LATEST UPDATE

সাফল্যের মুখে রাজ্য চা উন্নয়ন নিগম

আগরতলা ১১ ডিসেম্বর (এ.এন.ই): রাজ্যে চা উন্নয়ন নিগমের উৎপাদিত চায়ের গুনমান বেড়েছে, পাচ্ছে ভাল দাম। লাভের মুখ দেখতে চলছে নিগম। লাভের ভাগ পাচ্ছে

শ্রমিকের ঘরেও।

গত দেড় বছরের ত্রিপুরা চা উন্নয়ন নিগমের কাজকর্মের খতিয়ান তুলে ধরেন নিগম চেয়ারম্যান সন্তোষ সাহা। ২০১৭ পর্যন্ত নিগমের তিনটি চা বাগান থেকে

চা উৎপাদিত চা'র পরিমান ছিল ১ লক্ষ ৭২ হাজার কিলোগ্রাম। ২০১৮ তে তা বেড়ে হয়েছে ২ লক্ষ ৫৮ হাজার কিলোগ্রাম, ২০১৯ শের শেষ হিসাব পর্যন্ত ৪ লক্ষ কিলোগ্রাম 

চা উৎপাদিত হয়ে গেছে। নিগমের ৫ তিন বাগানের ৫ লক্ষ কিলোগ্রাম চা উৎপাদনের ক্ষমতা রয়েছে। শুধু উৎপাদনই নয় বেড়েছে গুনমান, সঙ্গে বাজার মুল্য। এক সময় 

নানা গুনমানের প্রশ্নে ত্রিপুরার উৎপাদিত চা প্রতি কিলো পেত ১৪৬ টাকার দর। গেল বার কলকাতা চা নিলাম বাজারে ২২৫ টাকার দর পেয়েছে নিগমের চা। ২০১৮ থেকে

১৭৭ ২০১ হয়ে ২২৫ টাকায় পৌছেছে দর। এই লাভের মুখ দেখতেই নিগম শ্রমিকদের মজুরি  বৃদ্ধির করে দিয়েছে। নিগমের চা শ্রমিকদের হাজিরা ২০১৬ সালের ১০৫ টাকা 

থেকে বাড়িয়ে ১২৫ করে দিয়েছে। এতে প্রায় ৬ শ শ্রমিক উপকৃত হবেন। বেড়েছে অন্যান্য সুযোগ সুবিধা। সন্তোষ সাহা জানান ২০১৮ সালে উনার দায়িত্ব নেওয়ার সময় 

নিগমের ঋন ছিল ২ কোটি ৩৪ লক্ষ টাকা। গেল বছর ঋন ১ কোটি টাকা কমিয়েছে নিগম। চলতি অর্থ বছরে নিগম ঋন মুক্ত হয়ে যাবে বলে চেয়ারম্যান সন্তোষ সাহা। তবে

ব্যাক্তিগত মালিকানাধীন চা বাগানের চায়ের গুন পরিমান এবং ব্যবসার তুলনায় নিগম এখনো অনেন পিছিয়ে। গোটা রাজ্যের চা উৎপাদন নিয়ে চেয়ারম্যান জানান, 

ইতিমধ্যে রাজ্যে ব্যাক্তিগত উদ্যোগে অর্গেনিক চা চাষ শুরু হয়েছে। আগামী দিনে এই চা বেশ বাজার ধরতে পারবে বলে আশাবাদী তিনি।

আরো পড়ুন

Advertisement