• রাজনৈতিক সংঘর্ষে নিহত ত্রিপুরার যুবা সাংবাদিক
  • ত্রিপুরায় রাজনৈতিক সংঘর্ষে চরমে, সাংবাদিককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা
  • চরম অশান্তির পরিবেশ, রাজনৈতিক সংঘর্ষ
  • আবার রাজনৈতিক সংঘর্ষের সম্ভাবনা, অবরুদ্ধ পথ
  • ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গে ভোটের স্বার্থে রাজনৈতিক দলগুলি সহায়তা করছে রোহিঙ্গাদের
  • বঞ্চনার প্রতিবাদে ফের আন্দোলনের হুমকি সর্বশিক্ষার শিক্ষকদের
  • রোহিঙ্গা নির্যাতন ইস্যুতে রাজ্যপালের ডেপুটেশন জমিয়তের
  • বিদ্যুৎতের ছোবলে মৃত ১ যুবক
  • মাতাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রে পদ্ম জোয়ার, ২০৪ ভোটার বিজেপিতে যোগদান
  • এক সত্তরোর্ধ বৃদ্ধার যৌন লালসার শিকার নাবালিকা মেয়ে
  • বিজেপিকে আক্রমণ করতে গিয়ে আরএসএসের দিকে তোপ দাগলেন মানিক সরকার
  • এইচএসসিএলের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের দাবি ত্রিপুরা সরকারের
  • বিজেপির ঘরেই ছেঁদ, নিয়োগ-প্রক্রিয়া বন্ধ হয়নি
  • আগরতলা সহ ত্রিপুরার বিভিন্ন মহকুমা সদরে আরএসএসএর পথ সঞ্চালন
  • পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু
  • সুপ্রিমকোর্টের আদেশমূলে রাজ্যেও ফ্যামিলি ওয়েলফেয়ার কমিটি
  • স্থান করতে গিয়ে তলিয়ে গেল এক ব্যক্তি
  • আজ মহালয়া, পিতৃ তর্পণ
  • চাকরির গ্যাঁড়াকলে ফেঁসে গিয়ে পরিস্থিতি জটিল করছে বামেরা
  • খোয়াই ও চম্পকনগরে ব্যাপক রাজনীতি সংঘর্ষ, আহত বহু
  • আবার রাজনৈতিক সংঘর্ষ, আহত বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ
  • সরকারের বিরুদ্ধে আদালতের মামলাকারীর জীবন সংশয়
  • স্মার্টসিটি থেকে নীল তিমির আতঙ্ক এখন মফস্বলে
  • নিয়মিত করণের দাবিতে অনিয়মিত স্বাস্থ্যকর্মীদের আন্দোলন প্রত্যাহার
  • শ্রীনগরে বৃদ্ধার অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে ব্যাপক রহস্য অভিযোগ ছেলের বিরুদ্ধে

স্পেশাল আর্টিকেল

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

হোলির রাতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পর সাংবাদিক সন্মেলনে বিপ্লব

চিটফান্ড ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারকে তথ্য সহ বিঁধল সুদীপ

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ত্রিপুরা খবর

বাসের চাপায় মৃত্যু বিলোনিয়া কলেজের মেধাবী ছাত্রীর

বিলোনীয়া ১৮ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): মর্মান্তিক মৃত্যু হল বিলোনিয়া কলেজের মেধাবী ছাত্রী ঝুমা দাস (২০) বাড়ি রাজনগর ব্লকের গাবতলি এলাকায়। ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, বিলোনীয়া ঈশ্বর চন্দ্র মহাবিদ্যালয়ের মেধাবী জিওগ্রাফি অনার্সের ছাত্রী ঝুমা দাস মা রেখা পাল সহ বিলোনীয়া কালীনগর মোটরস্ট্যান্ড থেকে উদয়পুর মাসির বাড়ির উদ্দেশ্যে গাড়িতে করে রওনা দেয়। চিওামারার কাছাকাছি এলে ঝুমা গাড়ি থামিয়ে বমি করে। আবার গাড়িতে উঠার সময় চালক গারিটি চালিয়ে দিলে ঝুমা নিচে পড়ে যায়। বাস গাড়ির পেছনের চাকা পিষে দেয় ঝুমার মাথা। ঘটনাস্থলেই ঝুমার মৃত্যু হয়। ঝুমার এই অবস্থা দেখে ঝুমার মা রেখা পাল অজ্ঞান হয়ে পরেন। অগ্নিনির্বাপক দপ্তরের গাড়ি গিয়ে ঝুমার মৃতদেহ উদ্ধার করে এবং অজ্ঞান অবস্থায় ঝুমার মাকে বিলোনীয়া হাসপাতালে নিয়ে আসে। ঝুমার মার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চিকিৎসকরা তাকে উদয়পুর গোমতী জেলা হাসপাতালে রেফার করেছেন। ঝুমার এই অস্বাভাবিক মৃত্যুতে গাবতলিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। জানা গেছে গাড়ির চালক পলাতক। গাড়িটিকে পুলিশ আটক করেছে।

