• নিয়মিতকরণের দাবীতে আমরণ অনশনের হুমকি সর্ব শিক্ষার শিক্ষকদের
  • ফের চালু হচ্ছে পাশ ফেল প্রথা
  • অমরপুর মহারানিস্থিত শিব বাড়িতে শিবের আরাধনা
  • শিক্ষক কর্মচারীদের বছরে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ ৬০ হাজার টাকা, চাপে সরকার
  • রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত কুমারঘাট মহকুমা সদর
  • আগুনে পুড়িয়ে গৃহবধূকে হত্যা, ধৃত স্বামী
  • শীঘ্রই শিক্ষক-কর্মচারীদের বদলিনীতি নিয়ে মুখ খুলতে চায় বিজেপি
  • বেহাল রাস্তার দরুন বিগত তিনদিন ধরে শ্রীমন্তপুরে আমদানি রপ্তানি ব্যবসা বন্ধ
  • তিপ্রাল্যান্ডের নামে আন্দোলনকারীদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন এন.সি দেববর্মাঃ রাধাচরণ দেববর্মা
  • ১:১ ফর্মুলায় বিধানসভার নির্বাচনে প্রার্থী দেবে বিজেপি
  • সিপিএম ঘেরাও অমরেন্দ্রনগরে
  • বিজেপিতে যোগ দিতে দিল্লীমুখি ত্রিপুরার ছয় বিধায়ক
  • বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণে অভিযুক্ত যুবক গ্রেপ্তার
  • দুর্নীতিগ্রস্ত উপাচার্যের বরখাস্তের দাবীতে বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপকদের মুখে কালো বেঁধে প্রতিবাদ
  • কেন্দ্রীয় বরাদ্দ ঠিকমত না রাজ্যে না আসায় হতাশ অর্থমন্ত্রী
  • এনসি'র ফাঁকি ধরা পরে গেলো: অর্থমন্ত্রী
  • চাকরি দেবার নামে প্রতারণা
  • ভোমরাছড়া ভিলেজের মানুষের সার্বিক উন্নতিতে এগিয়ে এলো নবম টিএসআর বাহিনী
  • দ্রুত রেল পরিষেবা চালু করতে প্রশাসনিক স্তরে তৎপরতা শুরু
  • ত্রিপুরা কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতি ঢাকতে তদন্তের দায়িত্ব অভিযুক্তদের হাতেই
  • নারী নির্যাতনের দায়ে অভিযুক্ত আইনজীবী বিদ্যুৎ ঘোষের অন্তর্বর্তী জামিন
  • বিজেপি-সিপিআইএম সংঘর্ষে মৃত ১, আজ লংতরাইভ্যালি ১২ ঘণ্টার বনধ
  • রাজ্যপালের প্রশংসা, মানিককে নৈতিকতার পাঠ বিপ্লবের
  • অবরোধ প্রত্যাহারের সম্ভাবনা নিয়ে অচলাবস্থা, ভাঙনের মুখে আইপিএফটি
  • আইপিএফটির অনির্দিষ্ট কালীন সড়ক ও রেল অবরোধের দশম দিনে প্রত্যাহারের সম্ভাবনা

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

00310
দলত্যাগীদের বিরুদ্ধে সিপিআইএম এর কটাক্ষ, পাল্টা জবাব

আগরতলা ১১ই জুন (এ.এন.ই ): সিপিএম এর দুই নেতা বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর উভয়পক্ষের মধ্যে উত্তেজক বাক্য বিনিময় শুরু হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে রাজনৈতিক শিষ্টাচার নিয়েও। রবিবার সিপিআইএম এর সঙ্গে যাবতীয় সম্পর্ক ছিন্ন করে দিয়ে রাজ্য বিধানসভার প্রাক্তন অধ্যক্ষ তথা ৬ বারের বিধায়ক জিতেন সরকার এবং ত্রিপুরা উপজাতি এলাকা স্বশাসিত জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য জয়কিশোর জামাতিয়া বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। বিজেপিতে যোগদান কালে তারা সিপিআইএম নেতৃত্বের বিরুদ্ধে বেশ কিছু বিস্ফোরক অভিযোগ আনেন। এবিষয়ে আজ সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করতে গিয়ে বলেন, গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় যে কেউ একদল ছেড়ে অন্য দলে যেতেই পারে। কিন্তু বিষয় হচ্ছে বিজেপিকে নিয়ে। বিজেপিতে যে সব মাল মশলা সিপিএম থেকে ঢুকছে তাতে বিজেপি পার্টিটাই ময়লাখলায় পরিণত হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, পার্টিতে থেকে পার্টির আভ্যন্তরিন বিষয়গুলির আলাপ আলোচনা জন্য উত্থাপন করলে নেতৃত্ব তাতে গুরুত্ব দেয়। কিন্তু পার্টি থেকে বেরিয়ে গিয়ে কোন অভিযোগ করলে তা মূল্যহীন হয়ে পড়ে। জিতেন সরকার ও জয়কিশোর জামাতিয়া বক্তব্য পার্টির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বিচার্য বিষয়ই নয়। বিজেন বাবুর বক্তব্যে উষ্মা প্রকাশ করে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া জিতেন সরকার বলেন, রাজনীতিতে শিষ্টাচার বলতে কোন বিষয় আছে তা সিপিআইএমের নেতারা ভুলে গেছেন। বিজন বাবুর অনেক আগে আমি পার্টিতে এসেছি। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারেরও বহু আগে পার্টির জন্য কাজ শুরু করেছি। টানা ৪৫ বছর সিপিআইএমের জন্য ঘাম ঝরিয়েছি। ফলে কোন বক্তব্য রাখার আগে চিন্তা করা উচিৎ বিজন বাবুদের। অন্যদিকে জয়কিশোর জামাতিয়া প্রতিক্রিয়ায় বলেন, রবিবার বিকালে ৪টায় তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। আর যোগ দেওয়ার খবর আগেই এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। তখন সকাল ১০টা থেকে বহুবার বহু নেতা তাঁকে ফোন করেছেন এবং সরাসরি সাক্ষাৎ করে পার্টিতে যাবতীয় মর্যাদা ফিরিয়ে দেবার আশ্বাস দেন। এমনকি জেলা সম্পাদক করার প্রস্তাবও দেন। বিজন বাবুর মতে আবর্জনা হলে আমাকে নিয়ে এত চেষ্টা তারা কেন করেছিলেন তার জবাব দিতে হবে। এই ইস্যুতে রাজ্য রাজনীতিতে এখন তীব্র বাদানুবাদ শুরু হয়েছে। সিপিএম জিতেন বাবুদের সুবিধাবাদী বলেও অভিযোগ করেছেন।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.