LATEST UPDATE

প্রশাসনিক কোন নির্দেশ ছাড়াই প্যাডেল রিক্সা থেকে মোটর খুলে নেওয়ার অভিযোগে বরখাস্ত ট্রাফিক ইন্সপেক্টর

আগরতলা ২২ ফেব্রুয়ারি  (এ.এন.ই): প্রশাসনিক কোন সিদ্ধান্ত নির্দেশ ছাড়াই মোটর চালিত প্যাডেল রিক্সা থেকে মোটর খুলে নেওয়ার অভিযানে নেতৃত্ব দিয়ে বরখাস্ত হলেন ট্রাফিক ইন্সপেক্টর সুকান্ত বিশ্বাস। জানা গেছে, প্রশাসনিক কোন নির্দেশ ছাড়াই সুকান্ত বিশ্বাস নামক এক ট্রাফিক ইন্সপেক্টর নিজে উদ্যোগী হয়ে প্রায় ৫০টি মত মোটর চালিত প্যাডেল রিক্সা থেকে মোটর খুলে নেয়। যার ;ফলে 'গোটা শহরে শুরু হয়ে যায় রিক্সা শ্রমিকদের আন্দোলন। শুরু হয় ট্রাফিক ইন্সপেক্টরের রিক্সা শ্রমিকদের খণ্ড যুদ্ধ। ঘটনার সূত্রপাত হয় রাধানগর স্ট্যান্ড থেকে। ভাঙচুর করা হয় বেশ কয়েকটি রিক্সা। পরিস্থিতি ক্রমশ বেগতিক হয়ে উঠতে দেখে নামানো হয় পুলিশ এবং টিএসআর। পরে পুলিশ এবং টিএসআরের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব জানান, সুকান্ত বিশ্বাস নামক ট্রাফিক ইন্সপেক্টরই এই ঘটনার মূল কারণ। ঐ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর পুলিশ মহার্নিদেশকের নির্দেশ ছাড়াই নিজের উদ্যোগে  রিক্সা থেকে মোটর খুলে নেয়। এটাকে সরকারের বিরুদ্ধে চক্রান্ত বলেও  'উল্লেখ 'করেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। সরকারি নির্দেশ ছাড়াই ট্রাফিক ইন্সপেক্টর যেভাবে চক্রান্ত করে শহরে অরাজকতা সৃষ্টি করেছেন সেই জন্য কর্তব্যে গাফিলতির কারণে তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হল বলে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব জানান। তিনি আরও জানান, বরখাস্ত ট্রাফিক ইন্সপেক্টরের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত চলবে। এদিকে মুখ্যমন্ত্রী জানান, আদালত প্যাডেল রিক্সা থেকে ব্যাটারি খুলে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ঠিকই সেই বিষয়ে রাজ্য সরকার এখনো কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি। আদালতের দেওয়া এখনো একমাস সময় আছে।  এরমধ্যে সরকার কিছু একটা ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। তিনি জানান, সরকার শ্রমিকদের  পাশে থেকে তাদের অর্থনৈতিক সুবিধা এবং রুজি রোজগার যাতে বজায় থাকে সেদিকে লক্ষ্য রেখে কিভাবে আদালতের রায়কে কার্যকর করা যায় সেদিকে নজর দেওয়া হবে। 

আরো পড়ুন

Advertisement