• প্রজ্ঞাভবনে অনুষ্ঠিত রোটা ভাইরাস ভ্যাকসিন
  • ১১দফা দাবীতে কাঁকরাছড়া এডিসি ভিলেজ কার্যালয়ে বিজেপির ডেপুটেশন
  • শিক্ষায় বানিজ্যকীকরণ ও বেসরকারী নীতির বিরুদ্ধে ভারতের ছাত্র ফেডারেশনের এর প্রকাশ্য সমাবেশ
  • চরনপাই পাড়া এস বি স্কুলে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত
  • রেগার কাজে শ্রমিকদের টাকা না দেওয়ায় খেসারতে তালা বন্দি বাইখোঁড়া পঞ্চায়েতের কর্মচারীরা
  • শান্তিরবাজারে পথদুর্ঘটনায় আহত ২
  • কমলপুরে শুরু হয়েছে ৪দিন ব্যাপী যাত্রা উৎসব
  • ৭দফা দাবী আদায়ের লক্ষে রাজ্যে ৯টি জেলায় কংগ্রেসের আইন অমান্য আন্দোলন সংঘটিত
  • ৩৬ শান্তিরবাজারে বিজেপির নূতন অফিস উদ্ভোধন
  • বিভিন্ন দাবী নিয়ে কল্যাণপুর বাজার কলোনীতে পথ অবরোধ
  • ভালোবাসার ভ্যালেন্টাইন, শুধু তোমারেই জন্য
  • বড়মুড়া খামতিং বাড়ি এলাকায় ও.এন.জি.সি-র এ্যাম্বুলেন্স প্রদান
  • আগামী ১৯শে ফেব্রুয়ারী ৯ বনমালীপুর ব্লক কংগ্রেস কমিটির জনবেদনা সন্মেলন
  • তেলিয়ামুড়ায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ভশ্মিভূত দুইটি ঘর মৃত্যু ১
  • কল্যাণপুরে এস এফ আই এর উদ্যোগে বসে আঁকো প্রতিযোগিতা
  • টিজিটিএর ১৬ জনের মহকুমা কমিটি গঠিত
  • একেই দিনে তিনটি উদ্ভোধন মুঙ্গিয়াকামী ব্লকে
  • ২৩শে ফেব্রুয়ারী আইন অমান্য আন্দোলন কে সামনে রেখে অনুষ্ঠিত তৃনমূল কংগ্রেসের পদযাত্রা
  • জল ও রাস্তার দাবীতে অমরপুর-যতনবাড়ী রোডে এলাকাবাসীদের পথ অবরোধ, পড়ে অবরোধ প্রত্যাহার
  • বাইক ও বাই সাইকেল এর মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত ৪
  • শুরু হয়েছে দ্বারিকাপুর নাঠ মন্দিরে ৭দিন ব্যাপী মহানাম সংকীর্তন
  • ছেলের নির্মম অত্যাচারে ঘর ছাড়া মা
  • শান্তিরবাজারে টি.এফ.ডি.পি.সি-র উদ্যোগে শিশুদের মধ্যে বিভিন্ন সামগ্রী প্রদান
  • অনুষ্ঠিত হয় শান্তিরবাজারে মহকুমা শাসকের উদ্যোগে প্রশাসনিক বৈঠক
  • আজ শ্রীপঞ্চমী গোঁটা রাজ্যেই চলছে সরস্বতী মায়ের আরাধনা

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

"বাংলাদেশ মুক্তিযুধে ত্রিপুরা" একটি তথ্যচিত্র। পরিচালক রাজু ভৌমিক।

সরকারী কর্মচারীদের ৪% ডিএ ঘোষণা। কি বললেন অর্থমন্ত্রী ভানুলাল সাহা ? দেখুন ভিডিও

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

অবশেষে অষ্টম মহাদেশ-র সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা

নয়াদিল্লি, ১৮ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): অবশেষে অষ্টম মহাদেশ-র সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা। দক্ষিণ-পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরের জলের নিচে এই অচেনা-অজানা মহাদেশটি লুকিয়ে রয়েছে বলে বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন। বিজ্ঞানীরা এই মহাদেশটির নাম দিয়েছেন জিলান্ডিয়া (নিউজিল্যান্ড ও ইন্ডিয়া)। এই মহাদেশটি ভারতীয় উপমহাদেশের সমান বলে দাবি করছেন বিজ্ঞানীরা। জিওলজিক্যাল সোসাইটি অফ আমেরিকায় প্রকাশিত এক গবেষণা নিবন্ধে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই অচেনা মহাদেশের আয়তন পঞ্চাশ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার, যা প্রতিবেশী দেশ অস্ট্রেলিয়ার দুই তৃতীয়াংশের সমান। তাঁদের আরও দাবি, নিউজিল্যান্ড আসলে এই মহাদেশেরই জেগে থাকা অংশ। বাকি অংশ প্রশান্ত মহাসাগরের তলায় লুকিয়ে রয়েছে। একটি মহাদেশের স্বীকৃতি পেতে গেলে যা যা প্রয়োজন জিলান্ডিয়া তা সবই পূরণ করেছে। তাই বিজ্ঞানীরা এখন আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন। এই নবআবিষ্কৃত ভূ-খন্ডটি যাতে মহাদেশের স্বীকৃতি পায়। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই মহাদেশের ৯৪% শতাংশ জলের মধ্যে ডুবে রয়েছে। মাত্র অল্প কিছু অংশ জলের ওপর মাথা তুলে আছে। গবেষণা নিবন্ধের প্রধান লেখক নিউজিল্যান্ডের ভূতত্ত্ববিদ নিক মর্টিমার বলেন, দুদশক ধরে বিজ্ঞানীরা গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন জিলান্ডিয়াকে কেন মহাদেশ বলা যাবেনা তা নিয়ে। নতুন মহাদেশ যুক্ত করাই শুধু তাঁদের কাজ নয়, এর একটা বৈজ্ঞানিক তাত্পর্য রয়েছে। তা হল, একটি মহাদেশের অধিকাংশ অংশ জলের তলায় চলে যাওয়ার পরও তা যে অখন্ড থাকতে পারে, তা সাহায্য করবে এটা বুঝতে কিভাবে পৃথিবীর উপরিভাগের স্তর ভেঙে অন্য সাত মহাদেশ তৈরি হয়েছিল। এখন সমস্যা হল, মহাদেশ স্বীকৃতি দেওয়ার কোনও আন্তর্জাতিক ফোরাম নেই। বিশ্বের বেশিরভাগ বিজ্ঞানীরা যদি জিলান্ডিয়াকে মহাদেশ হিসাবে মেনে নেওয়া হয়, তবে খুব শীঘ্রই বিশ্ববাসী পেতে চলেছে অষ্টম মহাদেশ।

