• স্পেনে বিশ্ব দাবা আসরে দুরুস্ত পারফরমেন্স বজায় রেখে চলেছে অর্শিয়া
  • হেলমেটবিহীন বাইক চালকদের হেলমেট ও গোলাপ ফুল প্রদান
  • মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু
  • ছট পূজায় অংশনিলেন সস্ত্রীক মুখ্যমন্ত্রী
  • মৃত্যু
  • ১৫ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ৪ দিন ব্যাপী ষষ্ট উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় যুব উৎসব
  • শপথ নিলেন ত্রিপুরা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি সঞ্জয় কারোল
  • আজ শিশু দিবস
  • বিশালগড় থেকে দুই কুখ্যাত নেশা কারবারি গ্রেপ্তার
  • লোকসভা নির্বাচনে দুটি আসনেই প্রার্থী দিচ্ছে তিপ্রাহা
  • আতঙ্ক, আতঙ্কের নাম টেক্সট নেক সিনড্রোম
  • চুক্তিবদ্ধ কর্মচারীদের নিয়মিতকরণ ও কর্মচারীদের গ্র্যাচুইটির সময়সীমা ৫ বছর থেকে কমিয়ে ৩ বছর সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় সরকারের
  • রেল টিকিট বিক্রির দালাল গ্রেপ্তার
  • সিপিআইএম ছাড়লেন প্রাক্তন বিধায়ক ঝুমু সরকার
  • শহরতলীতে এক বৃদ্ধের মৃতদেহ উদ্ধার
  • ট্রাফিক পয়েন্টের পাটাতন ভেঙ্গে যাওয়ায় ট্রাফিক পুলিশ আহত
  • শহরে উশৃঙ্খলতার অভিযোগে ৮ যুবক গ্রেপ্তার
  • নেশা বিরোধী অভিযানে চার কুখ্যাত নেশা কারবারি গ্রেপ্তার
  • দুদিনের সফরে রাজ্যে কেন্দ্রীয় উপজাতি কল্যাণ দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী
  • আবারো দম্পতির মৃতদেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ
  • মহিলাকে খুনের চেষ্টা, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার
  • ভূমিকম্পে শোরগোল গোটা রাজ্যে
  • অগ্নিকান্ডে চম্পকনগর বাজারে চারটি দোকান ভস্মীভূত
  • শিক্ষার জালিয়াতি, জাল ডিগ্রিধারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে শিক্ষা দপ্তর
  • এক অদ্ভুত দর্শন শিশুর জন্ম দিলেন প্রসূতি মা

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

জাতীয় খবর

বুধবার থেকে চালু হল শ্রীরামায়ণ এক্সপ্রেস

দিল্লি ১৪ নভেম্বর (এ.এন.ই ): তীর্থযাত্রীদের জন্য সুখবর। আজ থেকেই চালু হল শ্রীরামায়ণ এক্সপ্রেস। রেলমন্ত্রক সূত্রের খবর, এই এক্সপ্রেস ট্রেনে চেপেই দর্শনার্থীরা সেই বিশেষ বিশেষ স্থানে ভ্রমণ করতে পারবেন, যেখানে যেখানে পদধূলি পড়েছে হিন্দু ধর্মাবতার শ্রীরামের। জানা যাচ্ছে, ভারতীয় রেল ১৬ দিনের একটি স্পেশাল প্যাকেজ চালু করছে, যেখানে এই শ্রী রামায়ণ এক্সপ্রেসে চেপেই দেশের একাধিক দর্শনীয় স্থান ভ্রমণ করতে পারবেন পুন্যার্থীরা। ভারত এবং শ্রীলঙ্কা, দুই দেশ মিলিয়েই এই ‘রামায়ণ যাত্রার’ভ্রমণ প্যাকেজ তৈরি করেছে ভারতীয় রেল মন্ত্রক। ভারতীয় রেলমন্ত্রক জানিয়েছে, " বুধবার থেকে দিল্লি থেকে শ্রী রামায়ণ এক্সপ্রেস তার যাত্রা শুরু করে বলে জানা গেছে। এই ট্রেন শ্রীরামের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত সব স্থানকেই ছুঁয়ে যাবে। ভারত এবং শ্রীলঙ্কাকে নিয়েই শ্রী রামায়ণ যাত্রার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এতে সময় লাগবে ১৬ দিন”।

14-11-2018 02:26:30 pm

আন্দামান ও নিকোবার নাম পরিবর্তনের আর্জি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রকে চিঠি

