BREAKING NEWS
রাজ্যে ভোট ১৮ই ফেব্রুয়ারি। গণনা ৩ মার্চ


  • নির্বাচন ঘোষণা অভূতপূর্ব চ্যালেঞ্জের মুখে দারিয়ে বাম নেতৃত্ব
  • সিপিআইএম থেকে বেরিয়েই বিস্ফোরক মন্তব্য নৃপেন সঙ্গী
  • ভুয়ো ভোটার নিয়ে পুনরায় নির্বাচন কমিশনে যাবে বিজেপি
  • রাজ্যে ভোট ১৮ই ফেব্রুয়ারি। গণনা ৩ মার্চ
  • http://www.agartalanewsexpress.com/news/topfive/get.php?id=1663
  • আইপিএফটির সঙ্গে জোট নিয়ে চূড়ান্ত আলোচনা গুয়াহাটিতে বৃহস্পতিবার
  • নির্বাচন ঘোষনার দিন বিজয় প্রতিজ্ঞা দিবস পালন বিজেপি
  • ত্রিপুরায় অনুসুচিত জাতি আইনের প্রয়োগ নিয়ে রাজ্য সরকারের স্পষ্টীকরণ
  • ত্রিপুরায় কৃষক আত্মহত্যার ঘটনা গোপন রাখার চেষ্টা
  • রাজ্যে দুটি পৃথক ঘটনায় মৃত ১, আহত ১
  • সরকারি উদ্যোগে তপশিলি জাতি অংশের উপর অত্যাচারের ঘটনা লোকানোর চেষ্টা
  • পলিট ব্যুরোর সদস্যরাই ত্রিপুরায় বিধানসভা নির্বাচনে সিপিআইএমের তারকা প্রচারক
  • তেলিয়ামুড়ার সিআইটিইউ পার্টি অফিসে অগ্নিসংযোগ
  • ভি ভি পেট নিয়ে পোলিং স্টেশনে স্টেশনে ভোটারদের নয়ে চলছে ভোটদানের মোহরা তেলিয়ামুড়ায়।
  • টেট উত্তীর্ণদের বিষয়ে নমনীয় সরকার, ১০,৩২৩ নিয়ে বিপাকে
  • চিটফান্ড ইস্যুতে ত্রিপুরায় ধেয়ে আসছে সিবিআই
  • রাজ্যে আবার বিজেপি কর্মী খুন, ধৃত অভিযুক্ত
  • ত্রিপুরায় কেন্দ্রীয় প্রকল্প বাস্তবায়নে রাজ্য সরকার উদাসিনঃ কেন্দ্রীয় রাষ্ট্রমন্ত্রী
  • ইজরাইল ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারকে সিপিআইএমের আক্রমণ
  • রাজনাথ সিং এর সঙ্গে অজিত দোভাল এবং কৃষ্ণ গোপালজির বৈঠক ঘিরে সিপিআইএমের তীব্র প্রতিক্রিয়া
  • ৪০ মাদ্রাসা শিক্ষকের বকেয়া টাকা মেটাচ্ছেন বিজেপির সভাপতি
  • সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতির সাংবাদিক সম্মেলনে কারোর মুখ না খোলাই শ্রেয় বললেন বার কাউন্সিল অফ ত্রিপুরার চেয়ারম্যান
  • রাজধানী আগরতলা থেকে প্রকাশ্যে টাকা ছিনতাই
  • নির্বাচনী কাজে দায়িত্ব প্রাপ্তদের মধ্যে ব্যাপক রদবদলের এবং দায়িত্ব চ্যুতির সম্ভাবনা
  • ভুয়ো ভোটার নিয়ে তৎপর নির্বাচন কমিশন

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ত্রিপুরা খবর

সিপিআইএম থেকে বেরিয়েই বিস্ফোরক মন্তব্য নৃপেন সঙ্গী

আগরতলা, ১৮ জানুয়ারি (এ.এন.ই ): বিজেপিতে সামিল হলেন জননেতা নৃপেন চক্রবর্তীর সহযোদ্ধা গৌরাঙ্গ মিত্র। পার্টিতে যোগদানের পরই সিপিআইএম 

এর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন এই বয়োবৃদ্ধ নেতা। 
কোন ধরনের আগাম ঘোষনাদি ছাড়াই বিজেপিতে সামিল হয়েছেন দীর্ঘ পাঁচ দশকে প্রবীণ সিপিআইএম নেতার গৌরাঙ্গ মিত্র। তিনি তদান্তিন মুখ্যমন্ত্রী তথা 

জননেতা হিসাবে স্বীকৃতি পাওয়া নৃপেন চক্রবর্তীর সহযোদ্ধা ছিলেন। নৃপেন চক্রবর্তীর সে সময় নির্বাচনী ক্ষেত্র কুমুদ নগরেই তিনি বাসিন্দা। এবং দীর্ঘ সময় 

ধরে বাম আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। কিন্তু নৃপেন চক্রবর্তীকে পার্টি থেকে বহিষ্কারের পর থেকে তিনি পার্টির সরাসরি কর্মকাণ্ড থেকে দূরে থাকতেন। 
প্রদেশ বিজেপি প্রভারি তথা সর্বভারতীয় সম্পাদক সুনীল দেওধরের হাত থেকে পতাকা নিয়ে তিনি বিজেপিতে সামিল হন। তিনি বলেন, সিপিআইএম বামপন্থি 

আদর্শ থেকে বিচ্যুত হয়ে পড়েছে। প্রকৃতপক্ষে এরাই এখন পুঁজিবাদীদের দল। গরিবের নাম নিয়ে ক্ষমতায় এসে তাদেরেই শোষণ করছে। প্রকৃত সাম্যবাদীরা 