18-02-2017 07:09:35 pm

অবশেষে আস্থা ভোটে জয়ী হলেন তামিলনাডুর মুখ্যমন্ত্রী ই কে পালানিস্বামী

কলকাতা, ১৮ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): অবশেষে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে তামিলনাডুর মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সি দখল করলেন ই কে পালানিস্বামী। বিধানসভায় আস্থাভোটে তাঁর পক্ষেই ভোট পড়ে বেশি। ২৩৫ আসনের তামিলনাডু বিধানসভায় আস্থাভোটে জেতার জন্য দরকার ছিল ১১৭ জন বিধায়কের সমর্থন। সেখানে শশীকলা অনুগামী পালানিস্বামীর পক্ষে যায় ১২২টি ভোট। প্রসঙ্গত, পালানিস্বামী গোষ্ঠীর এই জয়ের ফলে তামিলনাডুতে তৈরি হওয়া রাজনৈতিক অচলাবস্থার অবসান হল বলে মনে করা হচ্ছে। শনিবার সকাল থেকেই এই আস্থা ভোটকে কেন্দ্র করে বিধানসভার পরিস্থিতি ছিল উত্তপ্ত। গোপন ব্যালটে ভোট চেয়ে প্রথম থেকেই এদিন সুর চড়ান বিরোধী বিধায়করা। তাতে রাজি হননি স্পিকার। শুরু হয় ধুন্ধুমার। স্পিকারের মাইক কেড়ে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ ওঠে বিরোধী বিধায়কদের বিরুদ্ধে। তাঁর চেয়ারে গিয়েও বসে পড়েন ডিএমকে বিধায়ক কুকুসেলভম। স্পিকারের অভিযোগ, বিধায়করা তাঁকে নিগ্রহ করেছেন। বিধানসভা পুলিশ ডেকে ডিএমকে বিধায়কদের বের করে দেন স্পিকার। এদিকে এদিনের ঘটনার প্রতিবাদে বিধানসভা থেকে কংগ্রেসও ওয়াকআউট করে।

18-02-2017 05:33:00 pm

বিধানসভায় বেনজির নিগ্রহের শিকার অধ্যক্ষ, মুলতবি অধিবেশন

চেন্নাই, ১৮ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): আস্থা ভোটের আগে বেনজির বিশৃঙ্খলার সাক্ষী থাকল তামিলনাড়ুর বিধানসভা। শনিবার পালানিস্বামী সরকারের আস্থা ভোটের আগেই বিরোধী দল ডিএমকে বিধায়কদের বেনজির গন্ডগোলে তছনছ হল বিধানসভার আসবাবপত্র। এমনকি, অধ্যক্ষ পি ধনপালকেও রেয়াত করেননি বিরোধী বিধায়করা। অভিযোগ, বিধানসভার ভেতরে স্পিকারকে শারীরিক হেনস্থা করেন বিধায়করা। তাঁর জামা পর্যন্ত ছিঁড়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। শেষপর্যন্ত মার্শালদের সাহায্যে সভাকক্ষ ছাড়েন অধ্যক্ষ। মুলতবি করে দেওয়া হয় অধিবেশন। জনপ্রতিনিধিদের এমন আচরণে স্বাভাবিকভাবেই গণতন্ত্রের উপর বড়সড় প্রশ্ন চিহ্ন দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার শাসকদল এআইএডিএমকের নয়া পরিষদীয় নেতা ই কে পালানিস্বামী মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন। রাজ্যপাল বিদ্যাসাগর রাও তাঁকে ১৫ দিনের মধ্যে বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের সময় দেন। সেই মতো শনিবার ছিল নয়া সরকারের আস্থা অর্জনের লড়াই। বিধানসভায় ভোটাভুটি শুরু হতেই বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। অভিযোগের তির প্রধান বিরোধী দল ডিএমকে বিধায়কদের উপর। তার মধ্যে কংগ্রেস পন্নিরসেলভম শিবিরকে সমর্থন করায় চাপে পড়ে যায় পালানিস্বামীর শিবির। এরপরই ঝামেলা শুরু হয়ে যায় সভাকক্ষের ভেতরে। ধনপাল জানিয়েছেন, তাঁর জামা ছিঁড়ে নিগ্রহ করা হয়। বিধানসভার ভেতরে এইভাবে অপমানিত হতে হবে তা তিনি ভাবতে পারেননি। স্পিকারের অভিযোগের পরই ডিএমকে বিধায়কদের বিধানসভা থেকে বের করে দেওয়া হয়। আস্থা ভোটের প্রক্রিয়াও বন্ধ করে দেওয়া হয়। হুলস্থুল কাণ্ডের পর বিরোধী বিধায়করা গোপনে ভোট প্রক্রিয়া করার দাবি করেন।