আন্দামান ও নিকোবার ১৪ নভেম্বর (এ.এন.ই ): নাম পরিবর্তন করা হোক আন্দামান ও নিকোবার দীপের, এই আর্জি জানিয়েই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখলেন সুভাষ চন্দ্র বসুর পরিবারের সদস্য চন্দ্র কুমার বসু। ঘটনাচক্রে তিনি আবার রাজ্য বিজেপির সহ-সভাপতিও। চন্দ্র কুমার বসু চিঠিতে লিখেছেন, “ইউনাইটেড ইন্ডিয়ার জাতীয় পতাকা উত্তোলনের ৭৫তম বর্ষপূর্তিতে ৩০ ডিসেম্বর পতাকা উত্তোলন করবেন আপনি (নরেন্দ্র মোদী)। ইউনাইটেড ইন্ডিয়ার প্রথম প্রধানমন্ত্রী সুভাষ চন্দ্র বসু যেখানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেছিলেন, ঠিক সেখানেই তেরঙ্গা তুলবেন আপনিও। সেখানকার মানুষের দীর্ঘ দিনের আর্জি, আন্দমান ও নিকোবার দীপের নামকরণ করা হোক নেতাজির দেওয়া নামেই। ভারত সরকার ওই দুই দীপের নাম পরিবর্তন করে শহিদ ও স্বরাজ করুক, তাঁরা এটাই চায়”। চন্দ্র কুমার বসুর মতে প্রধানমন্ত্রী আন্দামান ও নিকোবার দীপের নাম পরিবর্তন করার কথা ঘোষণা করলে তাতে নেতাজিকেই সম্মানিত করা হবে।

14-11-2018 02:21:49 pm

ফের মাওবাদী হামলা ছত্তীসগঢ়ের বিজাপুরে আহত ছয় বিএসএফ জওয়ান

ছত্তীসগঢ় ১৪ নভেম্বর (এ.এন.ই ): দু দিন আগেই (১২ নভেম্বর) আতঙ্কের আবহে প্রথমদফার ভোট হয়ে গিয়েছে ছত্তীসগঢ়ের মাওবাদী অধ্যুষিত ১৮টি বিধানসভা কেন্দ্রে। সেই ভোটের রেশ কাটতে না কাটতেই ফের মাওবাদী হামলা বিজাপুরে। বিজাপুরে IED বিস্ফোরণে গুরুতর আহত চার বিএসএফ জওয়ান সহ মোট ছয় জন। ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনা ঘটেই চলেছে ছত্তীসগঢ়ে। সূত্রের খবর, ভোটের ডিউটি শেষ করে বুধবার বিজাপুর থেকে বিএসএফের সদর দফতর মহাদেবঘাটে ফিরছিলেন জওয়ানরা। বাস যখন গন্তব্যস্থল থেকে মাত্র চার কিলোমিটার দূরে, তখন রাস্তায় আইইডি বিস্ফোরণ ঘটায় মাওবাদীরা। মাওবাদী দমন শাখার ডেপুটি ইনস্পেকটর জেনারেলসুন্দররাজ পি জানিয়েছেন, "সকাল ৯টা নাগাদ বিজাপুর থেকে ৭ কিলোমিটার দূরে বিস্ফোরণটি ঘটে। এই ঘটনায় ৪ জন বিএসএফ জওয়ান, একজন ডিস্ট্রিক্ট রিজার্ভ গার্ড এবং চালক গুরুতর আহত হন। তাঁদের সবাইকে বিজাপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।" প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, আহতরা সকলেই বিপন্মুক্ত। প্রয়োজন হলে তাদের সকলকে রাইপুরে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হবে। বিস্ফোরণের সময় ঘটনাস্থলের আশেপাশে কোনও ভোটকর্মী ছিলেন না। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় বিরাট পুলিসবাহিনী। প্রসঙ্গত ১২ নভেম্বর ছত্তীসগঢ়ে প্রথম দফায় ভোটের আগে মাওবাদী বিস্ফোরণে প্রাণ যায় বেশ কয়েকজনের। ভোটের দিন সকালেও আইইডি বিস্ফোরণ ঘটে। দুপুর নাগাদ বিজাপুরেই কোবরা জওয়ানদের সঙ্গে মাওবাদীদের গুলিবিনিময়ে কয়েকজন জওয়ান আহত হন, মৃত্যু হয় পাঁচ মাওবাদীর। ছত্তীসগঢ়ে প্রথম দফায় ৭০ শতাংশ ভোট পড়ে, মাওবাদীদের ভোট বয়কটের ডাক ব্যর্থ হয়। ছত্তীসগঢ়ে পরের দফায় ভোট ২০ নভেম্বর। প্রথম দফায় ভোট বানচালে ব্যর্থ হয়ে মাওবাদীরা দ্বিতীয় দফার ভোটের আগে আবার সক্রিয় হয়ে উঠেছে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

14-11-2018 02:18:30 pm

কেন্দ্রীয় রাসায়নিক, সার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী অনন্ত কুমার প্রয়াত

