• রাজনৈতিক সংঘর্ষে নিহত ত্রিপুরার যুবা সাংবাদিক
  • ত্রিপুরায় রাজনৈতিক সংঘর্ষে চরমে, সাংবাদিককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা
  • চরম অশান্তির পরিবেশ, রাজনৈতিক সংঘর্ষ
  • আবার রাজনৈতিক সংঘর্ষের সম্ভাবনা, অবরুদ্ধ পথ
  • ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গে ভোটের স্বার্থে রাজনৈতিক দলগুলি সহায়তা করছে রোহিঙ্গাদের
  • বঞ্চনার প্রতিবাদে ফের আন্দোলনের হুমকি সর্বশিক্ষার শিক্ষকদের
  • রোহিঙ্গা নির্যাতন ইস্যুতে রাজ্যপালের ডেপুটেশন জমিয়তের
  • বিদ্যুৎতের ছোবলে মৃত ১ যুবক
  • মাতাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রে পদ্ম জোয়ার, ২০৪ ভোটার বিজেপিতে যোগদান
  • এক সত্তরোর্ধ বৃদ্ধার যৌন লালসার শিকার নাবালিকা মেয়ে
  • বিজেপিকে আক্রমণ করতে গিয়ে আরএসএসের দিকে তোপ দাগলেন মানিক সরকার
  • এইচএসসিএলের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের দাবি ত্রিপুরা সরকারের
  • বিজেপির ঘরেই ছেঁদ, নিয়োগ-প্রক্রিয়া বন্ধ হয়নি
  • আগরতলা সহ ত্রিপুরার বিভিন্ন মহকুমা সদরে আরএসএসএর পথ সঞ্চালন
  • পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু
  • সুপ্রিমকোর্টের আদেশমূলে রাজ্যেও ফ্যামিলি ওয়েলফেয়ার কমিটি
  • স্থান করতে গিয়ে তলিয়ে গেল এক ব্যক্তি
  • আজ মহালয়া, পিতৃ তর্পণ
  • চাকরির গ্যাঁড়াকলে ফেঁসে গিয়ে পরিস্থিতি জটিল করছে বামেরা
  • খোয়াই ও চম্পকনগরে ব্যাপক রাজনীতি সংঘর্ষ, আহত বহু
  • আবার রাজনৈতিক সংঘর্ষ, আহত বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ
  • সরকারের বিরুদ্ধে আদালতের মামলাকারীর জীবন সংশয়
  • স্মার্টসিটি থেকে নীল তিমির আতঙ্ক এখন মফস্বলে
  • নিয়মিত করণের দাবিতে অনিয়মিত স্বাস্থ্যকর্মীদের আন্দোলন প্রত্যাহার
  • শ্রীনগরে বৃদ্ধার অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে ব্যাপক রহস্য অভিযোগ ছেলের বিরুদ্ধে

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ত্রিপুরা খবর

ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গে ভোটের স্বার্থে রাজনৈতিক দলগুলি সহায়তা করছে রোহিঙ্গাদের

আগরতলা ২০শে সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে সুপ্রিমকোর্টে ১৫ পাতার একটি হলফনামা দিয়ে দাবি করা হয় বহু রোহিঙ্গা মুসলিম দেশে অবৈধভাবে বসবাস করছে। রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থীদের একটা বড় অংশ আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএসআই সহ বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। তারা দেশের জন্য বিপজ্জনক। দেশের আইবিও'র গোয়েন্দা সংস্থাগুলি এ সংক্রান্ত তথ্য দিয়েছে। সেই গোয়েন্দা তথ্য আগামী ৩ অক্টোবর সুপ্রিমকোর্টে সিল করা খামে দাখিল করা হবে আদালতের অবগতির জন্য। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের হলফনামার দাবি করা হয় রোহিঙ্গা নির্বাসনের বিষয়টি এগজিকিউটিভ পলিসি। অতএব, সুপ্রিমকোর্ট দেশের এগজিকিউটিভ পলিসিতে হস্তক্ষেপ করতে পারে না। এদিকে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা শাখার একটি সূত্রে জানা যায়, রোহিঙ্গা মুসলিমরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ভারতের ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে অনুপ্রবেশ করছে। কিছু রাজনৈতিক দল তাদের স্বার্থে রোহিঙ্গাদের এই দুই রাজ্যে আশ্রয় দিচ্ছে। শুধু রোহিঙ্গা মুসলিম নয়, বাংলাদেশ থেকেও এই দুটি রাজ্যে গণহারে অনুপ্রবেশ ঘটছে। আর অনুপ্রবেশকারীদের একটা বড় অংশই পাকিস্তানি আইএসআই'র চর। তাদের সঙ্গে বিভিন্ন মুসলিম জঙ্গি সংগঠনের যোগাযোগ রয়েছে। আর রাজনৈতিক দল গুলি এই অনুপ্রবেশকারী সহায়তা করছে নির্বাচনে বাড়তি ভোটার হিসাবে। সে জন্যই তারা অনুপ্রবেশকারীদের ভোটার আই কার্ড সহ সব কিছু পাইয়ে দিতে সহায়তা করছে।