18-02-2017 05:24:04 pm

ত্রিপুরা বিধানসভার বাজেট অধিবেশন শুরু, রাজ্যপালের ভাষণ ঘিরে তীব্র হৈ হট্টগোল

আগরতলা, ১৮ই ফেব্রুয়ারী (এ.এন.ই ): তীব্র হৈ-হট্টগোলের মধ্য দিয়ে শুক্রবার থেকে ত্রিপুরা বিধানসভার বাজেট অধিবেশন শুরু হয়েছে। এটি বছরের প্রথম অধিবেশনও বটে। কিন্তু রাজ্যপালের ভাষণকে কেন্দ্র করে শুরুতেই সভা উত্তাল হয়ে উঠে। প্রথা মাফিক আজ অধিবেশনের সূচনাই হয় রাজ্যপালের ভাষণ দিয়ে। ভাষণের শুরুতে রাজ্যপাল তথাগত রায় রাজ্য মন্ত্রিসভার দ্বারা অনুমোদিত ভাষণের পুরোটা না পড়ার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন। আর এনিয়েই বিরোধী তৃণমূল কংগ্রেস এবং কংগ্রেস সদস্যরা সভায় বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। কিন্তু রাজ্যপাল তথাগত রায় তার অবস্থানে অনড় থেকে তার ভাষণ দিয়ে যেতে থাকেন। ক্ষুব্ধ বিরোধী তৃণমূল কংগ্রেস এবং কংগ্রেসরা ওয়েলের সামনে গিয়ে রাজ্যপালের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক শ্লোগান দিতে থাকেন। তারা রাজ্যপালকে ‘আরএসএসের এজেন্ট' এবং 'সি পি আই মুখপত্র’, ‘গো ব্যাক’ ইত্যাদি বলে বাধাদানের চেষ্টা করেন। কিন্তু রাজ্যপাল তথাগত রায় নিঃস্পৃহ ভাবে লিখিত ভাষণের উল্লেখিত অংশ পাঠ করে সভা কক্ষ ত্যাগ করেন। পরে তৃণমূল দলনেতা দিবাচন্দ্র রাংখল এবিষয়ে সাংবাদিকদের জানান, “রাজ্যপাল, রাজ্য মন্ত্রিসভার দ্বারা অনুমোদিত ভাষণের পুরোটা নাই পড়তে পারেন। এমন দৃষ্টান্ত অনেক রয়েছে। কিন্তু পুরোটা পড়বেন না এটা বলা ঠিক হয়নি। মন্ত্রিসভার দ্বারা অনুমোদিত ভাষণের যে অংশটুকুতে কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করা হয়েছে তাই তিনি এড়িয়ে গেছেন। আর রাজ্য সরকারের সাফল্যের কথা বলে গেছেন। আর এটাই প্রতিবাদের কারণ”।