18-09-2017 02:47:27 pm

দুই নাবালিকা অপহরণে ধৃত ২ যুবককে ফের আদালতে ১৮ই হাজিরের নির্দেশ

আগরতলা ১৬ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): সিধাই থানা এলাকার দুই নাবালিকা অপহরণ কাণ্ডে জড়িত ধৃত দুই জড়িত দুই যুবককে পুলিশ আদালতে হাজির করে রিমান্ডের আর্জি জানায়। কিন্তু মামলার কেইস ডায়েরি না থাকায় রিমান্ডের আবেদন সংরক্ষিত রাখেন বিচারক। ১৮ সেপ্টেম্বর কেইস ডায়েরি সহ আদালতে হাজির করা হবে দুই অভিযুক্তকে। ধৃতরা হল জীতেন্দ্র সাহা ও সাগর দেবনাথ। উদ্ধারকৃত দুই নাবালিকাকে এদিন পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেয় পুলিশ। গত ৮ সেপ্টেম্বর সিধাই থানাধীন গোপালনগর ও শনিতলা এলাকার দুই নাবালিকা নিখোঁজ হয়েছিল। স্কুলে যাবার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আর ফিরেনি। জানা গেছে, গোপালগড়ের নাবালিকার সিমনা গ্রামের সাগর দেবনাথ নামে যুবকের সাথে প্রণয় সম্পর্ক হয়েছিল। উভয়ে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করবে সিদ্ধান্ত নেয়। এক্ষেত্রে এই নাবালিকা স্কুলছাত্রীর সফর সঙ্গী হয় শনিতলার এক নাবালিকা ছাত্রী। শেষ পর্যন্ত পুলিশ দুই যুবক সাগর ও জীতেন্দ্রকে আগরতলায় আটক করে পূর্ব থানায় পুলিশ। আড়ালিয়ার এক বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয় দুই নাবালিকাকে।

16-09-2017 02:41:09 pm

নিয়মিত করণের দাবিতে আমরণ অনশনে স্বাস্থ্য দপ্তরের অনিয়মিত কর্মীরা

আগরতলা ১৬ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): চাকরিতে নিয়মিত করণের দাবিতে আমরণ অনশনে বসল স্বাস্থ্য দপ্তরের অনিয়মিত কর্মীরা। ৮ ঘণ্টার গণ অবস্থান ও পড়ে আগরতলা সরকারি মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ কে কে কুণ্ডু ও স্বাস্থ্য অধিকর্তাকে ঘেরাও করার পরও কোন প্রতিশ্রুতি না পেয়ে একপ্রকার বাধ্য হয়ে জিবিপির ক্যাজুয়েল, ডিআরডাব্লিউ ও ডিআরবি পদ কর্মরত অনিয়মিত কর্মীরা আমরণ অনশনে 'বসে। পাঁচ দফা দাবির ভিত্তিতে আন্দোলন করে আসছিল দীর্ঘদিন ধরে তারা। এনিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী, স্বাস্থ্য সচিব, মুখ্যমন্ত্রীর নিকট গণ ডেপুটেশনে সামিল হয়েছিল। কিন্তু আজ পর্যন্ত তাদের দাবি পূরণে কোন সদর্থক ভূমিকা গ্রহণ করেনি রাজ্য সরকার। ফলে বাধ্য হয়ে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আমরণ অনশনে বসে তারা। তাদের অনশনের ফলে হাসপাতালের কাজকর্মে ব্যাঘাত সৃষ্টি হয়েছে। তাদের দিয়ে হাসপাতালের যেসব কাজকর্ম হতো তা প্রায় বন্ধ হয়ে পরেছে। এইদিকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি বিপ্লব কুমার দেব অনশনস্থলে ছুটে যান। তিনি অভিযোগ করে বলেন, রাজ্য সরকার বরাবরই কর্মচারীদের বঞ্চনার দিকে ঠেলে রেখেছে। কর্মচারীদের শোষণ করে চলছে সরকার। যাদের দিয়ে স্বাস্থ্য পরিষেবা চলে তাদেরই বঞ্চনা করা হচ্ছে।

16-09-2017 02:39:53 pm

যুব নেতার বাড়ি থেকে বেআইনি মদ উদ্ধার

আগরতলা ১৬ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): খোয়াই থানা পুলিশের হাতে ধরা পরল দুই নকল মদের কারখানার কারিগর এবং মালিক। উদ্ধার হল প্রচুর নকল মদ, মদের খালি বোতল, আলাদা আলাদা ব্যান্ডের বোতলের ছিপি, প্যাকেট সহ যন্ত্রপাতি। পুলিশের হাতে ধরা পরল নকল মদ তৈরির নায়ক তথা শাসক দলের যুব নেতা গৌতম দাস। পুলিশ যুব নেতাকে আটক করে বাইক তল্লাশি চালিয়ে বাইকের টুল বক্স থেকে উদ্ধার করে অনেকগুলি মদের খালি বোতল। তারা গৌতম দাসকে জিজ্ঞেসাবাদ চালিয়ে লালাটিলা গ্রামের নন্দ পারায় যায়। যেখানে তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে তল্লাশি চালিয়ে আরও কিছু খালি মদের বোতল উদ্ধার করে। পড়ে গৌতমের বারিতে নকল মদ উদ্ধার করে। উদ্ধার প্রচুর সংখ্যক মদের খালি বোতল, বোতলের ছিপি, বিভিন্ন যন্ত্রাংশ। অভিযানের পরই পুলিশ ঐ যুবনেতাকে গ্রেপ্তার করে তার টি আর ০১-এম-৭৮৪৬ নাম্বারের বাইকটিও নিয়ে আসে থানায়। পুলিশের জেরার মুখে সে স্বীকার করে বিভিন্ন লাইসেন্স প্রাপ্ত দোকান থেকে মদ ঢুকিয়ে বোতল সিল করে সেগুলি আবার মদের দোকানে পাঠিয়ে দেয়। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