20-09-2017 01:53:42 pm

বঞ্চনার প্রতিবাদে ফের আন্দোলনের হুমকি সর্বশিক্ষার শিক্ষকদের

আগরতলা ২০শে সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): সর্বশিক্ষা অভিযান প্রকল্পে নিযুক্ত শিক্ষক, অশিক্ষক কর্মচারীরা তাদের ন্যায্য, নিয়মিত বেতন প্রদানের জন্য রাজ্য সরকারের কাছে দাবি করছে। এক মাসের মধ্যে বকেয়া পরিশোধ করা সহ বেতনের টাকা প্রতিমাসে সম্পূর্ণ প্রদানের দাবি জানিয়েছে। অন্যথায় ত্রিপুরা এসএসএ টিচার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে ফের বৃহত্তর আন্দোলনে নামার প্রস্তুতি নেব বলে টিএসএসটিও'এর পক্ষ থেকে জানানো হয়। টিএসএসটিও'এর পক্ষ থেকে ভাগ্যেশ্বর নাথ অভিযোগ করেন, রাজ্য সরকার মাসের পর মাস ন্যায্য পাওনা থেকে শিক্ষক, অশিক্ষক কর্মচারীদের বঞ্চিত করে যাচ্ছে। কেন্দ্রীয় সরকার থেকে যথারীতি অর্থ বরাদ্দ করলেও রাজ্য সরকার শিক্ষকদের ন্যায্য বেতন দিচ্ছে না। তিনি আরও বলেন ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে হিসেব অনুসারে দেখা যায় প্রাইমারি শিক্ষকরা ৪ হাজার ২২৮ টাকা করে প্রতিমাসে কম পাচ্ছে। এ থেকে পরিষ্কার বোঝা যায় রাজ্য সরকার কিভাবে প্রতারণা করছে। অ্যাসোসিয়েশন পুরো বেতন প্রদানের জন্য অধিকর্তার সাথে কথা বলেও কোন সারা পায়নি। বাধ্য হয়েই অ্যাসোসিয়েশন দাবি আদায়ের জন্য বৈঠকে বসে পরবর্তী কর্মসূচি ঠিক করবে বলে জানিয়েছেন ভাগ্যেশ্বর নাথ।

20-09-2017 01:52:51 pm

রোহিঙ্গা নির্যাতন ইস্যুতে রাজ্যপালের ডেপুটেশন জমিয়তের

আগরতলা ২০শে সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): রোহিঙ্গা নির্যাতন ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্দেশ্যে রাজ্যপালের কাছে স্মারকলিপি তুলে দিল জমিয়ত উলামায়ে হিন্দ। জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের রাজ্য সভাপতি মুফতি তৈরীবুর রহমানের নেতৃত্বের এক প্রতিনিধিদল মঙ্গলবার রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের কাছে ১০ দফা দাবিতে একটি স্মারকলিপি কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে তুলে দেন। এই দাবিগুলিতে রোহিঙ্গাদের নির্যাতন বন্ধে ভারত সরকারকে মানবিক হয়ে পদক্ষেপ নিতে আবেদন জানানো হয়। ডেপুটেশন শেষে রাজ্যপাল তথাগত রায়ের আচরণ নিয়ে অসন্তোষ ব্যক্ত করেন জমিয়ত নেতৃত্ব। তারা বলেন, রাজ্যপাল তাদের সাথে ২ মিনিটও কথা বলেননি। এমনকি জমিয়ত নেতৃত্ব ডেপুটেশনের পর রাজ্যপালের সাথে গ্রুপ ছবি তোলার আগ্রহ প্রকাশ করেন। রাজ্যপাল ছবি তুলেন না বলে সেখান থেকে চলে যান বলে জানা গেছে। এই ঘটনায় জমিয়ত নেতৃত্ব অপমানিত হয়েছেন বলে জানান। জমিয়ত নেতাদের বক্তব্য খোদ দেশেএ রাস্ট্রপতিও জমিয়ত উলেমার নেতাদের সাথে আন্তরিক হয়ে ডেপুটেশন গ্রহণ করেছিলেন। সেই জায়গাতে একজন রাজ্যপালের কোন ধর্মীয় সংগঠনের নেতাদের সাথে এই ধরনের আচরণ দুঃখজনক বলে জমিয়তের রাজ্য নেতার বিবরণ। অন্যদিকে রাজ্যপাল জমিয়তের স্মারকলিপি কেন্দ্রের 'কাছে পাঠাবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন বলেও জানা গেছে।