বেঙ্গালুরু ১২ নভেম্বর (এ.এন.ই ): সোমবার ভোরে মারা গেলেন কেন্দ্রীয় রাসায়নিক, সার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী অনন্ত কুমার। মৃত্যকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯। তিনি ক্যান্সারে ভুগছিলেন। জানা গেছে, বেশকিছুদিন ধরেই শরীর ভালো যাচ্ছিল না অনন্ত কুমারের। গত কয়েকদিন ধরেই তাঁকে রাখা হয়েছিল ভেন্টিলেটরে। সমর্থকদের শ্রদ্ধার জন্য তাঁর মরদহে আজ সারাদিন রাখা হবে বেঙ্গালুরুর ন্যাশনাল কলেজে। টানা ৬ বার বেঙ্গালুরু দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত হয়েছেন অনন্ত কুমার। অনন্ত কুমারের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টুইটারে তিনি লিখেছেন, অনন্ত কুমারের মতো বন্ধু ও সহকর্মীর মৃত্যুতে গভীর শোকাহত। একজন নামী নেতা ছিলেন তিনি। খুব ছোটবেলা থেকে রাজনীতিতে এসে অত্যন্ত নিষ্ঠার সঙ্গে মানুষের জন্য কাজ করে গিয়েছেন। তাঁর কাজের জন্য মানুষ তাঁকে মনে রাখবে। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, প্রশাসক হিসেবে অত্যন্ত দক্ষ ছিলেন অনন্ত কুমারজি। এক হাতে সামলেছেন একাধিক দফতর। বিজেপির সংগঠন শক্তিশালী করতেও তাঁর অবদান অনস্বীকার্য। এলাকায় মানুষ যখন তাঁকে চেয়েছেন তখনই পাশে পেয়েছেন। অনন্ত কুমারের স্ত্রী তেজস্বিনীজির সঙ্গে কথা বলেছি। ওর পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল। শোক প্রকাশ করেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমনও। তিনি বলেন, অনন্ত কুমারের মৃত্যুর খবরে আমি গভীর শোকাহত। বেঙ্গালুরুই ছিল তাঁর ধ্যানজ্ঞাণ। উল্লেখ্যে, ১৯৫৯ সালে জন্মগ্রহণ করেন অনন্ত কুমার। হুবলি থেকে কলা বিভাগে স্নাতক হয়ে তিনি এলএলবি পাশ করেন। তার পরেই রাজনীতিতে চলে আসেন।

12-11-2018 02:10:48 pm

রাজস্থান বিধানসভা নির্বাচনের বিজেপির প্রার্থীতালিকা প্রকাশ, ২৫টি নতুন মুখ

রাজস্থান ১২ নভেম্বর (এ.এন.ই ): রাজস্থান বিধানসভা নির্বাচনের জন্য প্রথম প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করল বিজেপি। বিজেপির প্রার্থীতালিকায় এবার রাখা হয়েছে ২৫ নতুন মুখ। মুখ্যমন্ত্রী বসুন্দরা রাজে লড়াই করবেন তাঁর ঝালরাপাটান কেন্দ্র থেকে। ২০০৩ সাল থেকে তিনি ওই কেন্দ্র থেকেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে আসছেন। এবার প্রার্থীতালিকায় বহু পুরনো প্রার্থীদের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। আনা হয়েছে ২৫ নতুন মুখ। বর্তমান রাজস্থান বিধানসভার স্পিকার কৈলাশ মেঘওয়ালকে তাঁর শাহপুরা আসন থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে পিলানিতে। রবিবার বিজেপির প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করেন রাজ্যের বরিষ্ঠ নেতা জেপি নাড্ডা। তার আগে তিনি বিজেপির নির্বাচনী কমিটির সঙ্গে একদফা বৈঠক করে নেন। ওই বৈঠকে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ ও বসুন্ধরা রাজে। নাড্ডা এদিন বলেন, এবার প্রার্থী তালিকায় রাখা হয়েছে ২৫ নতুন প্রার্থীকে। সংবাদসংস্থা সুত্র খবর, বিজেপির প্রথম প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন ৮৫ বর্তমান বিধায়ক। ফলে দ্বিতীয় প্রার্থী তালিকায় কার নাম বাদ পড়ছে তা নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। জে পি নাড্ডা এদিন বলেন, রাজ্যের প্রতিটির আসনের জন্য প্রার্থীদের নাম বিবেচনা করে দেখা হয়েছে। উল্লেখ্য, রাজ্যে সাম্প্রতির কয়েকটি উপনির্বাচনে হেরেছে বিজেপি। কয়েকটি প্রাক নির্বাচনী সমীক্ষাও বিজেপির পক্ষে খুব এক ভালো কিছুর আভাস দিচ্ছে না। ফলে চিন্তার ভাঁজ এখন বসুন্ধরা রাজের কপালে। গত বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে ২০০ আসনের মধ্যে ১৬৩ আসনে জিতেছে বসুন্ধরা রাজের নেতৃত্বে বিজেপি। ২০১৩ সালে যে হারের সম্মুখীন কংগ্রেস হয়েছিল তা আর কখনও তারা হয়বনি। সেই পরিস্থিতি আমূল বদলে যেতে পারে বলে কোনও কোনও মহল থেকে মনে করা হচ্ছে।

