• প্রতাপগড় বিধানসভা কেন্দ্রে ব্যাপক রাজনৈতিক সংঘর্ষ
  • এডিসি স্কুলগুলিতে মিড-ডে-মিল চালাতে নাভিশ্বাস শিক্ষকদের
  • দেহ ব্যবসা ও নেশার ঠেক থেকে এক পাণ্ডা সহ দুই খদ্দের ও দুই ছিনতাইবাজ গ্রেপ্তার
  • সরকারের বঞ্চনার শিকারে দ্বিধা বিভক্ত রেগা কর্মচারীরা
  • রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে কর্মী তালিকা বানাতে বেকাদায় এসপি'রা
  • সদরের পর ভোটার তালিকার জালিয়াতির অভিযোগ উঠল জিরানিয়ায়
  • ৭০ বছরের এক বৃদ্ধার লালসায় শিকার নাবালিকা
  • রেললাইনের পাশ থেকে অজ্ঞাত যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার
  • বিশালগড়ে এক ব্যবসায়ীকে লক্ষ্য করে গুলি, তদন্তে পুলিশ
  • বাইখোরা এলাকায় গণধর্ষণের শিকার নাবালিকা মামলা নিয়ে পুলিশের গড়িমসি
  • ডাল কেলেঙ্কারি টেন্ডার ছাড়াই ৫০ কোটি টাকার ক্রয় বাণিজ্য
  • মদ বিরোধী অভিযানে পুলিশ ও জনগণের মধ্যে খণ্ডযুদ্ধ, উত্তপ্ত ড্রপগেইট এলাকা
  • রাজ্যের সাংবাদিকদের নতুন এক্রিডিটেশন পলিসি গঠনের সুপারিশ
  • আইজিএম হাসপাতাল চত্বরে নেশা সামগ্রী সহ ধৃত এক যুবক
  • ডিসিএম'র বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি
  • বিতর্কিত নাগরাজ ফের ডিজি?
  • পানীয় জলের দাবিতে আমবাসা-গণ্ডাছড়া সড়ক অবরোধ
  • ভোটার তালিকায় ভুয়ো প্রমাণপত্র দিয়ে নাম তোলার চেষ্টা অভিযোগ মহকুমা প্রশাসনের
  • দীর্ঘ ১৭ বছর পর ঘরে ফিরল নিলুবধূ
  • ২৫শে নভেম্বরের মধ্যে চালু হওয়ার সম্ভাবনা রাধানগরের দ্বিতীয় সেতুটি, ভোটের আগে উদ্বোধন অনিশ্চিত উড়াল পুলের
  • আগরতলায় কৃষক জমায়েতের ডাক দিয়েছে বিজেপি
  • এটিটিএফ সুপ্রিমোর গ্রেপ্তার ঘিরে গভীর ষড়যন্ত্রের অভিযোগ বিজেপি'র
  • চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে যুক্ত থাকার অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের গ্রেপ্তার চেয়ে সিবিআইএর কাছে বিজেপি'র চিঠি
  • এটিটিএফ সুপ্রিমোর গ্রেপ্তার ঘিরে গভীর ষড়যন্ত্রের অভিযোগ বিজেপি'র
  • চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে যুক্ত থাকার অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের গ্রেপ্তার চেয়ে সিবিআইএর কাছে বিজেপি'র চিঠি

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

নভেম্বরেই বিদায়, প্রয়াত প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি

নয়াদিল্লি, ২০ নভেম্বর (এ.এন.ই ): প্রয়াত হলেন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি| দীর্ঘ ৯ বছর কোমায় থাকার পর সোমবার দুপুরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি| মৃতু্যকালে প্রবীণ এই কংগ্রেস নেতার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। ২০০৮ সালে স্ট্রোক হওয়ার পর তিনি কোমায় চলে যান। সেই থেকে হাসপাতালে চিকিত্সাধীন ছিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি। সোমবার নয়াদিল্লির ইন্দ্রপ্রস্থ অ্যাপোলো হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, ‘বিগত এক মাস ধরে শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক ছিল প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সির। শারীরিক অসুস্থতাজনিত কারণে সোমবার দুপুর ১২.১০ মিনিট নাগাদ তাঁর জীবনাবসান হয়েছে। মৃত্যুর সময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা ছাড়াও প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সির পাশে ছিলেন তাঁর স্ত্রী দীপা দাশমুন্সি এবং ছেলে মিছিল।’ ২০০৮ সালের অক্টোবর মাসে দুর্গাপুজোর সময় কালিয়াগঞ্জে নিজের আদি বাড়িতে হঠাত্ই মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তত্কালীন কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি| প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের উদ্যোগে দ্রুত তাঁকে পশ্চিমবঙ্গের কালিয়াগঞ্জ থেকে নয়াদিল্লির এইমস হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। মস্তিষ্কে অতিমাত্রায় রক্তক্ষরণের ফলে তাঁর বাহ্যিক চেতনা লোপ পায়। পরে তাঁকে এইমস থেকে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল দিল্লির ইন্দ্রপ্রস্থ অ্যাপোলো হাসপাতালে| সোমবার দুপুর ১২.১০ মিনিট নাগাদ রাজধানীর ইন্দ্রপ্রস্থ অ্যাপোলো হাসপাতালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি। যে সময় প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন, তখন তিনি সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন (এআইএফএফ)-এর দায়িত্বে ছিলেন। ১৯৯৯ ও ২০০৪ সালে পরপর দু’বার রায়গঞ্জ কেন্দ্র থেকে জিতে প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি সাংসদ ও পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হন। প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি জন্মগ্রহণ করেছিলেন ১৯৪৫ সালের ১৩ নভেম্বর। নভেম্বরে আগমণ, নভেম্বরেই বিদায় হল তাঁর। টানা ৯ বছর তাঁর জন্য প্রার্থনা জানিয়েছেন অনুগামীরা। কিন্তু সাড়া দেননি প্রিয়রঞ্জন। চিকিত্সায় সাড়া না দিয়ে প্রয়াত হলেন প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি।

