• তথাগত রায়কে অপসারণের দাবী সিপিআইএম ও কংগ্রেসের
  • আন্তর্জাতিক মৈত্রী বাস দুর্ঘটনায় হতাহত ৩
  • তেলিয়ামুড়ায় গ্যাস ভর্তি সিলিন্ডার গাড়ি উল্টে গভীর খাদে, আহত ১
  • মুম্বাইয়ে ত্রিপুরা বামফ্রন্ট সরকার এবং মুখ্যমন্ত্রীর সমালোচনামূলক পুস্তক প্রকাশ
  • রাজ্যে বন্যায় তিন জেলার ৮৯টি গ্রামের প্রায় ৭৬৬২টি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত
  • পাপাই হত্যায় সেশন কোর্টের রায়ের বিরোধিতা করে হাইকোর্টে রাজ্য সরকার
  • পানীয় জলের বোতলে পোকা
  • চলন্ত অটো থেকে ভিন রাজ্যের চার মহিলা পকেটমার ধৃত
  • আনোয়ারা হত্যাকান্ডে সঠিক তদন্তে সিআইডি'র কাছে ছাত্র সমাজ
  • ত্রিপুরা সফরে এসে যোগ করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়
  • ট্রাফিক পুলিশকে পেটালো একদল যুবক
  • বেতন কমিটির রিপোর্টে ভুল প্রত্যাহার দাবী ২৩টি কর্মচারী সংগঠন
  • শান্তিরবাজারে পালিত আন্তর্জাতিক যোগা দিবস
  • শাসক দলকে পাত্তা দিয়ে নারাজ এন সি দেববর্মা
  • নেতা কর্তৃক কিশোরীর সম্ভ্রম নাশঃ বিজেপি
  • বীরেন্দ্র ত্রিপুরা পাড়ায় ৪০টি পরিবার সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে
  • ত্রিপুরার ক্রমবর্ধমান নারী নির্যাতন নিয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ জাতীয় মহিলা কমিশনের
  • পার্টি অফিসে ভাঙচুর চালালো চাকরি বঞ্চিত ক্ষুব্ধ ক্যাডাররা
  • অভাবের জ্বালায় এক ব্যাক্তির আত্মহত্যা
  • কর্মচারীদের কাজের সময়সীমা বৃদ্ধি করলো ত্রিপুরা সরকার, বন্যা ত্রাণে বিশেষ কমিটি
  • ত্রিপুরার বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি, ত্রাণ শিবিরে ২ হাজার পরিবার
  • সালেমা সিডিপিও অফিসে ১৭ লক্ষ টাকা গায়েব
  • রাজধানীর আগরতলা আশপাশ সহ ত্রিপুরার বিভিন্ন এলাকায় জলপ্লাবন
  • অমরপুরে অনুষ্ঠিত যোগা বিষয়ক একদিনের আলোচনাসভা
  • নদীর বাড়ন্ত জল দেখতে গিয়ে সলিল সমাধি

