটু স্বাস্থ্যসম্মত করে তুলতে ঘুম থেকে উঠে এই ৭টি কাজ করবেন না। ১. অ্যালার্ম বন্ধ করে আবার ছোট্ট ঘুম ঘুমিয়ে নেবার জন্য শোবেন না। এতে আপনার শরীর আবার গভীর ঘুমের দিকে যাত্রা করে। কিন্তু কাজের তাড়ায় পর্যাপ্ত ঘুমানো আপনার পক্ষে সম্ভব হয় না। ফলে ঘুম থেকে উঠেও ঘুম-ঘুম ভাব আর যেতে চায় না। ২. ঘুম থেকে উঠে বিছানায় কুঁকড়ে শুয়ে থাকবেন না। বরং আড়মোড়া ভাঙুন। ঘুম থেকে উঠে আড়মোড়া ভাঙলে শরীরে আনন্দের ভাব সঞ্চারিত হয়। যেটা সারাদিনের কাজকর্মেও সঞ্চারিত হয়। ৩. ঘুম থেকে উঠেই নিজের মোবাইলটি ঘাঁটাঘাঁটি শুরু করবেন না। এতে জীবনের সমস্যা, অপ্রত্যাশিত উপহার, বা প্রিয়জনের প্রত্যাশা— সব কিছুর আবর্তে আচমকা গিয়ে পড়তে হয়। এর জের সারাদিন ধরে বয়ে বেড়াতে হয়। ৪. বিছানা অগোছালো রেখে অন্য কাজে হাত দেবেন না। বরং ঘুম থেকে উঠেই বিছানার বালিশ-চাদর ইত্যাদি ঠিকঠাক করে নিন। দেখবেন, এর ফলে সারাদিনের কাজই গুছিয়ে করবার প্রবণতা বাড়বে আপনার মধ্যে। ৫. ঘুম থেকে উঠেই কফি খাবেন না। মানবশরীরে সাধারণভাবে সকাল ৮টা থেকে ৯টার মধ্যে করিস্টোল নামের একটি হরমোন উৎপন্ন হয়। এই হরমোন উদ্বেগ কমাতে সাহায্য করে। ক্যাফিন (যা কফিতে থাকে) এই হরমোনের উৎপাদনে বাধা দেয়। কাজেই কফি যদি খেতেই হয় তাহলে সকাল সাড়ে ৯টার পরে খান। ৬. দিনের কাজের জন্য যখন প্রস্তুত হচ্ছেন তখন অন্ধকারে তৈরি হবেন না। দিনের আলো আমাদের শরীরকে কাজের জন্য প্রস্তুত হতে সাহায্য করে। তাই ঘুম ভাঙার পরে দিনের আলোর মুখোমুখি হওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ। ৭. ঘুম থেকে ওঠার পরেই সারাদিন কী কী করবেন সেই ভাবনায় ডুবে যাবেন না। বরং ঘুম ভাঙার পর মস্তিস্ককে নিজের ছন্দে চলতে দিন। সে নিজে থেকে যা ভাবার ভাবুক। সচেতন ভাবনাগুলোকে তুলে রাখুন বাকি দিনের জন্য।

18-05-2016 01:26:36 pm

সন্তান পালনে এবার সবেতন ছুটি পাবেন দেশের বাবারাও

নয়াদিল্লি,১৭ মে (এ.এন.ই): এবার থেকে সন্তান পালনে সবেতন ছুটি পাবেন দেশের বাবারাও। ২০১৬-র নারী সংক্রান্ত জাতীয় নীতিতে সেরকমই আভাস পাওয়া যাচ্ছে। এই নীতির খসড়ায় সন্তানের লালন-পালনের জন্য বাবাদেরও ছুটির কথা উল্লেখ করা হয়েছে। মঙ্গলবার সামনে এসেছে এই খসড়া। শুধুমাত্র মহিলাদের জন্যই নয়, পুরুষদের জন্যও সন্তান লালন পালনের জন্য বেতনসহ ছুটির কথা বলা হয়েছে সেখানে। স্পষ্ট উল্লেখ করা হয়েছে, পরিবার বান্ধব নীতি তৈরির চেষ্টা করা হবে। চাইল্ডকেয়ারের জন্য মহিলা ও পুরুষ উভয়কেই সবেতন ছুটি দেওয়া হবে। পরিবার ও কাজের সমতা আনতে সংগঠিত ও অসংগঠিত দুই ক্ষেত্রেই এই নিয়ম কার‌্যকর হবে। ভারতের প্রাইভেট ফার্মকে আরও বেশি মহিলাদের উপযোগী করে তোলার লক্ষ্যও রয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের। যাতে আরও বেশি করে মহিলাকর্মী কাজ করতে পারে প্রাইভেট সেক্টরে।