20-11-2017 04:30:17 pm

প্রতাপগড় বিধানসভা কেন্দ্রে ব্যাপক রাজনৈতিক সংঘর্ষ

আগরতলা, ২০ নভেম্বর (এ.এন.ই ): রাজধানী আগরতলার প্রতাপগড় বিধানসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক রাজনৈতিক সংঘর্ষ শুরু হয়েছে। রবিবার রাতে বিজেপির জনসভার পর থেকেই এই সংঘর্ষ শুরু হয়। পুলিশ জানিয়েছে, প্রতাপগড় বিধানসভা কেন্দ্রের আড়ালিয়ায় গতকাল রাতে বিজেপির জনসভা ছিল। আর এর পর থেকেই উত্তেজনা ছড়াতে থাকে। আজ সকাল থেকে উত্তেজনা চরমে উঠে। এই বিধানসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পরেছে। এলাকায় প্রচুর সংখ্যক সুরক্ষা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। সংঘর্ষের কারণ এখনও স্পষ্ট নয় বলে পুলিশ জানিয়েছে। তবে শাসক সিপিআইএম এবং বিরোধী বিজেপির কর্মী সমর্থকরা একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করছে। জানা গেছে, এই বিধানসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন এলাকা কার্যত রণক্ষেত্রের রূপ নিয়েছে। ইতিমধ্যেই উভয়পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

20-11-2017 02:24:35 pm

আগরতলায় কৃষক জমায়েতের ডাক দিয়েছে বিজেপি

আগরতলা ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য না দেওয়ার প্রতিবাদে বিজেপি'র কৃষাণ মোর্চা রাজধানী আগরতলায় কৃষক জমায়েতের ডাক দিয়েছে। আগামী ২ ডিসেম্বর রবীন্দ্র ভবনের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা কৃষাণ মোর্চার রাজ্য সভাপতি জওহর সাহা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন সাম্প্রতিক বন্যায় ত্রিপুরায় কৃষকরা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কিন্তু রাজ্য সরকার ক্ষতিগ্রস্তদের কোন ধরনের সাহায্য দিতে অস্বীকার করেছে। এবস্থায় রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে যাওয়া ভিন্ন কৃষকদের অন্য বিকল্প রইল না। তিনি বলেন, আগামী ২ ডিসেম্বর আগরতলায় কৃষক জমায়েতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। এর আগে একটি বিক্ষোভ মিছিল সংঘটিত হবে। সাড়া রাজ্যে থেকে ২০ হাজার কৃষক যোগ দেবেন। সভায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা রাজ্য বিজেপি সভাপতি বিপ্লব কুমার দেব এবং প্রভারী সুনীল দেওধর উপস্থিত থাকবেন বলে তিনি উল্লেখ করেন।

18-11-2017 06:19:54 pm

এটিটিএফ সুপ্রিমোর গ্রেপ্তার ঘিরে গভীর ষড়যন্ত্রের অভিযোগ বিজেপি'র

আগরতলা ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): এটিটিএফ সুপ্রিমো রঞ্জিত দেববর্মাকে গ্রেপ্তার করার পেছনে গভীর ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে দাবী করেছে বিজেপি। বিজেপি'র মতে সিপিআইএম উগ্রপন্থা জিইয়ে রাখতে চাইছে। আর রঞ্জিত দেববর্মা তাতে সহায়ক ভূমিকা না নেওয়ায় তাকে ফাঁসানো হয়েছে। অন্যথায় এর চাইতে ঘোরতর অভিযোগ রয়েছে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের বিরুদ্ধে। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়ে বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ অভিযোগ করেন, রঞ্জিত দেববর্মাকে ফাঁসানো হয়েছে। পুলিশের অনুমোদন নিয়ে তারা সেই দিন সন্মেলন করেছিলেন। কিন্তু শাসক দলের নির্দেশে এমনটা করেছে কিন্তু রঞ্জিত দেববর্মা সেদিন যে বক্তব্য রেখেছেন তাতেই তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্র দ্রোহিতার মামলা আনা যায় না। শুধু তাই নয় বিদেশী অতিথিদের সামনে দেশের পররাষ্ট্র নীতি নিয়ে সমালোচনা করে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার আরো অনেক বড় অপরাধী করেছিলেন। তিনি বিদেশের রাষ্ট্র কে ভারতের বিরুদ্ধে উস্কে দেবার মূলত অপরাধও করেছিলেন। সেদিন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার উচিৎ ছিল। তিনি বলেন, রঞ্জিত দেববর্মা জঙ্গি ডেরায় থাকা তার স্ত্রী কন্যা সহ ৮০ জন এটিটিএফ জঙ্গিকে আত্মসমর্পণ করানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রী এবং পুলিশ প্রধানকে চিঠি দিয়েছিলেন। কিন্তু রাজ্য প্রশাসন কোনো পদক্ষেপই নেয়নি। রঞ্জিত দেববর্মা রাজনীতিতে আসার জন্য একটি দলও গঠন করেছেন কিন্তু এক সময় বাধ্য ছেলে অবাধ্য হয়ে জঙ্গি কার্যকলাপ বাদ দিয়ে রাজনীতিতে আসার উদ্যোগ নেওয়াতেই রাজ্য প্রশাসন তার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগ এনে গ্রেপ্তার করেছে।

