• বিপুল বাংলাদেশি টাকা সহ গ্রেপ্তার নেতা
  • অমরপুরে বিজেপি-সিপিএম সংঘর্ষে আহত ১৭
  • রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য ত্রিপুরা বিধানসভার বিরোধী বিধায়কদের ভোট চাইল বিজেপি
  • তথ্য তুলে ধরে ত্রিপুরা সরকারকে আসামের মন্ত্রী হেমন্ত বিশ্বশর্মার তীব্র আক্রমণ
  • ডাক বিভাগের আঞ্চলিক কার্যালয় আগরতলায়
  • দৃষ্টিহীন বিদ্যালয়ের কিশোরের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে তীব্র উত্তেজনা
  • বিলোনিয়ায় রতনপুরে অনুষ্ঠিত কৃষক সভা
  • অমরপুর রথযাত্রা উৎসবের ঐতিহ্য বজায়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চাইছেন ধর্মপ্রাণ মানুষ
  • অমরপুরে শিশুপুত্র বিক্রয়, অভাবী মা সহ আটক ৩
  • তথাগত রায়কে অপসারণের দাবী সিপিআইএম ও কংগ্রেসের
  • আন্তর্জাতিক মৈত্রী বাস দুর্ঘটনায় হতাহত ৩
  • তেলিয়ামুড়ায় গ্যাস ভর্তি সিলিন্ডার গাড়ি উল্টে গভীর খাদে, আহত ১
  • মুম্বাইয়ে ত্রিপুরা বামফ্রন্ট সরকার এবং মুখ্যমন্ত্রীর সমালোচনামূলক পুস্তক প্রকাশ
  • রাজ্যে বন্যায় তিন জেলার ৮৯টি গ্রামের প্রায় ৭৬৬২টি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত
  • পাপাই হত্যায় সেশন কোর্টের রায়ের বিরোধিতা করে হাইকোর্টে রাজ্য সরকার
  • পানীয় জলের বোতলে পোকা
  • চলন্ত অটো থেকে ভিন রাজ্যের চার মহিলা পকেটমার ধৃত
  • আনোয়ারা হত্যাকান্ডে সঠিক তদন্তে সিআইডি'র কাছে ছাত্র সমাজ
  • ত্রিপুরা সফরে এসে যোগ করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়
  • ট্রাফিক পুলিশকে পেটালো একদল যুবক
  • বেতন কমিটির রিপোর্টে ভুল প্রত্যাহার দাবী ২৩টি কর্মচারী সংগঠন
  • শান্তিরবাজারে পালিত আন্তর্জাতিক যোগা দিবস
  • শাসক দলকে পাত্তা দিয়ে নারাজ এন সি দেববর্মা
  • নেতা কর্তৃক কিশোরীর সম্ভ্রম নাশঃ বিজেপি
  • বীরেন্দ্র ত্রিপুরা পাড়ায় ৪০টি পরিবার সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

00310
ব্যয় সঙ্কোচে ত্রিপুরা সরকারের বহুমুখী পদক্ষেপ

আগরতলা ১৮ই জুন (এ.এন.ই ): কর্মচারীদের বেতনভাতা বৃদ্ধির পর ব্যয় সঙ্কোচে মনদিয়েছে রাজ্য সরকার। নানা ভাবে ইতিপূর্বে রাজ্যের কোষাগার থেকে যে ভাবে অর্থ বেরিয়ে যেত তা ঠেকানোর জন্য রাজ্য অর্থ দপ্তর থেকে বেশ কিছু নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। রাজ্য অর্থদপ্তর থেকে বিভিন্ন দপ্তরের কাছে ইতিমধ্যেই ব্যয় সঙ্কোচে কিছু নিদিষ্ট নিয়মনীতি মেনে চলতে সার্কুলার পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্য প্রশাসনের এক শীর্ষস্থানীয় আধিকারিক জানিয়েছেন, আগামী কয়েক বছর রাজ্যের আর্থিক অবস্থার হাল না ফেরা পর্যন্ত দপ্তর গুলিতে গাড়ি না কেনার জন্য বলা হয়েছে। এমনকি দপ্তর গুলির জন্য গাড়ি ভাড়া নেবার ক্ষেত্রেও নিয়ন্ত্রণ চালু করার কথা বলা হয়েছে। সূত্রটি আর জানিয়েছে, দপ্তরগুলি এখন থেকে যথেচ্ছ ভাবে আর অনিয়মিত কর্মচারী নিয়োগ করতে পারবেনা। এজন্য অর্থদপ্তরের অনুমোদন নেওয়া বাধ্যতামূলক হচ্ছে। দপ্তর প্রধানদের এই নির্দেশিকা অক্ষরে অক্ষরে পালন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এইসব বিষয় থেকে বিচ্যুতি ঘটলে আধিকারিকদের বিরুদ্ধে শাস্তি মূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হতে পারে। একেই সঙ্গে রাজ্য সরকার রাজস্ব বৃদ্ধির উপরেও গুরুত্ব দিচ্ছে। কর বহির্ভূত আয় এবং বিভিন্ন ধরনের করের হার পরিবর্তন পরিবর্ধন ও রাজস্ব আদায়ে গতি আনার বিষয়গুলি খতিয়ে দেখার জন্য একটি কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য অর্থদপ্তর। একেই সঙ্গে লোকসানে চলা বিভিন্ন অধিগৃহীত সংস্থা গুলির প্রাথিস্টানিক ব্যায় সঙ্কোচের নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। কর্মী স্বল্পতা বিভিন্ন সরকারী দপ্তর থেকে কর্মচারী এনে মিটিয়ে নেবার নির্দেশ আর আগেই দেওয়া হয়েছিল। রাজ্য অর্থদপ্তর এখন রাজ্যের আইন দপ্তরকেও ব্যয় সঙ্কোচের জন্য ফর্মুলা দিয়ে দিয়েছে। সরকারের বিভিন্ন মামলায় কোষাগার থেকে প্রচুর পরিমাণ অর্থ বেড়িয়ে যাচ্ছে। রাজ্য সরকারের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট কিনা তা আগাম খতিয়ে দেখেই বিভিন্ন দপ্তর কে মামলার জন্য এগুতে বলা হয়েছে। মামলা গুলিতে আইনজীবী নির্বাচনেও এখন থেকে যথেষ্ট কড়াকড়ি থাকবে। রাজ্যের বামফ্রন্ট সরকার ক্যাশলেস ব্যবস্থা বিরোধিতা করলেও রাজ্য প্রশাসন এই বিষয়টিকেই প্রাধান্য দিচ্ছে। আর এর মাধ্যমে রাজ্য সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে বলেও মনে করা হচ্ছে।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.