20-09-2017 01:51:23 pm

বিদ্যুৎতের ছোবলে মৃত ১ যুবক

আগরতলা ২০শে সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): বিদ্যুতের ট্রান্সফরমারে সারাইয়ের কাজ করতে গিয়ে প্রাণ গেলো এক যুবকের। যুবকের নাম সঞ্জয় মাঝি (২৫)। ঘটনার পর ১৩২ কেভি পাওয়ার হাউস উদয়পুরের বনদুয়ার থেকে এই ঘটনাকে বিদ্যুতের ছোবলে প্রাণ গিয়েছে বলে দাবি করা হলেও স্থানীয়দের দাবি ঘটনার সময় ঐ ট্রান্সফরমারে কোনও বিদ্যুৎ সংযোগই ছিল না। জানা গিয়েছে, কলকাতা দুর্গাপুরের একটি বেসরকারি বিদ্যুৎ সংস্থার অধীনে কর্মরত ছিল মৃত সঞ্জয় মাঝি। ঘটনার পর এই সংস্থাও এখন মুখ খুলতে চাইছে না। যে কারণে মৃত্যু রহস্য আরও বেশি করেই ঘনীভূত হয়। ঘটনার বিবরণ থেকে জানা গেছে, ঘটনার পর একদিকে পুলিশ কিংবা দমকল বাহিনীর কোনও কর্মীকে খবর না দিয়েই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় সঞ্জয়কে। এমনকি যে ট্রান্সফরমারে এই ঘটনা ঘটে, তার ভিতরে বৈদ্যুতিন সামগ্রীও ওলোট-পালোট করে দেয় নিগম কর্মীরা। যাতে এখন পুলিশের পক্ষেও ঘটনার তদন্ত করা সম্ভব হচ্ছে না। যদিও মৃতদেহ বর্তমানে উদয়পুর জেলা হাসপাতালে মর্গে রাখা হয়েছে।

20-09-2017 01:50:28 pm

মাতাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রে পদ্ম জোয়ার, ২০৪ ভোটার বিজেপিতে যোগদান

বাগমা ২০শে সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): মাতাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রে পদ্ম জোয়ার। ৩২ মাতাবাড়ি বিধানসভার অন্তর্গত মাহারানি লাভস্টোরি কমিউনিটি হলে ভারতীয় জনতা পার্টির এক কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মীসভায় এলাকার শাসক দলীয় কর্মী সমর্থক সহ আইএনপিটি, আইপিএফটি দল থেকে ১৩৩টি পরিবারের ২০৪ ভোটার বিজেপি দলে যোগদান করেন। শাসক দল থেকে বিক্ষুব্ধ হয়ে বিজেপি দলে যাওয়া ভোটারদের অভিযোগ দীর্ঘ বছর সিপিআই(এম) দলের সমর্থক হয়েও ভাগ্যে কোন সরকারি সুযোগ সুবিধা জুটেনি। তাই সিপিএম থেকে বিজেপি দলে যোগদান করেন বলে জানান। এদিনের কর্মী সভায় নবাগত ২০৪ জন ভোটারকে দলীয় পতাকা দিয়ে বরণ করে নেন বিজেপি গোমতী জেলা জনজাতি মোর্চার সভাপতি উপহরণ জামাতিয়া ও সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ জামাতিয়া। এদিনের সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন এমডিসি জয় কিশোর জামাতিয়া, রথীন্দ্র জামাতিয়া সহ অন্যান্যরা। কর্মী সভায় উপস্থিত বিজেপি নেতৃত্বরা বক্তব্যে শাসক দল সিপিআইএম এর বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনা করেন।

20-09-2017 01:49:20 pm

এক সত্তরোর্ধ বৃদ্ধার যৌন লালসার শিকার নাবালিকা মেয়ে

আগরতলা ২০শে সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): এক নাবালিকা শিশু কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল সত্তরোর্ধব শাসক দলের সমর্থিত এক বৃদ্ধ ক্যাডারের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ক্যাডারের নাম বলাই সাহা। এডি নগর থানাধীন এম বি টিলার সাহা পারায় তার বাড়ি। নির্যাতিতা ১৬ বছরের এক কিশোরী পশ্চিম মহিলা থানায় তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন। গত এক মাস যাবৎ এই কিশোরী অভিযুক্তের বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করে আসছে। এই সময়ে যখনই খালি বাড়ির সুযোগ পেয়েছে অভিযুক্ত ক্যাডার মেয়েটির উপর তার পাশবিক লালসা চরিতার্থ করেছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। হত দরিদ্র পরিবারের এই মেয়েটি আর্থিক দুর্বলতার কারণে হোমে থেকে বড় হয়েছে। কিন্তু সম্প্রতি মেয়েটির পরিবারের লোকজন উপার্জনের মাধ্যম হিসাবে ব্যবহারের লক্ষ্যে মেয়েটিকে হোম থেকে এনে অভিযুক্তের বাড়িতে পরিচারিকার কাজে লাগায়। এর পেছনে অবশ্য মাসোহারার পাশাপাশি সরকারি বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিল এই ক্যাডার। এই আশ্বাসের উপর বিশ্বাস করেই মেয়েটিকে পরিচালিকার কাজের জন্য ক্যাডার বলাই সাহার বাড়িতে পাঠানো। কিন্তু ক্যাডাররূপী এই নরপিশাচ মেয়েটিকে তার যৌন লালসার শিকার বানিয়েছে। অভিযোগের উপর ভিত্তি করেই পশ্চিম মহিলা থানার পুলিশ আইপিসি'র ৩৭৬ (এ) এবং পোক্সো আইনের ৪নং ধারায় মামলা নিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে এবং আদালতে হাজির করে। আদালত থেকে তাকে একদিনের জেল হেপাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়। এইদিকে সত্তরোর্ধ বৃদ্ধের এই কুকর্ম জানাজানি হতেই এলাকায় ছিঃ ছিঃ রব পরেছে।