18-11-2017 05:18:32 pm

চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে যুক্ত থাকার অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের গ্রেপ্তার চেয়ে সিবিআইএর কাছে বিজেপি'র চিঠি

আগরতলা ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে যুক্ত থাকার অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রেপ্তারের দাবী করলো বিজেপি। বিজেপির তরফে ইতিমধ্যেই সিবিআই এর কাছে নির্দিষ্ট কিছু তথ্য প্রমাণ দিয়ে আবেদনপত্র পাঠানো হয়েছে। বিজেপি প্রদেশ কার্যালয়ে আহত এক সাংবাদিক সামনে বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে এবং ত্রিপুরায় রোজভ্যালি সহ সব কয়টি চিটফান্ড কোম্পানী সরকারী আশ্রয়ে এবং প্রশ্রয়ে সমৃধী লাভ করেছে। সাড়া দেশে চিটফান্ড বিরোধী অভিযান শুরু হলে তাদের পালিয়ে থাকার ব্যবস্থাও করে দেয় রাজ্য প্রশাসন। তিনি বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের বিরুদ্ধে চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে যুক্ত থাকা আরো অনেক অভিযোগ উঠে আসছে। ফলে শুধু পশ্চিম বাংলায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে কোন কাজ হবে না। রোজভ্যালির মূল ব্যবস্থা ছিল ত্রিপুরাতে। যে অভিযোগে মদন মিত্র কে এতদিন জেলে ঢুকিয়ে রাখা হয়েছিল তার চাইতে ঘোরতর অভিযোগ রয়েছে মানিক সরকারের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, রাজ্য সরকারের অসাধু মনোবৃত্তি ছিল আর তাই সত্য বিষয় গুলি বিধানসভাতেও লুকিয়ে রাখা হয়। এখন রোজভ্যালি গায়েব করা অর্থাংশের পরিমাণ ৩৫ হাজার কোটি টাকা বলা হচ্ছে। যা ত্রিপুরার মত একটি ছোট্ট রাজ্যের জন্য অনেক বড় বিষয়। রাজ্য সরকার ইচ্ছাকৃত ভাবে চিটফান্ড কেলেঙ্কারির বিষয় গুলিতে যাতে সিবিআই তদন্তের জন্য না নেয় তার জন্য কৌশল নিয়েছিল রাজ্য সরকার। তাই বিজেপি এবার সরাসরি সিবিআই ডিরেক্টরের কাছে বিস্তারিত তথ্য দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী এবং তার অন্যান্য অভিযুক্ত নেতা নেত্রীদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ গুলির বিস্তারিত বিবরণ সহ নথিপত্র পাঠিয়েছে। দ্রুত মানিক সরকার এবং শাসক দলের অন্যান্য অভিযুক্ত নেতা নেত্রীদেরও দ্রুত গ্রেপ্তার করে তদন্ত প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার দাবীও করা হচ্ছে।

18-11-2017 05:18:08 pm

মানিক সরকার ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে চিটফান্ড কেলেঙ্কারি যুক্ত থাকার অভিযোগ বিধায়কের

আগরতলা ১৭ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার এবং তার পরিবারের বিরুদ্ধে চিটফান্ড কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত থাকার গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন। যদিও বিষয়টি বিধানসভায় উত্থাপন করেছিলেন। আজ সেখানে বিষয়টি প্রতিবাদ ও কেউ করেনি। আগরতলা প্রেস ক্লাবে আহত এক সাংবাদিক সম্মেলনে বিধায়ক রতন লাল নাথ এই অভিযোগটি নথিপত্র সহ পূর্নাঙ্গ বিবরণ দিয়ে বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর স্ত্রী পাঞ্চালী ভট্টাচার্য এবং তার পরিবারের অন্যান্যরা মিলে একটি চিটফান্ড সংস্থার মালিককে ফ্ল্যাট বানিয়ে দেবার জন্য চুক্তি করেছেন। চিটফান্ড কোম্পানির মালিক রতন চৌধুরীকে ইতিপূর্বে জনগণের অর্থ আত্মসাৎ অভিযোগে গ্রেপ্তারও করা হয়। কিন্তু এই ব্যক্তি মুখ্যমন্ত্রী পরিবারের ঘনিষ্ঠ হওয়ার তাকে ''পাওয়ার অফ এটর্নিও" দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি যথেষ্ট স্পর্শকাতর। তিনি বলেন এই বিষয়টি উত্থাপনের পর থেকে তার জীবন সম্পত্তি নষ্ট করার পরোক্ষ হুমকিও আসছে। তিনি আরো বলেন, শুধু ফ্ল্যাট বাড়ি বানানোর জন্য জায়গা হয়নি। রাজ্য সরকার তাকে বোজংনগরে জায়গা ও দিয়েছেন কারখানা তৈরির জন্য। বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রীর জ্ঞাতসারেই হয়েছে। ফলে তিনি কোনভাবেই নিজেকে দায় মুক্ত করতে পারেননা। বিধায়ক রতন লাল নাথ বিষয়টিকে রাজ্যের সব থেকে বড় আর্থিক কেলেঙ্কারি বলেও উল্লেখ করেন।