16-09-2017 02:38:36 pm

রেল লাইনের নিরাপত্তা নিয়ে রাজ্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

আগরতলা ১৬ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): আগামী ২০১৯ সালের জুন মাসের মধ্যে আগরতলা-সাব্রুম রেল চলবে। ইতিমধ্যে উদয়পুর-গর্জির মধ্যে রেল সংযোগ স্থাপন হয়ে গেছে। সেই লক্ষ্যে মাত্রা নিয়েই জোর কদমে চলছে রেলের সম্প্রসারণের কাজ। আগরতলা-আখাউড়া রেল প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করতে গিয়ে এমনটাই জানান কেন্দ্রীয় প্রকল্প রূপায়ণ ও পরিসংখ্যান মন্ত্রী সদানন্দ গৌরা। পরিদর্শন কালে রেল দপ্তরের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন। তিনি জানান, প্রাকৃতিক দুর্যোগের ফলে রেল সম্প্রসারণের কাজের ক্ষেত্রে সমস্যা সৃস্টি হচ্ছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ স্বাভাবিক। কিন্তু রাজ্য সরকারের ব্যর্থতার জন্য কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলির কাজ শেষ হতে নিদিষ্ট সময় থেকে অতিরিক্ত সময় লাগছে। ফলে অতিরিক্ত টাকা ব্যায় হচ্ছে। তিনি বলেন, রেল সহ ১১টি কেন্দ্রীয় প্রকল্পের জন্য ৪৪০০.৬৪ কোটি ধার্য্য করা হয়েছিল। কিন্তু অতিরিক্ত সময়ের জন্য আরও অতিরিক্ত টাকা ব্যয় হচ্ছে। তাছাড়া তিনি জানান, কাজের ক্ষেত্রে সমস্যা সৃষ্টি হতেই পারে। কিন্তু সেই জায়গায় সমস্যা সমাধানের জন্য অফিসার সহ রাজ্য সরকারকে এগিয়ে আসতে হবে। বিশ্রামগঞ্জে কিছুদিন পর পর ট্র্যাকে পাথর ফেলে রাখা, ট্রেনে টিল ছোরা সহ নানা সমস্যা নিয়ে তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি এবিষয়ে রাজ্য সরকারের হস্তক্ষেপের দাবী করেন। ইয়িনি বলেন, একের পর এক ঘটনা ঘটে যাওয়ার পরও কেন রাজ্য সরকার এই সমস্যা নিরসনের ক্ষেত্রে পদক্ষেপ গ্রহণ করছে না। তাছাড়া পুলিশ প্রশাসনের ভূমিকা নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

16-09-2017 02:37:50 pm

হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির নির্দেশ পুর নিগমের সিইও'র বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার চার্জ

আগরতলা ১৬ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): আদালতের রায় অবমাননার অভিযোগে পশ্চিম ত্রিপুরার জেলা শাসক, সদর মহকুমা শাসক ও পুর নিগমের সিইও'র বিরুদ্ধে কন্টেমেপ্ট অফ কোর্টস এ চার্জ গঠনের আদেশ দিলেন রাজ্যের উচ্চ আদালতের প্রধান বিচারপতি টি ভাই ফেই। আদালতের রায়কে উপেক্ষা করে জোত ভূমির উপর গড়ে তোলা বহুতল দালান ভেঙে দেওয়ার অভিযোগে হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন নাগেরজলা ট্রাফিক পোস্টের বিপরীতে অবস্থিত মনিহার মার্কেটের মালিক অর্ধেন্দু দাস ও তার শরিকরা। আবেদনকারী পক্ষের দাবী ছিল ১৯৯৬ সাল থেকে দখলে থাকা এই জোত ভূমির উপর পুর নিগমের কাছ থেকে বৈধ অনুমতি নিয়ে গড়ে তোলা হয়েছিল ত্রিতল মণিহার মার্কেট। কিন্তু পরবর্তী সময়ে এই বহুতল মার্কেট খাস জমির উপর গড়ে তোলা হয়েছিল বলে প্রশাসনের তরফে উচ্ছেদ নোটিশ দেওয়া হয়। প্রশাসনের এই তুঘলকি ফরমানের বিরোধিতা করে অর্ধেন্দু দাস ও তার শরিকরা সিভিল কোর্টে মামলা করেন। যার পরিপ্রেক্ষিতে সার্ভে কমিটি সার্ভে রিপোর্ট দাখিল করেও এই বহুতল জোত জমির উপর অবস্থিত বলে উল্লেখ করে। ফলে সিভিল কোর্টের রায় মামলাকারীর পক্ষে যায়। উচ্চ আদালতের নির্দেশে জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা স্বশরীরে হাজির হয়ে আদালতে তাদের বক্তব্য পেশ করেন। কিন্তু এই বক্তব্যে উচ্চ আদালত সন্তুষ্ট না হওয়ায় প্রাথমিকভাবে আদালত অবমাননার প্রাইমাফেসি প্রমাণিত হয় এবং শুক্রবার রাজ্যের প্রধান বিচারপতি প্রশাসনের এই তিন আধিকারিকের বিরুদ্ধে "কন্টেমেপ্ট অফ কোর্টস অ্যাক্ট" অনুযায়ী চার্জ গঠনের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আবেদনকারী পক্ষে মামলা পরিচালনাকারী বরিষ্ঠ আইনজীবী অরুণ কান্তি ভৌমিক।