12-11-2018 02:05:33 pm

বিস্ফোরণের মধ্যে দিয়েই ছত্তিসগড়ে ভোট গ্রহণ পর্ব শুরু

ছত্তীসগঢ় ১২ নভেম্বর (এ.এন.ই ): বিস্ফোরণের মধ্যে দিয়েই সোমবার সকাল থেকে ছত্তিসগড়ে ১৮ আসনে ভোট গ্রহণ পর্ব শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে ভোটগ্রহনের সময়ে দান্তেওয়াড়া ও সুকমায় আজ তাদের উপস্থিতি জানান দিয়েছে মাওবাদীরা। সাতসকালেই বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল দান্তেওয়াড়া। কাটেকল্যাণ ব্লকের টুমাকপাল ক্যাম্পের কাছে ওই বিস্ফেরণ ঘটানো হয়। এলাকার বিভিন্ন জায়গা রাস্তা কেটে দেওয়া হয়। এর পরই এলাকায় তল্লাসিতে নামে নিরাপত্তা বাহিনী। সুকমার কোন্টা বান্দায় একটি বুথের কাছে সিআরপিএফ ৩টি আইইডি উদ্ধার করেছে। সেগুলি নিষ্কৃয় করার চেষ্টা করছে বোম ডিসপোসাল স্কোয়াড। তবে ভোটদান থেমে নেই। গাছের নিচেই তৈরি হয়েছে অস্থায়ী বুথ। দান্তেওয়াড়ায় বহু মানুষ ঘর থেকে না বেরোলেও ভোটের লাইনে ভোটারদের উতসাহ লক্ষ্য করা গিয়েছে। ভোটদানের লাইনে দেখা গিয়েছে শারীরিক প্রতিবন্ধী ও বৃদ্ধাদেরও। সুকমার কিস্টারাম, পালেম, বেজিতে ভোটদান চলছে নির্বঘ্নে। রাজ্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে রাজ্যের ১০০ শতাংশ বুথেই ঠিকঠাক ভোটদানপর্ব চলছে। তবে মোট ৪৩৩৬টি বুথের মধ্যে ৫৩টি বুথে ইভিএম খারাপ হয়ে যাওয়ায় ভোটদান শুরু করতে দেরি হয়ে যায়।

12-11-2018 01:58:41 pm

নোট বাতিলে কালোটাকা উদ্ধার হবে না আগেই কেন্দ্র জানিয়েছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

দিল্লি ১২ নভেম্বর (এ.এন.ই ): নোট বাতিলের ২ বছর পর বিষয়টি নিয়ে সরকারের সঙ্গে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের টানাপড়েনের কাহিনী বেরিয়ে এল। ২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর নোট বাতিল করার ঘোষণার ঘণ্টা চারেক আগেই এনিয়ে কেন্দ্রকে সাবধান করেছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। জানিয়ে দেওয়া হয়, নোট বাতিলে আপত্তি নেই তবে তাতে কালোটাকা উদ্ধার হবে না। পাশাপাশি জাল নোটও রোখা যাবে না। গোটা বিষয়টি লিখিত আকারে দেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রকে। নোট বাতিলের দিন অর্থাৎ ২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ তড়িঘড়ি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক তার সেন্ট্রাল বোর্ডের মিটিং ডাকে। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই বৈঠকে কেন্দ্রের ওই উদ্যোগকে প্রশংসার যোগ্য বলা হলেও সাফ জানিয়ে দেওয়া হয় দেশের জিডিপির ওপরে নেতিবাচাক প্রভাব ফেলবে নোট বাতিল। বৈঠকের ৫ সাপ্তাহ পর আলোচ্যসূচিতে সাক্ষর করেন ততকালীন গভর্নর উর্জিত প্যাটেল। সেখানে ৬টি আপত্তির কথা উল্লেখ করা হয়। নোট বাতিলের প্রস্তাব কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক থেকে রিজার্ভ ব্যাঙ্কে আসে ৭ নভেম্বর। সেই প্রস্তাব পাওয়ার পর শীর্ষ ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে বলা হয় ৫০০ ও ১০০ টাকার নোট বাজার থেকে তুলে নেওয়া হলে কালো টাকা উদ্ধার হবে বা জাল নোট বাতিল হবে এমন কথা জোর দিয়ে বলা যায় না। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে বলা হয় দেশের অধিকাংশ কালোটাকা রয়েছে রিয়েল এস্টেট বা সোনা আকারে। নোটবাতিল এতে কোনও প্রভাব ফেলবে না। পাশাপাশি অর্থনীতে জাল টাকার পরিমাণ মাত্র ৪০০ কোটি টাকা। এর কোনও প্রভাব অর্থনীতির ওপরে পড়বে না।

