• মামার বাড়িতে এসে জলে তলিয়ে গেল এক শিশু
  • আজ মহাষষ্টি, দেবীর অধিবাস
  • পুজোতে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা রাজধানী আগরতলায়
  • রক্তদান শিবির অনুষ্ঠিত শান্তিবাজারে
  • গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, তদন্তে পুলিশ
  • ম্যালেরিয়ায় মারণ থাবায় এক শিশুর মৃত্যু
  • নর্থ ইস্ট ফিনান্স ব্যাঙ্কের মহিলা ম্যানেজারের বিরুদ্ধে ১৭ লক্ষ টাকা গায়েবের অভিযোগ
  • চতুর্থীতেই জনজুয়ারে ভাসল আগরতলা
  • আধুনিকতার সাথে প্রযুক্তির সংমিশ্রণ হলে ত্রিপুরাকে মডেল রাজ্য হিসাবে গড়ে তুলতে পারবো: মুখ্যমন্ত্রী
  • রেলস্টেশন থেকে গাঁজা উদ্ধার
  • দুর্গাপূজা উপলক্ষে নতুন সাজে উঠেছে দুর্গাবাড়ি
  • জোরপূর্বক অর্থ আদায়ের অভিযোগে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা
  • বগাফা ব্লকের ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনে ৭ প্রতিনিধিদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান
  • আগরতলা ১৪ অক্টোবর (এ.এন.ই ): শনিবার বগাফা ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতি হল রুমে ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনে নির্বাচিত ৭ জন প্রতিনিধিদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। জানা গেছে, শপথ বাক্য পাঠ করান জেলা পঞ্চায়েত অফিসার কমিসনার কলই। জানা গেছে, বগাফা ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন দেবাশীষ মজুমদার এবং ভাইস চেয়ারম্যান হিসাবে ত্রিকেন্দ্র ত্রিপুরা নির্বাচিত হয়েছেন। জানা গেছে, শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সাব্রুমের বিধায়ক শংকর রায়, বগাফা ব্লকের বিডিও প্রদীপ সরকার, জেলা পঞ্চায়েত অফিসার কমিসনার কলই প্রমুখ। শপথ বাক্য পাঠ করার পর দেবাশিষ বাবু জানায়, শপথ বাক্য পাঠ করার পর দেবাশীষ বাবু জানায় তিনি দশমত নির্বিশিষে সকলের উন্নয়নের জন্য কাজ করবেন।
  • রাজ্যের আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি নিয়ে পুলিশ মহানির্দেশকের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক মুখ্যমন্ত্রীর
  • শারদোৎসবের প্রাক মুহূর্তে বোমা বিস্ফোরণে কেপে উঠল আসাম, সর্তকতা জারি রাজ্যেও
  • শারদ উৎসবে রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রীর শুভেচ্ছা
  • শ্রীনগর থেকে ৬ জুয়ারি আটক
  • চকোলেটের মণ্ডপ এমবিবি ক্লাবে
  • কুখ্যাত নেশা কারবারি গ্রেপ্তার
  • রেলে কাটা পরে যুবকের মৃত্যু
  • ধলাইয়ে প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন কেন্দ্রে প্রবীণদের চিকিৎসা পরিষেবা
  • পূর্বাশার আর্থিক আয় বাড়াতে সরকারের নয়া সিদ্ধান্ত
  • শহরের সাথে পাল্লা দিয়ে মহকুমার পুজো প্রস্ততি চলছে জোর কদমে
  • অপরাধ দমনে ক্রাইম ব্রাঞ্চকে আধুনিকরণের উদ্যোগ রাজ্য সরকারের

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

00310
ত্রিপুরায় অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইয়ে তৃণমূল কংগ্রেস