18-02-2017 12:02:59 pm

চিট-ফান্ড ইস্যুতে উত্তাল ত্রিপুরা বিধানসভা, সি বি আই নাকচ

আগরতলা, ১৮ই ফেব্রুয়ারী (এ.এন.ই ): চিট-ফান্ড ইস্যুতে রাজ্য বিধানসভা কার্যত উত্তাল হয়ে উঠে। বিরোধী তৃণমূল কংগ্রেসের সদস্য দিবাচন্দ্র রাংখলের আনা এক বেসরকারি প্রস্তাবের উপর আলোচনা ঘিরে শাসক এবং বিরোধী দলের সদস্যদের মধ্যে তীব্র বাকবিতণ্ডা এবং উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়েছে। রাজ্য বিধানসভার বাজেট অধিবেশনের প্রথমদিনের দ্বিতীয়ার্ধে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু করেন তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ। তিনি বলেন, “রাজ্য সরকারের মন্ত্রী থেকে বিধায়ক সবাই এই চিট-ফান্ড কাণ্ডে জড়িত। খোদ মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার রোজভ্যালির পক্ষে প্রচার করেছেন।আর তাই মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে সেখানে টাকা রেখেছে। শাসক দলের নেতা মন্ত্রীরা অনেকেই এই চিট-ফান্ড গুলিকে নানা ভাবে সাহায্য করেছে। কোম্পানি গুলির ট্রেড লাইসেন্স থেকে প্রচার সবই করেছেন তারা”। তিনি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী নিজে রোজভ্যালি পার্ক উদ্বোধন করেছেন। এবং সেই অনুষ্ঠানে রোজভ্যালি গ্রুপের অনেক প্রশংসা করেন মুখ্যমন্ত্রী। অথচ ২০০০ সনে রাজ্য বিধানসভায় সর্ব সম্মতি ক্রমে যে আইন পাশ করা হয়েছিল তখনি এই চিট-ফান্ড গুলির কাজ কি তা প্রকাশ্যে আসে”। সুদীপের আরও অভিযোগ, এই চিট-ফান্ড ইস্যুতে অনেক বার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারকে চিঠি লিখেছে। কিন্তু প্রাপ্তি স্বীকার ছাড়া এর কোন লাভ হয়নি। তিনি আরও বলেন, “২০১৩ সালে রাজ্য সরকার ২৪ চিট-ফান্ডের বিরুদ্ধে মোট ৩৭ মামলা সিবিআই এর কাছে পেরন করে। যার মধ্যে রোজভ্যালিও ছিল। কিন্তু সিবিআই এই মামলা গুলোতে এগোতে পারেনি কারণ। রোজভ্যালির তিনটি মামলা সরকার দারা যে টাকার অঙ্ক দেখানো হয়েছিল তা অনেক কম। একটি মামলাতে টাকার কোন উল্লেখ নেই। আরেকটিতে দশ হাজার টাকা দেখানো হয়েছে এবং অপরটিতে পাঁচ হাজার চারশো টাকা দেখানো হয়েছে। আর এত কম অঙ্কের কারণে সিবিআই এই মামলা গ্রহণ করেনি। কিন্তু বড় অঙ্কের অভিযোগ গুলো পাঠনোই হয়নি”। সুদীপের আরও অভিযোগ, রাজ্য সরকার ইচ্ছে করে টাকার অংক কম দেখিয়েছে। কারণ নিয়ম অনুযায়ী প্রতি অর্থ বছরে এই চিট-ফান্ড কোম্পানি গুলি তাদের আয় কত, তা জেলা শাসকের কাছে জমা দিয়ে যাচ্ছিল। তবুও উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে রাজ্য সরকার সিবিআইকে এত কম অঙ্কের টাকা দেখাল। এদিন সুদীপ কেন্দ্রীয় সরকারকেও এক হাত নেন। তিনি বলেন, “বিজেপি সরকার গড়ার পর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সাথে প্রধান মন্ত্রী বহুবার একান্তে দেখা করেছেন। বিজেপি আর শাসক সিপিএম এর মধ্যে গোপন আঁতাত রয়েছে তাই এই রাজ্যে চিট ফান্ড নিয়ে কেন্দ্রের সরকার চুপ। আর পশ্চিম বঙ্গে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার স্বীকার করা হচ্ছে তৃণমূলের সাংসদ বিধায়কদের”। চিট-ফান্ড ইস্যুতে আজ রাজ্যের তৃণমূল নেতা তথা বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ কেন্দ্রের বিজেপি ও রাজ্যের সিপিআইএম এর মধ্যে মিতালির অভিযোগ তুলেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে গোপন বোঝাপড়ার ভিত্তিতে সিবিআই এ রাজ্যে চিট-ফান্ড ইস্যুতে কোন ভূমিকাই নিচ্ছে না বলে তিনি অভিযোগ করেন। এর পর কংগ্রেসের বিধায়ক গোপাল রায় এবং রতন লাল নাথও রাজ্যের বামফ্রন্ট সরকার এবং মুখ্যমন্ত্রীকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন। রতন লাল নাথ বলেন, জনগণের কষ্টার্জিত অর্থ লুটে নেবার দায়ে অভিযুক্ত প্রতারক চিট-ফাণ্ড সংস্থা রোজ ভ্যালির সঙ্গে নেতাদের যুক্ত থাকার কথা বলেন।নাথ বলেন, “ত্রিপুরা রাজ্যে চিট-ফান্ড দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ১৪লক্ষ আমানতদারী। এখন মুখ্যমন্ত্রীকে তার স্বচ্ছতা প্রমাণ করতে হবে। রাজ্য সরকার এসবের তদন্তের জন্য যে এস আই টি গঠন করেছে তারা বহিঃরাজ্য এবং বাংলাদেশে গিয়ে তদন্ত করতে পারবে না। ফলে সি বি আই কে এর তদন্তের দায়িত্ব দিতে হবে”। তিনি আরও বলেন, “এতদিন বাদে তারা পালিয়ে যাবার পর ত্রিপুরা সরকার এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে রাজ্যের আট জেলায় রোজ ভ্যালি চিট ফান্ডের মালিকানাধীন হিসাবে চিহ্নিত ২০টি স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।কিন্তু এগুলো নিলাম করে আমানতকারী দের অর্থ ফেরত দেবার উদ্যোগ নিচ্ছে না”। শেষে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার বলেন, “রাজ্য সরকার প্রথমেই ৩৫ টি অভিযোগের তদন্ত ভার সি বি আই-কে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু তারা মাত ৫টি মামলা নিয়েছে”। এর পর তিনি নিজে তৎকালীন প্রধান মন্ত্রী মনমোহন সিং কেও চিঠি লিখেন। কিন্তু এতেও কাজ হয়নি। তিনি বলেন, এরপর ত্রিপুরা হাইকোর্টের নির্দেশে বাকি অভিযোগের তদন্তে স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম (এস আই টি) গঠন করা হয়। এখন তদন্ত চলছে এবং নিয়মিত ভাবে এস আই টি তাদের তদন্তের অগ্রগতির বিষয়ে হাইকোর্টকে জানিয়ে আসছে। মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে সন্তুষ্ট হতে না পেরে বিরোধীরা সি বি আই তদন্তের পক্ষে সওয়াল করতে থাকেন।চলতে থাকে শাসক এবং বিরোধী দলের সদস্যদের মধ্যে তীব্র বাকবিতণ্ডা। অধ্যক্ষ প্রসঙ্গান্তর না ঘটানো পর্যন্ত বিবাদ চলতেই থাকে।

18-02-2017 11:49:47 am

ডামাডোলের অবসান, তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন পালানিস্বামী

