১১ মাস আগে ত্রিপুরাবাসী যেভাবে নতুন সূর্যোদয় ঘটিয়েছে সেভাবে এগিয়ে যেতে হবে ত্রিপুরাবাসীকেঃ প্রধানমন্ত্রী
১১ মাস আগে ত্রিপুরাবাসী যেভাবে নতুন সূর্যোদয় ঘটিয়েছে সেভাবে এগিয়ে যেতে হবে ত্রিপুরাবাসীকেঃ প্রধানমন্ত্রী

আগরতলা ৯ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই):  পরিবর্তনের সন্তুষ্টি রাজ্যবাসীর চোখে মুখে ফুটে উঠেছে। ত্রিপুরার বিকাশের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার সব কিছু  করে চলেছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার রাজ্য সফরে এসে বিকেলে স্বামী বিবেকানন্দ ময়দানে এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি একথা বলেন। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ত্রিপুরাবাসীদের উন্নতির জন্য কাজ করে চলেছে। কৃষকদের কাছ থেকে ধান কিনেছে রাজ্য সরকার যা রাজ্যের  ইতিহাসে প্রথমবার ঘটেছে। তিনি বলেন, ফেনি নদীর উপর ব্রিজের কাজ  চলছে। যা খুব শীঘ্রই শেষ হবে। তিনি বলেন গোমতী নদীর পাড় এবং নাভ্যতা বাড়ানোর কাজও খুব শীঘ্রই শুরু হবে। তারপর সেই নদীতে জাহাজ চালানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলে প্রধানমন্ত্রী জানান। ভাষণে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিয়ে ত্রিপুরাকে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দ্বার  বানানো হবে। দিল্লিতে মহাজোটের তীব্র সমালোচনা করেন মোদী। তিনি বলেন, দিল্লিতে মহাজোটে যারা যারা সামিল হয়েছে তারা ভাবছে জনতা বোকা। কিন্তু যদি তারা এটা ভেবে থাকে জনতা বোকা,  কিছুই জানেনা তাহলে তারা এটা ভুল ভাবছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষ সব বুঝে গেছে, দিল্লিতে আগের সরকার কিভাবে টাকা লুট করেছে। এখন মানুষই জবাব দেবে। তিনি বলেন, বিগত বছরে সরকার যে সব কাজ করেছে তাতে 'সবকা সাথ সবকা বিকাশের' লক্ষ্যে এগিয়ে গেছে ভারত। কৃষক থেকে শুরু করে শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নতির লক্ষ্যে বহু  প্রকল্প হাতে নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কৃষক, পশু পালক, মৎস্য ব্যবসায়ীদের জন্য বহু প্রকল্প হাতে নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাছাড়া এডিসিকে আরও শক্তিশালী করার লক্ষ্যে উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তিনি বলেন, রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থাকে আরও উন্নত করার লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে বিগত  সরকারের স্বজন পোষণ নীতি পুরোপুরি পাল্টে দিয়েছে বিজেপি সরকার বলে জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ১১ মাস আগে ত্রিপুরাবাসী যেভাবে নতুন সূর্যোদয় ঘটিয়েছে সেভাবে এগিয়ে যেতে ত্রিপুরাবাসীকে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

আরো পড়ুন

Advertisement