পুত্রের হাতে পিতা খুন, তদন্তে পুলিশ
পুত্রের হাতে পিতা খুন, তদন্তে পুলিশ

আগরতলা ২৪ মার্চ (এ.এন.ই): পুত্রের হাতে পিতা খুন। এই 'মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটল উদয়পুরের খিলপাড়া এলাকায়। ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, শনিবার গভীর রাতে ৫৫ বছরের প্রভাত চন্দ্র শুক্ল দাস নামে এক ব্যক্তি খুন হয় তারই নিজের সন্তানের দ্বারা। এই হত্যাকাণ্ডে গোটা সমাজ এবং মন্দির নগরী উদয়পুরকেও কলঙ্কিত হল বলে 'মনে করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। জানা গেছে, এদিন রাতে ঘটনার সময় প্রভাত বাবুর ঘরে কেউই ছিলেন না। আর সেই সুযোগে প্রভাত বাবুর ছোট ছেলে দেবাশিষ চন্দ্র শুক্লদাস (২৮) ভুজালি দিয়ে নিজের বাবাকেই খুন করে ফেলে। ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান প্রভাত বাবু। এদিকে এই খবর ছড়িয়ে পরতেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরে। খবর পেয়ে আরকেপুর 'থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায় এবং ময়না তদন্তের জন্য পুলিশ মৃতদেহ হাঁসপাতালে পাঠায়। তবে কি কারণে প্রভাত বাবুকে খুন হতে হল সেই বিষয়ে এখনো পুলিশ কিছু জানায়নি। তবে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ এটুকু জানিয়েছে, প্রভাত বাবুর ছোট ছেলে ভুজালি দিয়ে প্রভাত বাবুর বুকের মধ্যে আঘাত করে। আর আঘাত এমন ভাবে করেছে যাতে প্রভাত বাবু বেশীক্ষণ বেঁচে না থাকে। এদিকে এলাকাবাসীরা জানিয়েছে, সম্ভবত সম্পত্তির লোভেই প্রভাত বাবুকে খুন হতে হয়েছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে প্রায় প্রতিদিনই প্রভাত বাবুর সাথে ছোট ছেলের ঝগড়া হত। আর সেই থেকে তারা অনুমান করছে সম্পত্তির লোভেই নিজের বাবাকে খুন করলো ছেলে। এদিকে পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার 'পর থেকে প্রভাত বাবুর 'ছোট ছেলে পলাতক। তবে পুলিশ তল্লাশি অভিযান শুরু করে দিয়েছে। খুব শীঘ্রই প্রভাত বাবুর ছোট ছেলে পুলিশের জালে ধরা পড়বে বলে আরকেপুর থানা সূত্রে জানা গেছে। 

আরো পড়ুন

Advertisement