12-11-2018 01:52:12 pm

জানুয়ারিতেই অযোধ্যা মামলায় রায়ঃ বিচারপতি রঞ্জন গগৈ

দিল্লি ১২ নভেম্বর (এ.এন.ই ): অযোধ্যা মামলায় অক্টোবরে সুপ্রিম কোর্ট ৪ মিনিটে যে রায় দিয়েছিল, তাতেই অনড় থাকলেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। জানুয়ারির আগে অযোধ্যা মামলার শুনানির আবেদন জানিয়েছিল অখিল ভারত হিন্দু মহাসভা। সোমবার তাদের এই আবেদন খারিজ করে দিল সুপ্রিম কোর্ট। সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের বেঞ্চ জানায়, জানুয়ারিতে শুনানির তারিখ ঠিক করার সিদ্ধান্তের নির্দেশ ইতিমধ্যে দেওয়া হয়ে গিয়েছে। উল্লেখ্য, গত ২৯ অক্টোবর শীর্ষ আদালত জানায়, নিজস্ব অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিচারকার্য চালাবে সুপ্রিম কোর্ট। সামনেই দীপাবলি ও বড়দিন। কাজের দিন কম থাকায় জানুয়ারিতেই ঠিক করা হবে অযোধ্যা মামলার শুনানি কবে থেকে শুরু করা হবে। শীর্ষ আদালতের এই নির্দেশে কার্যত বড়সড় ধাক্কা খায় বিজেপি শিবির। এক দিকে আরএসএস এবং অন্যান্য হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের চাপ অন্য দিকে শিয়রে ভোট, এই দুইয়ের টানাপোড়েনে কোণঠাসা মোদী সরকার। আরএসএস প্রধান মোহন ভগবত্ ইতিমধ্যে আভাস দিয়েছেন, সুপ্রিম কোর্টের রায়ের অপেক্ষা করলে চলবে না। কেন্দ্রকে যত দ্রুত সম্ভব রাম মন্দির গড়া নিয়ে আইন আনতে হবে। কয়েক দিন আগেই সপ্তাহব্যাপী সাধু-সন্তদের নিয়ে সম্মেলন করে আরএসএস। রাম মন্দির তৈরি হয় খসড়া। নির্বাচনের আগেই রাম মন্দির গড়া নিয়ে জোরালো আন্দোলন চালাবে আরএসএস বলে জানা গেছে।

12-11-2018 01:46:13 pm

অসমে ৫ বাঙালি যুবকের হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে অসম বনধ

অসম ২ নভেম্বর (এ.এন.ই ): অসমের তিনসুকিয়ার সাদিয়ায় ৫ বাঙালি যুবকের হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে শনিবার থেকে অসম বনধের ডাক দিল ১৪টি সংগঠন। তার আগেই জেলায় বনধের প্রভাব পড়েছে। পাশাপাশি শুক্রবার তিনসুকিয়ায় ১২ ঘণ্টা বনধের ডাক দিয়েছে অসম বেঙ্গল যুব ফেডারেশন। বনধের প্রভাবে কার্যত স্তব্ধ তিনসুকিয়া, মার্গারিটা। এনিয়ে এখনও কোনও হিংসার খবর নেই তবে জেলাজুড়ে তীব্র উত্তেজনা রয়েছে। নাগরিকপঞ্জী নিয়ে এমনিতেই উত্তপ্ত ছিল অসম। এর মধ্যেই বাঙালি নিধন। বৃহস্পতিবার অসমের তিনসুকিয়ায় সাদিয়ায় ওই নারকীয় ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পেছনে উলফার হাত রয়েছে বলে সন্দেহ করা হলেও তারা এর দায় নিতে অস্বীকার করেছে। শুক্রবার এক বিবৃতি জারি করে উলফার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তিনসুকিয়ার সাদিয়া সাইখোয়াঘাটে যে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে তাতে উলফার কোনও ভূমিকা নেই। উলফার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠছে তা মিথ্যে। ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার থেকে অসম বনধের ডাক দিয়েছে সারা ভারত নমঃশূদ্র বিকাশ পরিষদ সহ রাজ্যে ১৪টি সংগঠন। এদিকে আজ থেকেই বনধের ডাক দিয়েছে অন্য একটি বাঙালি সংগঠন। ওই বনধের ফলে শুক্রবার থেকেই জনজীবন অচল হয়ে পড়েছে তিনসুকিয়া ও সংলগ্ন মার্গারিটায়। অসমের অন্যান্য জায়গায় জনজীবনে বনধের প্রভাব না পড়লেও তিনসুকিয়া একেবারে স্তব্ধ বলা যায়। জায়গায় জায়গায় চলছে বিক্ষোভ। অসম বেঙ্গল যুব ফেডারেশনের নেতা মৃন্ময় দাস বলেন, বৃহস্পতিবার পাঁচজন বাঙালিকে গুলি করে খুন করা হয়েছে। কিন্তু নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। কারণ আহতদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। হামালার প্রতিবাদে শুক্রবার ১২ ঘণ্টা তিনসুকিয়া জেলা বনধের ঘোষণা করা হয়েছে। খুনের ঘটনার সঙ্গে উলফার যোগ নেই বলে তারা দাবি করেছে। ফলে কারা ওই ঘটার সঙ্গে জড়িত তা খুঁজে বের করতে হবে প্রশাসনকে। মৃতদের পরিবারকে এককালীন ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবি করেছি। এনআরসি বানচালের একটা চাল হতে পারে এই হত্যাকাণ্ড। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সাদিয়ায় একটি দোকানে বসেছিলেন কয়েকজন যুবক। সে সময় সেখানে হাজির হয় সেনার পোশাক পর কয়েকজন অস্ত্রধারী যুবক। তারা জোর করে ৬ জনকে তুলে নিয়ে যায় ব্রহ্মপুত্রের চরে। ব্রহ্মপুত্রের ঢোলা সাদিয়া সেতুর কাছে নদীর চরে দাঁড় করিয়ে তাদের গুলি করে খুন করা হয়।

