গুলিতে আহত এক মহিলা, তদন্তে পুলিশ
গুলিতে আহত এক মহিলা, তদন্তে পুলিশ

আগরতলা ১০ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই): এক মহিলার পায়ে গুলি লাগার ঘটনার সাথে জড়িতদেরকে এখনো পুলিশ কাউকেই গ্রেপ্তার করতে পারেনি। ঘটনার ৪৮ ঘণ্টার সময় অতিক্রান্ত হয়ে গেলেও এখনো পর্যন্ত পুলিশ মহিলার গায়ে গুলির লাগার ঘটনার সন্দেহে কাউকে গ্রেপ্তার না করার ঘটনায় ক্ষুব্ধ মহিলার পরিবারের লোকেরা। জানা গেছে, আহত মহিলার পরিবারের লোকেরা পুলিশের তদন্তে খুব একটা খুশি নয়। তাদের অভিযোগ পুলিশ অনেকটা ইচ্ছে করেই তারা তাদের তদন্তের কাজে ঢিলেমি করছে। অপরদিকে পুলিশ জানিয়েছে তারা তাদের কাজ শুরু 'করে দিয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, তারা  তদন্তে  বেশ কয়েকজনের সাথে 'কথা বলেছে। তারা জানতে পেরেছে, মহিলার স্বামী কেতু জামাতিয়ার সাথে অপর এক গোষ্ঠীর সাথে টাকা নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরে ঝামেলা চলছিল। এই ঝামেলার কারণেই এই গুলি চালানোর ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিক তদন্তে তারা জানতে পেরেছে দুষ্কৃতিকারীরা মহিলাকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়েনি তারা কেতু জামাতিয়াকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়েছিল। কিন্তু গুলি লেগে যায় কেতু জামাতিয়ার স্ত্রীর পায়ে। পুলিশ জানিয়েছে কিছু দিনের এই গুলি চালানোর ঘটনার সাথে কারা যুক্ত ছিল তা বেরিয়ে আসবে। উল্লেখ্য, পদ্মারানি জামাতিয়া নামে এক গৃহবধূ স্বামীর বাইকে চেপে বাগমার কাকচিগাঙস্থিত নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। তখনই আচমকা কে বা কারা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। সেই ;গুলি এসে লাগে পদ্মারানির পায়ে। সঙ্গে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। জানা গেছে, বর্তমানে গোমতী জেলা হাসপাতালে পদ্মারানি জামাতিয়ার চিকিৎসা চলছে। 

আরো পড়ুন

Advertisement