20-09-2017 01:48:38 pm

বিজেপি'র জাতীয় পরিষদের বৈঠকে যাবেন বিধায়করা

আগরতলা ১৯ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): আগামী ২৪ এবং ২৫ সেপ্টেম্বর বিজেপি'র জাতীয় পরিষদের বৈঠক বসছে। এই প্রথম ত্রিপুরা থেকে সভাপতি ও সম্পাদক ভিন্ন অন্য অনেককেই বৈঠকে ডাকা হয়েছে। বিজেপি'র রাজ্য সভাপতি বিপ্লব কুমার দেব জানিয়েছেন, ২৪ ও ২৫-এর জাতীয় পরিষদের বৈঠকে যথারীতি সভাপতি এবং প্রভারীকে ডাকা হয়েছে। একই সঙ্গে এইবার বিজেপি'র কোর কমিটির সকল সদস্য এবং বিধায়কদেরও ডাকা হয়েছে। জাতীয় পরিষদের বৈঠকে ত্রিপুরা নিয়েও বিস্তর আলোচনা হবে।

19-09-2017 03:07:27 pm

পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু

আগরতলা ১৯ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): ফের জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনার মৃত্যু হল এক যুবকের। দুর্ঘটনাটি ঘটে আসাম-আগরতলা জাতীয় সড়কের জিরানীয়া থানাধীন বাশকোবরা এলাকাতে। মৃতের নাম জয়ন্ত দেবনাথ (২৭)। তার বাড়ি খোয়াই। তিনি পেশায় একজন কাপর ব্যবসায়ী। জানা গেছে ঘটনার দিন তিনি আগরতলা থেকে কাপর কিনে ছোট লরিতে করে খোয়াই নিয়ে যাচ্ছিলেন। তার সঙ্গে ছিলেন গাড়ির চালক রণজিৎ অধিকারী। জাতীয় সড়কের বাঁশ কোবরা এলাকাতে যাওয়ার পর বৃষ্টি নেমে যায়। জয়ন্ত দেবনাথ এবং চালক রণজিৎ অধিকারী দু'জনেই রাস্তার পাশে গাড়ি দার করিয়ে মালপত্র পলিথিন দিয়ে ঢাকার চেষ্টা করছিলেন। ঐ সময় পেছন থেকে বেপরোয়া গতিতে সে এম এল-০১-কে-২২৩৮ নম্বরের লরি গাড়ি সহ তাদের দু'জনকে ধাক্কা দেয়। দুর্ঘটনায় খবর পেয়ে দমকল ইঞ্জিন দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের দু'জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে মারা যান জয়ন্ত দেবনাথ। গাড়ির চালক চালক গুরুতর আহত অবস্থায় জিবি চিকিৎসাধীন। এই দুর্ঘটনার পর অভিযুক্ত লরিটিকে তেলিয়ামুড়া থেকে আটক করেছে পুলিশ। লরির চালক পালিয়ে যায়। এমর্মে জিরানিয়া থানার পুলিশ মামলা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানী সহ আশেপাশে বেশকিছু দুর্ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়ে জিবিতে চিকিৎসাধীন বলে খবর।

19-09-2017 03:06:30 pm

সুপ্রিমকোর্টের আদেশমূলে রাজ্যেও ফ্যামিলি ওয়েলফেয়ার কমিটি

আগরতলা ১৯ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): সুপ্রিমকোর্টের আদেশমূলে সারা রাজ্যে পারিবারিক হিংসা ও বধূনির্যাতন মামলার বৈধতা যাচাইয়ে গঠিত হল ফ্যামিলি ওয়েলফেয়ার বা পরিবার কল্যাণ কমিটি। হাইকোর্ট অফ ত্রিপুরা অডিটোরিয়ামে রাজ্যপাল তথাগত রায়, মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার, প্রধান বিচারপতি ভাইফেই ও বিচারপতি এস তলাপাত্রের উপস্থিতিতে ভিডিও কনফারেন্সিং'র মাধ্যমে এক সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ত্রিপুরা রাজ্য আইনসেবা কর্তৃপক্ষের সহায়তায় সারা রাজ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু হল এই কমিটির। বধূ নির্যাতন সংক্রান্ত মামলার অপব্যবহার নিয়ে বিতর্ক আইনের এই ধারার অপব্যবহার নিয়ে একাধিকবার দেশের বিভিন্ন হাইকোর্ট এমনকি সুপ্রিমকোর্টেও বিতর্ক হয়েছে। এখন থেকে ফ্যামিলি ওয়েলফেয়ার কমিটি এই ধরনের মামলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে। এদের রিপোর্টের উপরই ভিত্তি করবে মামলার বৈধতা যার ফলে এই আইনের অপব্যবহার কমবে বলে সুপ্রিমকোর্টের ধারনা। অনুষ্ঠানে রাজ্যপাল তথাগত রায় বলেন, আইপিসি'র ৪৯৮(এ) ধারাকে দুঃখজনক একটি আইন যা তিনি মুসলিমদের নিকাহ হালালা আইনের সঙ্গে তুলনা করেন। তিনি বলেন, দেশের সর্বোচ্চ আদালত কর্তৃক যে নতুন নিয়ম চালু হয়েছে এতে এই আইনের অপব্যবহার বন্ধ হবে এবং সঠিক ব্যবহার হবে যাতে করে ভারসাম্য বজায় থাকবে। তবে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার এই নতুন পদ্ধতি সম্পর্কে সম্পূর্ণ ভিন্ন মত পোষণ করেন। সুপ্রিমকোর্ট এই আইনের অপব্যবহার রোধে সাধ্যমত চেষ্টা করলেও স্বাধীনতার প্রায় ৭০ বছর বাদেও আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় নারী নির্যাতন সম্পূর্ণ বিলুপ্ত করা যাবে এমন গ্যারান্টি কেউ দিতে পারেন না। এর মূল কারণ আমাদের দেশে নারীদের এখনও তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত রাখা হয়েছে। দেশের নারীরা যে দিন শিক্ষিত হয়ে স্বয়ং সম্পূর্ণ হবে, স্বামীরা শ্বশুর বাড়ির উপর নির্ভরশীল থাকবে না সেদিনই এই সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হবে তার বক্তব্যে তিনি তুলে ধরেন।