আগরতলা, ১৪ই ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস ত্রিপুরায় তাদের অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইয়ে নেমেছে। পশ্চিমবঙ্গের বিধায়ক তথা মেয়র সব্যসাচী দত্ত ত্রিপুরায় পরে আছেন। শুধুমাত্র সম্মানজনক অবস্থান পাওয়ায় আশায়। যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের কোন প্রার্থীই জয়ের জন্য লড়াই করছেন না। চেষ্টাও করছেননা। চেষ্টা করছেন জামানত বাঁচানোর। ত্রিপুরায় বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস ২৪টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে। অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের সমর্থনে উপজাতি ভিত্তিক রাজনীতি দল আইএনপিটি এবং এনএসপিটি মিলে ১৬টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে। যদিও কোন কেন্দ্রেই এখনো তৃণমূল কংগ্রেসের দৃষ্টি কারার মত কোন প্রচার সজ্জা নেই। পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসদের খানেক আগেও ত্রিপুরায় পথঘাট, মাঠ কাঁপিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের পর এই রাজ্যে একাংশ কংগ্রেসিদের মধ্যেও ঘাস ফুলের বেশ দোলা লাগে। ৬ জন বিধায়ক তৎকালীন বিধানসভা বিরোধী দলনেতা সুদীপ রায় বর্মণের নেতৃত্বে তৃণমূল কংগ্রে]স ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। বিধানসভায় তৃণমূল কংগ্রেস প্রথমবারের মত তাদের অস্তিত্বের জানান দেয়। সাড়া রাজ্যে ব্যাপক তৎপরতা পরিলক্ষিত হয়। কিন্তু এই পরিস্থিতি বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। সুদীপ রায় বর্মণের কার্যকলাপে অসন্তুষ্ট হয়ে যারা ইতিপূর্বে তৃণমূলে সামিল হয়েছিলেন তারাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সিদ্ধান্ত বেকে বসেন এবং তারা সর্বোপরি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন, রতন চক্রবর্তী এবং সুরজিৎ দত্ত। কিন্তু এখানেই তৃণমূলের অধোগতি থেমে থাকেনি। পরবর্তী সময়ে তৃণমূল কংগ্রেসের ত্রিপুরায় কার্যত বিলুপ্তির মুখে এসে ঠেকে। আর এই অবস্থায় ত্রিপুরায় অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইয়ে সেনাপতি করে কলকাতা থেকে সব্যসাচী দত্তকে ত্রিপুরায় পাঠানো হয়েছে। ত্রিপুরায় তৃণমূল কংগ্রেসের বর্তমানে কোন কমিটি নেই। হাতে গোনা কয়েকজন কর্মকর্তা রয়েছেন। তাদের মাধ্যমেই চেষ্টা চলছে অস্তিত্ব রক্ষার জন্য। যদিও ইতিমধ্যেই রাজ্য সফর করে গেছেন ববি হাকিম, টলিউডের তারকা দেব, রাজীব চ্যাটার্জি প্রমুখ। বিভিন্ন স্থানে তারা সভা করেছেন, মিছিলেও যোগ দিয়েছেন। কিন্তু মিছিলে লোক সমাগম সম্পর্কে পার্টির নেতারাই আশ্বস্ত হতে পারেননি। তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য নেতা তথা প্রাক্তন সভাপতি দুলাল দাস বলেন, ত্রিপুরায় তৃণমূল কংগ্রেস এখন যথেষ্ট দুর্বল। তবে যথা সম্ভব ভাল ফলের চেষ্টা করা হচ্ছে। সরকার গঠন করার মত কিংবা আসাম দখল করার মত পরিস্থিতিতে এখনো তৃণমূল কংগ্রেস আসতে পারেনি। তবে আগামী দিনে ত্রিপুরার রাজনীতিতে তৃণমূল কংগ্রেস যথেষ্ট ভাল অবস্থান নিতে সক্ষম হবে। রাজ্যে বামবিরোধী হাওয়া তীব্র আকার ধারন করেছে। কিন্তু জনগণের ইচ্ছা পূরণের মত শক্তি এখনো রাজ্যে মাতা তুলে ধারাতে পারছেনা। নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস অবশ্যই নিজেদের অস্তিত্ব জানান দিতে পারবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.