17-11-2017 05:04:10 pm

আচমকা রাজ্য সফরে নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধি দল

আগরতলা, ১৬ নভেম্বর (এ.এন.ই ): আচমকা রাজ্যে উড়ে এলেন ভারতের নির্বাচন কমিশনের এক উচ্চ পর্যায়ে প্রতিনিধি দল। প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে রয়েছেন। ডেপুটি কমিশনার সুদীপ জৈন। আগরতলায় ক্রমেই দ্রুত রাজ্য নির্বাচন দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে একদফা বৈঠক করেন। বর্তমানে জরুরি ভিত্তিতে ডাকা সর্বদলীয় বৈঠক শুরু হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে রয়েছেন কমিশনার সুদীপ জৈন জানা গেছে, নির্বাচনের কাজে যুক্ত আধিকারিকদের নিয়ে তারা আজ আরো একদফা বৈঠক করবেন। শুক্রবার সকাল থেকে জেলা ভিত্তিক আধিকারিকদের নিয়ে তারা বৈঠক করবেন। রাজ্যের নির্বাচন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে প্রস্তুতি এবং আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি তা খতিয়ে দেখবেন জানা গেছে।

16-11-2017 07:30:14 pm

সন্ত্রাসের অভিযোগে বিধায়ককে গ্রেপ্তারের দাবী বিজেপি'র

আগরতলা, ১৬ নভেম্বর (এ.এন.ই ): রাজধানী আগরতলায় আবার রাজনৈতিক সংঘর্ষ শুরু হয়েছে। সংঘর্ষ দায়ে অভিযুক্ত বিধায়ককে গ্রেপ্তার করতে বিজেপি কর্মীরা থানা ঘেরাও করেছে। বড়জলায় বিজেপি এক কর্মীর বিরুদ্ধে পরিকল্পিত ভাবে চুরির অভিযোগ এনে শাসক দলের ক্যাডাররা তাকে যথেষ্ট মারধোর করেছে বলে বিজেপি অভিযোগ করেছে। আজ আচমকাই বড়জলায় শাসক ও বিরোধী দলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। চুরির অভিযোগ এনে বিজেপির এক কর্মীকে মারধোর করা হয় বলে অভিযোগ। ফলে সে গুরুত্বর আহত হয় খবর পেয়ে বিজেপি কর্মীরা ছুটে গিয়ে প্রতিরোধ সৃষ্টি করে। বিজেপির মহিলা মোর্চার নেত্রী পাপিয়া দত্ত জানিয়েছেন। স্থানীয় বিধায়ক ঝুমু সরকার এবং তার ভাই এই আক্রমণের সঙ্গে যুক্ত। মিথ্যা অভিযোগ এনে বিজেপি কর্মীকে মারধোর করা হয়েছে। পড়ে বিজেপি কর্মীরা স্থানীয় থানা ঘেরাও করে বিধায়ক ঝুমু সরকার এবং তার ভাইয়ের গ্রেপ্তারের দাবী করতে থাকে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে। এলাকায় তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে।

16-11-2017 06:00:03 pm

দিল্লী প্রস্থানের আগে আচমকা রাজভবনে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব

আগরতলা, ১৬ নভেম্বর (এ.এন.ই ): রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যপালের দরবারে গেলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি বিপ্লব কুমার দেব এবং প্রভারী সুনীল দেওধর। জরুরি তলবে দিল্লী যাওয়ার আগে রাজ্যপালের সঙ্গে এই বৈঠক যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। রাজভবন থেকে বেরিয়ে বিপ্লব কুমার দেব সাংবাদিকদের জানান, রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগজনক। প্রায় প্রতিদিন বিজেপি নেতা কর্মীদের উপর হামলা সংগঠিত করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই শুধু বিজেপি কর্মীদের উপর ৪৫০টি হামলা সংগঠিত করা হয়েছে, ৩জনকে হত্যা করা হয়েছে এবং অনেকেই এখনো মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। তিনি আরো বলেন, একেই সঙ্গে রাজ্যের প্রতিবাদে কণ্ঠস্বর রুখে দেবার চেষ্টা চলছে। সাংবাদিক হত্যাকাণ্ড সহ বেশ কিছু ঘটনার বিস্তারিত বিবরণ তুলে ধরা হয়েছে এবং রাজ্যপালকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। তিনি আরো জানান, রাজ্যপালের কাছে বেশ কিছু তথ্য প্রমাণ পেশ করা হয়েছে যাতে দেখানো হয়েছে, পুলিশ নিরপেক্ষ ভাবে কাজ করছে না। ক্যাডার বাহিনী সহযোগী হয়ে বিজেপি কর্মীদের উপর চড়াও হচ্ছে।

