• রাজনৈতিক সংঘর্ষে নিহত ত্রিপুরার যুবা সাংবাদিক
  • ত্রিপুরায় রাজনৈতিক সংঘর্ষে চরমে, সাংবাদিককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা
  • চরম অশান্তির পরিবেশ, রাজনৈতিক সংঘর্ষ
  • আবার রাজনৈতিক সংঘর্ষের সম্ভাবনা, অবরুদ্ধ পথ
  • ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গে ভোটের স্বার্থে রাজনৈতিক দলগুলি সহায়তা করছে রোহিঙ্গাদের
  • বঞ্চনার প্রতিবাদে ফের আন্দোলনের হুমকি সর্বশিক্ষার শিক্ষকদের
  • রোহিঙ্গা নির্যাতন ইস্যুতে রাজ্যপালের ডেপুটেশন জমিয়তের
  • বিদ্যুৎতের ছোবলে মৃত ১ যুবক
  • মাতাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রে পদ্ম জোয়ার, ২০৪ ভোটার বিজেপিতে যোগদান
  • এক সত্তরোর্ধ বৃদ্ধার যৌন লালসার শিকার নাবালিকা মেয়ে
  • বিজেপিকে আক্রমণ করতে গিয়ে আরএসএসের দিকে তোপ দাগলেন মানিক সরকার
  • এইচএসসিএলের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের দাবি ত্রিপুরা সরকারের
  • বিজেপির ঘরেই ছেঁদ, নিয়োগ-প্রক্রিয়া বন্ধ হয়নি
  • আগরতলা সহ ত্রিপুরার বিভিন্ন মহকুমা সদরে আরএসএসএর পথ সঞ্চালন
  • পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু
  • সুপ্রিমকোর্টের আদেশমূলে রাজ্যেও ফ্যামিলি ওয়েলফেয়ার কমিটি
  • স্থান করতে গিয়ে তলিয়ে গেল এক ব্যক্তি
  • আজ মহালয়া, পিতৃ তর্পণ
  • চাকরির গ্যাঁড়াকলে ফেঁসে গিয়ে পরিস্থিতি জটিল করছে বামেরা
  • খোয়াই ও চম্পকনগরে ব্যাপক রাজনীতি সংঘর্ষ, আহত বহু
  • আবার রাজনৈতিক সংঘর্ষ, আহত বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ
  • সরকারের বিরুদ্ধে আদালতের মামলাকারীর জীবন সংশয়
  • স্মার্টসিটি থেকে নীল তিমির আতঙ্ক এখন মফস্বলে
  • নিয়মিত করণের দাবিতে অনিয়মিত স্বাস্থ্যকর্মীদের আন্দোলন প্রত্যাহার
  • শ্রীনগরে বৃদ্ধার অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে ব্যাপক রহস্য অভিযোগ ছেলের বিরুদ্ধে

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

00310
দলত্যাগীদের বিরুদ্ধে সিপিআইএম এর কটাক্ষ, পাল্টা জবাব

আগরতলা ১১ই জুন (এ.এন.ই ): সিপিএম এর দুই নেতা বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর উভয়পক্ষের মধ্যে উত্তেজক বাক্য বিনিময় শুরু হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে রাজনৈতিক শিষ্টাচার নিয়েও। রবিবার সিপিআইএম এর সঙ্গে যাবতীয় সম্পর্ক ছিন্ন করে দিয়ে রাজ্য বিধানসভার প্রাক্তন অধ্যক্ষ তথা ৬ বারের বিধায়ক জিতেন সরকার এবং ত্রিপুরা উপজাতি এলাকা স্বশাসিত জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য জয়কিশোর জামাতিয়া বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। বিজেপিতে যোগদান কালে তারা সিপিআইএম নেতৃত্বের বিরুদ্ধে বেশ কিছু বিস্ফোরক অভিযোগ আনেন। এবিষয়ে আজ সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করতে গিয়ে বলেন, গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় যে কেউ একদল ছেড়ে অন্য দলে যেতেই পারে। কিন্তু বিষয় হচ্ছে বিজেপিকে নিয়ে। বিজেপিতে যে সব মাল মশলা সিপিএম থেকে ঢুকছে তাতে বিজেপি পার্টিটাই ময়লাখলায় পরিণত হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, পার্টিতে থেকে পার্টির আভ্যন্তরিন বিষয়গুলির আলাপ আলোচনা জন্য উত্থাপন করলে নেতৃত্ব তাতে গুরুত্ব দেয়। কিন্তু পার্টি থেকে বেরিয়ে গিয়ে কোন অভিযোগ করলে তা মূল্যহীন হয়ে পড়ে। জিতেন সরকার ও জয়কিশোর জামাতিয়া বক্তব্য পার্টির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বিচার্য বিষয়ই নয়। বিজেন বাবুর বক্তব্যে উষ্মা প্রকাশ করে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া জিতেন সরকার বলেন, রাজনীতিতে শিষ্টাচার বলতে কোন বিষয় আছে তা সিপিআইএমের নেতারা ভুলে গেছেন। বিজন বাবুর অনেক আগে আমি পার্টিতে এসেছি। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারেরও বহু আগে পার্টির জন্য কাজ শুরু করেছি। টানা ৪৫ বছর সিপিআইএমের জন্য ঘাম ঝরিয়েছি। ফলে কোন বক্তব্য রাখার আগে চিন্তা করা উচিৎ বিজন বাবুদের। অন্যদিকে জয়কিশোর জামাতিয়া প্রতিক্রিয়ায় বলেন, রবিবার বিকালে ৪টায় তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। আর যোগ দেওয়ার খবর আগেই এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। তখন সকাল ১০টা থেকে বহুবার বহু নেতা তাঁকে ফোন করেছেন এবং সরাসরি সাক্ষাৎ করে পার্টিতে যাবতীয় মর্যাদা ফিরিয়ে দেবার আশ্বাস দেন। এমনকি জেলা সম্পাদক করার প্রস্তাবও দেন। বিজন বাবুর মতে আবর্জনা হলে আমাকে নিয়ে এত চেষ্টা তারা কেন করেছিলেন তার জবাব দিতে হবে। এই ইস্যুতে রাজ্য রাজনীতিতে এখন তীব্র বাদানুবাদ শুরু হয়েছে। সিপিএম জিতেন বাবুদের সুবিধাবাদী বলেও অভিযোগ করেছেন।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.