16-09-2017 02:36:53 pm

পূজা মণ্ডপের উপর থেকে পড়ে গিয়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু

আগরতলা ১৬ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): পূজা মণ্ডপের উপর থেকে পড়ে গিয়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু হল। নিহত শ্রমিকের নাম উত্তম দেবনাথ (৩৫)। তার বাড়ি সিধাই থানাধীন কলাগাছিয়া এলাকায়। দুর্ঘটনাটি ঘটে শুক্রবার। দুর্ঘটনাটি ঘটার সঙ্গে সঙ্গে আহত শ্রমিককে জিবি হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে জানান পথেই তার মৃত্যু হয়েছে। তার মৃতদেহের ময়না তদন্ত শেষে দেহ পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। জিবি ফাঁড়ি সূত্রে জানা গেছে, নিহত শ্রমিক বৌদ্ধমন্দির সংলগ্ন শান্তিকামী সংঘের পূজা মণ্ডপের চুরায় উঠে মণ্ডপ সজ্জার কাজ করছিল। হঠাৎই একটি মণ্ডপ সজ্জার কাঠ ভেঙে গেলে সে উপর থেকে নিচে পড়ে যায়।

16-09-2017 02:35:59 pm

রাজ্য সরকার সম্পূর্ণভাবে দায়িত্বজ্ঞানহীন সরকার: ডি ভি সদানন্দ গৌড়া

আগরতলা ১৫ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান এবং প্রকল্প রূপায়ন বিষয়ক দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী ডি ভি সদানন্দ গৌড়া বামফ্রন্ট সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন। তিনি অভিযোগ করেছেন, এই সরকার দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং বিভিন্ন কেন্দ্রীয় প্রকল্পে অহেতুক সময় অতিবাহিত করছে। আর দীর্ঘ সূত্রিতার কারণে কেন্দ্রীয় সরকারের উপর ব্যয়ের বহর বারিয়ে দিচ্ছে। সৌজন্যতাবশত রাজ্য সচিবালয়ে আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক সেরে সচিবালয়ের কনফারেন্স হলে সাংবাদিকদের সামনে সরাসরি রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কোন কটুকথা না বললেও তিনি উষ্মা প্রকাশ করেছেন। রাজ্য সরকারের কাজে দীর্ঘ সূত্রিতা এবং রাজ্যের সাংসদের এমপি লেড ফান্ডে অর্থের জন্য আবেদন না করা, প্রকল্প অনুমোদন করা না পাঠানো ইত্যাদি অভিযোগ তুললেও মৃদু ভাষায় সরকারকে আক্রমণ করেন। তিনি এদিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারকে এইসব অনৈতিক কার্যকলাপ এবং উন্নয়ন কর্মসূচিতে মন্থর গতির জন্য সরাসরি দায়ী করেছেন। তিনি বলেন মানিক সরকার বাস্তবের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ কথা বলে অহেতুক জটিলতা সৃষ্টি করছেন। মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার শুধুমাত্র নিজের এবং তার পার্টির স্বার্থে জনগণকে বিভ্রান্ত করে ক্ষমতায় টিকে থাকার উদ্দেশ্যে এইসব অনৈতিক অবস্থান নিয়ে চলেছেন।

15-09-2017 02:58:41 pm

আগরতলা-আখাউড়া রেল সংযোগ স্থাপনে কাজ পরিদর্শনে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