16-11-2017 05:56:41 pm

অস্বাভাবিক মৃত্যু আর আত্মহত্যায় ত্রিপুরার রেকর্ড

আগরতলা, ১৬ নভেম্বর (এ.এন.ই ): অস্বাভাবিক মৃত্যুতে রেকর্ড গড়ছে ত্রিপুরা। ত্রিপুরাতে প্রতিদিন গড়ে চারজন মানুষের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়। আর আত্মহত্যা করেন গড়ে ২ জন। সরকারি পরিসংখ্যান থেকে বেড়িয়ে আসা এই তথ্য ঘিরে বিস্ময়ের সৃষ্টি হয়েছে তথ্যাভিজ্ঞ মহলে। ত্রিপুরা ইতিমধ্যেই অস্বাভাবিক মৃত্যুর জন্য রেকর্ড গড়েছে। সরকারি রিপোর্টেই বলা হয়েছে, দিনে অন্তত চারজন করে মানুষ অস্বাভাবিক মৃত্যুর শিকার হচ্ছেন৷ শিক্ষায়, সংস্কৃতিতে, গ্রামীণ কর্মসংস্থানে এমনকি কৃষিতে দেশের মধ্যে মডেল রাজ্য ত্রিপুরার এহেন চিত্র উঠে এসেছে খোদ বিধানসভায় পেশ করা একটি রিপোর্টেই৷ আগেও এই সংখ্যা বেশীই ছিল। তবে এখন মাত্রা সব সীমা ছাড়িয়ে গেছে এই ছোট্ট রাজ্য ত্রিপুরায়। এর আগে রাজ্যের ইতিহাসে এমন রেকর্ড কখনো হয়েছিল কি না তা মনে করতে পারছেন না অনেকেই৷ খুন, ধর্ষণ, বিশেষ করে নাবালিকা ধর্ষণ, নারী নির্যাতনে গোটা দেশের মধ্যে শীর্ষে থাকা ত্রিপুরা এবার অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনার ক্ষেত্রেও দেশের বড় রাজ্যগুলিকে টেক্কা দিচ্ছে৷ বিধানসভার অধিবেশনে বিধায়ক রতন লাল নাথের একটি লিখিত প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র তথা মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার যে তথ্য পেশ করেছেন, সে অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ত্রিপুরাতে অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে ১০৫ জনের, ফেব্রুয়ারিতে মৃত্যু হয়েছে ১০০ জনের, মার্চে ১০১ জনের, এপ্রিলে ১৩০ জনের, মে মাসেও ১৩০ জনের, জুন মাসে ১১৮ জনের, জুলাই মাসে ১০৭ জনের, আগস্ট মাসে ১২৬ জনের , সেপ্টেম্বর মাসে ১১৯ জনের এবং গত অক্টোবর মাসে মৃত্যু হয়েছে ১১২ জন মানুষের। অর্থাৎ ২০১৭ সালের প্রথম দশ মাসে রাজ্যে অস্বাভাবিক মৃত্যুর শিকার হয়েছেন ১১৪৮ জন সাধারণ মানুষ৷ এক লক্ষে ১৫ দশমিক ৪৭ জন এবং প্রতিদিন গড়ে চারজন৷ জনসংখ্যার আনুপাতিক বিচারে যা গোটা দেশের মধ্যে রেকর্ড বলা চলে। লক্ষণীয় বিষয় হল এই দশমাসে রাজ্যের বিভিন্ন থানা এলাকায় শুধুমাত্র আত্মহত্যা করেছেন ৫৮৮ জন মানুষ৷ অর্থাৎ গড়ে দুইজন প্রতিদিন স্বেচ্ছায় নিজেদের জীবন বিসর্জন দিয়েছেন। সমাজবিজ্ঞানীদের অনেকের মতে, ত্রিপুরাতে আত্মহত্যার প্রধান কারণ হল বেকারত্ব৷ ৩৭ লক্ষ মানুষের রাজ্যে বেকারের সংখ্যা সারে সাত লক্ষেরও বেশি৷ ফলে আর্থ-সামাজিক কারণে হতাশা থেকে অনেকে আত্মহত্যা করছেন৷ এছাড়া প্রণয় ঘটিত এবং ঋণজালে আবদ্ধ হয়ে আত্মহত্যা করার মত সামাজিক ব্যাধি বিস্তার লাভ করছে রাজ্যে। বাদ যাচ্ছে না কৃষকের আত্মহত্যার ঘটনাও৷ যদিও কৃষকের কোনও আত্মহত্যার কথা এখনো সরকারিভাবে উল্লেখ করেও মানতে রাজি নয় সরকার। এই মৃত্যুর পেছনে অন্য সামাজিক কারণ রয়েছে বলে অভিমত রাজ্যের শাসক দলের।

16-11-2017 04:28:29 pm

প্রাক্তন জঙ্গি নেতা এটিটিএফ প্রধান রঞ্জিত দেববর্মাকে নিজের পার্টির পরিবারের লোক স্বীকারোক্তি মুখ্যমন্ত্রীর

