রাতের আঁধারে খুন ফল ব্যবসায়ী
রাতের আঁধারে খুন ফল ব্যবসায়ী

আগরতলা ১৮ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই): কুমারঘাট মহকুমায় রাতাছড়া সড়কে এক ব্যক্তির নৃশংসভাবে হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের এখনো পুলিশ কোন হদিশ পায়নি। যদিও পুলিশের দাবি তারা তল্লাশি অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে খুব শীঘ্রই আততায়ীরা ধরা পড়বে। কিন্তু কবে? কবে ধরা পড়বে আততায়ীরা। নাকি প্রতিবারের মত এবারও অন্যায় করে পার পেয়ে যাবে। এসমস্ত প্রশ্নের উত্তর খুঁজে বেড়াচ্ছে নিহত সমীরণ বাবুর পরিবারের লোকেরা। এদিকে সমীরণ বাবুর পাড়া প্রতিবেশীদের দাবি অবিলম্বে ফল ব্যবসায়ী সমীরণ মালাকারের খুনের জন্য দোষীদের গ্রেপ্তার করতে হবে এবং উপযুক্ত শাস্তি প্রধান করতে হবে। জানা গেছে, পুলিস নিহত ফল ব্যবসায়ী সমীরণ মালাকারকে যারা খুন করেছে তাদের গ্রেপ্তার তল্লাশি অভিযান শুরু করে দিয়েছে। যদিও কি কারণে সমীরণ বাবুকে খুন হতে হল সে বিষয়ে পুলিশ এখনো কিছু জানায়নি। তবে প্রাথমিক তদন্তের পুলিশ শুধু এইটুকু জানিয়েছে ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরেই সমীরণ বাবুকে খুন হতে হয়েছে। উল্লেখ্য, রবিবার রাতে, কুমারঘাট মহকুমায় রাতছড়া সড়কে যোগেশ পাল উচ্চ বুনিয়াদি স্কুলের সামনে একদল দুষ্কৃতিকারী ফল ব্যবসায়ী সমীরণ মালাকারকে নৃশংসভাবে খুন 'করে পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরে। জানা গেছে, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে এবং তদন্ত শুরু করে। পুলিশ জানিয়েছে মৃতদেহের পাশে একটি বাজারের ব্যাগ পরেছিল। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত সমীরণ মালাকারের পরিবারে স্ত্রী ও দুই সন্তান আছে। স্বামীর মৃতদেহ দেখতে পেয়ে তিনি হতবাক হয়ে যান। পাড়াপ্রতিবেশীরা জানিয়েছে সমীরণ বাবু একজন সজ্জন ব্যক্তি ছিলেন। জানা গেছে, এখনো এলাকায় পুলিশের টহল দারি আছে। যাতে এলাকায় কোন ভাবে উত্তেজনা সৃষ্টি না হয় সেদিকে পুলিশ নজর রেখে চলেছে বলে জানা গেছে। 

আরো পড়ুন

Advertisement