19-09-2017 03:05:01 pm

স্থান করতে গিয়ে তলিয়ে গেল এক ব্যক্তি

উদয়পুর ১৯ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): গোমতীর জলে স্থান করতে গিয়ে তলিয়ে গেল চল্লিশ বছরের এক ব্যক্তি। ঐ ব্যক্তির নাম সঞ্জিত শীল। বাড়ি রাধাকিশোরপুর থানার অন্তর্গত কুঞ্জবন সংলগ্ন এলাকায়। ঘটনাটি ঘটে রবিবার বেলা সারে বারোটা নাগাদ পোলট্রি রোড এলাকার নদীর পারে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সঞ্জিত প্রায় সময়ই নেশাগ্রস্ত থাকতো। এদিনও নেশা করে বাড়িতে হম্বি তম্বি করে গোমতীর ভরা বুকে স্থান করতে যায়। কিন্তু নদী থেকে বারিতে ফিরে না আসায় খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। খবর দেয়া হয় দমকল কর্মীদের। কিন্তু তারা গিয়েও সঞ্জিত এর কোন হদিশ করতে পারেনি।

19-09-2017 03:04:05 pm

চাকরির গ্যাঁড়াকলে ফেঁসে গিয়ে পরিস্থিতি জটিল করছে বামেরা

আগরতলা ১৯ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): দেশের সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশে চাকরীচ্যুত ১০,৩২৩ জন শিক্ষককে অশিক্ষক পদে চাকরিতে পুর্ননিয়োগ করতে গিয়ে রাজ্য সরকারের জন্য সৃষ্ট গ্যাঁড়াকল ক্রমশই জটিল হচ্ছে। সুপ্রিম কোর্ট থেকে আদালত অবমাননার দায়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়ার পর শিক্ষামন্ত্রীর উত্থাপিত মেইল বিতর্ক এখন নতুন মাত্রা পেতে চলেছে। বিজেপি রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত ই-মেইল থেকে চুরির অভিযোগ তুলেছে। যদিও এই মেইলে চাকরি বাতিল করা দেওয়া না দেওয়া নিয়ে কোন বিষয়ই নেই বলে উল্লেখ করা হয়েছে। একই সঙ্গে বিজেপির সরকার প্রতিষ্ঠার পর প্রথম কেবিনেটেই সপ্তম বেতন কমিশনের পাশাপাশি ১০,৩২৩ জন শিক্ষকের কর্ম সংস্থানের জন্য আইন সঙ্গত ব্যবস্থা নেবে বলে ঘোষণা দিয়েছে। বিপ্লব কুমার দেব জানান, মেলারমাঠের পরিচালনায় সরকার চালাতে গিয়ে মানিক সরকার পরিচালিত মন্ত্রীসভা এখন মুখ থুবড়ে পরেছে। রাজ্যে নথিভুক্ত ৭ লক্ষ শিক্ষিত বেকার যুবক রয়েছে। সিপিআইএম তাদের জীবন দুর্বিষহ করে তুলেছে। তিনি বলেন, এই চাকরি অবৈধভাবে দেওয়া হয়েছিল। যার খেসারত দিতে হচ্ছে সংশ্লিষ্ট সকলকে। কিন্তু এতেও রাজ্য বামফ্রন্ট সরকারের বোধোদয় হয়নি। তিনি উল্লেখ করেন, সিপিআইএম এই অবস্থায় দিশাহীন হয়ে আদালতে মামলাকারী দেবাশীষ পাল চৌধুরীর বাড়িতে চরাও হয়েছে। মামলা 'তুলে নেবার জন্য তার উপর সিপিআইএমের ক্যাডার বাহিনীরা চাপ সৃষ্টি করে। ফলে তার বৃদ্ধ পিতা অসুস্থ হয়ে পরেন। পরিবারের প্রত্যেকেই এক উৎকণ্ঠার মধ্যে আছেন। এই অবস্থায় বেচে থাকার মৌলিক অধিকার রক্ষার দাবি নিয়ে দেবাশীষ পাল চৌধুরী রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশক অখিল কুমার শুক্লার শরানপন্ন হন। বিপ্লব কুমার দেব জানান, আত্মরক্ষায় রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী তপন চক্রবর্তী বিজেপি'র রাজ্য প্রভারী সুনীল দেওধরের ই-মেইল থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাবরেকরকে পাঠানো বার্তার উল্লেখ করেন। বাস্তবে এই বার্তায় শুধুমাত্র ২০০২ সাল থেকে শিক্ষাক্ষেত্রে গৃহীত ব্যবস্থা সম্পর্কে বিস্তারিত বিবরণ দিয়েছেন মাত্র। এতে কোথাও চাকরি দেওয়া না দেওয়া কিংবা বাতিল করা সংক্রান্ত কোন বিষয়ই নেই। বিষয়টি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী অযৌক্তিক ব্যাখ্যা দিচ্ছেন। বিপ্লব দেব বলেন, শিক্ষামন্ত্রীর বুদ্ধির বহর প্রমাণ করে রাজ্যের শিক্ষার হাল কেন এই অবস্থায় গিয়ে পৌঁছেছে। বিপ্লব দেব বলেন, যেভাবে বেকারদের বঞ্চিত করে আসছেন রাজ্য সরকার তারজন্য মানিক সরকার সমেত সমগ্র কেবিনেটকে জনগণের সামনে ক্ষমা প্রার্থনা করা উচিৎ।