আগরতলা, ১৫ নভেম্বর (এ.এন.ই ): তেলিয়ামুড়ার দুস্কিতে রাজমাতা কাঞ্চনপ্রভা দেবী ও ভারত সরকারের বিরুদ্ধে আপত্তিমূলক বক্তব্যের জন্যই রঞ্জিত দেববর্মাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার। টাইগার সুপ্রিমো যে ঘড়ের ছেলে তাও তিনি অকপটে স্বীকার করে নিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার বলেন, গত ৬ নভেম্বর তেলিয়ামুড়া থানার দুস্কিতে কোনও আগাম অনুমতি ছাড়াই আয়োজিত একটি সভায় ভাষণ রাখতে গিয়ে প্রাক্তন জঙ্গি নেতা এটিটিএফ প্রধান রঞ্জিত দেববর্মা বিতর্কিত তথা দেশ-বিরোধী মন্তব্য করেছিলেন। এ কারণে পুলিশ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে তার বিরুদ্ধে একটি দেশদ্রোহী মামলা গ্রহণ করেছে"। মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, "আমরা মানুষের মনের পরিবর্তনে বিশ্বাস করি৷ আশাকরি রঞ্জিত দেববর্মার মনেরও পরিবর্তন হবে"। রঞ্জিত দেববর্মার পরিবারকে সিপিআইএম পরিবার বলে আখ্যায়িতও করেন এদিন মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি বলেন, "রঞ্জিত দেববর্মার বাবা সিপাআইএমের সদস্য। তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও এই দলের সাথেই রয়েছেন। ধরের ছেলে"। প্রাক্তন এটিটিএফ প্রধানকে বাংলাদেশ সরকার পুশব্যাক করেছে।মুখ্যমন্ত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, "সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীর সাথে ত্রিপাক্ষিক আলোচনা বন্ধ হয়ে গেছে৷ গত দেড় বছর ধরে কেন্দ্রীয় সরকার এ নিয়ে কোনও উদ্যোগ নিচ্ছে না"। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের উপর দায় ছেড়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে রঞ্জিত দেববর্মার স্ত্রী ও কন্যার আত্মসমর্পণ নিয়ে একটি চিঠি রাজ্য সরকারের কাছে রয়েছে কি না এ নিয়ে সুনির্দিষ্ট কিছু না বললেও, বিষয়টা নিয়ে পুলিশের মহানির্দেশকের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

15-11-2017 03:36:58 pm

রোজভ্যালী কাণ্ডে রাজ্য সরকারের অস্বস্তি বাড়ালেন অর্থমন্ত্রী

আগরতলা, ১৫ নভেম্বর (এ.এন.ই ): সরকারি ওয়েবসাইটে দুর্নীতির তথ্য দিতে গিয়ে রোজভ্যালী কাণ্ডে দুর্নীতির অঙ্ক কয়েক কোটি গুণ বাড়িয়ে দিলেন অর্থমন্ত্রী ভানুলাল সাহা। নিজে স্বীকারও করে নিলেন সরকারী স্পষ্টীকরণে কিছু ত্রুটি রয়ে গেছে। ত্রিপুরা থেকে চিটফান্ড সংস্থাগুলি কত টাকা নিয়ে গেছে, এ নিয়ে কোনও নির্দিষ্ট তথ্য এখন পর্যন্ত মেলেনি। কিন্তু অর্থমন্ত্রী ভানু লাল সাহার প্রদেয় একটি সংশোধনী এবার রাজ্য সরকারকে আরও বেকায়দায় ফেলেছে। সম্প্রতি ত্রিপুরা সরকারের ওয়েবসাইটে ১০টি বিষয়ের উপর রাজ্য সরকারের স্পষ্টীকরণ দিতে গিয়ে রাজ্য সরকার জানিয়েছিল রোজভ্যালী ত্রিপুরা থেকে ৩৫ কোটি টাকা সংগ্রহ করেছে৷ যা নিয়ে রাজ্য জুড়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়। এই ইস্যুতে বড় ভুল হয়ে গেছে ভেবে রাজ্য সরকারও তথা সরকারি দলও ড্যামেজ কন্ট্রোলের জন্য মাঠে নামে৷ কিন্তু খুব বেশি সুবিধা হয়নি। বিধানসভায় অর্থমন্ত্রী ভানু লাল সাহা জানিয়েছেন, স্পষ্টীকরণের তথ্যে কিছুটা ভুল রয়ে গেছে৷ টাকার পরিমাণটা ৩৫ কোটি নয়, ৩৫ হাজার কোটি টাকা হবে৷ অর্থমন্ত্রীর এই বক্তব্য থেকে বিভিন্ন মহলে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। কেননা, রোজভ্যালী কোনও ভাবেই ত্রিপুরা থেকে ৩৫ হাজার কোটি সংগ্রহ করেছে এমনটা আগে কারোই জানা ছিল না৷ বড়জোর ৩৫শ কোটি টাকা হতে পারে বলে বিরোধী দল গুলোর নেতাদেরও বক্তব্য ছিল। অর্থমন্ত্রীর প্রদেয় এই তথ্যে এখন বিরোধীরাও হতবাক। তব সরকারি স্পষ্টীকরণে রোজভ্যালী কাণ্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগে অভিযুক্ত বাকি ৫জন মন্ত্রীর নাম তিনি জানান নি।

15-11-2017 03:36:00 pm

সন্ত্রাস বন্ধ করতে সকল রাজনৈতিক দলের প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর আহ্বান