আগরতলা ১৫ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): ২০১৯ সালে আগরতলা-আখাউড়া রেল সংযোগ স্থাপনে লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে দ্রুততার সাথে কাজ শুরু করে দিয়েছে ইরকন নামক সংস্থা। নিশ্চিন্তপুর সহ সীমান্তবর্তী এলাকাগুলিতে মাটি পরীক্ষার কাজ শুরু করে দিয়েছে এই সংস্থাটি। আগরতলা-আখাউড়া রেল প্রকল্পের সমস্ত কাজ খতিয়ে দেখতে আজ সীমান্ত এলাকাগুলি পরিদর্শনে এসেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সদানন্দ গৌড়া। আগরতলা স্টেশন থেকে শুরু করে নিশ্চিন্তপুর এলাকাগুলি পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে ইরকন সংস্থার আধিকারিকদের সাথে কাজের অগ্রগতি নিয়ে বৈঠক করেছে প্রশাসনিক সূত্রে জানা গেছে। এইদিকে আজ সকালে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আগরতলা স্টেশনে যান সেখানে গিয়ে ইরকন সংস্থার আধিকারিকদের সাথে বৈঠক করেন। পরবর্তী সময়ে নিশ্চিন্তপুর সহ প্রকল্পের অধীন জায়গাগুলি পরিদর্শন করেন। ইতিমধ্যে জমি অধিগ্রহণের কাজ সম্পন্ন হয়ে গেছে। তাছাড়া জমি মালিকদের ধাপে ধাপে টাকা মিটিয়ে দেওয়া হচ্ছে। কেন্দ্রীয় সরকারের জমি অধিগ্রহণের জন্য রাজ্য সরকারের হাতে টাকা তুলে দিয়েছে। তাছাড়া আগরতলা-আখাউড়া রেল প্রকল্পে সমস্ত ব্যয়ভার কেন্দ্রীয় সরকারই বহন করছে।

15-09-2017 02:57:20 pm

হাইকোর্টের রায়ে অবসরপ্রাপ্ত কর্মীর ন্যায্য পাওনা পেলেন

আগরতলা ১৫ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): জীবনের মূল্যবান সময়ে নিষ্ঠার সঙ্গে সরকারি দায়িত্ব পালন করেও চাকুরী থেকে অবসরের পর শেষ লগ্নে নিজের পাওনা আদায়ে আদালতের দ্বারস্থ হতে হয় রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের। অথচ একই ইস্যুতে একাধিক মামলা হয়েছে রাজ্যের উচ্চ আদালতে। প্রায় সবক্ষেত্রে একই ধরনের রায়ে উচ্চ আদালত রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের পাওনা মিটিয়ে দেওয়ার আদেশ দিয়েছে। কিন্তু এরপরও কোন হেলদোল নেই রাজ্য প্রশাসনের আমলা-কামলাদের। এমনই একটি ঘটনায় রাজ্য সরকারের উদ্যান দপ্তরে ২০ বছরের বেশি সময়কাল চাকুরী করেও ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে অবসরে গেলেও প্রাপ্য গ্র্যাচুয়িটি থেকে বঞ্চিত ছিলেন হেনা রানি দাস। ২০১০ সালে গ্র্যাচুয়িটি অ্যাক্ট সংশোধন করে সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকার হিসাবে সরকারি কর্মচারীদের গ্র্যাচুয়িটি প্রদানের নিয়ম রয়েছে। অথচ ১৯৭২ সালের গ্র্যাচুয়িটি অ্যাক্ট অনুযায়ী সর্বোচ্চ সারে তিন লাখ টাকার হিসাবে তাকে গ্র্যাচুয়িটি প্রদান করা হয়। ফলে তার ন্যায্য পাওনার সঙ্গে বিশাল একটা ফারাক তৈরি হয়। এই বঞ্চনার প্রতিবাদ করে হেনা দাস দপ্তরের কাছে হাইকোর্টের রায়ের কপি সহ তার ন্যায্য পাওনার দাবিতে বেশ কয়েকবার লিখিত আবেদন করেন। কিন্তু আবেদনে কোন কাজ না হওয়ায় গত মে মাসে আইনজীবী পুরুষোত্তম রায় বর্মণের মাধ্যমে উচ্চ আদালতে রীট মামলা (নং-৫৮৮/১৭) দাখিল করেন। মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে বিচারপতি এস.তলাপাত্র গ্র্যাচুয়িটি প্রদানে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের টাল বাহানার যথেষ্ট বিরক্তি প্রকাশ করেন। সেই সাথে সংশোধিত গ্র্যাচুয়িটি অ্যাক্ট মোতাবেক আগামী ৩ মাসের মধ্যে মামলাকারীকে ৯ শতাংশ সুদ সহ সমস্ত পাওনা মিটিয়ে দিতে আদেশ দিয়েছেন বলে জানান মামলা পরিচালনকারী আইনজীবী প্রদ্যুৎ মৈশান।

