• অমরপুর-গন্ডাছড়া সরকে এক অজ্ঞাত পরিচয় যুবকের রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ
  • শীঘ্রই পুনরায় চালু হচ্ছে বন্ধ হয়ে যাওয়া জাইকা প্রকল্পের কাজ: মুখ্যমন্ত্রী
  • দেশের উন্নতি, রাজ্যের উন্নতি হতে গেলে বিভেদ নয় হিন্দু-মুসলিম এবং জাতি-উপজাতির মধ্যে ঐক্য গরে তোলা: সুশান্ত চৌধুরী
  • কাশীপুর এলাকায় পথ দুর্ঘটনায় আহত মা ও ছেলে, গ্রেপ্তার গাড়ির চালক ও সহ চালক
  • অগ্নিদগ্ধ হয়ে গর্ভবতী এক নাবালিকার মৃত্যু
  • আগরতলার মাস্টারপাড়া থেকে গ্রেফতার কুখ্যাত নেশা কারবারি
  • ধর্মনগর দেওছড়ায় যান দুর্ঘটনায় মৃত ২, আহত ২
  • মননের বিকাশের জন্য বই পরা প্রয়োজন: মুখ্যমন্ত্রী
  • স্কুলের ভিতরে মদের বোতল দেখে বেজায় ক্ষুব্ধ শিক্ষামন্ত্রী
  • ক্রাইম ব্রাঞ্চের আইজির দায়িত্ব নিতে চলেছেন আইপিএস রাজীব সিং
  • মহাকরণে চালু হল বায়োমেট্রিক সিস্টেম
  • রক্তের অভাবে মারা গেল একটি শিশু
  • রাজ্যে প্রচণ্ড দাবদাহে মৃত্যু ১
  • হাওড়া নদীতে চৌদ্দ দেবতার অবগাহনের মধ্য দিয়ে থেকে শুরু হল ৭ দিন ব্যাপী ঐতিহ্যবাহী খার্চি উৎসব
  • প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনায় খুশির হাসি ফুটলো গৃহিণীদের মুখে
  • ধলাই জেলায় শিক্ষার সামগ্রিক উন্নয়নে পর্যালোচনা সভা
  • শীঘ্রই আগরতলায় চালু হচ্ছে রেডিও ট্যাক্সি পরিষেবা
  • শিক্ষামন্ত্রীর কড়া বার্তায় থরথরি কম্প স্কুল শিক্ষক শিক্ষিকাদের
  • হোস্টেলে ছাত্রীর মৃত্যু নিয়ে রহস্যে
  • লেফুঙ্গায় বিএসি চেয়ারম্যানের বদল নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনের হুঙ্কার আইপিএফটির
  • জিরানিয়া থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৫০ কেজি গাজা উদ্ধার
  • গৌমতী নদীতে চৌদ্দ দেবতার অবগাহনের মধ্য দিয়ে শুরু হল ৭ দিন ব্যাপী ঐতিহ্যবাহী খার্চি উৎসব
  • চার বছর অতিক্রান্ত, আজও সরকারী সাহায্য থেকে বঞ্চিত নিহতদের পরিবার
  • সিধাই মুয়াবাড়ি এলাকায় ফেরিওয়ালা হত্যাকাণ্ডে ধৃত আরো ২ যুবক
  • সরকারী নিয়মকে অগ্রাহ্য করে চলছে তিনের অধিক যাত্রী পরিবহন