আগরতলা, ১৪ নভেম্বর (এ.এন.ই ): ত্রিপুরায় ক্রমবর্ধমান রাজনৈতিক সন্ত্রাস নিয়ে রাজ্য বিধানসভা উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। মুখ্যমন্ত্রী সিপিআইএম সহ সমস্ত রাজনৈতিক দল গুলিকে সংযত আচরণ করার আহ্বান জানিয়েছেন। বিধানসভায় বিধায়ক বিশ্ববন্ধু সেন আনিত একটি দৃষ্টি আকর্ষণ নোটিশের জবাবে মুখ্যমন্ত্রী বৎসর ভিত্তিক পরিসংখ্যান তুলে ধরে বলেন, বোঝা যাচ্ছে বে-আইনি ভাবে কাউকে আঘাত কিংবা আহত করার অভিযোগ কিছুটা হ্রাস পেয়েছে। যদিও রাজনৈতিক দন্দের কারণে গত বছরের তুলনায় চলতি বছরে মামলার সংখ্যা কিছুটা বেড়েছে। চলতি বছরে প্রথম ১০ মাসে মামলায় সংখ্যা ২১১টি। এরমধ্যে মামলা, প্রতি-মামলা এবং স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে নেওয়া মামলা রয়েছে। ব্যক্তিগত আত্মীয় স্বজন এবং প্রতিবেশীদের মধ্যে বিরোধকে পরবর্তী পর্যায়ে রাজনৈতিক বিরোধে পর্য্যাবেশিত করার প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন আসন্ন গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া রাজনৈতিক দলগুলির প্রার্থী দেবে। রাজনৈতিক কর্মসূচি এবং নীতিগত অবস্থান ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ভোটাররা তাদের মতাধিকার প্রয়োগ করবেন। এক্ষেত্রে সন্ত্রাসের কোন স্থান নেই। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সিপিআইএম সহ সমস্ত রাজনৈতিক দল গুলি আরো বেশী সহানুশিল হয়ে কাজ করতে হবে। কোন ধরনের হিংসা কোন তরফ থেকে কাম্য নয়।

14-11-2017 05:32:45 pm

দুর্নীতিতে রাজ্য সরকারের স্পষ্টীকরণ নিয়ে নতুন জটিলতা

আগরতলা, ১৪ নভেম্বর (এ.এন.ই ): রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে সরকারী পোর্টালে দেওয়া রাজ্য সরকারের সাফাই নামাকে কেন্দ্র করে নতুন বিতর্ক শুরু হয়েছে। বিধানসভায় অধিবেশনে এনিয়ে আজ দীর্ঘ বাদানুবাদ এবং চর্চা হয়েও সরকারকে অনেকটাই বিব্রত হয়ে পড়তে দেখা গেছে। রাজ্য বিধানসভায় আজ বিষয়টি উত্থাপন করেন বিরোধী দলের সদস্য সুদীপ রায় বর্মণ। এবিষয়ে সাফাই নামায় দেওয়া তথ্য গুলি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেওয়ার দাবী করেন। একেই সঙ্গে চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে উল্লেখিত মন্ত্রীদের নাম জানানোর দাবীও তিনি করেন। কারণ ইতিপূর্বে মুখ্যমন্ত্রী ভিন্ন শুধুমাত্র সমাজ কল্যাণ মন্ত্রীর বিরুদ্ধেই অভিযোগ ছিল। কিন্তু সাফাই নামায় আরো ৪ জনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। অন্যদিকে বিধায়ক রতন লাল নাথ সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন এবং মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারকে জড়িয়ে চিট ফান্ডের অভিযুক্ত ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্ক করে বাড়ি বানানোর অভিযোগ তুলে ধরেন। এদিনের সভায় পুরো হই-হট্টগোল হয়। কিন্তু শাসকদলের তরফে কেউই এর সুস্পষ্ট জবাব দেননি। শাসক দলের বিধায়ক রতন দাস সংশ্লিষ্ট বিষয়ে শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি অভিযোগ তোলেন। এর পরবর্তী পর্যায়ে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী ভানুলাল সাহা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে জবাব দিতে গিয়ে উল্লেখ করেন, রাজ্য সরকার বিভিন্ন বিষয়ে স্পষ্টীকরণ দিয়েছে। কিন্তু কোথাও রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য প্রমাণিত হয়নি। কিন্তু তিনিও বিধানসভায় উত্থাপিত মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের কোন জবাব দেননি।