02-11-2018 03:20:25 pm

যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর বিরুদ্ধে

দিল্লি ২ নভেম্বর (এ.এন.ই ): ইস্তফা দিয়েও শান্তিতে নেই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর। যৌন নির্যাতন নয়, এবার তাঁর বিরুদ্ধে সরাসরি ধর্ষণের অভিযাগে আনলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এক সাংবাদিক। নিজের ব্লগে তাঁর ওপরে যৌন নির্যাতনের কথা লিখেছেন ওই সাংবাদিক। বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বিজনেস এডিটার হিসেব ন্যাশনাল পাবলিক রেডিওতে কাজ করেন সাংবাদিক পল্লবী গগৈ। একসময় তিনি কাজ করতেন এশিয়ান এজ দৈনিকে। ওই দৈনিকের সম্পাদক ছিলেন আকবর। বছর কুড়ি আগে আকবরের সঙ্গে কাজ করার সেই ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা লিখেছেন ওয়াশিংটন পোস্টে লেখা এক ব্লগে। যে সময়ে তিনি ধর্ষণ হওয়ার কথা পল্লবী উল্লেখ করেছেন তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ২৩। এশিয়ান এজ-এ দায়িত্বে ছিলেন অপ-এড পাতার। সে সময় জয়পুরের এক হোটেলে ডেকে তাঁকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। পল্লবীর ভাষায়, ‘উনি আমার পোশাক ছিঁড়ে ফেলেন ও আমাকে ধর্ষণ করেন।‘ওই সাংবাদিক আরও লিখেছেন, ওর কথায় মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে যেতাম। এক সময়ে এশিয়ান এজের অপ-এড পাতার দায়িত্বও পেয়ে যাই। এর জন্য আমাকে অনেক বড় মূল্য দিতে হয়েছিল। প্রথম যৌন নির্যাতনের ঘটনা ঘটে একবার ওকে পাতা দেখানোর সময়ে। সেবার আমাকে জোর করে চুম্বন করা হয়। একমাস পরেই দ্বিতীয় ঘটনা ঘটে মুম্বইয়ের তাজ হোটেলে। একটি ম্যাগাজিনের লেআউট দেখানোর অছিলায় উনি আমাকে হোটেলে ডাকেন। হেটেলের ঘরে আমাকে জোর করে চুমু খাওয়ার চেষ্টা করেন। ওকে জোর করে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিই। দৌড়ে বেরিয়ে আসি হোটেল থেকে। পরের ঘটনা জয়পুরের হোটেলের। এবার ওর গায়ের জোরের সঙ্গে পেরে উঠতে পারিনি। উল্লেখ্য, এখনও পর্যন্ত ২০ জন মহিলা এম জে আকবরের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এনেছেন। এনিয়ে মামলাও শুরু হয়েছে আদালতে। তাঁর বিরুদ্ধে প্রথম অভিযোগ তোলেন সাংবাদিক বীণা রামানি। এর পর আরও বেশ কয়েকজন প্রতিষ্ঠিত সাংবাদিক আকবরের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ তোলেন। তারই জেরে শেষপর্যন্ত পদত্যাগ করতে হয় আকবরকে।

02-11-2018 03:16:37 pm

পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে প্রথম প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করল বিজেপি