15-09-2017 02:56:29 pm

প্রতি ৬০ জন ভোটার পিছু একজন বিজেপি কর্মী কাজ করবে: রাম মাধব

আগরতলা ১৫ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): প্রতি ৬০ জন ভোটার পিছু একজন বিজেপি কর্মী কাজ করবে। প্রতিটি কমিটি রিপোর্ট দেবে বুথ কমিটিকে। বুথ কমিটি রিপোর্ট দেবে মণ্ডল কমিটিতে। মণ্ডল কমিটি রিপোর্ট দেবে জেলা কমিটিতে। আর সেখান থেকে রিপোর্ট যাবে রাজ্য কমিটিতে। ৩৫ মণ্ডলের বুথ কমিটিগুলিকে নিয়ে রাম মাধব বিলোনিয়ার মুহুরি পর্যটন নিবাসে এক রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন। বৈঠকে বিজেপি রাজ্য সভাপতি বিপ্লব কুমার দেব, দক্ষিণ জেলা সভাপতি বিভীষণ দাস, ৩৫ মণ্ডল সভাপতি গৌতম সরকারও উপস্থিত ছিলেন। রাম মাধব কর্মীদের আশ্বস্ত করেছেন শাসক দলীয় কেউ যদি কোন বিজেপি কর্মীর উপর হাত তোলে তাহলে জেল যাওয়া থেকে কেউ বাঁচতে পারবে না। সূত্রে খবর বৈঠকে রাম মাধব গ্রাস লেভেল সংগঠনের উপর বেশি নজর দিয়েছেন। প্রতি ৬০ জন ভোটারের জন্য একজন কর্মী নিয়োগ থাকবে। ভোটারদের গতিবিধি কোন দিকে যাচ্ছে তার উপর করা নজর রাখার কথা বলা হয়েছে। তাছাড়া কোন দলীয় কর্মী আক্রমণের শিকার হলে সাথে সাথে দলীয় উপর মহলে জানানোর বার্তাও এ দিন রাম মাধব দিয়েছেন।

15-09-2017 02:55:27 pm

অরাজনৈতিক সভাকে মোদী বিরোধী মঞ্চ বানালেন মুখ্যমন্ত্রী

আগরতলা ১৫ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): খাদ্য আন্দোলনের ৫০ বছরের ইতিহাসকে স্মরণ করে উজ্জীবিত হয়ে এগিয়ে যেতে হবে সবাইকে। এ রাজ্যে যারা বিচ্ছিন্নতা সৃষ্টি করতে চায় তাদের জন বিচ্ছিন্ন করতে হবে। নতুন প্রজন্মকে সচেতন করে বৃহত্তর দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে সমস্ত অংশের মানুষকে একত্রিত হয়ে রাজ্যের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে হবে বলেন উদয়পুরে কেবিআই মাঠে এক প্রকাশ্য সভায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার। যদিও এই সভা কোন রাজনৈতিক দলের ছিল না। দলমত নির্বিশেষে সব অংশের মানুষ এসেছিলেন সভায়। ১৯৬৭ সালের ১৩ আগস্ট যখন খাদ্যে দাবিতে গোটা উদয়পুর ডাক বাংলোতে আগরতলা থেকে আসা চিফ কমিশনারকে ঘিরে দলমত নির্বিশেষে বিক্ষোভ দেখিয়ে সেখানে থেকে মিছিল করে থানার সামনে জমায়েত হয়। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের লাঠিচার্জ করে, আন্দোলনকারীদের প্রতিহত করতে টিআর গ্যাস পর্যন্ত ছোড়ে। পুরিয়ে দেয়া হয় জোনাল এসডিও সুখেন্দু নারায়ণ চৌধুরীর কোয়ার্টার। সেই দিনের ঘটনায় ৫০ বছর পর শহীদ গৌরাঙ্গ দাসের একটি মর্মর মূর্ত্তি স্থাপন করা হয় মহাদেব দীঘির পশ্চিম পারে। ৫০ বছর উপলক্ষে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ ছিল দলমত নির্বিশেষে। তবু বক্তারা মঞ্চটিকে রাজনৈতিক মঞ্চ হিসাবে ব্যবহার করেছেন বলে অনেকেই মনে করছেন। সেদিন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার খাদ্য আন্দোলনের সেদিনের ইতিহাস তুলে ধরার পর দেশের পরিস্থিতি নিয়ে বিজেপি সরকারকে আক্রমণ করে বলেন এই সরকার গরিব মানুষের কথা ভাবেন না। তাদের দলের শাসনের রাজ্যগুলিতে কৃষক আত্মহত্যা করেছে। তিনি আরও বলেন এই বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার মানুষে মানুষে বিভাজন তৈরি করতে চাইছে। ষড়যন্ত্র করছে। ষরযন্ত্রকামী বিভেদকামী রাজ্য ভাগের চক্রান্ত যারা করছে তাদের বিরুদ্ধে চোখ কান খোলা রেখে সতর্ক সজাগ দৃষ্টি রাখার জনগণের প্রতি আবেদন করে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার।