কেউই সিপিআইএমে থাকতে পারবেনা। 

18-01-2018 03:39:00 pm

ভুয়ো ভোটার নিয়ে পুনরায় নির্বাচন কমিশনে যাবে বিজেপি

আগরতলা, ১৮ জানুয়ারি (এ.এন.ই ): ভোটার তালিকায় কারচুপির অভিযোগ নিয়ে আবার নির্বাচন কমিশনে যাবে বিজেপি। বিজেপির মতে প্রতি বিধানসভায় 

৮০০ থেকে ১২০০ জন জাল ভোটার রয়েছে। তবে ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশন জাল ভোটার চিনহিত করে তাদের মতদান থেকে 
বিরত রাখার সব ব্যবস্থা করবে বলে নির্বাচন কমিশন আশ্বাস দিয়েছে।
গুয়াহাটি উদ্দেশ্যে রাজ্য ত্যাগের আগে বিজেপির রাজ্য নির্বাচনী প্রভারি ডঃ হিমন্ত বিশ্ব-শর্মা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, প্রচুর পরিমাণে ভুয়ো ভোটার তালিকায় 

ঢুকিয়ে রাখা হয়েছে। এদের চিনহিত করার জন্য বিজেপির বুথ স্তরের কার্যকর্তারা বিশেষ করে পৃষ্ঠা প্রমুখরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। পৃষ্ঠা প্রমুখদের 

এই বিষয়ে বিশেষ দায়িত্ব রয়েছে। 
নির্বাচন কমিশনকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অবগত করানো হয়েছে। আবারো নির্বাচন কমিশনকে তথ্য সহ পুনাগ রিপোর্ট তুলে ধরা হবে। ইতিমধ্যেই নির্বাচন 

কমিশনের সুনিশ্চিত করে দিয়েছে ভুয়ো ভোটারদের দিয়ে ভোট দানের যে কোন চেষ্টা প্রতিহত করাবে। ভুয়ো ভোটারদের আগেই চিনহিত করে নেওয়া হবে 

এবং তাদের ভোটদান থেকে বিরত রাখা হবে। 
তিনি জানিয়েছেন, বিজেপি তিন ধরনের ভুয়ো ভোটার চিনহিত করেছেন। প্রথমত বৈবাহিক কারণে কিংবা অন্য কোন কারণে স্থানচ্যুত ভোটারদের নাম, 

দ্বিতীয়ত মৃত ভোটার এবং তৃতীয়ত অপরিচিত বাংলাদেশি কিংবা অস্তিত্ববিহিন নাম। ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশন কিছু পদক্ষেপ ;নিয়েছে। আশা করা যায় 

আরো উপযুক্ত 'কিছু পদক্ষেপ করা হবে। 
উল্লেখ করা যেতে পারে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ভোটার সংখ্যা অস্বাভাবিক বৃদ্ধির ফলে নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে জেলা শাসকরা যাবতীয় বিষয় খতিয়ে দেখতে শুরু 

করেছে। 

18-01-2018 03:35:56 pm

রাজ্যে দুটি পৃথক ঘটনায় মৃত ১, আহত ১

আগরতলা, ১৭ জানুয়ারি (এ.এন.ই ): মধ্য প্রতাপগড়ে এক যুবককে ছুরিকাঘাত করার ঘটনায় মামলা হল এডিনগর থানায়। আহত যুবকের নাম রাজু 

দেবরায়। তিনি পেশায় একজন এজেন্ট। নেতাজি চৌমুহনীর সুমন্ত দাস, রাজেশ সাহা সহ তিনজন মিলে প্রচণ্ড মারধর করে বলে অভিযোগ। এমর্মে রাজু 

দেবরায় এডিনগর থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। এব্যাপারে পুলিশ একটি মামলা নিয়েছে। যদিও কাউকে পুলিশ গ্রেপ্তার করতে পারেনি। 
অপর একটি ঘটনায় এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুতে জিরানিয়া থানাধিন অফিসটিলায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। মৃতার নাম অনিতা বিশ্বাস (৩৬)। এদিকে 

মৃতার স্বামী জানায় অনিতাদেবী মঙ্গলবার সকালে বাচ্চাকে স্কুলে দিয়ে তার অনুপস্থিতিতে বাড়িতে ফাঁসিতে আত্মহত্যা করেন। এইদিকে জিরানীয়া থানার 

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তারা একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে।   

17-01-2018 03:57:55 pm

সরকারি উদ্যোগে তপশিলি জাতি অংশের উপর অত্যাচারের ঘটনা লোকানোর চেষ্টা

আগরতলা, ১৭ জানুয়ারি (এ.এন.ই ): ত্রিপুরায় অনুসুচিত জাতি উপজাতিদের অত্যাচারের বিষয়ে রাজ্য সরকার প্রকৃতপক্ষে কোন রিপোর্টই রাখছে না। যদিও 

রাজ্যে এই পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর উপর অত্যাচার যথেচ্ছ ভাবে বলে বিজেপি অভিযোগ করছে। বিজেপির মতে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে রাজ্য 

সরকার গোপনীয়তা অবলম্বন করছে। 
রাজ্য বিধানসভার প্রাক্তন অধ্যক্ষ তথা একসময়ে সিপিআইএম নেতা বর্তমানে বিজেপির উপশিলি জাতি মোর্চার দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা জিতেন্দ্র সরকার 

জানিয়েছেন। ত্রিপুরায় তপশিলি জাতি গোষ্ঠীর অত্যাচারের বিষয়টি ইতিমধ্যে জাতীয় কমিশনে জানানো হয়েছে। জাতীয় তপশিলি কমিশনে বেশ কিছু তথ্য 