চেন্নাই, ১৭ই ফেব্রুয়ারী (এ.এন.ই ): অবশেষে ডামাডোলের অবসান। তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন এরাপ্পাড়ি পালানিস্বামী। দীর্ঘ ডামাডোলের বৃহস্পতিবার বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল সি বিদ্যাসাগর রাও। এদিন সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ তাঁর সঙ্গে দেখা করলেন রাও। তখনই তাঁকে সরকার গড়ার আমন্ত্রণ জানান। বিকেল সাড়ে ৪টে নাগাদ ৬৩ বছরের পালানিস্বামী এবং তাঁর মন্ত্রিসভার সদস্যরা শপথ নেন। ১৫ দিনের মধ্যে বিধানসভায় তাঁকে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে হবে। বুধবার সন্ধেবেলা পালানিস্বামী এবং পনিরসেলভাম দুই পক্ষের সঙ্গেই কথা বলেন রাজ্যপাল রাও। পালানিস্বামী জানান, তাঁর কাছে ১২৪ জন বিধায়কের সমর্থন রয়েছে। পনিরের পাশে রয়েছেন ১১ জন বিধায়ক। তাই পালানিস্বামী ছাড়া অন্য কাউকে সরকার গড়ার আমন্ত্রণ জানানো রাজ্যপালের পক্ষে সম্ভব ছিল না। এমনটা যে হতে চলেছে, এক প্রকার নিশ্চিত ছিল পালানিস্বামী শিবির। বিধায়ক ডি জয়কুমারের গত রাতেই জানান, শিগগিরই তাঁদের সরকার গড়তে ডাকবেন রাজ্যপাল। এদিন সকালে রাজ্যপাল পালানিস্বামীকে ডাকার পরেই টুইটারে জয় ঘোষণা করে শশীশিবির।

17-02-2017 12:32:18 pm

আগামী ১৭ই কংগ্রেসের আইন অমান্য আন্দোলন, ১৮ই কৈলাশহর বন্ধ

আগরতলা, ১৫ ফেব্রুয়ারি (এ এন ই): শাসক সিপিএম দলের বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সারা রাজ্যে আন্দোলনে নামতে চলেছে রাজ্য কংগ্রেস দল। আজ কংগ্রেস ভবনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই কথা বলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বিরজিত সিনহা। তিনি বলেন, রাজ্যের বাম সরকার আগা থেকে গুড়া পুরো দুর্নীতি গ্রস্ত হয়ে পরেছে। তাই জন স্বার্থে নানা ইস্যু নিয়ে পথে নামবে প্রদেশ কংগ্রেস। আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি যুব কংগ্রেস রাজ্যের সব গুলি ডিসট্রিক্ট হেড কোয়াটারের সামনে অহিংসা আইন অমান্য আন্দোলন করবে। এবং ১৮ ফেব্রুয়ারি কৈলাশহরের নানা ইস্যু নিয়ে ১২ ঘন্টার কৈলাশহর বন্ধ ডেকেছে কংগ্রেস। কৈলাশহর বন্ধ ডাকার পেছনে কয়েকটি দাবি হল, খুব দ্রুত জমি অধিগ্রহণ শেষে কৈলাশহরের এয়ারপোর্ট পুনরায় চালু করা, কৈলাশহর হাসপাতালকে আধুনিক করা, স্বচ্ছ পানিয় জল সর্ব্বাহ করা ইত্যাদি।

15-02-2017 07:21:19 pm

এই মুহূর্ত হল গর্ব করার, ইসরোর সাফল্যে উচ্ছ্বসিত প্রধানমন্ত্রী

নয়াদিল্লি, ১৫ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): একসঙ্গে ১০৪টি স্যাটেলাইট মহাকাশে উত্ক্ষেপণ করে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ইসরো)। ইসরো-র এই সাফল্যে উচ্ছ্বসিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বুধবার সকাল ৯.২৮ মিনিট নাগাদ অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটা থেকে পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকল বা পিএসএলভি-সি৩৭-এ চড়ে মহাকাশে পাড়ি দিয়েছে ১০৪টি স্যাটেলাইট। বিশ্বের মধ্যে ভারতই প্রথম দেশ, যারা এই কৃতিত্ব অর্জন করল। ইসরো-র মুকুটে নতুন পালকের সংযোজন হওয়ার পরই টুইট করে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, ‘এই মুহূর্ত হল গর্ব করার’। টুইটারে প্রধানমন্ত্রী এদিন লিখেছেন, ‘পিএসএলভি-সি৩৭-এর সফল উত্ক্ষেপণের জন্য ইসরো-কে অভিনন্দন।’ টুইটারে প্রধানমন্ত্রীর আরও সংযোজন, ‘বৈজ্ঞানিক কমিউনিটি এবং দেশবাসীর জন্য আরেকটি আনন্দের মুহূর্ত। ভারতীয় বিজ্ঞানীদের অভিবাদন।’ এখনও পর্যন্ত ইসরো যতগুলি পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকল (পিএসএলভি) মহাকাশে পাঠিয়েছে তার মধ্যে এদিনেরটাই ছিল সবচেয়ে ভারী। ৩২০ টন ওজন রয়েছে এই রকেটের| এটি উচ্চতায় ছিল ৪৪.৪ মিটার। এদিন পিএসএলভি-সি৩৭-এ চেপে মহাকাশে পাড়ি দিয়েছে আমেরিকার ৯৬টি স্যাটেলাইট। এছাড়াও ছিল ইজরায়েল, কাজাখস্তান, নেদারল্যান্ডস, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী ও সু্ইজারল্যান্ডের ন্যানো স্যাটেলাইট।