15-09-2017 02:54:30 pm

পুলিশ দপ্তরের খোদ এসপি অফিসে নৃশংসভাবে খুন হলো জওয়ান

বিশালগড় ১৫ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): পুলিশ দপ্তরের খোদ এসপি অফিসে নৃশংসভাবে খুন হলো জওয়ান। ঘটনাটি ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে সিপাহীজলা জেলার জেলা পুলিশ সুপারের অফিসে। খুন হওয়া জওয়ানের নাম শুকমণি সিংহ (৪৬), বাড়ি বিশালগড় থানাধীন কসবা গ্রামে। এই হত্যাকাণ্ডের জেরে বৃহস্পতিবার এসপি অফিস থেকে গ্রেপ্তার করা হয় খুন হওয়া জওয়ানের সহকর্মী সাম্বার মানিক মলসমকে। বর্তমানে সে বিশ্রামগঞ্জ থানার লক আপে রয়েছে। ঘটনার বিবরণ থেকে জানা গেছে, খুন হওয়া এসপিও জওয়ান শুকমণি সিংহ বিশ্রামগঞ্জস্থিত সিপাহীজলা জেলা পুলিশ সুপারের অফিসে কর্মরত ছিলো। তার সহকর্মী ধৃত সাম্বার মানিক মলসম সহ অন্যান্য সহকর্মীদের সঙ্গে এসপি অফিসের ব্যারাকেই থাকতেন শুকমণি। শুকমণি তার স্ত্রীকে ফোন করে বলেন তারা তাকে মেরে ফেলছে। সে হয়তো আর বাঁচবে না। এই কথা বলার পর ফোন কেটে যায়। পড়ে শুকমণির স্ত্রী এসপি অফিসে যোগাযোগ করে জানতে পারেন তার স্বামী জিবিতে চিকিৎসাধীন। জিবিতে ১৭ ঘণ্টা মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লরে হেরে যায় শুকমণি। কিভাবে শুকমণি খুন হল সেবিষয়ে খুঁজতে গিয়ে জানা যায় কাঠের ফাইল বা রড জাতীয় কিছু দিয়ে শুকমণিকে খুনের উদ্দেশ্যে তার দেহের নিম্নাঙ্গে প্রচন্ডভাবে পেটাই করা হয়েছিলো। তবে কী কারণে তাকে এমন নৃশংসভাবে মেরে খুন করা হলো সেই বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ এস পি অফিসে কর্মরত সমস্ত জওয়ানরা। ওসি দুলাল দেবনাথ জানায়, শুকমণির পরিবারের পক্ষ থেকে খুনের মামলা করেন। জানা গেছে, শুকমণি সিংহের দুই ছেলে ও একটি মেয়ে রয়েছে। এদের বয়স যথাক্রমে উপার্জনশীল কর্তার মৃত্যুতে দিশেহারা হয়ে পরেন অন্যান্য সদস্যরা।

15-09-2017 02:53:16 pm

রাজ্যে শীঘ্রই ঘটতে চলেছে একটি আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের আত্মপ্রকাশ

আগরতলা ১৫ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): রাজ্যে আবার নতুন করে আরও একটি উপজাতি ভিত্তিক আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের আত্মপ্রকাশ ঘটতে চলেছে। বিজেপি'র বিরুদ্ধে গরম সুর দিয়ে পৃথক রাজ্য ইস্যুতে নিজেদের অবস্থান দৃঢ় করতে চেয়েছে আইপিএফটি'র এন সি বিরোধী গোষ্ঠী বৃহস্পতিবার আগরতলা প্রেস ক্লাবে আইপিএফটি'র বুধু-রাজেশর গোস্টীর নেতারা এক বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠকে সংগঠনের সমস্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যদের ডাকা হয়। দীর্ঘক্ষণ ধরে বৈঠক চলে। বৈঠক শেষে আইপিএফটি'র এনসি বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা রাজ্যেশ্বর দেববর্মা জানিয়েছেন আইপিএফটি নামের সঙ্গে এখন উচ্ছৃঙ্খলতা এবং নানা ধরনের উস্কানিমূলক বিষয় জরিয়ে গেছে। এন সি দেববর্মার কারণে এমনটা হয়েছে। ফলে তাদের গোষ্ঠীর নেতারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইপিএফটি নাম ত্যাগ করে তারা অন্য একটি নাম নেবেন। এজন্য অতিসত্বর আরও একদফা বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। রাজ্যেশ্বর দেববর্মা জানান, অতিসত্বর নতুন নাম নিয়ে তারা রাজ্যে বৃহত্তর শক্তি হিসাবে আত্মপ্রকাশ করবে যা আগামী দিনে উপজাতিদের দাবি আদায়ে কার্যকরি ভূমিকা নিতে পারবে।

15-09-2017 02:20:56 pm

সাব্রুম পূর্ত ডিভিশনে নির্মাণ কাজ না করে বরাদ্দ অর্থ লোপাট

আগরতলা ১৪ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): তথাকথিত মডেল রাজ্যের স্বর্ণযুগে দুর্নীতির অন্যতম উদাহরণ সাব্রুম পূর্ত দপ্তর। কোনও রকমের নির্মাণ কাজ না করে নির্মাণ কাজ না করে নির্মাণ কাজের পুরো অর্থ আত্মসাৎ করার অভিযোগ রয়েছে, সাব্রুম পূর্ত দপ্তরের কয়েকজন কর্মকর্তা ও ঠিকেদারের বিরুদ্ধে। অভিযোগ রয়েছে সাব্রুম পূর্ত বিভাগের পূর্বাতন এগজিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার অঞ্জন দত্ত ও বর্তমানে সাব্রুম পূর্ত সাব ডিভিশনের এসডিও রাজকুমার দাসের নাম। সাব্রুম পূর্ত ডিভিশনে প্রায় ৬০টি কোটেশনের নির্মাণ কাজ 'না করে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে। এই নিয়ে পূর্ত দপ্তরের উপর মহলে জানাজানি হতেই সাব্রুম পূর্ত বিভাগে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। সাব্রুম পূর্ত বিভাগে এক থেকে দের বছরে যে পরিমাণ দুর্নীতি হয়েছে তাতে অঙ্কের পরিমাণে বেশ কয়েক কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে দপ্তরের বিশেষ সূত্রটি থেকে জানা গেছে।