জমা দেওয়া হয়েছে এবং রাজ্য সরকার কিভাবে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে গোপনীয়তা অবলম্বন করছে তা বিস্তারিত বিবরণ জমা দেওয়া হয়েছে। সেঅনুযায়ী তপশিলি 

জাতি কমিশনে এক সদস্য এবং আধিকারিকদের একটি দল রাজ্য সফর করে গেছেন। ত্রিপুরায় সঠিক পরিস্থিতি তারা বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। 
জিতেন্দ্র সরকার বলেন, যাবতীয় তথ্য অনুসন্ধানের পর দেখা গেছে নির্যাতনের বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। কিন্তু অভিযোগ গুলি লিপিবদ্ধ করার সময় তাদের 

জাতিগত বিষয় গুলি উল্লেখ করা হয়নি। এমনকি পুলিশ অভিযোগ লিপিবদ্ধ করার সময় অনুসুচিত জাতি অংশের উপর অত্যাচারের বিষয়ে কেন্দ্রীয় আইন 

ভঙ্গ করলে দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া যায়। 
তিনি বলেন, রাজ্য সরকার উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে এসব কাজ করছে। সত্যকে আড়াল করতে চাইছে করেন বাম শাসনে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য তপশিলি 

জাতি অংশের মানুষের উপরই সর্বাধিক অত্যাচার হয়েছে তাদের দাবিয়ে রাখার জন্য বলপ্রয়োগ করা হয়। অত্যাচারের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে গেলেও বিশেষ 

কোন কাজ হয় না। ত্রিপুরায় সরকারী এই ধরনের কাজে প্রশ্রয় দিচ্ছে। 
উল্লেখ করা যেতে পারে ত্রিপুরায় থানায় অভিযোগ করার ক্ষেত্রে জাতি গোষ্ঠীর উল্লেখ করা হয়না। ফলে ত্রিপুরায় জাতিগত কারণে কেউ অত্যাচারের স্বীকার 

কিনা তাও প্রকাশ্যে আসে না। 

           
  
     


17-01-2018 02:58:50 pm

পলিট ব্যুরোর সদস্যরাই ত্রিপুরায় বিধানসভা নির্বাচনে সিপিআইএমের তারকা প্রচারক

আগরতলা, ১৭ জানুয়ারি (এ.এন.ই ): আগামী ২১ জানুয়ারি থেকে ত্রিপুরার ক্ষমতাসীন সিপিআইএম তাদের অন্তিম পর্যায়ের নির্বাচনী প্রচারাভিযানের সূচনা 

করবে। এই পর্যায়ে পলিট 'ব্যুরো প্রায় সকল সদস্যই কয়েকটি ধাপে রাজ্য সফরে আসবেন। 
সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর জানিয়েছেন, ৩১ ডিসেম্বর রাজধানীতে কেন্দ্রীয় জমায়েত অনুষ্ঠিত হয়েছে এখন আর এজাতীয় রাজ্য ভিত্তিক জনসভা 

আয়োজিত হবে না। বিধানসভা কেন্দ্র ভিত্তিক এবং জেলাস্তরে জনসভা অনুষ্ঠিত হবে। গত কিছু যাবৎ পার্টির নির্দিষ্ট পরিকল্পনার বাইরে গিয়ে বিভিন্ন এলাকায় 

জনসভা মিছিল ইত্যাদি সংগঠিত হচ্ছে। তবে অন্তিম পর্যায়ের প্রচারাভিযান শুরু হবে ২১ জানুয়ারি থেকে। বাধারঘাটে ঐদিন একটি জনসভা অনুষ্ঠিত হবে। 

পার্শ্ববর্তী বিধানসভা কেন্দ্র গুলির কর্মী সমর্থকরাও এখানে উপস্থিত থাকবেন। এই জনসভায় ভাষণ দেবেন পলিট ব্যুরো সদস্য তথা মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার। 
সিপিআইএম এর তারকা প্রচারকদের সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়ে বিজন ধর বলেন, পার্টির সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি আবার ত্রিপুরায় আসবেন। 

তিনি বেশ কিছু জনসভায় বক্তব্য রাখবেন। তাছাড়াও আসবেন প্রকাশ কারাত। বৃন্দা কারাত সহ পলিট ব্যুরোর প্রায় সকল সদস্য। তথা পশ্চিম বঙ্গের রাজ্য 

সম্পাদক বিমান বসু। সোনামুড়া, মেলাঘর সহ বেশ কিছু জনসভায় ভাষণ দেবেন। রাজ্যে দীর্ঘ সময় ধরে অবস্থান করবেন সূর্যকান্ত মিশ্র। 
বিজন ধর জানান, ইতিমধ্যেই সিপিআইএম এর প্রচারাভিযানে যথেষ্ট গতি এসেছে। কিন্তু বেশ কিছু এলাকায় বিজেপি প্রচারসজ্জা নষ্ট করেছে। বুথ অফিস 

ভেঙে দিয়েছে কিন্তু তারপরেও পার্টি কমরেডদের উৎসাহের কোন খামতি নেই।  

           
  
     


17-01-2018 12:27:49 pm

তেলিয়ামুড়ার সিআইটিইউ পার্টি অফিসে অগ্নিসংযোগ

তেলিয়ামুড়া, ১৭ জানুয়ারি (এ.এন.ই ): দুষ্কৃতি দ্বারা বামফ্রন্টের ফ্ল্যাগ ও ব্যানার পুড়ানো সহ মারুতি শ্রমিক ইউনিয়নের শাখা এবং ত্রিপুরা মোটর শ্রমিক 

ইউনিয়নের বিভাগীয় অফিসে অগ্নি সংযোগ। ঘটনা মঙ্গলবার তেলিয়ামুড়ায়। এই ঘটনার বিবরণ দিয়ে সংগঠনের পক্ষ থেকে তেলিয়ামুড়া থানায় লিখিত  

