• প্রতাপগড় বিধানসভা কেন্দ্রে ব্যাপক রাজনৈতিক সংঘর্ষ
  • এডিসি স্কুলগুলিতে মিড-ডে-মিল চালাতে নাভিশ্বাস শিক্ষকদের
  • দেহ ব্যবসা ও নেশার ঠেক থেকে এক পাণ্ডা সহ দুই খদ্দের ও দুই ছিনতাইবাজ গ্রেপ্তার
  • সরকারের বঞ্চনার শিকারে দ্বিধা বিভক্ত রেগা কর্মচারীরা
  • রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে কর্মী তালিকা বানাতে বেকাদায় এসপি'রা
  • সদরের পর ভোটার তালিকার জালিয়াতির অভিযোগ উঠল জিরানিয়ায়
  • ৭০ বছরের এক বৃদ্ধার লালসায় শিকার নাবালিকা
  • রেললাইনের পাশ থেকে অজ্ঞাত যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার
  • বিশালগড়ে এক ব্যবসায়ীকে লক্ষ্য করে গুলি, তদন্তে পুলিশ
  • বাইখোরা এলাকায় গণধর্ষণের শিকার নাবালিকা মামলা নিয়ে পুলিশের গড়িমসি
  • ডাল কেলেঙ্কারি টেন্ডার ছাড়াই ৫০ কোটি টাকার ক্রয় বাণিজ্য
  • মদ বিরোধী অভিযানে পুলিশ ও জনগণের মধ্যে খণ্ডযুদ্ধ, উত্তপ্ত ড্রপগেইট এলাকা
  • রাজ্যের সাংবাদিকদের নতুন এক্রিডিটেশন পলিসি গঠনের সুপারিশ
  • আইজিএম হাসপাতাল চত্বরে নেশা সামগ্রী সহ ধৃত এক যুবক
  • ডিসিএম'র বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি
  • বিতর্কিত নাগরাজ ফের ডিজি?
  • পানীয় জলের দাবিতে আমবাসা-গণ্ডাছড়া সড়ক অবরোধ
  • ভোটার তালিকায় ভুয়ো প্রমাণপত্র দিয়ে নাম তোলার চেষ্টা অভিযোগ মহকুমা প্রশাসনের
  • দীর্ঘ ১৭ বছর পর ঘরে ফিরল নিলুবধূ
  • ২৫শে নভেম্বরের মধ্যে চালু হওয়ার সম্ভাবনা রাধানগরের দ্বিতীয় সেতুটি, ভোটের আগে উদ্বোধন অনিশ্চিত উড়াল পুলের
  • আগরতলায় কৃষক জমায়েতের ডাক দিয়েছে বিজেপি
  • এটিটিএফ সুপ্রিমোর গ্রেপ্তার ঘিরে গভীর ষড়যন্ত্রের অভিযোগ বিজেপি'র
  • চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে যুক্ত থাকার অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের গ্রেপ্তার চেয়ে সিবিআইএর কাছে বিজেপি'র চিঠি
  • এটিটিএফ সুপ্রিমোর গ্রেপ্তার ঘিরে গভীর ষড়যন্ত্রের অভিযোগ বিজেপি'র
  • চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে যুক্ত থাকার অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের গ্রেপ্তার চেয়ে সিবিআইএর কাছে বিজেপি'র চিঠি

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

00310
চাকরীচ্যুত ১০,৩২৩ জন তাদের সুরক্ষার দাবীতে পথে নামল

আগরতলা ১২ই জুন (এ.এন.ই ): দেশের সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশে বাতিল হওয়া ত্রিপুরায় ১০,৩২৩ শিক্ষক এবার সরকারের বিরুদ্ধে পথে নেমেছে। যদিও চাকরীচ্যুতরা সকলেই বিভিন্ন বিষয়ে একমত নন বলে জানা গেছে। সোমবার দুর্যোগপূর্ণ আবহওয়া উপেক্ষা করে চাকরীচ্যুতদের একটি বড় অংশ রবীন্দ্র ভবনের সামনে জড়ো হয়। সেখানে তারা তাদের সমস্যা নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা করেছে। চাকরীচ্যুতরা জানিয়েছে ৯৬২ জন বিজ্ঞান শিক্ষকের নিয়োগ ইস্যুতে দায়ের করা আবেদনের বিষয়ে রাজ্য সরকার যে অবস্থান নিয়েছে তা তাদের ক্ষেত্রেও নেওয়া যেত। কিন্তু সরকার রা করেননি। ৯৬২ জন বিজ্ঞান শিক্ষক নিয়োগের অনিয়মের বিষয়ে মামলাকারী যোগ্য বঞ্চিতদের চাকরি দিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বিচারপতি জাস্টিস শুভাশিস তলাপাত্রের দেওয়া এই রায়ের বিরুদ্ধে ডাবল বেঞ্চে যাচ্ছে না ত্রিপুরা সরকার। ১০,৩২৩ শিক্ষকের মামলায় আদালত প্রথম একেই ধরনের রায় দিয়েছিল। বঞ্চিত মামলাকারী ৫৮ জনকে চাকরি দিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল উচ্চ আদালত। কিন্তু রাজ্য এর বিরুদ্ধে ডাবল বেঞ্চে যায় এবং ত্রিপুরা উচ্চ আদালতের তৎকালীন প্রধান বিচারপতি জাস্টিস দীপক গুপ্তা ১০,৩২৩ শিক্ষকের চাকরি বাতিল করেছেন। এই রায়ের বিরুদ্ধে রাজ্য সরকার সর্বোচ্চ আদালতে যায় এবং উচ্চ আদালতের রায়ই বহাল থাকে। আন্দোলনকারীরা জানিয়েছে সেই সময় মামলাকারী ৫৮ কে চাকরি দিয়ে দিলে আর সমস্যা হত না। তারা বলেছেন, রাজনৈতিক মতাদর্শের ঊর্ধ্বে উঠে পরিবার পরিজনদের বাঁচানোর স্বার্থে জোটবদ্ধ হয়ে বলিষ্ঠ পদক্ষেপ নিতে হবে।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.