14-09-2017 02:44:17 pm

দীর্ঘদিন ধরেই বিকল জিবিপি হাসপাতালের ডায়ালিসিস মেশিন

আগরতলা ১৪ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): দীর্ঘদিন ধরেই বিকল হয়ে পড়ে আছে রাজ্যের প্রধান রেফারেল হাসপাতাল জিবিপি হাসপাতালে কিডনি রোগীদের ডায়ালিসিস মেশিন। এই মেশিন সারাইয়ের কোন প্রকার উদ্যোগই আজ পর্যন্ত নেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ফলে রীতিমতো বিপাকে পড়তে হচ্ছে কিডনি রোগীদের। এব্যাপারে হাসপাতালের সুপার জানান বিষয়টি দপ্তরের নজরে আনা হয়েছে। মেশিন ক্রয়ের ক্ষেত্রে টাকাও বরাদ্দ করা হয়েছে। তবে কবে নাগাদ কাজ শুরু হবে সে বিষয়ে স্পষ্ট কিছু বলতে পারছেন না তিনি। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, পাঁচটি মেশিন বিকল হয়ে পরাতে প্রতিদিন কিডনি রোগীদের ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে। যেখানে আগে একসাথে ১০ জন রোগীকে ডায়ালিসিস করা যেতো আজ সেখানে ৫ জনকে করতে হচ্ছে। তাছাড়া খুব কম সময়ের মধ্যে ডায়ালিসিসের কাজ শেষ করে নিতে হচ্ছে। তাতে করে অভিযোগ উঠছে। জানা গেছে বিগত পাঁচ ছয় মাস ধরে জোরাতাপ্পি দিয়ে চলছিল ডায়ালিসিস। এর মধ্যে এক পক্ষকাল ধরে সম্পূর্ণরূপে বিকল হয়ে পড়ে রয়েছে ডায়ালিসিস মেশিন। সূত্রটি জানিয়েছে ডায়ালিসিস বিভাগ থেকে বহুবার হাসপাতাল সুপারকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছিল মেশিন সারাই এর। কিন্তু অভিযোগ আজ পর্যন্ত সারাই করা হয়নি। ফলে কিডনি রোগীরা রুটিন মাফিক ডায়ালিসিস করতে পারছেন না। এমতাবস্থায় ডায়ালিসিস করাতে এসে রোগীর আত্মীয় পরিজনদের বিপাকে পড়তে হচ্ছে বলে অভিযোগ।

14-09-2017 02:41:45 pm

নিয়মিতকরণ নয়, সর্বশিক্ষার শিক্ষকদের জন্য সমহারে বেতন দেবার পক্ষে সরকার

আগরতলা ১৪ই সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): নিয়মিতকরণের দাবিতে টানা এক সপ্তাহের বেশি অনশন করলেও সর্বশিক্ষার শিক্ষকদের নিয়মিতকরণের সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় সরকারের উপরেই চেপে দিতে চাইছে রাজ্য সরকার। তবে সর্বশিক্ষার শিক্ষকরা যাতে নিয়মিত শিক্ষকদের হারে বেতন পায় তারজন্য কেন্দ্রীয় সরকারের প্রজেক্ট এপ্রোভাল বোর্ডের কাছে প্রস্তাব রাখছে রাজ্য একথা জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী তপন চক্রবর্তী। এইদিকে সর্বশিক্ষার শিক্ষকদের বক্তব্য ছিলো দেশের অনেক রাজ্যেই তাদের নিয়মিত করা হয়েছে। ত্রিপুরাতে সর্বশিক্ষার শিক্ষকদের নিয়মিত করা হবে কিনা এবিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী তপন চক্রবর্তী বলেন, এব্যাপারে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে দাবি জানানো হলে তারা সেই দায়িত্ব রাজ্যের কাঁধেই ছেরে দেবে। সর্বশিক্ষা প্রকল্পটি কেন্দ্রীয় সরকারি প্রকল্প বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তাদের মতো এনএইচএম এবং অন্যান্য কর্মীরাও রয়েছেন, যারা কেন্দ্রীয় প্রকল্পের অধীনে কর্মরত। তাদের ব্যপারে কেন্দ্রীয় সরকারকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তবে সর্বশিক্ষার শিক্ষকদের নিয়মিতকরণের ব্যাপারে রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত না নিলেও নিয়মিত শিক্ষকদের হারে যাতে বেতন দেওয়া হয় তারজন্য পিএবি'র কাছে দাবি জানানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। শিক্ষামন্ত্রী তপন চক্রবর্তীর মতে আমরা চাই সমস্ত কেন্দ্রীয় প্রকল্পে নিযুক্ত কর্মীদের জন্য একটি সমন্বিত বেতন কাঠামো চালু হোক। কেন্দ্রের কাছে এই দাবি জানানো হবে। ইতিপূর্বেও রাজ্যের তরফে এই দাবি করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

14-09-2017 02:39:22 pm


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.