অভিযোগ জানানো হয়েছে। দাবি জানানো হয়েছে দুষ্কৃতিদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার। 
জানা গেছে, সোমবার রাত্রি ১২টা নাগাদ দুষ্কৃতিকারীরা সি পি এম-এর ফ্ল্যাগ একত্রিত করে সি আই টি ইউ অনুমোদিত মারুতি শ্রমিক ইউনিয়ন এবং ত্রিপুরা 

মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের তেলিয়ামুড়া বিভাগীয় অফিসের দরজার সামনে মোবিল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। রাতে টহলরত পুলিস আগুন দেখতে পেয়ে ছুটে 

গিয়ে আয়ত্তে আনে আগুন। না হলে ভয়াবহ আকার ধারণ করতো। পুড়ে ছাই হয়ে যেত গোটা এলাকা। 
এই দিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় মোটার ও মারুতি শ্রমিকরা। পরে সি আই টি ইউ অনুমোদিত মারুতি শ্রমিক ইউনিয়ন এবং ত্রিপুরা মোটর শ্রমিক 

ইউনিয়নের পক্ষ থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে। বিক্ষোভ মিছিল থেকে আওয়াজ উঠে দুষ্কৃতিকারীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার। 

পাশাপাশি ঘটনার বিবরণ দিয়ে তেলিয়ামুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়। পুলিস একটি মামলা নিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। সাংবাদিকদের 

এক প্রশ্নের উত্তরে মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের তেলিয়ামুড়া শাখা সম্পাদক বাবুল বণিক জানান, রাজ্যের শান্তির পরিবেশকে বিনষ্ট করার জন্যই এই জঘন্য 

কাজ। পাশাপাশি রাজ্যের শান্তির পরিবেশ বজায় রাখার জন্য সর্বস্তরের মানুষের কাছে আবেদন জানিয়েছেন তিনি।   

17-01-2018 12:20:02 pm

টেট উত্তীর্ণদের বিষয়ে নমনীয় সরকার, ১০,৩২৩ নিয়ে বিপাকে

আগরতলা, ১৭ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): টিচার্স এবিলিটি টেট (টেট) উত্তীর্ণ শিক্ষকদের নিয়মিত বেতনক্রম দেবার যৌক্তিকতা স্বীকার করেছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী। যদিও নির্বাচনের আগে কিছুই হচ্ছে না বলে মন্ত্রীর অভিমত। অন্যদিকে ১০,৩২৩ চাকরীচ্যুত শিক্ষকদের ভবিষ্যৎ নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কোন সিদ্ধান্ত গ্রহণের বিষয়টিকে রাজনৈতিক অভিসন্ধি বলে তিনি অভিমত ব্যাক্ত করেছেন। 
মঙ্গলবার রাজ্য সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথোপকথনের সময় তিনি বলেন, দেশের সর্বোচ্চ আদালতের সিদ্ধান্তের পর ১০,৩২৩ চাকরীচ্যুত শিক্ষকদের নিয়ে কেউ কিছু করতে পারবে না। এটা কার্যত অসম্ভব। কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করে যারা রাজ্যে ফিরে এসেছেন তাদের এবং তাদের সঙ্গে যারা বিজেপি নেতাদের বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত। যদিও এই ১০,৩২৩ শিক্ষকের কারোর চাকরি পুনর্বহাল হলে খুশি হবে বর্তমান রাজ্য সরকার। 
তবে তিনি বলেন, নিয়মিতকরনের জন্য টেট উত্তীর্ণ শিক্ষকদের দাবি যথেষ্ট প্রাসঙ্গিক। তাদের দাবিতে যুক্তি আছে দেশের কোথাও টেট উত্তীর্ণরা স্থির বেতনে চাকরি করছেন না। এদের সংখ্যা কম হলেও এদের বিষয়ে অবশ্যই কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হবে। রাজ্য সরকারের ইতিপূর্বে কিছু অবস্থানের কারণে এবিষয়ে এখনই কিছু পদক্ষেপ নেওয়া যায়নি। তবে কিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ অবশ্যই করা হবে। যদিও বিষয়টি সময় সাপেক্ষ। 
মন্ত্রীর উল্লেখিত দুটি বিষয়ই রাজ্যে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে যথেষ্ট প্রভাব ফেলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। রাজনৈতিক দল গুলিও এবিষয়টিকে ইতিমধ্যে প্রচারে নিয়ে এসেছে। 


17-01-2018 11:22:42 am

চিটফান্ড ইস্যুতে ত্রিপুরায় ধেয়ে আসছে সিবিআই

আগরতলা, ১৬ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): মঙ্গলবার রাতের মধ্যে ত্রিপুরায় সিবিআই এর একটি টিম আগরতলায় এসে পৌছবে। আগামী দুই একদিনের মধ্যে চিটফান্ড কেলেঙ্কারী ইস্যুতে সিবিআই ধরপাকড় শুরু করতে পারে বলে ধারনা \করা হচ্ছে। 
ত্রিপুরায় দায়িত্বপ্রাপ্ত সিবিআই এর একআধিকারিক টেলিফোনে কলকাতাস্থিত কার্যালয় থেকে জানিয়েছেন, সিবিআই এখন পর্যন্ত ত্রিপুরা থেকে চিফান্ড ইস্যুতে কাউকে তুলে আনেনি। তবে মঙ্গলবারে একটি টিম যাবে এবং তারাই যাবতীয় কাজ চুটিয়ে আসবে। এখন পর্যন্ত \কাউকে ধরা না হলেও তালিকায় বেশ কয়েকজনের নাম রয়েছে। তাদের তুলে বহিরাজ্যে নিয়ে জিজ্ঞেসাবাদ করা হবে। 
তিনি জানান, ত্রিপুরায় তদন্ত প্রক্রিয়া চালাতে বেশ \কিছু সমস্যা হচ্ছে। অনেক জটিলতা আছে। তবে সিবিআই তাদের প্রাথমিক \কাজ অনেকটাই গুটিয়ে এনেছে। প্রচুর তথ্য প্রমাণ সিবিআই এর কাছে জমা পড়েছে। 
উল্লেখ করা যেতে পারে রাজ্য মন্ত্রী সভার সদস্যা বিজিতা নাথ এবং সিপিআইএম কেন্দ্রীয় কমিটিরম সদস্য গৌতম দাসকে সিবিআই ইতিমধ্যেই জিজ্ঞেসাবাদ করছে। বিধানসভা নির্বাচনের আগে ধরপাকড় শুরু হলে রাজ্যরাজনীতিতে এর বড় ধরনের প্রভাব \পরবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। 