15-02-2017 02:50:09 pm

ইসরোর মুকুটে নতুন পালক, একসঙ্গে মহাকাশে উত্ক্ষেপণ ১০৪টি স্যাটেলাইট

শ্রীহরিকোটা, ১৫ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): মহাকাশ বিজ্ঞানে নতুন ইতিহাস গড়ল ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ইসরো)। পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকল বা পিএসএলভি-সি৩৭-এ চড়ে মহাকাশে পোঁছে গেল ১০৪টি স্যাটেলাইট। ১০৪টি স্যাটেলাইটের মধ্যে রয়েছে ভারতের ‘আর্থ অবজারভেশন স্যাটেলাইট’, কার্টোস্যাট-২ সিরিজ এবং ১০১টি বিদেশি ন্যানো স্যাটেলাইট। বুধবার সকাল ৯.২৮ মিনিট নাগাদ অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটা থেকে মহাকাশে পাড়ি দিল পিএসএলভি-সি৩৭। বিশ্বের মধ্যে ভারতই প্রথম দেশ, যারা এই কৃতিত্ব অর্জন করল। ইসরো-র এই সাফল্যে উচ্ছ্বসিত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ইসরো-র মুকুটে নতুন পালকের সংযোজন হওয়ার পরই টুইট করে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, ‘এই মুহূর্ত গর্ব করার’। এখনও পর্যন্ত ইসরো যতগুলি পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকল (পিএসএলভি) মহাকাশে পাঠিয়েছে তার মধ্যে এদিনেরটাই ছিল সবচেয়ে ভারী। ৩২০ টন ওজন রয়েছে এই রকেটের। এটি উচ্চতায় ছিল ৪৪.৪ মিটার। এদিন পিএসএলভি-সি৩৭-এ চেপে মহাকাশে পাড়ি দিয়েছে আমেরিকার ৯৬টি স্যাটেলাইট। এছাড়াও ছিল ইজরায়েল, কাজাখস্তান, নেদারল্যান্ডস, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী ও সুইজারল্যান্ডের ন্যানো স্যাটেলাইট।

15-02-2017 02:44:54 pm

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে বেচারা বলে কটাক্ষ করলেন বিজেপির সর্ব ভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পি মুরলীধর রাও

আগরতলা, ১৪ ফেব্রুয়ারি (এ এন ই): এক জন বেচারা মুখ্যমন্ত্রীকে দিয়ে ত্রিপুরা রাজ্যটি চলছে, তার থেকে আর কি আশা করা যায়। তাই এই রাজ্যে প্রশাসন এবং শাসক দল মিলে মিশে একাকার হয়ে গেছে। এক দিনের ঝটিকা সফরে রাজ্যে এসে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার কে ঠিক এই ভাষায় আক্রমণ করলেন বিজেপির কথা বলেন সর্ব ভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পি মুরলীধর রাও। মঙ্গলবার রাজধানী আগরতলার একটি বেসরকারি হোটেলে সাংবাদিক দের সাথে কথা বলতে গিয়ে তিনি এই কথা বলেন। এদিন তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রের বিজেপি সরকার নানা প্রকল্পের জন্য দিল্লি থেকে রাজ্যকে যে টাকা দিছে তা সঠিক ভাবে মানুষের কাছে পৌছাচ্ছেনা। এখানে প্রশাসন বলতে কিছুই নেই। তাই আগামী দিনে এই রাজ্যে ভারতীয় জনতা পার্টি দুর্নীতির বীরুধে রাস্তায় নেমে লরাই করবে এবং যে যে নেতারা দুর্নীতির সঙ্গে লিপ্ত আছেন তাদের জেলে পাঠানোর ব্যবস্থা করবে।

14-02-2017 05:57:59 pm

সুপ্রিম কোর্টে বড় ধাক্কা খেলেন শশিকলা, আনন্দে মাতোয়ারা পন্নির শিবির

চেন্নাই, ১৪ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): পথের কাঁটা সরতেই আনন্দে মেতে উঠল পন্নিরসেলভম শিবির। মঙ্গলবা সুপ্রিম কোর্টে বড়সড় ধাক্কা খেলেন এআইএডিএমকে জেনারেল সেক্রেটারি ভি কে শশিকলা। আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তি মামলার রায়ে শশিকলাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে শীর্ষ আদালত। সুপ্রিম রায়ে চার বছরের কারাদণ্ড হয়েছে শশিকলার। এই রায়ের ফলে আগামী ১০ বছর পর্যন্ত নির্বাচনেই দাঁড়াতে পারবেন না শশিকলা। মঙ্গলবার সর্বোচ্চ আদালতের রায় ঘোষণার পরই আনন্দে মেতে ওঠে পন্নির শিবির। শশিকলার রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দী ও পন্নিরসেলভমের বাড়ির বাইরে ভিড় জমাতে শুরু করেন দলীয় কর্মী-সমর্থকরা। রায় ঘোষণার পর শশিকলা টুইট করে জানিয়েছেন, এর আগে আম্মা যখন কোনও সঙ্কটে পড়েছেন, আমি কষ্ট পেয়েছি। এবারও আমার কষ্ট হবে। তবে ধর্মের জয় হবেই।

14-02-2017 01:10:51 pm

ভেস্তে গেল মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন, সুপ্রিম রায়ে ৪ বছরের কারাদণ্ড শশিকলার

নয়াদিল্লি, ১৪ ফেব্রয়ারি (এ.এন.ই ): মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন ভেস্তে গেল শশিকলার। উল্টে চার বছরের জন্য তাঁকে যেতে হচ্ছে জেলে। তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার যে স্বপ্ন এতদিন দেখে আসছিলেন শশিকলা, মঙ্গলবার সেই বাসনায় জল ঢেলে দিল সুপ্রিম কোর্ট। আয়ের সঙ্গতিহীন সম্পত্তি মামলায় শশিকলার বিরুদ্ধে চার বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল সর্বোচ্চ আদালত। এই রায়ের ফলে আগামী ১০ বছর পর্যন্ত নির্বাচনেই দাঁড়াতেই পারবেন না শশিকলা। ১৯৯৬ সালে বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণম স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে তামিলনাড়ুর প্রয়াত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা ও তাঁর চার সঙ্গীর বিরুদ্ধে হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি রাখার মামলা দায়ের করা হয়েছিল। অভিযুক্তদের মধ্যে শশিকলার নামও ছিল। ২০১৪ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর বেঙ্গালুরু ট্রায়াল কোর্ট অভিযুক্তদের দোষী সাব্যস্ত করে ৪ বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেয়। জয়ললিতাকে ১০০ কোটি ও বাকি তিনজনকে ১০ কোটি টাকা করে জরিমানাও করে আদালত। এই রায়ের ফলে মুখ্যমন্ত্রীর পদ ত্যাগ করতে হয় জয়ললিতাকে। পরে কর্ণাটক হাইকোর্ট তাঁদের বেকসুর খালাস করে দেয়। কিন্তু সেই রায়ের বিরুদ্ধে শীর্ষ আদালতে যান সুব্রহ্মণম স্বামী। মঙ্গলবার বেঙ্গালুরু ট্রায়াল কোর্টের রায় বজায় রাখল সুপ্রিম কোর্ট।

