• চলে গেলেন বামফ্রন্টের আভ্যায়ক খগেন দাস
  • নির্বাচন কমিশনের কাছে বিজেপির একগুচ্ছ দাবি
  • কর্মচারীদের কাজ থেকে নির্বাচনী তহবিলে অর্থ, অভিযোগ নির্বাচন কমিশনে
  • শাসক দলের অনুগতদের নির্বাচনী দায়িত্ব থেকে সরানোর দাবি বিজেপির
  • নির্বাচনী কর্মকাণ্ডের চূড়ান্ত রূপ দিতে আসছেন রাম মাধব
  • বিজেপিতে সামিল তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের সর্বভারতীয় নেতা
  • সিপিআইএম এর প্রার্থী তালিকা নিয়ে জল্পনা কল্পনা
  • রাজনৈতিক দলকে চাঁদা দেওয়া কর্মচারীদের নিরপেক্ষতা নষ্ট করে: সিইও
  • রাজ্যে এল আরো কেন্দ্রীয় আধা সামরিক বাহিনী
  • ত্রিপুরার প্রধানমন্ত্রীর সফরসূচি পিছিয়ে গেছে
  • আজও বেঁচে আছে রেডিও
  • আজও বেঁচে আছে রেডিও
  • নির্বাচনের কারণে পিছানো হতে পারে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের পরীক্ষা
  • শাসক দলের হয়ে কাজ করতে গিয়ে জনরোষের মুখে পুলিশ
  • চূড়ান্ত ভোটার তালিকা রূপায়নে গড়মিলে অভিযুক্তদের সাজা হবে: সিইও
  • রাজনৈতিক সংঘর্ষে রণক্ষেত্রের রূপ কমলপুর
  • বিজেপি-আইপিএফটির জোট চূড়ান্ত
  • ত্রিপুরায় ইস্যুতে সরগরম, সিপিআইএম এর কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠক
  • নির্বাচন ঘোষণা অভূতপূর্ব চ্যালেঞ্জের মুখে দারিয়ে বাম নেতৃত্ব
  • সিপিআইএম থেকে বেরিয়েই বিস্ফোরক মন্তব্য নৃপেন সঙ্গী
  • ভুয়ো ভোটার নিয়ে পুনরায় নির্বাচন কমিশনে যাবে বিজেপি
  • রাজ্যে ভোট ১৮ই ফেব্রুয়ারি। গণনা ৩ মার্চ
  • http://www.agartalanewsexpress.com/news/topfive/get.php?id=1663
  • আইপিএফটির সঙ্গে জোট নিয়ে চূড়ান্ত আলোচনা গুয়াহাটিতে বৃহস্পতিবার

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ত্রিপুরা খবর

00310
0057
0057
0057
0057
বিধানসভার সদস্যপদ খারিজের সম্ভাবনা এড়িয়ে গেলেন রতন লাল নাথ

আগরতলা, ৯ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): সদ্য বিজেপিতে যোগদানকারী বিধায় রতন লাল নাথ দলত্যাগ বিরোধী আইনের আওতায় পরে বিধানসভায় সদস্য 

পদ হারাতে চলেছেন। যদিও বিধানসভার মেয়াদ শেষ হতে আর মাত্র মাসখানেক বাকি। 
প্রদেশ কংগ্রেসের তরফে তাদের দলের বিধায়ক রতন লাল নাথের বিধানসভার সদস্যপদ খারিজ করার আবেদন জানিয়েছে। কারণ সম্প্রতি তিনি বিজেপিতে 

সামিল হয়েছেন। এই অবস্থায় অধ্যক্ষ রমেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথ তাকে বিধানসভায় ডেকে পাঠান তার মতামত রাখার জন্য। কিন্তু অসুস্থতার কারণে তিনি অধ্যক্ষের 

সামনে হাজির হওয়া থেকে বিরত থাকেন। যদিও প্রদেশ কংগ্রেসের প্রতিনিধিরা অধ্যক্ষের সামনে হাজির ছিলেন। 
সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মঙ্গলবার বিধায়ক রতন লাল নাথকে জিজ্ঞেসা করা হলে তিনি বলেন, তিনি অসুস্থ তাই তিনি ১০ দিনের সময় চেয়েছেন। এবিষয়ে অধ্যক্ষের 

কাছ থেকে তিনি এখনো কোন উত্তর পাননি। অন্যদিকে বিধানসভা সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, দল ত্যাগ বিরোধী আইনের আওতায় 'পরেছেন রতন লাল 

নাথ। এখন তিনি ১০ দিনের সময় চাইলেও অধ্যক্ষ কত দিনের সময় দেবেন তা তার উপরই নির্ভর করে। 
অন্যদিকে রাজ্যের রাজনৈতিক মহল ধারনা করছে চূড়ান্ত ভোটার 'তালিকা প্রকাশিত হবার পর নির্বাচন কমিশন যে কোন সময় রাজ্যের নির্বাচনী নির্ঘণ্ট 

ঘোষণা করে দিতে পারে। সে সময় চলতি বিধানসভার মেয়াদও অচিরেই শেষ হচ্ছে। এবস্থায় রতন লাল নাথের সদস্যপদ খারিজ হলে বিশেষ কোন সমস্যা 

হওয়ার নয় বলেই তারা মনে করেন। 


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.