16-01-2018 06:59:24 pm

রাজ্যে আবার বিজেপি কর্মী খুন, ধৃত অভিযুক্ত

আগরতলা, ১৬ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): রাজ্যে আবারো বিজেপি কর্মী খুন। জানা গেছে একটি সামান্য বাকবিতণ্ডাকে কেন্দ্র করে নৃশংসভাবে খুন হল বিজেপি 

কর্মী। নিহত ব্যক্তির নাম চিরঞ্জিত দাস (২৬)। তার বাড়ি সিধাই থানাধীন সিমনা কলোনি এলাকায়। জানা গেছে, অভিযুক্ত কার্তিক এবং তার পরিবারের 

সদস্যরা সিপিআইএম সমর্থক। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কার্তিক এবং চিরঞ্জিত তারা একই পরিবারের সদস্য। পারিবারিক সম্পর্ক অনুযায়ী দু'জন খুড়তুতো 

ও জাঠতুতো ভাই। এইদিকে পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, কার্তিক এবং চিরঞ্জিত পৌষ 'সংক্রান্তির দিনে অন্যান্যদের সাথে পাড়ায় কীর্তন নিয়ে 

বেরিয়েছিল। এক বাড়িতে গিয়ে লুটের সময় দু'জনের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। তখনই চিরঞ্জিতকে দেখে নেওয়ার এমনকি খুন করার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল 

কার্তিক। এমনটাই অভিযোগ করেছে চিরঞ্জিতের পরিবার। ঘটনার দিন ছোটভাই কার্তিক এসে চিরঞ্জিতকে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে যায়। রাস্তায় গিয়ে 

চিরঞ্জিতের পেটে ছুরি দিয়ে আঘাত করে কার্তিক। তার চিৎকার শুনতে পেয়ে পরিবারের লোকজন এবং এলাকাবাসী ছুটে আসে। এইদিকে খবর পেয়ে 

ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন অগ্নিনির্বাপক কর্মীরা। তারাই গুরুতর আহত অবস্থায় চিরঞ্জিতকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা 

করে। ঘটনাস্থল থেকে কার্তিক পালিয়ে যাবার চেষ্টা করলেও স্থানীয় লোকজন কার্তিককে হাতে নাতে ধরে ফেলে এবং মারধর করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। 

এই ঘটনায় অভিযুক্ত কার্তিক দাসের কঠোর শাস্তির বাদী করে চিরঞ্জিতের পরিবার। এলাকাবাসী অভিযোগ করেছে কার্তিক সম্পূর্ণ পূর্ব পরিকল্পিত 'ভাবে 

চিরঞ্জিৎকে খুন করেছে। কারণ চিরঞ্জিতকে ঘর থেকে ডেকে আনার সময়ই কার্তিক ছুরি নিয়ে এসেছিল। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সিমনা কলোনি এলাকায় 

তীব্র উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।  

16-01-2018 05:22:49 pm

ইজরাইল ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারকে সিপিআইএমের আক্রমণ


আগরতলা, ১৬ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): ইজরাইরেলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নিতানিয়াহুর ভারত সফর ঘিরে সিপিআইএম তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে। 

পার্টির মতে ভারতের দীর্ঘ দিনের আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ঐতিহ্য নষ্ট করছে বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার। 
সিপিআইএম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য তথা পার্টির রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন জোট নিরপেক্ষতার ঐতিহ্য নষ্ট করে দিচ্ছে মোদী 

সরকার। দেশের সার্বভৌমত্ব সুরক্ষা ইত্যাদি চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ইজরাইরেলের সঙ্গে সম্পর্ক বৃদ্ধি করা হচ্ছে। শুধুমাত্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জুনিয়র পার্টনার হওয়ার 

লক্ষে। 
তিনি আরো বলেন, আন্তর্জাতিকস্তরে ভারতীয় বর্তমান সরকারকে ব্যবহার করে ক্রমঅগ্রগতির পথে এগিয়ে চলা চিনকে ঘিরে ফেলার চেষ্টা হচ্ছে। একের পর 

এক চুক্তি হচ্ছে বিদেশি বিনিয়োগ করার জন্য এটা ভাল লক্ষণ নয়। 
এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ভারতীয় ভূখণ্ড দখল করেছে কিংবা দখল করার চেষ্টা করছে বলে বিব্রতি আসেনি। যদি এই ধরনের কোন বয়ান আসে তবে 

সিপিআইএম অবশ্যিই তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করবে। একেই সঙ্গে বেঞ্জামিন নিতানিয়াহুর ভারত সফরের প্রতিবাদে সিপিআইএম সাড়া দেশের সঙ্গে ত্রিপুরাতেও 

