বিজ্ঞাপন
Megabyte - Walk in motion আগরতলায় প্রথমবার নিয়ে এসেছে মডেলিং এবং এক্টিং জগতের বন্ধুদের জন্য এক সুবর্ণ সুযোগ । মডেলিংএর জগতে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে এবং ভারতের বিশিষ্ট সেলিব্রিটিদের সঙ্গে কাজ করার বিরাট সুযোগ এনে দিয়েছে Mega Byte - Walk in motion organized by Polonius EMS Pvt. Ltd. এবং Agartala Promotion Partner: Zoom Ad Agency । আগ্রহীরা সরাসরি চলে আসতে পারেন আগামী ১৭ই অক্টোবর হোটেল উয়েলকাম পেলেসে দুপুর ১টা থেকে যার অডিশন চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত । এবং গ্রেন্ড ফিনালে হবে গৌহাটিতে । শুধুমাত্র ১৮ থেকে ২৭ বছরের ছেলেমেয়েরাই এই অডিশানে অংশগ্রহণ করতে পারবেন । এই প্রতিযোগিতায় দুজন বিজেতাদের জন্য থাকছে ১ লক্ষ টাকা করে প্রাইজ মানি । ৫ দিনের বিদেশ সফর । Mega Byte এর সাথে ১ বছরের মডেলিং কন্ট্রাক্ট ছাড়াও আরও অনেক আকর্ষণীয় পুরস্কার । বিশদ জানতে যোগাযোগ করুনঃ 8876174868 / 9774425328 / 8194855445

  • শ্রম দপ্তরে সূচনা হল অনলাইন রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি
  • চিনের পণ্য বর্জন আহ্বানেব মোর্চার মিছিল
  • ফাঁসিতে ঝুলন্ত গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার
  • বাম শাসনে রাজ্যে আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি অবনতি, মুক্তির পথ খুঁজছে মানুষ: বিপ্লব দেব
  • ট্রায়াল রানে লামডিং পর্যন্ত গেল রাজধানী এক্সপ্রেস
  • ভোটমুখী তৎপরতা মহাকরণে, দুই মাসের লক্ষ্যে পূরণে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ
  • নরক গুলজারে পরিণত জিবি হাসপাতাল
  • গন্ডাছড়া মহকুমার প্রত্যন্ত এলাকায় ম্যালেরিয়ার প্রকোপ
  • খোয়াই কলেজে গুন্ডারাজ, অধ্যাপককে কেরানির হত্যার হুমকি
  • গাড়ি চালক নিখোঁজ তদন্তে পুলিশের নীটফল শূন্য
  • বাজারে টিকে থাকার লড়াইয়ে নেমেছে বিএসএনএল
  • রাজনীতিতে আসছেন এটিটিএফ জঙ্গি নেতা রঞ্জিত দেববর্মা?
  • ক্যাগ'র ২৬ অনিয়মিত কর্মীর বরখাস্তের স্থগিতাদেশ হাইকোর্টে
  • বিলোনীয়ায় মহিলা খুন
  • ভীমরতি: নাবালিকাকে শ্লীলতাহানি এক বৃদ্ধার
  • আজ রাজধানী এক্সপ্রেসের ট্রায়াল রান
  • গরু পাচার রোধে আক্রান্ত বিএসএফ কমান্ডেন্ট, সোনামুড়ায় সীমান্তে উত্তেজনা
  • কাশীপুরে বাইক এবং গাড়ি সংঘর্ষে উত্তেজনা, মামলা পাল্টা মামলা
  • ধর্মনগরে উট দেখতে জলঢল
  • ১০ হাজার যাত্রীর উপযোগী করে নির্মাণ হচ্ছে আগরতলা নতুন টার্মিনাল
  • বামফ্রন্ট সরকারের বিরুদ্ধে জনদরবারে চার্জশিট দাখিল করলো বিজেপি
  • সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশিক্ষণ দিতে রাজ্যে এলেন রামমাধব

