কন্যা সন্তান হওয়ায় নবজাতক শিশুকে হাসপাতালে রেখে গেল মা
কন্যা সন্তান হওয়ায় নবজাতক শিশুকে হাসপাতালে রেখে গেল মা

আগরতলা ১৪ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই): কি পাপ করেছে ছোট নবজাতক শিশুটি। যে জন্ম নেওয়ার পর তার গর্ভধারানী মা তাকে হাসপাতালে ফেলে চলে গেল। শিশুটি তো জানতেও পারলো না কে তার মা কে তার বাবা। নবজাতক শিশুটির কি একটাই অপরাধ যে সে মেয়ে হয়ে জন্মগ্রহণ করেছে। যদি এটাই শিশুটির পাপ হয়ে থাকে তাহলে যে গর্বধারিনির গর্ভে শিশুটি এতদিন ধরে একটু একটু  করে বড় হচ্ছিল সেই গর্ভধারিণীও তো একজন মেয়ে। তাহলে  এক্ষেত্রে শিশুটি কি দোষ  করলো হয়তো  এই  প্রশ্নের  উত্তর কারোর কাছেই নেই। জানা গেছে, বুধবার রাতে এক মা তার সন্তানকে আইজিএম হাসপাতালে ফেলে রেখে চলে যায়। শিশুটি যখন মেঝেতে পরে চিৎকার করে কানচ্ছিল  তখন হাসপাতালে এক নার্স শিশুটিকে 'দেখতে পায় যে একটি নবজাতক শিশু চিৎকার করে  কানচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে ঐ নার্স শিশুটিকে কোলে করে নিয়ে যায়। জানা গেছে, বর্তমানে শিশুটি আইজিএম হাসপাতালেই আছে। জানা গেছে, সেই একদিনের নবজাতক শিশুটি হাসপাতাল কর্মী, নার্স এবং ধাত্রীদের কাছে নয়নের মনি হয়ে উঠেছে। শিশুটি তাদের সাথে খেলা করছে। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ একপ্রকার  নিরুপায় হয়েই নবজাতক শিশু সন্তানটিকে শিশুগৃহে পৌঁছে দেবে বলে সিধান্ত নিয়েছে। সম্ভবত বৃহস্পতিবারই শিশুটিকে কোন শিশুগৃহে পাঠিয়ে দেব আইজিএম হাসপাতালের কর্তৃপক্ষ। সত্যিই কি কন্যা সন্তান জন্ম নেওয়ার শিশুটিকে এভাবে ফেলে চলে যায় তার মা না এর পেছনে লুকিয়ে আছে অন্য কোন রহস্য তা হয়ত সময়ই বলবে। 

আরো পড়ুন

Advertisement