LATEST UPDATE

ত্রিপুরা কে নিজের পায়ে দাড় করানোই হবে সরকারের মূল লক্ষ্য: মুখ্যমন্ত্রী

আগরতলা ২৮ ফেব্রুয়ারি (এ.এন.ই): রাজ্য বিধায়ক উন্নয়ন তহবিলে ৩৫ লক্ষ্য টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ৫০ লক্ষ টাকা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বৃহস্পতিবার বিধানসভায় একথা জানান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। স্মার্ট ফোন দেওয়ার বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব বৃহস্পতিবার বিধানসভায় ঘোষণা দেন ১৯ হাজার স্মার্ট ফোন দেওয়া হবে। এদিন বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব জানান সামাজিক ভাতার পাশাপাশি অন্যান্য ভাতাও পাবেন বেনিফিসিয়ারিরা। ত্রিপুরা কে নিজের পায়ে দাড় করানোই হবে সরকারের মূল লক্ষ্য বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। উল্লেখ্য, সোমবার বিধানসভায় উপমুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মণ বিধানসভায় বাজেটে পেশ করেছিলেন। বাজেটে  রাজ্যের উন্নয়নমূলক বিভিন্ন প্রকল্পের দিক গুলি নিয়ে আনা হয়েছিল। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, সামাজিক ভাতা প্রতিমাসে ১ হাজার টাকা বৃদ্ধি করা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য সহ একাধিক খাতে ব্যায় বরাদ্দের প্রস্তাব, চলতি বছরে এন আই টি ক্যাম্পাসে চালু করা, ট্রিপল আইটি কলেজ স্থাপন, স্বাস্থ্য পরিষেবার উন্নতি সবই বাজেটে উল্লেখ ছিলেন অর্থমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মণ। স্বাস্থ্য পরিষেবার উন্নতির জন্য আগরতলায় এইমসের ধাঁচে হাসপাতাল স্থাপনের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ, তাছাড়া জেলা হাসপাতাল গুলোর উপর গুরুত্বরোপ করা বাজেটে উল্লেখ করেন অর্থমন্ত্রী তথা উপ মুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মণ।  এছাড়া জিবি হাসপাতালে নিউরো সার্জিকেল বিভাগ স্থাপনের জন্য পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলে অর্থমন্ত্রী বাজেটে উল্লেখ করেছিলেন। সবধরনের সামাজিক ভাতা আপাতত ১০০০ টাকা করার কথা বাজেটে উল্লেখ করেন অর্থমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মণ। পাশাপাশি তিনি এও জানিয়েছিলেন আর্থিক প্রতিকূলতা থাকা সত্ত্বেও পর্যায়ক্রমে তা ২ হাজার টাকা বৃদ্ধি করানোর বিষয়ে অগ্রাধিকার দেবে সরকার। বাজেট পেশে অর্থমন্ত্রী জানান, বাড়ি বাড়ি পানীয় জল দেওয়ার কাজ চলছে। বাজেটে বারি বাড়ি পানীয় জল দেওয়ার 'উপর অধিক গুরুত্ব দেওয়া হয়। 

আরো পড়ুন

Advertisement