LATEST UPDATE

ব্যবসায়ী খুনের সাথে জড়িত এক ব্যক্তি গ্রেপ্তার

আগরতলা ১৮ ফেব্রুয়ারি  (এ.এন.ই): ব্যবসায়ী খুনের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ঘটনার সাথে যুক্ত এক অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ। ধৃত অভিযুক্তের 'নাম সুভাষ মালাকার। জানা গেছে, ধৃত অভিযুক্তকে আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ। আদালত অভিযুক্ত সুভাষ মালাকারকে জেল হাজতে রাখার  নির্দেশ দেয়। এদিকে ব্যবসায়ী খুনের তদন্তে করতে গিয়ে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য  জানতে পারে। পুলিশ  জানায় ধৃত সুভাষ মালাকারের সাথে মৃত সমীরণ মালাকারের স্ত্রীর সাথে অবৈধ 'সম্পর্ক ছিল। এলাকাবাসীরাও এমনটাই মনে করছেন। এলাকাবাসীরা জানায় সমীরণ বাবুর স্ত্রীর সাথে সুভাষ মালাকারের অবৈধ সম্পর্ক নিয়ে বেশ কয়েক গ্রামে বিচার সভা বসে। যার দরুন সুভাষ মালাকার বেজায় ক্ষুব্ধ ছিল সমীরণ মালাকারের বিরুদ্ধে। আর এই তিক্ততা জেরেই সম্ভবত খুন 'হতে হল সমীরণ মালাকারকে 'এমনটাই মনে 'করছে 'এলাকাবাসীরা। পুলিশ জানিয়েছে তারা তাদের তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে সমীরণ মালাকারের স্ত্রীকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞেসাবাদ করা হয়। কিন্তু সমীরণ বাবুর স্ত্রী খুন সম্পর্কিত বিশেষ কোন তথ্য দেয়নি। এভাবে সুভাষ মালাকারকে জিজ্ঞেসাবাদ চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। উল্লেখ্য, রবিবার রাতে, কুমারঘাট মহকুমায় রাতছড়া সড়কে যোগেশ পাল উচ্চ বুনিয়াদি স্কুলের সামনে একদল দুষ্কৃতিকারী ফল ব্যবসায়ী সমীরণ মালাকারকে নৃশংসভাবে খুন 'করে পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরে। জানা গেছে, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে এবং তদন্ত শুরু করে। পুলিশ জানিয়েছে মৃতদেহের পাশে একটি বাজারের ব্যাগ পরেছিল। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত সমীরণ মালাকারের পরিবারে স্ত্রী ও দুই সন্তান আছে। স্বামীর মৃতদেহ দেখতে পেয়ে এলাকাবাসীরা হতবাক হয়ে যান।


আরো পড়ুন

Advertisement