• মামার বাড়িতে এসে জলে তলিয়ে গেল এক শিশু
  • আজ মহাষষ্টি, দেবীর অধিবাস
  • পুজোতে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা রাজধানী আগরতলায়
  • রক্তদান শিবির অনুষ্ঠিত শান্তিবাজারে
  • গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, তদন্তে পুলিশ
  • ম্যালেরিয়ায় মারণ থাবায় এক শিশুর মৃত্যু
  • নর্থ ইস্ট ফিনান্স ব্যাঙ্কের মহিলা ম্যানেজারের বিরুদ্ধে ১৭ লক্ষ টাকা গায়েবের অভিযোগ
  • চতুর্থীতেই জনজুয়ারে ভাসল আগরতলা
  • আধুনিকতার সাথে প্রযুক্তির সংমিশ্রণ হলে ত্রিপুরাকে মডেল রাজ্য হিসাবে গড়ে তুলতে পারবো: মুখ্যমন্ত্রী
  • রেলস্টেশন থেকে গাঁজা উদ্ধার
  • দুর্গাপূজা উপলক্ষে নতুন সাজে উঠেছে দুর্গাবাড়ি
  • জোরপূর্বক অর্থ আদায়ের অভিযোগে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা
  • বগাফা ব্লকের ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনে ৭ প্রতিনিধিদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান
  • আগরতলা ১৪ অক্টোবর (এ.এন.ই ): শনিবার বগাফা ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতি হল রুমে ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনে নির্বাচিত ৭ জন প্রতিনিধিদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। জানা গেছে, শপথ বাক্য পাঠ করান জেলা পঞ্চায়েত অফিসার কমিসনার কলই। জানা গেছে, বগাফা ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন দেবাশীষ মজুমদার এবং ভাইস চেয়ারম্যান হিসাবে ত্রিকেন্দ্র ত্রিপুরা নির্বাচিত হয়েছেন। জানা গেছে, শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সাব্রুমের বিধায়ক শংকর রায়, বগাফা ব্লকের বিডিও প্রদীপ সরকার, জেলা পঞ্চায়েত অফিসার কমিসনার কলই প্রমুখ। শপথ বাক্য পাঠ করার পর দেবাশিষ বাবু জানায়, শপথ বাক্য পাঠ করার পর দেবাশীষ বাবু জানায় তিনি দশমত নির্বিশিষে সকলের উন্নয়নের জন্য কাজ করবেন।
  • রাজ্যের আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি নিয়ে পুলিশ মহানির্দেশকের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক মুখ্যমন্ত্রীর
  • শারদোৎসবের প্রাক মুহূর্তে বোমা বিস্ফোরণে কেপে উঠল আসাম, সর্তকতা জারি রাজ্যেও
  • শারদ উৎসবে রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রীর শুভেচ্ছা
  • শ্রীনগর থেকে ৬ জুয়ারি আটক
  • চকোলেটের মণ্ডপ এমবিবি ক্লাবে
  • কুখ্যাত নেশা কারবারি গ্রেপ্তার
  • রেলে কাটা পরে যুবকের মৃত্যু
  • ধলাইয়ে প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন কেন্দ্রে প্রবীণদের চিকিৎসা পরিষেবা
  • পূর্বাশার আর্থিক আয় বাড়াতে সরকারের নয়া সিদ্ধান্ত
  • শহরের সাথে পাল্লা দিয়ে মহকুমার পুজো প্রস্ততি চলছে জোর কদমে
  • অপরাধ দমনে ক্রাইম ব্রাঞ্চকে আধুনিকরণের উদ্যোগ রাজ্য সরকারের

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

খেলাধূলা

00310
0057
0057
0057
0057
এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ান ভারত

