• সাব্রুমে তরল গ্যাসীয় উদগিরন জারি
  • নেশা কারবারিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবার ইঙ্গিত মুখ্যমন্ত্রীর
  • খোয়াইয়ের সিপিআইএম কার্যালয় গুলিতে শ্মশানের স্তব্ধতা
  • আবার বিশেষ সহায়তার জন্য দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী
  • রাজ্যের রেল গুলিতে চালু হচ্ছে ই-কেটারিং পরিষেবা
  • সাংবাদিকদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করবে না বর্তমান সরকার: মুখ্যমন্ত্রী
  • মহাভারত যুগে ইন্টারনেট, মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়ালেন রাজ্যপাল
  • পুষ্পবন্ত প্রাসাদ রূপ নেবে আধুনিক সংগ্রহ শালায়
  • পুজা অর্চনার পর নতুন রাজভবনের দারোঘাটন
  • সাব্রুমে মাটি থেকে লাভা নিঃসরণ, আতঙ্ক চরমে
  • নেতৃত্বের বিরুদ্ধে তোপ দাগালেন বর্ষীয়ান সিপিআইএম নেতা
  • রাজ্যে পালিত হচ্ছে স্বচ্ছ ভারত দিবস
  • কুখ্যাত বৈরী গ্রেফতার
  • গোমতী জলে তলিয়ে যাওয়া ৭ বছরে শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার
  • অক্ষয় তৃতীয়ায় সরকারী আবাসে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, রাজ্যপালও যাচ্ছেন নতুন আবাসে
  • পুরনিগম হাত ছাড়া হতে চলেছে শঙ্কিত সিপিআইএম
  • জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে স্থান পাচ্ছে ত্রিপুরার কুইন ভ্যারাইটি আনারস
  • নিগম গুলিকে রাজনীতি মুক্ত বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান করার উদ্যোগ সরকারের
  • গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, চাঞ্চল্য
  • নববর্ষের প্রথম দিনে ভবঘুরেদের মধ্যাহ্নভোজন, নজির সৃষ্টি করল বিলোনীয়ার কতিপয় যুবক
  • নাটকীয় ভাবে ঘরে ফিরলেন কাউন্সিলার
  • ট্রান্সফরমার নিয়ে বিস্তর অভিযোগ, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ
  • গায়ক বিপ্লব কুমার দেব, জনপ্রিয়তা তুঙ্গে উঠছে মুখ্যমন্ত্রীর
  • ওডিসি নৃত্যের ইতিহাস জেনে নিন
  • ধর্ষকদের ফাঁসির আদেশ দেওয়ার পক্ষে আবেদন জানাল নির্ভয়ার পরিবার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ত্রিপুরা খবর

00310
0057
0057
0057
0057
বেতনভাতার নতা হারের প্রস্তাব প্রত্যাহার করে নেওয়ার দাবী তৃণমূলের

আগরতলা ১৭ই জুন (এ.এন.ই ): ত্রিপুরা সরকারের সদ্য ঘোষিত বেতনক্রম নিয়ে প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেস তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে। পে-এণ্ড পেনশন রিভিশন কমিটির রিপোর্ট প্রত্যাহার করে নিয়ে রাজ্য বিধানসভার বিশেষ অধিবেশন ডাকার দাবী ও করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ প্রদেশ সভাপতি আশিস কুমার সাহা এবং কর্মচারী নেতা সময় রায় কে সঙ্গে নিয়ে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে শুক্রবার সাংবাদিকদের সামনে তাদের অবস্থান স্পষ্ট করেন। সুদীপ রায় বর্মণ বলেন, ইতিপূর্বে কখনোই এ ধরনের প্রতারণা কোন রাজ্যের কর্মচারীদের সঙ্গে হয়নি। রাজ্য সরকার কর্মচারীদের বকেয়া মহার্ঘভাতা জমানোর টাকা দিয়ে নতুন বেতনক্রমের ঘোষণা দিয়েছে। কিন্তু রাজ্য সরকার পুরোপুরি ভাবে অনৈতিক কাজ করেছে। সুদীপ রায় বর্মণ বলেন, পে-এন্ড পেনশন রিভিশন কমিটির রিপোর্ট একটি মিথ্যা দলিল। এতে প্রতারণার কারসাজী করা হয়েছে। তাই রাজ্য সরকারের উচিৎ অনতিবিলম্বে তা প্রত্যাহার করে নেওয়া। একেই 'সঙ্গে কর্মচারীদের নয়া বেতনক্রম দেওয়ার জন্য বিধানসভার বিশেষ অধিবেশন ডাকার কথা ও তিনি বলেন। তিনি চ্যালেঞ্জ করে বলেন, রাজ্য সরকার গত ৫টি আর্থিক বছরে কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ করা ৭,৪৭৩ কোটি ১২ লক্ষ টাকা না দিয়ে তা জমিয়ে রাখে। এর সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণ রয়েছে। কর্মচারীদের মহার্ঘভাতা দিয়ে তারপর ২.২৫ হারে বেতন বৃদ্ধি করলেও কর্মচারীরা উপকৃত হত। তিনি আর বলেন, রাজ্য সরকার যে ঘোষণা দিয়েছে যে অনুযায়ী এখন কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মচারীদের বেতনভাতার ফারাক আরও অনেক বেড়ে যাবে। অনেকক্ষেতেই একেই পদে চাকরি করেও কেন্দ্রীয় সরকারের কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের তুলনায় রাজ্য সরকারের কর্মচারীরা অর্ধেক বেতন ও পাবেন না। এবিষয়ে দলমত নির্বিশেষে সমস্ত কর্মচারীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া বিশেষ প্রয়োজন। সুদীপ রায় বর্মণের মতে ইতিপূর্বের কখনই কর্মচারীদের সঙ্গে এই ধরনের চরম বঞ্চনার ঘটনা লক্ষ্য করা যায় নি। যদিও বামফ্রন্ট সরকার বরাবরই কর্মচারীদের ন্যায্য পাওনা না দেওয়ার দৃষ্টান্ত স্থাপন করে আসছিল।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.