14-02-2017 01:05:12 pm

উত্তর কাশ্মীরে বন্দিপোরায় সেনার গুলিতে খতম এক লস্কর জঙ্গি, শহিদ ৩ সেনা জওয়ান

শ্রীনগর, ১৪ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হল উত্তর কাশ্মীরের বন্দিপোরা জেলা। মঙ্গলবার সকাল থেকেই বন্দিপোরা জেলার হাজিন এলাকায় সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই শুরু হয়। নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে খতম হয়েছে এক লস্কর জঙ্গি। তবে, দুঃসংবাদ হল এই সংঘর্ষের ঘটনায় ৩ জন সেনা জওয়ান শহিদ হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৱেশ কয়েকজন সেনা জওয়ান। তাঁদের দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গোপন সূত্রে সেনাবাহিনী খবর পায় হাজিন এলাকার পারায় মহল্লা গ্রামে জঙ্গিরা লুকিয়ে রয়েছে। গোপন সূত্রে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে মঙ্গলবার ভোরে তল্লাশি শুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী। তল্লাশি চলাকালীন জঙ্গিরা হঠাৎই সেনাদের লক্ষ্য করে গুলি চালাতে শুরু করে। নিরাপত্তা বাহিনী পাল্টা গুলি চালালে খতম হয় এক লস্কর জঙ্গি। তবে, দুঃসংবাদ হল এই সংঘর্ষের ঘটনায় ৩ জন সেনা জওয়ান শহিদ হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৱেশ কয়েকজন জওয়ান। তাঁদের দ্রুত শ্রীনগরের সেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উল্লেখ্য, চলতি মাসের ১২ তারিখ কাশ্মীর উপত্যকায় জঙ্গি দমনে ৱড়সড় সাফল্য পায় সেনাবাহিনী। কুলগামের ফ্রিসল এলাকায় সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষে মৃত্যু হয় ৪ হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গির। শহিদ হন দুই ভারতীয় জওয়ানও।

14-02-2017 12:55:58 pm

দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাবে ভারতের অর্থনীতি, পিছিয়ে পড়বে চিন-পাকিস্তান : মার্কিন রিপোর্ট

নয়াদিল্লি, ১৩ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): আগামী ৫ বছরের মধ্যে দ্রুত বেড়ে চলা অর্থনীতিগুলির মধ্যে বিশ্বে প্রথম সারিতে উঠে আসবে ভারত। ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্স কাউন্সিল সম্প্রতি গ্লোবাল ট্রেন্ডস নামে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, ভারত যেভাবে ক্রমাগত এগিয়ে যাচ্ছে উন্নতির দিকে, পাকিস্তান কখনওই তার সঙ্গে এঁটে উঠেতে পারবে না। প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, আগামী ৫ বছরে চিনের অর্থনীতিও বেশ কিছুটা পিছিয়ে পড়বে আর সেখানেই বাজিমাত করবে ভারত। ওই রিপোর্টে জানানো হয়েছে, দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাবে ভারতের অর্থনীতি। ভারতের সঙ্গে পাল্লা দিতে না পেরে, পাকিস্তান ওই সময় বিকল্প রাস্তা নেবে বলেও গ্লোবাল ট্রেন্ডস-এর ওই রিপোর্টে প্রকাশ করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, ভারতের দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলা অর্থনীতির সঙ্গে পাল্লা দিতে না পেরে, পাকিস্তান অস্ত্র ভাণ্ডার বাড়াতে শুরু করবে আগামী ৫ বছরে। পাশপাশি, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতেও পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ সুস্থিতি নষ্ট হবে। বিপুল পরিমাণ অর্থেরও ক্ষতি হবে পাকিস্তানের। ভারতের সঙ্গে পাল্লা না দিতে পেরে তখন প্রতিবেশী অন্য রাষ্ট্রগুলির কাছে পাকিস্তান যোগাযোগ বাড়াবে বলেও মার্কিন রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে। তবে, দ্রুত বেড়ে চলা ভারতের অর্থনীতি যখন চিনকেও পিছনে ফেলে দেবে, তখন ধর্ম ও বিভেদের কারণে ভারতকে অনেক সময়ই দেশের অভ্যন্তরীণ অশান্তি নিয়ে বেগ পেতে হবে বলেও প্রকাশ করা হয়েছে আশঙ্কা।