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

স্বাস্থ্য

00310
0057
0057
0057
0057
দৈহিক শক্তি বাড়াতে খাদ্যের বিভিন্নি তালিকা জেনি নিন

৫ই ডিসেম্বর (এ.এন.ই ): দৈহিক শক্তি বাড়াতে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পন্ন ওষুধি কৌশল এবং মনোবৈজ্ঞানিক চিকিৎসা এখন প্রায় সেকেলে হয়ে পড়েছে। আজকাল এই শক্তি বাড়াতে প্রাকৃতিকভাবেই দৈহিক শক্তি বর্ধক খাদ্যই অনেক বেশি কার্যকরী হিসেবে বিবেচিত হয়। তাই বিবাহিত জীবনে মিলনে ফিট থাকতে হলে আপনাকে দৈনন্দিন খাবারের প্রতি পূর্ণ মনোযোগী হতে হবে। কারণ সুখী দাম্পত্য জীবনের জন্য স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ভালো বোঝাপড়া থাকার পাশাপাশি দরকার স্বাস্থ্যকর দৈহিক সম্পর্ক। অথচ প্রায়ই দেখা যায়, দৈহিক দুর্বলতার কারণে সংসারে অশান্তি হয়, এমনকি বিচ্ছেদ পর্যন্ত হয়। তাই আগে থেকে সতর্ক থাকলেও এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি নাও হতে পারেন আপনি। আপনার যৌন শক্তি বৃদ্ধির জন্য কোনো প্রকার ওষুধের প্রয়োজন নেই, তার জন্য দৈনন্দিন পুষ্টিকর খাবার দাবারই যথেষ্ট। আপনার খাবার মেনুতে নিয়মিত দুধ, ডিম এবং মধু রাখুন আর নিয়মতান্ত্রিক জীবন যাপন করুন, তাহলে দৈহিক (যৌন) দুর্বলতায় ভুগবেন না। ১. ডিম: দৈহিক দুর্বলতা দূর করতে ও উত্তেজনা বাড়াতে এক অসাধারণ খাবার ডিম। প্রতিদিন সকালে, না পারেন সপ্তাহে অন্তত ৫ দিন ১টি করে ডিম সিদ্ধ করে খান। এতে আপনার যৌন দুর্বলতার সমাধান হবে। ২. দুধ: যেসব খাবারে বেশি পরিমাণ প্রাণিজ-ফ্যাট আছে এমন প্রাকৃতিক খাদ্য আপনার যৌনজীবনের উন্নতি ঘটায়। যেমন, খাঁটি দুধ, দুধের সর, মাখন ইত্যাদি। বেশিরভাগ মানুষই ফ্যাট জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলতে চায়। কিন্তু আপনি যদি শরীরে সেক্স হরমোন তৈরি হওয়ার পরিমাণ বাড়াতে চান তাহলে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট জাতীয় খাবারের দরকার। তবে সবগুলোকে হতে হবে প্রাকৃতিক এবং স্যাচুরেটেড ফ্যাট। ৩. মধু: দৈহিক দুর্বলতার সমাধানের মধুর গুণের কথা সবারই কম-বেশি জানা। তাই দৈহিক শক্তি বাড়াতে প্রতি সপ্তাহে অন্তত ৩/৪ দিন ১ গ্লাস গরম জলে ১ চামচ খাঁটি মধু মিশিয়ে পান করুন। ৪. রসুন: দৈহিক সমস্যা থাকলে এখনই নিয়মিত রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। স্মরণাতীতকাল থেকেই নারী পুরুষ উভয়েরই দৈহিক উদ্দীপনা বাড়াতে এবং জননাঙ্গকে পূর্ণ সক্রিয় রাখতে রসুনের পুষ্টিগুণের কার্যকারিতা সর্বজনস্বীকৃত। রসুনে রয়েছে এলিসিন নামের উপাদান যা দৈহিক ইন্দ্রিয়গুলোতে রক্তের প্রবাহ বাড়িয়ে দেয়। ৫. কফি: কফি আপনার মিলনের ইচ্ছা বাড়ানোতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কফিতে যে ক্যাফেইন থাকে তা আপনার মিলনের মুড কার্যকর রাখে। ৬. জয়ফল: গবেষণায় দেখা গেছে, জয়ফল থেকে এক ধরনের কামোদ্দীপক যৌগ নিঃসৃত হয়। সাধারণভাবে এই যৌগটি স্নায়ুর কোষ উদ্দীপিত করে এবং রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। ফলে আপনার যৌন ইচ্ছা বৃদ্ধি পায়। আপনি কফির সাথে মিশিয়ে জয়ফল খেতে পারেন, তাহলে দুইটির কাজ একত্রে পাওয়া সম্ভব। ৭. চকলেট: ভালোবাসা ও মিলনের সঙ্গে সবসময়ই চকলেটের একটা সম্পর্ক রয়েছে। এতে রয়েছে ফেনিলেথিলামিন (পিইএ) ও সেরোটোনিন। এ দুটি পদার্থ আমাদের মস্তিষ্কেও রয়েছে। এগুলো মিলনের উত্তেজনা ও দেহে শক্তির মাত্রা বাড়াতে সহায়ক। পিইএ’র সঙ্গে অ্যানান্ডামাইড মিলে অরগাজমে পৌঁছাতে সহায়তা করে। ৮. কলা: কলার রয়েছে ভিটামিন এ, বি, সি ও পটাশিয়াম। ভিটামিন বি ও পটাশিয়াম মানবদেহের যৌনরস উৎপাদন বাড়ায়। আর কলায় রয়েছে ব্রোমেলিয়ানও। যা শরীরের টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বাড়াতেও সহায়ক। আর সর্বোপরি কলায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণ শর্করা যা আপনার দেহের শক্তি বৃদ্ধি করে। ফলে দীর্ঘসময় ধরে দৈহিক মিলনে লিপ্ত হলেও আপনার ক্লান্তি আসবে না। ৯. ভিটামিন সি জাতীয় ফল: দৈহিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে চাইলে প্রতিদিন খাবার তালিকায় রঙিন ফলমূল রাখুন। আঙ্গুর, কমলা লেবু, তরমুজ, পিচ ইত্যাদি ফল দৈহিক ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য অত্যন্ত উপকারী। গবেষণায় দেখা গেছে, একজন পুরুষের প্রতিদিনের খাবার তালিকায় অন্তত ২০০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি থাকলে তার স্পার্মের কোয়ালিটি উন্নত হয়। এসব ফলে মধ্যে তরমুজের প্রভাব বেশি। অনেকে মিলনের উদ্দীপক ওষুধ ভায়াগ্রার সাথে তরমুজের তুলনা করেছেন।


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.