২৯ সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে দারুণ খেলেও ফাইনালে চোক করেছিল বিরাট কোহলির ভারত। চলতি এশিয়া কাপেও ফাইনালের আগে পর্যন্ত (আফগানিস্তান ম্যাচে সিনিয়ররা বিশ্রামে ছিলেন) সবচেয়ে ধারাবাহিক খেলছিল টিম ইন্ডিয়া। ফাইনালে ফের চোক করে গেল ভারতের ব্যাটিং। ২২২ রানে বাংলাদেশকে আটকে রাখার পর অহেতুক চালাতে গিয়ে টার্গেট কঠিন করে ফেললেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। হাড্ডাহাড্ডি লড়ে কোনওক্রমে ম্যাচ বের করল টিম ইন্ডিয়া। শেষওভারে ৬ বলে বাকি ছিল ৬ রান। খুচরো রান নিয়ে সেই রানটা তুললেন ব্যাটসম্যানরা। শেষে ৩ উইকেটে কষ্টসাধ্য জয়লাভ রোহিত শর্মার ভারতের। আর এরইসঙ্গে ফের একবার এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন। তবে বাংলাদেশের লড়াই প্রশংসা আদায় করে নিল। ফাইনালে বিশ্বের এক নম্বর দলকে কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে ফেলে দিয়েছিল বাংলার টাইগাররা। এদিন শুরুটা ভাল করেছিলেন শিখর ধবন ও রোহিত শর্মা। অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী হয়ে মারতে গিয়ে উইকেট ছুড়ে আসেন শিখর ধবন। ১৫ রানের মাথায় তাঁকে তালুবন্দি করেন। এরপর মাত্র ২ রানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন অম্বাতি রায়াডু। রোহিতের সঙ্গ দেন দীনেশ কার্তিক। মনে হচ্ছিল, আরও একটা ম্যাচ ভারতকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেবেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা। তবে তা হল না! ৪৮ রানে ফিরলেন রোহিত। সোজা কথায়, উইকেট উপহার দিয়ে এলেন। হাল ধরেন দীনেশ কার্তিক ও ধোনি। বিরাট কোহলি ছাড়া এমনিতেই মিডল অর্ডারে সেই ঝাঁঝ নেই। তার উপরে ফর্মে নেই মহেন্দ্র সিং ধোনি। তাও ধোনি কার্তিক সেট হয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু আবারও ব্যর্থ হলেন প্রাক্তন অধিনায়ক। ৩৬ রানে ফিরলেন ধোনি। তার আগেই ফিরে গিয়েছেন দীনেশ কার্তিক। রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে ফিরলেন কেদার যাদব। ৫ উইকেট হারিয়ে তখন রীতিমতো ধুঁকপুকুনি শুরু হয়ে গিয়েছে ভারতীয় শিবিরে। সেখান থেকে ভুবি ও জাড্ডু ধীরে ধীরে দলের স্কোরকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। তবে কিনারায় এসে আউট হন জাডেজা। ২৭ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। তার পরের ওভারেই ভুবির উইকেট হারিয়ে সংকটে পড়ে ভারত। তবে শেষপর্যন্ত কোনওক্রমে জয়লাভ করে ভারত। এই জয় মোটেই স্বস্তি দেবে না টিম ইন্ডিয়াকে। বিশ্বকাপের আগে মিডল অর্ডারকে মেরামত করতেই হবে। এদিন টসে জিতে ফিল্ড করার সিদ্ধান্ত নেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা। দুবাইয়ে রাতের আলোয় সহজ টার্গেটও তাড়া করা বেশ কঠিন হয়ে পড়ছে। এদিন বাংলাদেশ শুরুটাও ভাল করেছিল। ওপেনিং জুটিতেই উঠেছিল ১২০ রান। কিন্তু সেখান থেকে মিডল অর্ডারে হারাকিরি। যে স্কোরটা ৩০০ পার করত, সেখানে দুশো পার করতেই হিমশিম খেল টাইগাররা। এদিন বাংলাদেশকে টানলেন ওপেনার লিটন দাস। কেরিয়ারের প্রথম শতরান করলেন। তাও আবার ভারতের বিরুদ্ধে এশিয়া কাপের ফাইনালে। বড় মঞ্চে মোক্ষম সময়ে জ্বলে উঠলেন বাংলার টাইগার। তাঁর ব্যাট থেকে এল ১২১ রান। লিটনকে যোগ্য সঙ্গত দেওয়ার মতো কেউ ছিল না। আর একটু ধরে খেললেই আড়াইশোর উপরে নিশ্চিতভাবে চলে যেত বাংলাদেশ।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.