গৃহবধূর হত্যার দায়ে শ্বশুরবাড়ির ৫জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

LATEST UPDATE

গৃহবধূর হত্যার দায়ে শ্বশুরবাড়ির ৫জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
আগরতলা ২১ আগস্ট (এ.এন.ই): গৃহবধূর হত্যার দায়ে ৫অভিযুক্তকে যাবজ্জীবন  আদেশ দিল বিশালগড় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজের আদালত। জানা গেছে, মঙ্গলবার আদালত এই রায় দেয়। মঙ্গলবার আদালতের বিচারক অংশুমান দেববর্মা গৃহবধূ বীণারানী দেবনাথের হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত ৫অভিযুক্ত গৃহবধূর স্বামী মদন দেবনাথ, শাশুড়ি লক্ষ্মীরানী দেবনাথ এবং তিন দেবর গোপাল দেবনাথ, অরুণ দেবনাথ এবং রতন দেবনাথকে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৮(এ) ধারায় তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং পাঁচ হাজার টাকা করে আর্থিক জরিমানা করে। তাছাড়া ৩০২ ধারায় অপরাধীদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের দণ্ডিত করে। পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক জরিমানা করা হয়। উল্লেখ্য, ২০০৪ সামাজিক রীতিনীতি মেনে বিশালগড় থানাধীন নারাউড়া এলাকার বাসিন্দা মদন দেবনাথের সাথে এলাকার বীণা দেবনাথের বিয়ে হয়। বিয়ে হওয়ার পর প্রথম দিকে তাদের সংসার সুখ শান্তিতেই চলছিল। কিন্তু বিয়ের প্রথম বছর অতিক্রান্ত হতে না হতেই স্ত্রী কুৎসিত এই অভিযোগ এনে বীণা দেবনাথের শ্বশুরবাড়ির লোকেরা তার অপর শারীরিক এবং মানসিক অত্যাচার শুরু করে। এই অত্যাচার দিনের পর দিন ক্রমশ বাড়তেই থাকে বলে বীণা দেবনাথের বাপের বাড়ি লোকেরা জানায়। শেষ পর্যন্ত ২০১২ সালে ৩০ ডিসেম্বর বীণা দেবনাথের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয় স্বামী মদন দেবনাথ সহ বাড়ির অন্যান্য সদস্যরা। পরে গৃহবধূ বীণা দেবনাথকে গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে বিশালগড় প্রাথমিক হাসপাতালে পরে জিবি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। জিবি হাসপাতালে গৃহবধূ বীণা দেবনাথের মৃত্যু হয়। 

আরো পড়ুন

Advertisement