• ইভিএম বিভ্রাট নিয়ে কংগ্রেস তাক করলো বিজেপির দিকে
  • বিপ্লব কুমার দেবের সঙ্গে ফোনে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী
  • দ্বিতীয়ার্ধে ভোট গ্রহণের অনিয়ম ঠেকাতে বিশেষ পর্যবেক্ষকের সঙ্গে বিজেপির বৈঠক
  • সবার মতাধিকার সুনিশ্চিত করলেন সিইও
  • ত্রিপুরায় ভোটে ভিলেন সাজলো ইভিএম
  • ১৮ ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচন
  • ১৮ ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচন
  • ১৮ ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচন
  • চিরাচরিত পোষাকে ভোট দিলেন রিয়াং জাতিগোষ্ঠীর মহিলারা
  • শান্তিরবাজার দুটি বিধানসভা কেন্দ্রেই উৎসবের মেজাজে চলেছে ভোট গ্রহণ
  • রাজ্যের বিভিন্ন কেন্দ্রে উঠেছে ইভিএম নষ্টের অভিযোগ
  • ভোট দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার
  • আধাসামরিক বাহিনীর কড়া নজরদারীর মধ্য দিয়ে চলছে ভোটগ্রহণ
  • শান্তিরবাজারে ভোটগ্রহণ শুরু
  • বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে ইভিএম মেশিন খারাপ, পরে নতুন মেশিন এনে ভোট গ্রহণ শুরু
  • ১৮ বিধানসভায় ৫৯টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শুরু
  • তেলিয়ামুড়ায় মহিলা ভোটার দের মধ্যে চকলেট বিতরন
  • নির্বাচনের লক্ষ্যে পোলিং এজেন্টদের নির্দিষ্ট গন্তব্যস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ত্রিপুরা খবর

00310
0057
0057
0057
0057
বিজেপির ইস্তেহারকে জুমলা বললো সিপিআইএম

আগরতলা, ১২ই ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই ): কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর অরুণ জেটলির কর্তৃক প্রকাশিত বিজেপির নির্বাচনী ইস্তেহারকে আবারো জুমলা বলছেন 

সিপিআইএম এর রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর। পার্টির মতে অরুণ জেটলির উল্লেখিত বিষয়গুলি বাস্তবায়িত হওয়ার নয়। 
সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর বলেন নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় আসার আগে যে সব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তাই পূরণ হয়নি। এখন তাদের দলের 

নেতাই বলছেন এটা রাজনৈতিক জুমলা। রাজ্যেও এমনটাই হবে।
তিনি বলেন, বিজেপির প্রত্যাশী ভীষণ ডকুমেন্ট বা ইস্তেহার এটা সম্পূর্ণ বেআইনি। কারণ এখানে প্রকাশের নাম নেই। প্রতি ঘরে চাকরি একটি অবাস্তব 

কল্পনা। কেন্দ্রের ৪০ লক্ষ শূন্যপদ পরে আছে এগুলি পূরণ করে না। ত্রিপুরার রাজ্য সরকার প্রতিটি কেবিনেট বৈঠকে শূন্যপদ পূরণের সিদ্ধান্ত নিচ্ছে অথবা 

নতুন পদ সৃষ্টি করছে। প্রতি বিধানসভা কেন্দ্র ভিত্তিক কলেজ গঠনের সিদ্ধান্ত অমূলক। 
তিনি আরো বলেন, বিজেপি ফাটকা রাজনীতি করছে। আর বিজেপির দেওয়া প্রতিশ্রুতি গুলি এর প্রমাণ। কোন ভাবেই এই প্রতিশ্রুতি পূরণ করা সম্ভব নয়। 

রাজ্যের জনগণ এই সব বিষয় ভালভাবেই বোঝেন। 
উল্লেখ করা যেতে পারে বিজেপি মূলত ১০টি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে তাদের ভীষণ ডকুমেন্ট প্রকাশ করেছে। এর মধ্যে প্রতিঘরে রোজগার, মেয়েদের বিনামূল্যে 

শিক্ষা, কর্মচারীদের সপ্তম বেতন কমিশন, যুবকদের জন্য স্মার্ট ফোন, সর্বনিম্ন ২০০০ টাকা ভাতা, সর্বনিম্ন ৩৪০ টাকা দৈনিক 'মজুরি, রোজভ্যালি দোষীদের 

শাস্তি প্রদান, সবার জন্য পাকা ঘর, বিপিএল পরিবারের জন্য বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরিষেবা, বিশুদ্ধ পানীয় জল এবং রাজ্যের চুক্তিবদ্ধ সকল কর্মচারীদের নিয়মিত 

করণের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।  


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.