স্পেশাল আর্টিকেল

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

টপ ফাইভ

00310
ত্রিপুরা বিজেপির সভাপতিকে সিপিআইএম এর তীব্র আক্রমণ

আগরতলা ১৯ই জুন (এ.এন.ই ): রাজ্যের বিরোধীদল বিজেপির বিরুদ্ধে সিপিআইএম আক্রমণ আরও তীব্র করেছে। সিপিআইএম এর রাজ্য কমিটির মুখ পাত্র গৌতম দাস বিজেপির রাজ্য সভাপতি বিপ্লব দেবকে পলিটিকেল আপস্টার্ট বলেছেন। নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে রাজ্য রাজনীতিতে ব্যক্তি আক্রমণ আরও তীব্র হচ্ছে। আইপিএফটি'র জাতীয় সড়ক ও রেল অবরোধের ডাক'কে কেন্দ্র করে সিপিএমের সাম্প্রতিক অভিযোগকে ঘিরে বিজেপি এবং আইপিএফটি যে জবাব দিয়েছে তার প্রত্যুত্তর দিতেই সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর বলেন, বিজেপি এবং আইপিএফটি উভয় দলের প্রতিক্রিয়াই আসছে। কিন্তু বিজেপি'র সভাপতি বিপ্লব দেব যে সব ভ্রান্ত তথ্যের উত্থাপন করে সিপিএমের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগ তুলেছেন তা আপত্তিজনক। বিজেপি'র চালিকা শক্তি আরএসএস'র দ্বিতীয় সরসংঘ চালক এমএস গোলগালকার দেশের স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছিলেন। স্বাধীনতা আন্দোলনে না গিয়ে স্বয়ংসেবকদের ঐক্যবদ্ধ করার কথা বলেছিলেন। সাভারকার পরে ব্রিটিশের বিরোধিতা ছেড়ে দিয়ে হিন্দু সংগঠনে জড়িয়ে পড়েন। এমনকি আরএসএসের প্রতিষ্ঠাতা কেশব বলিরাম হেডগোয়ার ১৯৩০ সালের সত্যাগ্রহ এবং তেরঙ্গা বয়কটের ডাক দিয়েছিলেন। তাদের একমাত্র লক্ষ্য ছিল হিন্দুরাষ্ট্র। অটল বিহারী বাজপেয়ী ভারত ছাড় আন্দোলনে ধরা পড়ে ইংরেজের রাজসাক্ষী হয়েছিলেন। এদের লক্ষ্য বরাবরই হিন্দুরাষ্ট্র। আর বামেদের লক্ষ্য সমাজতন্ত্র। তিনি বলেন, আইপিএফটি নেতা এস সি দেববর্মা রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে বলেছেন একটি পথ বন্ধ হলে কিছু হয় না। আরও অনেক পথ খোলা থাকছে। এতে প্রমাণিত হয় রাজ্যের উন্নতি হয়েছে, উপজাতি এলাকার উন্নয়নও হয়েছে। বিজন ধর বলেন, এন সি দেববর্মার বক্তব্যে স্পষ্ট তিনি পেছন থেকে কারোর দ্বারা পরিচালিত হয়ে, বাধ্য হয়ে এই আন্দোলনে ডাক দিয়েছেন। আগে এনএলএফটি পেছনে থেকে তাকে পরিচালনা করতো। তাই এডিসি'তে মুখ্য কার্যনির্বাহী ;সদস্য কাকে করা হবে এনিয়ে তিনি ব্যস্ত থাকতেন। আকাশবাণী আগরতলায় চাকরি করার সময় তিনি তার গাড়ি নিয়ে বৈরী ডেরার চলে যেতেন। বিজন ধর আরও বলেন, আগে পেছনে এনএলএফটি থাকলেও এখন এন সি দেববর্মাদের পেছনে বিজেপি রয়েছে বলেই তারা মনে করেন। অন্যথায় এ ধরনের আন্দোলন হতো না। এ আগে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে তারা প্রচণ্ড বিরোধ দেখিয়েছিলেন। কিন্তু দিল্লী গিয়ে এসব ভুলে গেলেন। দ্বিজাতি তত্ত্বের ভিত্তিতে এ আইন হতে পারে না। কিন্তু এখন এন সি দেববর্মা এ নিয়ে কোন কথা বলেন না। কারণ এর পেছনে বিজেপিই আছে। তিনি বলেন, অশ্বমেধের ঘোড়া লব কুশ আটকে ছিল বলে উল্লেখ করেন বিপ্লব দেবও। আর এ রাজ্যে বামেরাই হবে লব কুশ। যারা আগ্রাসী, পুঁজিবাদী, সাম্রাজ্যবাদীদের আটকে দেবে। এর পরেই সিপিএমের রাজ্য মুখপাত্র গৌতম দাস বলেন, বিজেপি'র রাজ্য সভাপতি পলিটিকেল আপস্টার্ট। ত্রিপুরার কিছুই জানে না। তাই বলতে চাইছে পৃথক রাজ্যের দাবী আইপিএফটি কেন করলো। রাজনীতির কোন অভিজ্ঞতা নেই। ত্রিপুরা সম্পর্কে জানে না। উপর থেকে এনে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাই তার এ ধরনের বক্তব্য। আর তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে, তার বিবৃতি যে সাক্ষর করে সেই অশোক সিনহা। যে আগে কংগ্রেসে এ কাজ করতো। এ সমস্ত পচা মাল সেখানে গিয়ে জমেছে। এন সি দেববর্মাদের আন্দোলনের পেছনে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে ষড়যন্ত্র রয়েছে। অস্থিরতা সৃষ্টির চেষ্টা চলছে। এস সি দেববর্মার সঙ্গেও এনএলএফটি'র সম্পর্ক রয়েছে।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.