13-02-2017 07:08:56 pm

দক্ষিণ কাশ্মীরে সেনা–জঙ্গি সংঘর্ষে নিকেশ চার জঙ্গি, শহিদ তিন জওয়ান

শ্রীনগর, ১৩ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগামে সেনা–জঙ্গি সংঘর্ষে নিকেশ চার জঙ্গি। এই সংঘর্ষে সেনার গুলিতে আরও তিন জঙ্গি আহত হয়েছে।শহিদ হয়েছন তিনসেনা জওয়ান। রবিবার সকালের এই সংঘর্ষে দুই পুলিশ কর্মী আহত। গোয়েন্দা সূত্রে জানা যায়, কুলগামের নওপোরা ইয়ারিপোরা এলাকায় লুকিয়ে রয়েছে কয়েক জন জঙ্গি। এখনও চলছে সঙ্ঘর্ষ। দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগামে জঙ্গির উপস্থিতর খবর পেয়ে রবিবার সকালে তল্লাশি অভিযানে নামে সেনা এবং কাশ্মীর পুলিশের বিশেষ অপারেশন গ্রুপ। সে সময় জওয়ানদের দিকে ঝাঁকে ঝাঁকে গুলি ছুটে আসে। পাল্টা গুলি চালায় সেনাও। সেনার গুলিতে চার জঙ্গি খতম হয় । হত দুই জঙ্গির দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গি গোষ্ঠীর ওই দুই সদস্যের নাম মুদাসির তান্তারি, মহম্মদ হাশিম। ঘটনাস্থল থেকে দুটি রাইফেল এবং অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার হয়েছে। বাকিদের খোঁজে অভিযান চালাচ্ছে জওয়ানরা। সংঘর্ষে আরও তিন জঙ্গি আহত হয়েছে। তবে তারা পালাতে সক্ষম হয়।তাদের খোঁজে তল্লাশি জারি রেখেছে সেনা। প্রসঙ্গত, গত ৪ ফেব্রুয়ারি বারামুল্লা জেলায় দুই জঙ্গিকে নিকেশ করেছিল সেনা। সেদিন দুই পুলিশকর্মী আহত হয়েছিলেন।

13-02-2017 01:27:42 pm

উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ সাব্রুম রেল স্টেশনের নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ

আগরতলা, ১৩ই ফেব্রুয়ারী (এ.এন.ই ): সবকিছু সঠিক ভাবে চলতে থাকলে ত্রিপুরার সীমান্ত শহর তথা বাণিজ্যিক দিক থেকে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ সাব্রুম রেল স্টেশনের নির্মাণ সংক্রান্ত যাবতীয় কাজ আগামী ছয় থেকে সাত মাসের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে। এখন পর্যন্ত, রেলস্টেশন ৯০ শতাংশ নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়ে গেছে। অবশিষ্ট কাজ খুব দ্রুত সম্পন্ন করার কাজ চলছে। রবিবার উত্তরপূর্ব সীমান্ত রেলের এক অফিসার জানিয়েছেন, একটি বড় রুম, নিরাপত্তা কর্মীদের কক্ষ, অপেক্ষা কক্ষ, অফিসার্স কোয়ার্টার ও স্টাফ কোয়ার্টারের জন্য ব্যারাক রেলস্টেশন চত্বরে মধ্যে নির্মাণ করা হবে। এছাড়া, আগামীদিনে রেল স্টেশনটির গুরুত্ব মনে রেখে ৩০০ মিটার উপর ছড়িয়ে একটি পার্কিং জোন তৈরি করা হচ্ছে। এটিকে একটি আন্তর্জাতিক মানের রেল স্টেশন করতে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের কর্মকর্তাদের উপর নির্দেশ রয়েছে। সাব্রুম রেলস্টেশন ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। কারণ বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বন্দর থেকে সাব্রুম মাত্র ৭৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। বাণিজ্যিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ প্রস্তাবিত এই রেলস্টেশনের কাজ শেষ হবার পথে। ইতিমধ্যে ফেনী নদী উপর একটি সেতু নির্মাণ করে সাব্রুম থেকে বাংলাদেশর রামগড়-কে যুক্ত করার কাজও শুরু হয়েছে।

13-02-2017 01:01:39 pm

এবার তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী পদে বসতে চলেছেন জয়ললিতা ঘনিষ্ঠ শশীকলা নটরাজন

চেন্নাই,৫ই ফেব্রুয়ারী (এ.এন.ই ): এআইএডিএমকে প্রধান হওয়ার পরে এবার তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী পদেও খুব শীঘ্রই বসতে চলেছেন প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী জে জয়ললিতা ঘনিষ্ঠ শশীকলা নটরাজন। সূত্রের খবর, আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি শশীকলা মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিতে পারেন। আগামী সোমবার চেন্নাইয়ে দলের প্রধান কার্যালয়ে এআইএডিএমকে-র বিধায়কদের বৈঠকে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিলমোহর পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী জে জয়ললিতার মৃত্যুর পরে দলের প্রধানের পদে বসেন শশীকলা নটরাজন। আর অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব সামলানো ও পন্নিরসেলবম মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসেন। এর আগে এআইএডিএমকে মুখপাত্র ভি মৈত্রেয়ান জানিয়েছিলেন, শশীকলাকে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে মেনে নিতে দল তৈরি। যেদিন তিনি চাইবেন সেদিনই তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন তিনি। তারপর অনেকবার দলের শীর্ষ নেতৃত্ব শশীকলাকে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। এবার সেই ডাকে সাড়া দিতে চলেছেন তিনি। প্রসঙ্গত, এআইএডিএমকে-র ট্র্যাডিশন হল যিনি দলের প্রধানের দায়িত্ব সামলাবেন, তিনিই একইসঙ্গে দল ক্ষমতায় থাকলে মুখ্যমন্ত্রীর পদও সামলাবেন। তবে জয়ললিতা মারা যাওয়ার পরে সেটা হয়নি। রাজ্যের অর্থমন্ত্রী পন্নিরসেলভম মুখ্যমন্ত্রী হন, পরে শশীকলা এআইএডিএমকে-র সর্বচ্চো পদে বসায় এবার মুখ্যমন্ত্রীরও পরিবর্তন হচ্ছে বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা।

05-02-2017 02:14:11 pm


Copyright © 2012 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.