19-09-2017 02:57:52 pm

স্মার্টসিটি থেকে নীল তিমির আতঙ্ক এখন মফস্বলে

আগরতলা ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): স্মার্টসিটি থেকে নীল তিমির আতঙ্ক এখন মফস্বলে। নেশার টেবলেট, ব্রাউন সুগারের মারণ ছোবলের পাশাপাশি এবার মৃত্যুর পরোয়ানা নিয়ে হাজির নীল তিমির মারণ খেলা। সারা বিশ্বেই এখন ব্লু উইল গেম বা নীল তিমি খেলা টিনএজারদের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। নিত্যদিনই এই খেলার ফাঁদে পড়ে আত্মহত্যার ঘটনা খবরের চ্যানেলে দুঃখের বার্তা নিয়ে আসে। এই ছোট্ট রাজ্যেও এই মারণ খেলার ছাপ পড়ে গেছে। বাদ যায়নি পাহাড়ি অধ্যুষিত লংতরাইভ্যালি মহকুমা। এই গেইম নিয়ে যতই আলোচনা সমালোচনা চলছে ততই যেন কিশোর থেকে সদ্য যৌবনে পা দেওয়া যুবকের আকর্ষিত করছে। দিন কয়েক ধরে মহকুমার দু-একটা জায়গা থেকে খবর আসছে এই খেলার ফাঁদে পা দিচ্ছে কতিপয় যুবক। মহকুমাবাসীদের কাছে এখন আরেকটি ভয় কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ব্লু উইল বা নীল তিমি। স্মার্ট মোবাইল হাতে টিনএজারদের দিকে পরিবার কর্তাদের এখন সতর্কিত সন্দেহের দৃষ্টি।

18-09-2017 02:55:25 pm

নিয়মিত করণের দাবিতে অনিয়মিত স্বাস্থ্যকর্মীদের আন্দোলন প্রত্যাহার

আগরতলা ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): নিয়মিত করণের দাবিতে অনশনে বসা আন্দোলনকারীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে দ্বন্দ্ব। রাজ্য সরকার তাদের দাবি মেলে নিলেও একাংশ কর্মী আন্দোলন প্রত্যাহার করতে নারাজ। একাংশ কর্মীদের বক্তব্য খোদ স্বাস্থ্যমন্ত্রী অনশন স্থলে এসে দাবি পুরনের আশ্বাস দিলেই অনশন প্রত্যাহার করা হবে। অন্যথায় গায়ে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হবে তারা। এনিয়ে দেখা দেয় চরম উত্তেজনা। এই খবর পেয়ে ছুটে যান স্বাস্থ্য অধিকর্তা ও সুপার। ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত সময় চেয়ে অনশন প্রত্যাহার করানো হয়। জানা গেছে, রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরে বিগত ২০-২৫ বছর ধরে ডিডিআর, ক্যাজুয়েল, ডিআরডাব্লিও পদে প্রায় ৭০ জনের মত কর্মী কাজ করে আসছে। এই ২০-২৫ বছর ধরে তারা যে বেতন পাচ্ছে তা দিয়ে সংসার চালানো কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফলে নিয়মিতকরণের দাবিতে দীর্ঘ বছর ধরে মুখ্যমন্ত্রী, স্বাস্থ্যমন্ত্রী, স্বাস্থ্য সচিবের নিকট দাবি জানিয়ে আসছিল। সেখান থেকে কোন সদুত্তর না পেয়ে জিবিপি চত্বরে অনশনে বসে উক্ত পদে কর্মরত কর্মীরা। তবে অনশনকারীদের বক্তব্য দাবি পূরণ না হলে গায়ে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হবে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

18-09-2017 02:54:10 pm

শ্রীনগরে বৃদ্ধার অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে ব্যাপক রহস্য অভিযোগ ছেলের বিরুদ্ধে