17-05-2016 09:07:51 pm

গরমকালে তরমুজের উপকারিতা জেনে নিন

মুম্বাই, ১৭ মে (এ.এন.ই): গরমকালে বাজারে পাওয়া যায় রসালো তরমুজ। আর এ তরমুজ আপনাকে যেমন গরমের প্রকোপ থেকে রক্ষা করতে পারে তেমন তা নানাভাবে আপনার স্বাস্থ্যেরও যত্ন নিতে পারে। ১. তরমুজে রয়েছে ৯০ শতাংশ তরল। আর এ কারণে তা গ্রীষ্মকালে আপনার দেহকে জলশূন্যতা থেকে রক্ষা করে। ২. তরমুজের প্রচুর পুষ্টিগুণ রয়েছে। প্রতি ১০০ গ্রাম পাকা তরমুজে আছে ৯২ থেকে ৯৫ গ্রাম জল। এছাড়াও তরমুজে ক্যালসিয়াম রয়েছে ১০ মি.গ্রাম, আয়রন ৭.৯ মি.গ্রাম, কার্বহাইড্রেট ৩.৫ গ্রাম, খনিজ পদার্থ ০.২ গ্রাম, ফসফরাস ১২ মিলিগ্রাম, নিয়াসিন ০.২ মিলিগ্রাম, তাছাড়া রয়েছে ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, ভিটামিন বি ও ভিটামিন বি২। ৩. তরমুজে প্রচুর পরিমাণে সিট্রোলিন নামের অ্যামাইনো এসিড থাকে যা যৌনশক্তি বাড়ায়। এছাড়া এটি রক্তও তৈরি করে। নিয়মিত তরমুজ খেলে প্রোস্টেট ক্যান্সার, কোলন ক্যান্সার, ফুসফুসের ক্যান্সার ও ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে যায়। ৫. তরমুজে আছে ক্যারোটিনয়েড। আর তাই নিয়মিত তরমুজ খেলে চোখ ভালো থাকে এবং চোখের নানান সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। ক্যারটিনয়েড রাতকানা প্রতিরোধেও কার্যকরী ভূমিকা রাখে। ৬. তরমুজে ক্যালরির পরিমাণ কম। আর এ কারণে তরমুজ খেলে পেট ভরে যায় কিন্তু দেহের ওজন বাড়ার সম্ভাবনা কম থাকে। ৭. আপনি যদি ভুল করে তরমুজের বীজ খেয়ে ফেলেন তাহলেও ভয় পাবেন না। কারণ এটি জিংক, আয়রন, ফাইবার ও প্রোটিন সমৃদ্ধ। ফলে তা আপনার দেহের উপকারই করবে।

17-05-2016 03:13:56 pm

জেনেনিন খালিপেটে জল খাওয়ার ৭টি উপকার

সকালে ঘুম থেকে উঠেই খালি পেটে জল পান করা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো, তা আমরা অনেকেই জানি। কিন্তু এটা ঠিক কী কী উপকারে আসে কিংবা তার সুফল কেমন করে পাওয়া যায়, তা হয়তো অনেকেরই অজানা। চলুন জেনে নেওয়া যাক খালি পেটে জল পান করার কিছু উপকারিতা। ১. সকালে প্রতিদিন খালি পেটে জল খেলে রক্তের দূষিত পদার্থ বের হয়ে যায় এবং ত্বক সুন্দর ও উজ্জ্বল হয়। ২. রাতে ঘুমানোর ফলে দীর্ঘ সময় ধরে হজম প্রক্রিয়ার তেমন কোনো কাজ থাকে না। তাই সকালে ঘুম থেকে উঠে হজম প্রক্রিয়ায় সহায়তা করার জন্য অন্তত এক গ্লাস জল খেয়ে নেয়া উচিত। ৩. প্রতিদিন সকালে ব্রেকফাস্ট করার আগে এক গ্লাস জল খেলে নতুন মাংসপেশি ও কোষ গঠনের প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হয়। ৪. প্রতিদিন খালি পেটে এক গ্লাস করে জল খেলে মলাশয় পরিষ্কার হয় যায় এবং শরীর সহজেই নতুন করে খাবার থেকে পুষ্টি গ্রহণ করতে পারে। ৫. যারা ডায়েটের মাধ্যমে ওজন কমাতে চান, তারা অবশ্যই প্রতিদিন সকালে উঠে জল পানের অভ্যাস করুন। কারণ যত বেশি জল পান করবেন, তত হজম ভাল হবে এবং শরীরে বাড়তি ফ্যাট জমবে না। ৬. প্রতিদিন সকালে মাত্র এক গ্লাস জল খেলে বমি ভাব, গলার সমস্যা, মাসিকের সমস্যা, ডায়রিয়া, কিডনির সমস্যা, আথ্রাইটিস, মাথা ব্যাথা ইত্যাদি অসুখ কমাতে সহায়তা করে। ৭. ঘুম থেকে উঠে অনেকের মাথা ব্যাথা করে। শরীরে জলের মাত্রা কমে যাওয়া মাথা ব্যথার অন্যতম কারণ। সারা রাত শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণে জল যায় না। তাই সকালে উঠে যদি খালি পেটে জল পান করা যায় তবে মাথার যন্ত্রণা অনেকটা দূর হয়।

16-05-2016 03:49:47 pm


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.