দিল্লি ২ নভেম্বর (এ.এন.ই ): নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত দেশের পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হবে। ফলে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি তুঙ্গে সব দলের। শুক্রবার মধ্যপ্রদেশ, মিজোরাম ও তেলেঙ্গানার জন্য তাদের প্রথম প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করল বিজেপি। মধ্যপ্রদেশের ২৩০ আসনের বিধানসভার জন্য প্রথম দফায় ১৭৭ আসনে প্রার্থী ঘোষণা করল বিজেপি। মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান লড়াই করবেন তাঁর বুধানি আসন থেকে। রাজ্যের মন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র ও যেশোধরা রাজে সিন্ধিয়া লড়বেন দাতিয়া ও শিবপুরি আসন থেকে। তেলেঙ্গানার জন্যও প্রাথমিকভাবে ২৮ জন ও মিজোরামের জন্য ২৪ জন প্রার্থীর একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক এক প্রাক নির্বাচনী সমীক্ষায় আবাস দেওয়া হয়েছে রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ ও ছত্তিসগঢ়ে ক্ষমতা হারাবে বিজেপি। তবে লোকসভায় ভালো ফল করবে গেরুয়া শিবির। রাজনৈতিক মহলের একাংশ ওই সমীক্ষাকে খুব একটা পাত্তা দিচ্ছে না। এবার রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিসগঢ়, মিজোরাম ও তেলেঙ্গানবায় বিধানসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে। ছত্তিসগঢ়ে ভোট নেওয়া হবে দুদফায়। প্রথম দফায় ১২ নভেম্বর ১৮ আসনে ও দ্বিতীয় দফায় ২০ নভেম্বর ৭২ আসনে। ৭ ডিসেম্বর ভোট নেওয়া হবে তেলঙ্গানা ও রাজস্থানে। ২৮ নভেম্বর ভোট নেওয়া হবে মিজোরাম ও মধ্যপ্রদেশে।

02-11-2018 03:11:20 pm

পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনের মুখে রাম মন্দির নির্মাণ নিয়ে কেন্দ্রের ওপর চাপ বাড়াল আরএসএস

দিল্লি ২ নভেম্বর (এ.এন.ই ): পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনের মুখে রাম মন্দির নির্মাণ নিয়ে কেন্দ্রের ওপর চাপ বাড়াল আরএসএস। শুক্রবার বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করেন আরএসএস প্রধান মোহন ভগবত। আরএসএস-এর বিজয়া দশমী সম্মেলনের মধ্যে এই বৈঠকের পর আরও সরগরম হয়ে উঠেছে মন্দির রাজনীতি। বৈঠকের পর এক সাংবাদিক বৈঠক করে আরএসএস নেতা ভাইয়াজি জোশি বলেন, রাম মন্দির নির্মাণের জন্য অনির্দিষ্টকালের জন্য আদালতের রায়ের অপেক্ষা করতে পারবে না দেশের হিন্দুরা। এদিন ভাইয়াজি জোশি বলেন, 'আশা করেছিলাম দীপাবলির আগে রাম মন্দির তৈরির রাস্তা সাফ হবে। কিন্তু আদালত অনির্দিষ্টকালের জন্য শুনানি পিছিয়ে দিয়েছে। রাম মন্দির তৈরির জন্য অপেক্ষা আরও দীর্ঘায়িত হচ্ছে। আমরা সুপ্রিম কোর্টকে বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করতে বলব। রাম মন্দির সবার ভাবাবেগের ব্যাপার।' ভাইয়াজি জোশি স্পষ্ট করেছেন, আইনি পথে রাম মন্দির নির্মাণে দেরি হলে অধ্যাদেশ জারির সিদ্ধান্ত খোলা রাখতে হবে সরকারকে। সেক্ষেত্রে অধ্যাদেশ বলে জমি অধিগ্রহণ করে তৈরি হবে রাম মন্দির। ওদিকে রাম মন্দির নির্মাণের দাবিতে সংসদে ব্যক্তিগত বিল পেশের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ রাকেশ সিনহা। কংগ্রেসকে চাপে ফেলতে বয়ানও জারি করে দিয়েছেন তিনি। তাঁর প্রশ্ন কংগ্রেস বিল সমর্থন করবে তো? তাত্পর্যপূর্ণভাবে এদিন ভাইয়াজি জোশি বলেন, অধ্যাদেশ দাবি করা আমাদের অধিকার। আমরা তাই করেছি। সরকার অধ্যাদেশ জারি করবে কি না তা তারাই ঠিক করবে। সঙ্গে তিনি বলেন, রাম মন্দির তৈরির দাবিতে দরকারে ১৯৯২ সালের মতো আন্দোলন ফের গড়ে তুলবে আরএসএস। একই সঙ্গে তিনি বলেন, সুপ্রিম কোর্ট যে ভাবে রাম মন্দির মামলার শুনানি পিছিয়ে দিয়েছে তাতে অপমানিত বোধ করছেন দেশের হিন্দুরা।