আগরতলা ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): শ্রীনগরে এক বৃদ্ধার অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে ব্যাপক রহস্য সৃষ্টি হয়েছে। মৃতার কয়েকজন নিকটাত্মীয় সহ প্রতিবেশীর অভিযোগ তার একমাত্র ছেলেই খুনের নায়ক। ছেলের হাতে মায়ের খুনের খবর চাউর হতেই এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। যদিও প্রাথমিক তদন্তের পর শ্রীনগর থানার ওসি বলেন এই অভিযোগ সত্য নাও হতে পারে। পুলিশের দাবি মৃত মহিলার ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে আসলেও বুঝা যাবে এটি খুন নাকি অন্যকিছু। পুলিশের বিবরণ মৃত মহিলার নাম সুচিত্রা সরকার (৬৫) তার বাড়ি শ্রীনগর থানাধীন আনন্দনগর শ্যাম প্রসাদ কলোনিতে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে প্রতিবেশীরা অভিযোগ করেন মৃতার ছেলে রতন সরকারের (৩৫) সাথে ঝামেলা হয়েছিল। অভিযোগ এই ঝামেলাকে কেন্দ্র করেই ছেলে রতনই তার মাকে খুন করেছেন। কিন্তু ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলে ছেলে সহ আর স্ত্রীর দাবি এটি মিথ্যা অভিযোগ। তারা বলে প্রচণ্ড রোদে সুচিত্রা সরকার জল আনতে গিয়েছিলেন। জল নিয়ে আসার পরই হাঁপাতে হাঁপাতে তিনি পড়ে মারা যান। অন্যদিকে মৃতার দুই বিবাহিত মেয়েও ভাইয়ের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ তুলেছিলেন। পারিবারিক মৃত্যু মামলা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

18-09-2017 02:52:23 pm

ফের জিবিপি'র স্বাস্থ্য পরিষেবা নিয়ে উঠলো প্রশ্ন, রড বিদ্ধ যুবক কাতরাচ্ছে

আগরতলা ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): তথাকথিত রাজ্যের প্রধান রেফারেল হাসপাতাল জিবিপি'র স্বাস্থ্য পরিষেবা নিয়ে ফের উঠে এল বড়সড় প্রশ্ন। শল্য চিকিৎসকের অভাবে গত ৪৮ ঘণ্টা ধরে রাজ্যের এই রেফারেল হাসপাতাল জিবিপি'তে বিনা চিকিৎসায় পড়ে রয়েছে রড বিদ্ধ এক যুবক। প্রশ্ন উঠেছে রাজ্যের প্রধান রেফারেল হাসপাতালে কদর্য চেহারা নিয়ে। উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছে আহত যুবকের পরিবার। অথচ নীরব হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ৪৮ ঘণ্টা অতিক্রান্ত হওয়ার পরেও এখনো জিবি'তে অস্ত্রোপচার করা হয়নি। আহত যুবক রঞ্জিত সরকারের। রড বিদ্ধ অবস্থায় এখনো পরে রয়েছে জিবি হাসপাতালে। কেন এতদিন গেলেও এই অস্ত্রোপচার করা হচ্ছে না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কোটি কোটি টাকা ব্যয় করে জিবি হাসপাতালকে আধুনিক করার কাজ করা হচ্ছে। অথচ আধুনিক মানের এই হাসপাতালের অবস্থা এতটাই করুণ যে এখনো জটিল অস্ত্রোপচার করার মত কোন শল্য চিকিৎসক নেই। শল্য চিকিৎসক না থাকায় অস্ত্রোপচার করা হচ্ছে না বলে জানা গেছে। এর ফলে অসহনীয় অবস্থায় মধ্যে রয়েছে রোগী ও তার আত্মীয় পরিজন। উল্লেখ্য গত বৃহস্পতিবার গাছ থেকে পিছলে ছাদে পড়ে গুরুতর আহত রঞ্জিত সরকার নামে এক শ্রমিক। তার পিঠের বা দিকের অংশ দিয়ে বুকের ভিতর রড বেধে যায়। তার বাড়ি কৈলাসহরের সাজসারা এলাকায়। কাঞ্চনপুর মাছমারা এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটে।

18-09-2017 02:51:32 pm

স্বর্ণযুগের অগ্রগতির ধারায় তিন বছরে ৩ অফিস ও গুদাম উদ্ভোনের অপেক্ষায় ৩ বছর

আগরতলা ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার এবং তার সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী বিজিতা নাথের দপ্তর সম্পর্কে খোজ নেয়ার সময় নেই। এদের দু'জনই বিজেপি'র চাপে ভোট নিয়ে ব্যস্ত। এদিকে অমরপুর আইসিডিএস প্রকল্পের নতুন সিডিপিও অফিস বাড়ির কাজ শুরু হয়েছিল ২০১২ সালের মাঝামাঝি। সঙ্গে শিশু খাদ্য তথা চাল, ডালের এসএনপি গোডাউন। কাজ শেষ আজ দুই বছর। কিন্তু নতুন বাড়িতে অফিস বা গোডাউন চালু হয়নি উদ্বোধনের অভাবে। মন্ত্রী বিজিতার নাথের সময় নেই। মুখ্যমন্ত্রী ও ব্যস্ত। এর ফলে বাড়ছে জন দুর্ভোগ, শিশু ও মায়েদের দুর্ভোগ। একই অবস্থা উদয়পুরের মাতা বাড়ি আইসিডিএস প্রকল্পের। সেই ২০১২ সালেও শিশু খাদ্য বা এসএনপি'র গোডাউনের কাজ শুরু যা শেষ হয় ১৩ সালের ডিসেম্বরে। কিন্তু আজও গোডাউন চালু হয়নি। এত বঞ্চিত হচ্ছেন হাজার হাজার শিশু ও মা। ২০১০ সালে রানির বাজার নগর পঞ্চায়েত এলাকায় সিডিপিও অফিসের জন্য ১৬ লক্ষ্য ৬৪ হাজার টাকায় একটি নতুন অফিস বাড়ি নির্মিত হয়। দুতলা বাড়ির নির্মাণের জন্য অর্থ মঞ্জুরি হলেও নির্মাণ কাজ হয়েছে একতলা। তাও অসম্পূর্ণ। জানা গেছে, দপ্তর মন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী, সচিব এবং অধিকর্তা সবাই এসব তথ্য জানেন। কিন্তু কেউ কাউকে বলার সাহস পান না। আবার প্রয়োজনও নাকি অনুধাবন করেন না। ফলে সরকারি অর্থ ক্ষতি হচ্ছে। তবে এক্ষেত্রে পুরোটাই কেন্দ্রীয় সরকারের অর্থ।