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

00310
কর্মচারীদের বঞ্চিত করতে অভূত ফর্মুলা নিয়েছে বামফ্রন্ট সরকারঃ বিজেপি

আগরতলা ১৬ই জুন (এ.এন.ই ): রাজ্য সরকারের কর্মচারীদের জন্য বর্ধিত বেতনক্রম নিয়ে বিজেপি বুধবার রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ তুললো। দলের মুখপাত্র ডাঃ অশোক সিনহা বিষয়টিকে বামফ্রন্ট সরকারের ধাপ্পাবাজির এক নতুন সংস্করণ বলে উল্লেখ করেছেন। বিজেপি'র মুখপাত্র ডাঃ অশোক সিনহা বলেছেন, কেন্দ্রীয় সরকার সপ্তম বেতন কমিশন দেবার পর সিপিআইএমের সর্বভারতীয় নেতারা প্রচণ্ড সমালোচনা 'করেছিলেন। তখন তাদের মনে হয়েছিল ওই বেতনক্রম খুবই কম মাত্র ১৪ শতাংশ হারে বেতন বৃদ্ধি হওয়াটা সে দিন তাদের কাছে বেমানান ছিল এবং কর্মচারীদের প্রতি দরদ উথলে উঠার ভান করেছিল। কিন্তু ত্রিপুরার বামফ্রন্ট সরকার গত মঙ্গলবার ত্রিপুরার কর্মচারীদের জন্য যে ধরনের ঘোষণা দিলো তা নিন্দার ভাষা রাখে না। তিনি বলেন, রাজ্য সরকারের কর্মচারীদের বেতনক্রম ১ শতাংশও বৃদ্ধি করা হয়নি। যেখানে দাঁড়িয়ে ছিলেন কর্মচারীরা ঠিক সেখানেই তারা রয়ে গেছেন। রাজ্য সরকারের কর্মচারীদের প্রকৃতপক্ষে বেতন ভাতা শূন্য শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। সিপিএমের এই গোলক ধাঁধা বুঝতে কর্মচারীদের যদিও কিছুটা সময় লেগেছে। বিজেপি'র প্রদেশ কার্যালয়ে ডাঃ অশোক সিনহা বলেন, ত্রিপুরার কর্মচারীদের সঙ্গে যে ধরনের প্রতারণা করা হয়েছে তাও একটি বিরলতম ঘটনা। ত্রিপুরার কর্মচারীদের ৩৭ শতাংশ মহার্ঘ্যভাতা বাকি ছিল\। কেন্দ্রীয় সরকার এই অর্থ বকেয়া রাখেনি। কেন্দ্রীয় সরকার নিয়মিত রাজ্যকে এই অর্থ দিয়ে গেছে। বিজেপি'র সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অভিজ্ঞরা বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করেছেন। সে অনুযায়ী দেখা গেছে কর্মচারীদের মাইনে বাবদ কেন্দ্রীয় সরকারের দেওয়া অর্থের মধ্যে ১২০০ কোটি অব্যায়িত ছিল। ৩৭ শতাংশ মহার্ঘভাতার টাকা দিল্লী থেকে এনে তা জমিয়ে রাখ হয়েছিল। দীর্ঘদিনের জমানো এই টাকার সুদ কি পরিমাণে হতে পারে তা অনেকেই বুঝে গেছেন। ডাঃ অশোক সিনহা বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই বিজেপি কেন্দ্রীয় বেতনক্রমের জন্য রাজ্য সরকারের উপর চাপ দিয়ে আসছিল। কিন্তু পে এন্ড পেনশন রিভিশন কমিটির নামে রাজ্য সরকার প্রতারণার ছক কষছিল। আমলাদের সঙ্গে বিস্তর হিসাব নিকাশ করে রাজ্য সরকার ঠিক যত টাকা মহার্ঘভাতা পাওনা ছিল কর্মচারীরা সেই টাকাটাই দিয়ে বামফ্রন্ট সরকার ১৯ শতাংশ বেতনভাতা বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করে দেয়। তিনি বলেন, বামপন্থী কর্মচারী সংগঠনের নেতারা এসব ধাপ্পাবাজি বুঝতে পারছেন না এমনটা নয়। তাদের কাছেও সবই স্পষ্ট। এখন তারা নানা কারণে সিপিআইএমের বেড়াজাল থেকে বের হতে পারছেন না। কিন্তু সকলেই অসন্তুষ্ট। বামেদের দ্বিচারিতা চিরাচরিত বিষয়। কেন্দ্রের বেতনক্রমকে সিপিআইএমের কেন্দ্রীয় নেতারা খুবই কম হয়েছে বললেও এ রাজ্যের বিষয়ে, এ রাজ্যের কর্মচারীদের জন্য তারা মুখ খুলেন না। বিজেপি সরকার ক্ষমতায় এলে প্রথম ক্যাবিনেটেই সপ্তম বেতন কমিশন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে পার্টির সর্বভারতীয় সভাপতি আগেই জানিয়ে দিয়েছেন। পার্টি এই 'সিদ্ধান্তে অনড় রয়েছে।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.