• নিয়মিতকরণের দাবীতে আমরণ অনশনের হুমকি সর্ব শিক্ষার শিক্ষকদের
  • ফের চালু হচ্ছে পাশ ফেল প্রথা
  • অমরপুর মহারানিস্থিত শিব বাড়িতে শিবের আরাধনা
  • শিক্ষক কর্মচারীদের বছরে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ ৬০ হাজার টাকা, চাপে সরকার
  • রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত কুমারঘাট মহকুমা সদর
  • আগুনে পুড়িয়ে গৃহবধূকে হত্যা, ধৃত স্বামী
  • শীঘ্রই শিক্ষক-কর্মচারীদের বদলিনীতি নিয়ে মুখ খুলতে চায় বিজেপি
  • বেহাল রাস্তার দরুন বিগত তিনদিন ধরে শ্রীমন্তপুরে আমদানি রপ্তানি ব্যবসা বন্ধ
  • তিপ্রাল্যান্ডের নামে আন্দোলনকারীদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন এন.সি দেববর্মাঃ রাধাচরণ দেববর্মা
  • ১:১ ফর্মুলায় বিধানসভার নির্বাচনে প্রার্থী দেবে বিজেপি
  • সিপিএম ঘেরাও অমরেন্দ্রনগরে
  • বিজেপিতে যোগ দিতে দিল্লীমুখি ত্রিপুরার ছয় বিধায়ক
  • বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণে অভিযুক্ত যুবক গ্রেপ্তার
  • দুর্নীতিগ্রস্ত উপাচার্যের বরখাস্তের দাবীতে বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপকদের মুখে কালো বেঁধে প্রতিবাদ
  • কেন্দ্রীয় বরাদ্দ ঠিকমত না রাজ্যে না আসায় হতাশ অর্থমন্ত্রী
  • এনসি'র ফাঁকি ধরা পরে গেলো: অর্থমন্ত্রী
  • চাকরি দেবার নামে প্রতারণা
  • ভোমরাছড়া ভিলেজের মানুষের সার্বিক উন্নতিতে এগিয়ে এলো নবম টিএসআর বাহিনী
  • দ্রুত রেল পরিষেবা চালু করতে প্রশাসনিক স্তরে তৎপরতা শুরু
  • ত্রিপুরা কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতি ঢাকতে তদন্তের দায়িত্ব অভিযুক্তদের হাতেই
  • নারী নির্যাতনের দায়ে অভিযুক্ত আইনজীবী বিদ্যুৎ ঘোষের অন্তর্বর্তী জামিন
  • বিজেপি-সিপিআইএম সংঘর্ষে মৃত ১, আজ লংতরাইভ্যালি ১২ ঘণ্টার বনধ
  • রাজ্যপালের প্রশংসা, মানিককে নৈতিকতার পাঠ বিপ্লবের
  • অবরোধ প্রত্যাহারের সম্ভাবনা নিয়ে অচলাবস্থা, ভাঙনের মুখে আইপিএফটি
  • আইপিএফটির অনির্দিষ্ট কালীন সড়ক ও রেল অবরোধের দশম দিনে প্রত্যাহারের সম্ভাবনা

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

00310
চাকরীচ্যুত ১০,৩২৩ জন তাদের সুরক্ষার দাবীতে পথে নামল

আগরতলা ১২ই জুন (এ.এন.ই ): দেশের সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশে বাতিল হওয়া ত্রিপুরায় ১০,৩২৩ শিক্ষক এবার সরকারের বিরুদ্ধে পথে নেমেছে। যদিও চাকরীচ্যুতরা সকলেই বিভিন্ন বিষয়ে একমত নন বলে জানা গেছে। সোমবার দুর্যোগপূর্ণ আবহওয়া উপেক্ষা করে চাকরীচ্যুতদের একটি বড় অংশ রবীন্দ্র ভবনের সামনে জড়ো হয়। সেখানে তারা তাদের সমস্যা নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা করেছে। চাকরীচ্যুতরা জানিয়েছে ৯৬২ জন বিজ্ঞান শিক্ষকের নিয়োগ ইস্যুতে দায়ের করা আবেদনের বিষয়ে রাজ্য সরকার যে অবস্থান নিয়েছে তা তাদের ক্ষেত্রেও নেওয়া যেত। কিন্তু সরকার রা করেননি। ৯৬২ জন বিজ্ঞান শিক্ষক নিয়োগের অনিয়মের বিষয়ে মামলাকারী যোগ্য বঞ্চিতদের চাকরি দিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বিচারপতি জাস্টিস শুভাশিস তলাপাত্রের দেওয়া এই রায়ের বিরুদ্ধে ডাবল বেঞ্চে যাচ্ছে না ত্রিপুরা সরকার। ১০,৩২৩ শিক্ষকের মামলায় আদালত প্রথম একেই ধরনের রায় দিয়েছিল। বঞ্চিত মামলাকারী ৫৮ জনকে চাকরি দিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল উচ্চ আদালত। কিন্তু রাজ্য এর বিরুদ্ধে ডাবল বেঞ্চে যায় এবং ত্রিপুরা উচ্চ আদালতের তৎকালীন প্রধান বিচারপতি জাস্টিস দীপক গুপ্তা ১০,৩২৩ শিক্ষকের চাকরি বাতিল করেছেন। এই রায়ের বিরুদ্ধে রাজ্য সরকার সর্বোচ্চ আদালতে যায় এবং উচ্চ আদালতের রায়ই বহাল থাকে। আন্দোলনকারীরা জানিয়েছে সেই সময় মামলাকারী ৫৮ কে চাকরি দিয়ে দিলে আর সমস্যা হত না। তারা বলেছেন, রাজনৈতিক মতাদর্শের ঊর্ধ্বে উঠে পরিবার পরিজনদের বাঁচানোর স্বার্থে জোটবদ্ধ হয়ে বলিষ্ঠ পদক্ষেপ নিতে হবে।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.