18-09-2017 02:50:17 pm

৪ মাস আয়ুষ্কাল নিয়ে রাম মাধবকে পাল্টা চ্যালেঞ্জ সিপিএমের

আগরতলা ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): রোহিঙ্গা ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারকে বিঁধলো সিপিআইএম। যদিও রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে আন্দোলন বিশেষ করে আনিয়মিত স্বাস্থ্যকর্মীদের আন্দোলনের পেছনে বিজেপি'র ভুত দেখতে শুরু করেছে সিপিআইএম। তবে রাম মাধবের দেওয়া চার মাসের সময়কালের পাল্টা জবাবও দিয়েছে শাসক দল। বিজন ধর বলেন, সারা দেশে বিজেপি পরিচালিত সরকার যথেষ্ট চাপের মুখে রয়েছে। কোনভাবেই পরিস্থিতি সামাল দিতে পারছে না। বিমুদ্রাকরণ থেকে শুরু করে জিএসটি সবকিছুই কর্পোরেটদের জন্য হচ্ছে। আর তা সাধারণ মানুষ বুঝে গেছে। ফলে চাপ বাড়ছে। কিন্তু সংশ্লিষ্ট সকেলের দৃষ্টি অন্যদিকে ঘুরিয়ে দিতে যা খুশি সিদ্ধান্ত নিয়ে চলেছে কেন্দ্র সরকার। এ রাজ্যেও অস্থিরতা সৃষ্টি করছে বিজেপি। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার রোহিঙ্গা ইস্যুতে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা নিন্দনীয়। রাষ্ট্রসংঘও ভারতবর্ষের অবস্থানকে নিন্দা করেছে। আর তাতে দেশের সন্মান হানি হয়েছে। আন্তর্জাতিক রীতি মেনে রোহিঙ্গাদের শরণার্থীর মর্যাদা দেওয়া প্রয়োজন। পরবর্তী সময় তাদের কীভাবে নিজ দেশে পাঠানো যায় তা নিয়ে আলোচনা হতে পারে। ''সবকা সাথ সবকা বিকাশ'' বলে বিজেপি পরিচালিত সরকার শুধু কর্পোরেটদের বিকাশ করেছে। ফলে বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতেই কৃষক আন্দোলন শুরু হয়েছে। শুধু কৃষকরাই নয়, শ্রমিক কর্মচারী, সাধারণ মানুষ আন্দোলনে যাচ্ছে। তিনি জানান, বীরচন্দ্র মনুর হত্যাকাণ্ডের ২৫ বছর পূর্তি হবে ১২ অক্টোবর। ফলে সেখানে একটি অনুষ্ঠান হবে। জমায়েতে ভাষণ দিতে উপস্থিত থাকবেন প্রকাশ কারাত। এর আগের দিন বিপ্লব দিবস উপলক্ষ্যে আগরতলায় তিনি একটি হলসভাও করবেন। ২৮ অক্টোবর কৃষক বিদ্রোহের দিবস হিসাবে গোলাঘাটির ভক্তঠাকুর পারার আরেকটি জমায়েত সংগঠিত করা হবে। তিনি বলেন, রাম মাধব বামফ্রন্ট সরকার পতনের জন্য ৪ মাসের সময় দিয়ে গেছেন। কিন্তু ৪ মাস পর এই বিজেপি'র নেতাদেরই কোন হদিশ থাকবে না। বামফ্রন্ট সরকারের পতনের অলীক কল্পনা আর বাস্তবায়িত হবে না। অন্যদিকে পার্টির মুখপাত্র গৌতম দাস বলেন, কলেজগুলির নির্বাচনে বিজেপির সুনীল দেওধর আর বিপ্লব দেব হাজির হয়ে যা করেছেন তা কোন ভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। কলেজের নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে তারা অর্থ ব্যয় করেছে। এটা খুবই নিন্দনীয়। সরকারি মেডিকেল কলেজে ৩দিন ধরে যে ভাবে কলেজ অধ্যক্ষ, স্বাস্থ্য অধিকর্তা এবং সুপারকে ঘেরাও করে রাখা হলো তা সম্পূর্ণ বেআইনি। কিছু কর্মীকে উস্কে দিয়ে বিজেপি এই অস্থিরতা সৃষ্টি করেছে বলেও তিনি দাবি করেন।

18-09-2017 02:48:43 pm


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.