মঙ্গলবার বিক্ষোভ সমাবেশ এবং মিছিল সংগঠিত করছে বলেও তিনি জানান।  

16-01-2018 03:35:37 pm

ভোটার তালিকায় অনিয়মের অভিযোগ এবং নির্বাচন ঘোষণা না করা নিয়ে আতঙ্কের বহিঃপ্রকাশ সিপিআইএমের

আগরতলা, ১৬ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): ভোটার তালিকায় কথিত অনিয়ম নিয়ে বিজেপির অভিযোগ এবং নির্বাচন কমিশনের তৎপরতায় উষ্মা প্রকাশ করেছে 

ক্ষমতাসীন সিপিআইএম। পার্টির মতে এটি স্বাভাবিক নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে ব্যহত করে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা। বিজেপি অহেতুক এই ধরনের অনৈতিক 

কার্যকলাপে মেতে উঠেছে। 
সিপিআইএম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য তথা পার্টির রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, বিজেপি ভোটার তালিকা নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচার 

করছে। কোন মেয়ের বিয়ের পর তার পৌত্রিক বাড়ির ভিত্তিক ভোটার তালিকায় নাম থাকতেই পারে। দেখতে হবে একাধিক স্থানে যাতে নাম না থাকে। 

আবার কেউ বিদেশে চলে গেলে  কিংবা পঠন পাঠনের জন্য বা চাকরিসূত্রে বাইরে গেলে ভোটার তালিকায় তার অবস্থান 'কি হবে সে নিয়ে নির্বাচন 

কমিশনকে একটি নিদিষ্ট নীতির প্রণয়ন করা প্রয়োজন। অন্যথায় এই বিষয়ে দ্বিমত থাকবেই। 
তিনি বলেন, বিজেপি বিষয়টিকে যেভাবে উত্থাপন করছে এবং যেভাবে 'অপ্রাসঙ্গিক বিষয় উত্থাপন করার চেষ্টা করছে তা স্বাভাবিক নির্বাচনী প্রক্রিয়ার জন্য 

হিতকর নয়। 
তিনি উল্লেখ করেন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল এবং গণতন্ত্রের প্রিয় মানুষ কবে নির্বাচন ঘোষণা হবে তা নিয়ে উদগ্রীব হয়ে আছেন। এই অবস্থায় নির্বাচন ঘোষণা 

এখনো না হওয়ায় অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়াতে তাদের উৎবেগ প্রকাশ করছেন। নির্বাচন ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহের মধ্যে শেষ করতে হবে। কারণ মার্চ 

মাসের ৮ তারিখ থেকে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের পরীক্ষা শুরু হয়ে যাচ্ছে। 
সাংবাদিক সম্মেলনে প্রকারান্তরে বিজন ধর ভোটার তালিকা নিয়ে কথিত অভিযোগ এবং নির্বাচন ঘোষণা এখনো না করার প্রসঙ্গে তার উৎবেগ প্রকাশ 

করেছেন।

16-01-2018 02:33:47 pm

রাজনাথ সিং এর সঙ্গে অজিত দোভাল এবং কৃষ্ণ গোপালজির বৈঠক ঘিরে সিপিআইএমের তীব্র প্রতিক্রিয়া

আগরতলা, ১৬ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ):  উত্তর পূর্বাঞ্চলের তিন রাজ্যে নির্বাচনকে সামনে রেখে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সঙ্গে কেন্দ্রীয় 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং আর এস এস নেতার বৈঠকের খবরকে কেন্দ্র করে তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেছে সিপিআইএম। সিপিআইএম এর কেন্দ্রীয় 

কমিটির সদস্য তথা পার্টির রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর বলে, পার্টি ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে ঘটনার সত্যতা জানতে চেয়েছে। একেই সঙ্গে নির্বাচন 

কমিশনকে ঘটনার সত্যতা যাচাই করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার দাবি জানিয়েছে। কারণ বিষয়টি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। 
তিনি বলেন, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার একজন প্রশাসনের লোক তিনি কোন ভাবেই রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে সামিল হতে পারেন না। আর এই ঘটনা যদি 

সত্য হয় তবে তা তিন রাজ্যের নির্বাচনকে প্রভাবিত করার চেষ্টা বলেই স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে। 
উল্লেখ করা যেতে পারে সোমবার বিকালে রাজনাথ সিং এর সঙ্গে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল, আরএসএস এর সর্বভারতীয় কার্যকর্তা কৃষ্ণ 

গোপালজির বৈঠক হয়েছে বলে সংবাদ মাধ্যমে খবর চলে আসে। আর এর পরেই সিপিআইএম সংশ্লিষ্ট 'বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়। 

16-01-2018 01:43:05 pm

রাজধানী আগরতলা থেকে প্রকাশ্যে টাকা ছিনতাই

আগরতলা, ১৫ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): রাজধানী আগরতলায় ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে দিন দুপুরে ছিনতাইয়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে শহরে ব্যাপক 

চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলেও পুলিশ এখনো ছিনতাই বাজদের টিকির নাগাল পায়নি। 
সোমবার দুপুরে রাজধানীর মহারাজা বীরবিক্রম মহাবিদ্যালয়ের পেছনের রাস্তা ধরে কলেজটিলা থেকে রেন্ট্রাস কলোনির যাওয়ার পথে বিদ্যাসাগর সেতু থেকে 

ছিনতাইবাজরা জনৈক সমীর দেবনাথের হাত থেকে টাকার ব্যাগ ;ছিনিয়ে নিয়ে যায়। সমীর দেবনাথ চিৎকার করতে থাকলেও টাকার ব্যাগ নিয়ে 

ছিনতাইবাজরা বিপরীত দিকে রাস্তা ধরে পালিয়ে যায়। চিৎকার শুনে স্থানীয় জনগণ এবং পথ চলতি সাধারণ মানুষ ছুটে এলেও কোন কাজ হয়নি। 

