প্রধানমন্ত্রীর হাত দিয়ে উদ্বোধন হয় টিআইটি নবনির্মিত ভবন এবং গর্জি থেকে বিলোনিয়া ট্রেন চলাচলের সূচনা

LATEST UPDATE

প্রধানমন্ত্রীর হাত দিয়ে উদ্বোধন হয় টিআইটি নবনির্মিত ভবন এবং গর্জি থেকে বিলোনিয়া ট্রেন চলাচলের সূচনা

আগরতলা ৯ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই): রাজ্যে এলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিকেল ৩টা ২০ মিনিটে বিশেষ বিমান এমবিবি বিমানবন্দরে অবতরণ করে। বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে ফুলের তোরা দিয়ে স্বাগত জানান রাজ্যপাল কাপ্তান সিং সোলাঙ্কি, মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব তাছাড়া উপস্থিত ছিলেন রাজ্য মন্ত্রীসভার কয়েকজন সদস্য। এরপর পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মহারাজা বীরবিক্রম মাণিক্য বাহাদুরের মর্মর মূর্তির আবরণ উন্মোচন করেন। মূর্তির আবরণ উন্মোচনের পর প্রধানমন্ত্রী সড়কপথে স্বামী বিবেকানন্দ ময়দানে আসেন। জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কনভয় বিমানবন্দর থেকে বুদ্ধমন্দির, অভয়নগর, ভুতুরিয়া হয়ে স্বামী বিবেকানন্দ ময়দানে পৌছয়। এরপর প্রধানমন্ত্রী  মঞ্চে উঠে আগত জনসাধারণের দিকে হাত নাড়ান। কানায় কানায় ভর্তি উপস্থিত জনসাধারণ হাততালি দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান। ময়দানে আসার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে রিসা এবং ফুল দিয়ে স্বাগত জানান উপমুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মণ, মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব সহ আরও অন্যান্য মন্ত্রীরা। এরপর স্বাগত ভাষণ রাখেন উপ মুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মণ। তারপর বক্তব্য রাখেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের শেষে প্রধানমন্ত্রী বোতাম টিপে প্রথমে গর্জি থেকে বিলোনিয়া পর্যন্ত রেল লাইনের উদ্বোধন করেন।  তারপর প্রধানমন্ত্রীর হাত দিয়ে নরসিংগড়ে ত্রিপুরা ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজির নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন হয়। জানা গেছে এদিন প্রধানমন্ত্রী বোতাম টিপে নরসিংগড়ে ত্রিপুরা ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজির নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন করেন। এরপর প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের লেখা 'আধুনিক ত্রিপুরার শিল্পকার মহারাজা বীরবিক্রম কিশোর মাণিক্য বাহাদুর' নামক বই প্রকাশিত হয়। জানা গেছে, বইটির বিশেষত্ব হলো বাংলা, হিন্দি এবং ককবরক ভাষায় বইটি যে কেউই পেতে পারবেন। বইটি পাওয়া যাবে আগরতলা বইমেলাতে বলে জানা গেছে। 

আরো পড়ুন

Advertisement