14-11-2017 05:31:54 pm

বিজেপির সংসদীয় প্রতিনিধিদলের বিরুদ্ধে সিপিআইএম-এর তোপ

আগরতলা, ১৪ নভেম্বর (এ.এন.ই ): বিজেপির সংসদীয় প্রতিনিধি দলের অভিযোগ খণ্ডন করেছে সিপিআইএম। পার্টির রাজ্য সম্পাদক বিজেপির সংসদীয় প্রতিনিধি দলের বিরুদ্ধে আক্রমণ তীব্র করে তাদের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করেন এবং দেহ গুণতে রাজ্যে এসেছেন বলে অভিযোগ করেন। দুই দিনের ত্রিপুরা সফর সেরে দিল্লি ফিরে গিয়েছেন বিজেপির সংসদীয় প্রতিনিধিদলের সদস্যরা। আর তাদের যেতেই তাদের বক্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেছেন সিপিআইএমের রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর। পার্টির কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে তিনি বলেন, "সংসদীয় প্রতিনিধিদলের চোখে ত্রিপুরার উন্নয়ন চোখে পড়েনি৷ তারা এ রাজ্যে এসেছিলেন শুধু লাশ দেখতে৷ রাজ্যের শান্তিশৃঙ্খলা বিনষ্ট করতে"। বিজন ধর বলেন, "সংসদীয় প্রতিনিধিদল বলেছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী দুর্নীতিগ্রস্ত৷ মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে একটি দুর্নীতির তথ্য তুলে ধরতে পারবেনা কেউই। শুধু মুখ্য মন্ত্রী কেন কোন মন্ত্রীর বিরুদ্ধেই অভিযোগ নেই।"। এই ঘটনাকে ব্যক্তিগত চরিত্র হরণ বলে অভিযোগ করেন তিনি৷ শ্রী ধর বলেন, "যে যা খুশি বলে যাবেন, তার নামই কি গণতন্ত্র? এখন যা হচ্ছে তা অতিরিক্ত হয়ে যাচ্ছে"। তিনি আরও বলেন, "রাজ্যে বন্যা হয়েছে। ৩০০ কোটি টাকার উপর ক্ষতি হয়েছে। কেন্দ্রের কাছে সাহায্য চাওয়া হয়েছে। কিন্তু এখনও কিছু দেয়নি। কোন কেন্দ্রীয় টিম পাঠায় নি। আর এখন আইন শৃঙ্খলার নাম করে লাস গুনতে, অশান্তি বাড়াতে এসেছে তারা। যদিও সন্ত্রাস করছে বিজেপি। কিন্তু এই ভাবে চলেনা। আত্মরক্ষার অধিকার কমরেডদেরও আছে"। তিনি সাংবাদিকদের সামনেই সংবাদমাধ্যমকেও বম বিরোধী খবর প্রচারের অভিযোগ তুলে কটাক্ষ করেন।

14-11-2017 03:03:57 pm

রঞ্জিত দেববর্মা গ্রেপ্তার ইস্যু স্থান পেল বিধানসভার আলোচনায়

আগরতলা ১৩ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): সাবেক জঙ্গি নেতা রঞ্জিত দেববর্মাকে দেশ দ্রোহিতার অভিযোগে গ্রেপ্তার করার বিষয়টি আজ বিধানসভায় উত্থাপিত হয়েছে। যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার এবিষয়ে আগামীকাল বিধানসভায় বয়ান দেবে বলে জানিয়েছেন। আজ বিধানসভায় শূন্যকালে বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ বিষয়টি উত্থাপন করেন। তিনি বলেন, জহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ে দেশ বিরোধী শ্লোগানের যারা প্রবল সমর্থক, যারা এসব কে মত প্রকাশের স্বাধীনতা বলেন তাদেরই সরকার এরাজ্যে রাষ্ট্র দ্রোহিতার অভিযোগে প্রাক্তন জঙ্গি নেতা রঞ্জিত দেববর্মা কে গ্রেপ্তার করেছে। শুধুমাত্র পার্টির অবাধ্য হওয়ায় তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। একেই সঙ্গে ২০০৩ সালে বিজয় রাঙ্খলের বিরুদ্ধে অনুরূপ অভিযোগ করলেও এখন তারা চুপ হয়ে আছে। রঞ্জিত দেববর্মা নির্বাচনের আগে গ্রেপ্তার করার পেছনে রাজ্যের শাসক দলের পরিকল্পনা আছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। পড়ে মুখ্যমন্ত্রী দারিয়ে এবিষয়ে আগামীকাল সভায় বয়ান দেবেন বলে জানান। ফলে আজ এনিয়ে বিবাদ আর বেশিদূর এগোয়নি। আগামীকাল এনিয়ে সভায় ঝড় উঠার আশঙ্কা রয়েছে।

13-11-2017 04:29:29 pm

সাইবার ক্রাইমে রাজ্য পুলিশের রুগ্ন চিত্র বিধানসভায় প্রকট

আগরতলা ১৩ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): ত্রিপুরা পুলিশের সাইবার ক্রাইম শাখা কোন ক্ষেত্রেই বিশেষ সাফল্য পাচ্ছে না। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের অভিযোগ নিয়েও পুলিশ কোন সাফল্য পায়নি। রাজ্য বিধানসভায় বিধায়ক বিশ্ববন্ধু সেন আনিত এক প্রশ্নের উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার বিধানসভায় জানিয়েছেন, রাজ্যে গত তিন বছরে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের মাধ্যমে যৌন উৎপীড়নে ১১টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। একেই সঙ্গে ৪১টি সাইবার ক্রাইমের মামলাও দায়ের করা হয়েছে। তার মধ্যে যৌন উৎপীড়নের জন্য ৬ জনকে এবং সাইবার ক্রাইমের জন্য ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বর্তমানে আরো ১৮টি মামলা বকেয়া পড়ে আছে। বিধায়ক বিশ্ববন্ধু সেনের অতিরিক্ত প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগটি ও বকেয়া পড়ে আছে। এই সাইট গুলি বিদেশ থেকে নিয়ন্ত্রিত হয় ফলে বিশেষ কিছু করা খুব কঠিন। কিন্তু প্রশ্ন কর্তা মুখ্যমন্ত্রীর জবাবে সন্তুষ্ট হতে না পেরে মহারাস্টের পুলিশের এক সংক্রান্ত বিষয়ে সাফল্যের কথা উল্লেখ করেন এবং রাজ্য পুলিশের সাইবার ক্রাইমের প্রশিক্ষণের অবহেলার অভিযোগ করেন। যদিও মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ গুলি অস্বীকার করেন এবং আগামীদিনে তাদের উন্নতর প্রশিক্ষণের আশ্বাস দেন।

13-11-2017 04:27:36 pm


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.