ছিনতাইবাজরা ততক্ষণে নিরাপদ দূরত্বে চলে যেতে সক্ষম হয়। পরে সমীর দেবনাথ কলেজটিলা পুলিশ ফাঁড়িতে গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। 
এদিকে পুলিশ জানিয়েছে, ছিনতাইবাজদের চিনতে পারেননি অভিযোগকারী। ব্যাগে প্রায় দেড়লক্ষ টাকা ছিল। তবে অভিযোগকারী সমীর দেবনাথ 

ছিনতাইবাজদের বিষয়ে কোন ক্লু দিতে পারেননি। যদিও পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। কিন্তু এখনো সংশ্লিষ্ট ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে কাউকে গ্রেপ্তার 

করা সম্ভব হয়নি। 

15-01-2018 05:51:43 pm

নির্বাচনী কাজে দায়িত্ব প্রাপ্তদের মধ্যে ব্যাপক রদবদলের এবং দায়িত্ব চ্যুতির সম্ভাবনা

আগরতলা, ১৫ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): নির্বাচনের আগে রাজ্যের বেশ কয়েকজন ভারপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার এবং সহকারী রিটার্নিং অফিসারের নির্বাচনী 

দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেবার সম্ভাবনা প্রকট হয়ে উঠেছে। একেই সঙ্গে বেশ কয়েকজনের কর্মক্ষেত্রও পরিবর্তনের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। তাছাড়া 
কর্মক্ষেত্র পরিবর্তনের সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্য পুলিশ প্রশাসনেও।
রাজ্য নির্বাচন দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচন কমিশনের তরফে অধিকারীদের রাজ্যের আশা শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই ভোটার তালিকা নিয়ে প্রচুর অনিয়মের 

অভিযোগ বেরিয়ে এসেছে। এই অবস্থায় নির্বাচনী কাজে নিযুক্ত বিভিন্ন স্তরের আধিকারিকদের বিরুদ্ধেও বিস্তর অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে। ফলে সৃষ্ট সমস্যা 

গুলির সমাধান করাই এখন কঠিন হয়ে উঠেছে। 
কমিশনের আধিকারিক আরো জানিয়েছেন, দিল্লি নির্বাচন কমিশনের আধিকারিকদের রাজ্যে আসার আগেই নির্বাচনী কাজে নিযুক্ত বেশ কয়েকজন 

আধিকারিকদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ জমা পড়েছে। তাদের নিরপেক্ষতা এবং কাজের গতিশীলতা আনার ক্ষেত্রে৩ অনেক খামতি রয়েছে বলে অভিযোগ। 

এই অবস্থায় বেশ কয়েকজন রিটার্নিং অফিসার এবং সহকারী রিটার্নিং অফিসারকে নির্বাচনী দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে চর্চা 'শুরু হয়েছে। 

আবার বেশ কয়েকজনের কর্মক্ষেত্রও বদল করা হতে পারে। 
নির্বাচন দপ্তরের আধিকারিক আরো জানিয়েছেন, রাজ্য পুলিশের আধিকারিক স্তরেও 'বেশ কিছু রদ বদলের সম্ভাবনা রয়েছে। শুধু তাই নয় থানার ভারপ্রাপ্ত 

আধিকারিকদেরও ঢালাও হারে বদলি এবং নির্বাচনী কর্মকাণ্ড থেকে অব্যাহতি দেবার সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ২ দিনের মধ্যেই এই প্রক্রিয়া শুরু হবে। 
এদিকে সম্ভাব্য রদ বদল এবং দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি সম্ভাবনাকে কেন্দ্র করে রাজ্য প্রশাসনেও অনিশ্চয়তার আভাষ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। 

15-01-2018 04:29:52 pm

ভুয়ো ভোটার নিয়ে তৎপর নির্বাচন কমিশন

আগরতলা, ১৫ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): রাজ্যে চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় ব্যাপক কারচুপি ঘিরে নির্বাচন কমিশন সক্রিয় হয়েছে। নির্বাচন কমিশন থেকে 

আধিকারিকদের একটি দলকে আগরতলায় পাঠানো হচ্ছে। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজন রাজ্যে এসে পৌঁছে গেছেন। 
রাজ্য নির্বাচন দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় রাজ্যে ৬০টি বিধানসভা কেন্দ্র থেকেই বিস্তর অভিযোগ আসতে শুরু করেছে। প্রচুর ভুয়ো 

বাংলাদেশি নাগরিক এবং মৃত ভোটারের নাম রয়ে গেছে বলে অভিযোগ। বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভুয়ো ভোটার থাকার প্রমাণ ও পাওয়া গেছে। আবার একেই ভোটারের 

নাম একাধিক স্থলে রাখার অভিযোগও উঠেছে।
রাজ্য নির্বাচন দপ্তরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, সমস্যা রয়েছে নির্বাচন কমিশনের কাছে সরাসরি অভিযোগও গেছে। আর রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন 

আধিকারিক শ্রীরাম তরুনীকান্ত নিজেও নির্বাচন 'কমিশনের কাছে জটিলতার কথা স্বীকার করেছেন।
রাজ্য নির্বাচন দপ্তরের এই আধিকারিক আরো জানিয়েছেন, উধৃত পরিস্থিতির সম্পর্কে বিস্তারিত অবগত হতে এবং সরজমিনে যাবতীয় বিষয় খতিয়ে দেখতে 

নির্বাচন কমিশন থেকে একঝাঁক আধিকারিকদের পাঠানো হচ্ছে। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজন রাজ্যে এসে পৌঁছে গেছেন। গতকাল রাতে কয়েকজন 

