মকর সংক্রান্তির দিনে শ্বশুরবাড়িতে জামাইকে মারধর

LATEST UPDATE

 মকর সংক্রান্তির দিনে শ্বশুরবাড়িতে জামাইকে মারধর

আগরতলা ১৬ জানুয়ারি (এ.এন.ই): মকর সংক্রান্তির দিনে শ্বশুরবাড়িতে জামাইকে মারধর। ঘটনাটি ঘটে তেলিয়ামুড়ার উত্তর কৃষ্ণপুরে। জানা গেছে, জ্যেঠশ্বশুরের আমন্ত্রণে জামাই তাপস বিশ্বাস মকর সংক্রান্তির দিনে শ্বশুরবাড়িতে যান। যথারীতি জামাইকে পেয়ে শুরু হয় জামাই আপ্যায়ন। শ্বশুরবাড়িতে জামাই তাপস বিশ্বাস যেতেই জ্যেঠশাশুড়ি জামায়ের সামনে পাটিসাপ্টা, সেদ্ধ পুলি, পায়েস দেন। জ্যেঠ শাশুড়ির হাতে তৈরি খাবার দেখে নিজেকে আর আটকে রাখতে পারলেন না তাপস সঙ্গে সঙ্গে খাওয়া শুরু করলেন। জানা গেছে, তাপস 'খাওয়া শুরু করতেই পেছন দিক দিয়ে জ্যেঠ শ্বশুর দড়ি দিয়ে তাপসের হাত এবং পা বেধে পিলারের সাথে বেধে ফেলেন। তারপর জ্যেঠ শাশুড়ি এবং জ্যেঠ শ্বশুর মিলে তাপসকে মারতে শুরু করে। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গা আঘাত করে তারা। এমনকি লাঠি দিয়ে তাপসের শরীরের গোপন জায়গায় পেটাতে থাকেন এরফলে তাপসের সারা শরীরে ক্ষত বিক্ষত  হয়ে যায়। তার নাক, মুখ রক্ত বের হয়। এমন সময় তার আর্তনাদ শুনতে পেয়ে পাড়াপ্রতিবেশীরা ছুটে আসে এবং তাপসের ভাইকে খবর দেয়। খবর পেয়ে তাপসের ভাই দ্রুত পুলিশ নিয়ে ছুটে আসে এবং তাপসকে রক্তাক্ত অবস্থায় তেলিয়ামুড়া হাসপাতালে নিয়ে যায়। আঘাত গুরুতর  হওয়ায় তেলিয়ামুড়া হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাঁকে আগরতলার জিবি হাসপাতালে রেফার করে দেয়। পরে তাপসকে জিবি হাসপাতালে নিয়ে আনা হয়। বর্তমানে জিবি হাসপাতালে তাপসের চিকিৎসা চলছে বলে জানা গেছে। এদিকে কি কারণে তাপসের এই ভাবে হামলা করলো জ্যেঠ শাশুড়ি এবং জ্যেঠ শ্বশুর সেই বিষয়ে তাপসের পরিবার কিছুই বলেনি এমনকি পুলিশও কিছু বলেনি। এদিকে এই ঘটনায় এখনো জ্যেঠ শাশুড়ি এবং জ্যেঠ শ্বশুরের বিরুদ্ধে থানায় কোন মামলা করা হয়নি বলে জানা গেছে।  

আরো পড়ুন

Advertisement