আধিকারিক এসেছেন। তারা সোমবার খোয়াই মহকুমায় বিভিন্ন নির্বাচনী ক্ষেত্রে অভিযোগ গুলি ক্ষতিয়ে দেখতে সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলিতে পৌঁছে গেছেন। বাকি 

আধিকারিকরা সোমবার বিকালের মধ্যে রাজ্যে এসে পৌছবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

15-01-2018 01:39:01 pm

রাজ্যে আবার ধর্ষণের পর হত্যা

আগরতলা, ১৫ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): রাজ্যে আবার গণধর্ষিতা যুবতী। ধর্ষণের পর খুন করে দেহ ফেলে দেওয়া হয়েছে রাবার বাগানে। 
খোয়াই জেলার চাম্পাহাউর থানাধীন উৎলাবাড়িতে এই ঘটনাটি সংগঠিত হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, যুবতীর দেহ চিনহিত করা হয়েছে। যে স্থানে দেহটি 

পাওয়া গেছে তার থেকে অল্প দূরেই ঐ যুবতির বাড়ি। শ্বাসনালী কেটে যুবতিটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। তবে হত্যার আগে 

ধর্ষণের বিষয়টিও প্রায় স্পষ্ট। তবে যুবতিটিকে অন্যত্র হত্যা করে রাবার বাগানে এনে ফেলা হয়েছে বলে পুলিশের ধারনা। 
পুলিশ আরো জানিয়েছে, দেহটি প্রায় বিবস্রই ছিল। ময়না তদন্তের জন্য দেহ খোয়াই হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসার পরই হত্যা 

সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে বলে পুলিশ ধারনা করছে। যদি চাম্পাহাউর থানার পুলিশ ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে। ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে এলাকায় তীব্র 

উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনা স্থানে গিয়ে পৌঁছেছেন বিজেপির মহিলা মোর্চার নেতৃরা। তারা জানিয়েছেন, মেয়েটির পরিবারের লোকেরা দীর্ঘদিন ধরে বিজেপির 

সক্রিয় কর্মী ছিল।  

15-01-2018 01:01:17 pm

চূড়ান্ত ভোটার তালিকাতেও প্রচুর ভুয়ো নামের সন্ধান

আগরতলা, ১৪ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): রাজ্যে ঘোষিত চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ ঘিরে চাপের মুখে রয়েছে রাজ্য নির্বাচন দপ্তর। 

বিভিন্ন বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিরোধী দলের নেতা কর্মীরা বিস্তর অভিযোগ তুলে দিচ্ছেন 'মহকুমা ও জেলা প্রশাসনের কাছে। 
সোনমুড়া বিধানসভা কেন্দ্রে প্রাক্তন বিধায়ক তথা বিজেপির সহ-সভাপতি সুবল ভৌমিক সংশ্লিষ্ট বিষয়ে জানিয়েছেন, রাজ্যে ৬০টি বিধানসভা কেন্দ্রেই প্রচুর 

ভুয়ো ভোটার রয়েছেন। বিজেপির নেতা কর্মীরা ভুয়ো ভোটারদের চিনহিত করছেন। এক্ষেত্রে পৃষ্ঠা প্রমুখরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। কিন্তু ঘোষিত 

চূড়ান্ত ভোটার তালিকা ফলে ভুয়ো ভোটারদের নাম এখনই বাদ দেওয়া সম্ভব নয়। কিন্তু নির্বাচন কমিশনকে বিষয় গুলি জানানো হয়েছে। এক্ষেত্রে ভুয়ো 

ভোটারদের নামে যাতে অন্য কেউ মতদান করতে না পারে তার জন্য বিশেষ ব্যবস্থাদি নেবে নির্বাচন কমিশন। রাজ্যের বিভিন্ন বিধানসভা কেন্দ্রে প্রায় একেই 

স্থিতি রয়েছে। 
তিনি বলেন, শুধু সোনামুড়া বিধানসভা কেন্দ্রেই ১হাজার বেশি ভুয়ো ভোটার চিনহিত করা হয়েছে। এদের মধ্যে রাজ্য মন্ত্রীসভার সদস্য শহিদ চৌধুরীর 

আমেরিকান নিবাসী মেয়ে এবং ভাতিজির নাম রয়েছে। আবার শহিদ চৌধুরীর এক ভাতিজি বাংলাদেশি নাগরিক হলেও তার নাম ভোটার তালিকায় রয়েছে। 

সোনামুড়া বিধানসভা কেন্দ্রে ১ হাজার বেশি অবৈধ ভোটারের নাম পাওয়া গেছে। আবার পার্শ্ববর্তী বিধানসভা কেন্দ্র ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত সংলগ্ন বক্সনগর 

বিধানসভা কেন্দ্রে ২ হাজার বেশী ভুয়ো ভোটার পাওয়া গেছে। রিটার্নিং অফিসারের কাছে তথ্য প্রমাণ সহ এগুলি জমা করা হয়েছে। 
প্রাক্তন বিধায়ক তথা বিজেপির সহ-সভাপতি সুবল ভৌমিক আরো বলেন, নির্বাচন কমিশনের 'নির্দেশ নিচু স্তরের আধিকারিকরা মানতে চাইছেন না। মুখ্য 

নির্বাচন আধিকারিকের নির্দেশ অনুযায়ী কাজ হচ্ছে না। স্থানীয় শাসক দলিয় নেতাদের নির্দেশ অনুযায়ী কাজ হচ্ছে নির্বাচনের কাজে নিযুক্ত স্থানীয় কর্মচারীরা। 

তবে বিজেপি ভুয়োদের চিনহিত করে রিপোর্ট নির্বাচন কমিশনে জমা দেবে আর সেই অনুযায়ী ভুয়ো নামের মতদানের প্রচেষ্টা রুখবে নির্বাচন কমিশন। 

14-01-2018 02:33:07 pm


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.