02-11-2018 03:05:10 pm

ছত্তিসগঢ়ের দান্তেওয়াড়ায় মাওবাদী হামলায় চিত্র সাংবাদিক সহ ২ পুলিসকর্মী নিহত

ছত্তিসগড় ৩১ অক্টোবর (এ.এন.ই ): ছত্তিসগঢ়ের দান্তেওয়াড়ায় মঙ্গলবার মাওবাদী হামলায় মৃত্যু হয় ২ পুলিসকর্মী এবং দূরদর্শনের চিত্র সাংবাদিক অচ্যূতানন্দের। কিন্তু এ দিন পুলিসের সঙ্গে মাওবাদীদের সংঘর্ষ কতটা ভয়াবহ ছিল, তার একটি ভিডিও প্রকাশ্যে এল। ওই সংস্থারই সহ-আলোক সাংবাদিক মরমুক্ত শর্মা সংঘর্ষের মুহূর্তের একটি ভিডিও তৈরি করেন। ব্যাপক গোলাগুলির মধ্যে পরিবারের উদ্দেশে ‘শেষ বার্তা’ দিয়ে রাখেন - “মা, বেঁচে নাও ফিরতে পারি, তোমাকে ভীষণ ভালবাসি আমি।” ভিডিয়োতে দেখা যায়, মাটিতে পড়ে রয়েছেন মরমুক্ত শর্মা। মুখের সামনে ক্যামেরাটি অন করে সেখানকার পরিস্থিতি বলে যাচ্ছেন। মাঝে মধ্যেই গুলির আওয়াজ শোনা যাচ্ছে। মরমুক্ত বলেন, “রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাত্ই মাওবাদীরা ঘিরে ফেলে। পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ হয়ত বেঁচে ফিরব না। মা তোমায় খুব ভালবাসি। তবে, আজ কেন জানি না মৃত্যুকে সামনে থেকেও দেখেও ভয় লাগছে না। কিন্তু, বেঁচে ফেরা মুশকিল...।” শেষ পর্যন্ত এ দিন বেঁচে ফিরেছিলেন মরমুক্ত। তবে, তাঁরই সহকর্মী অচ্যূতানন্দ মাওবাদীর গুলিতে প্রাণ হারান। আগামী মাসে ছত্তিসগঢ়ে বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। তার আগে সেরাজ্যের মানুষের হাল হকিকত জানতে মাও উপদ্রুত দান্তেওয়াড়ায় গিয়েছিলেন দূরদর্শনের কর্মীরা। অর্ণাপুর গ্রামে পৌঁছতে তাদের ওপর হামলা চালায় মাওবাদীরা।

31-10-2018 03:14:57 pm

দশ দিনের মধ্যে কেন্দ্রকে রাফালের দামের তথ্য জানানোর নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

দিল্লি ৩১ অক্টোবর (এ.এন.ই ): দশ দিনের মধ্যে কেন্দ্রকে রাফালের দামের তথ্য জানানোর নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। যদিও অ্যাটর্নি জেনারেল কে কে বেণুগোপাল এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে সওয়াল করেন, রাফাল চুক্তি অনুযায়ী, প্রকাশ্যে দাম জানানো নিয়ম বহির্ভূত। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের বেঞ্চ বুধবার জানতে চায়, কেন্দ্র কেন রাফালের দাম জানানোয় অপারগ, তা মুখবন্ধ খামে ১০ দিনের মধ্যে হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে। ওই দিনেই রাফালের দাম-ও জানাতে হবে বলে সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে। আগামী ১৪ নভেম্বর রাফাল মামলার পরবর্তী শুনানি হবে। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জসবন্ত সিনহা এবং অরুণ সৌরির রাফাল নিয়ে করা মামলা এ দিন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ, বিচারপতি ইউ ইউ ললিত এবং বিচারপতি কে এম জোসেফের বেঞ্চে শুনানি হয়। এ দিন এজলাসে রাফাল চুক্তির তথ্য অনলাইনে প্রকাশ করার দাবি জানান আবেদনকারীদের আইনজীবী। প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ জানায়, রাফাল বিষয়ে যে সব তথ্য প্রকাশ্যে জানানো সম্ভব, কেন্দ্রকে অতি অবশ্যই অনলাইনে প্রকাশ করতে হবে এবং মামলাকারীদের কাছে সেই তথ্য তুলে দিতে হবে। র আগে সুপ্রিম কোর্ট রাফাল চুক্তির প্রক্রিয়া কীভাবে হয়েছে, তা মুখবন্ধ খামে হলফনামা দিয়ে কেন্দ্রকে জানানোর নির্দেশ দিয়েছিল। তবে, ভারতীয় বায়ুসেনার নিরাপত্তার জন্য রাফালের দাম এবং প্রযুক্তিগত উপযোগিতা বিষয়ে জানতে চায়নি সুপ্রিম কোর্ট। রাফাল নিয়ে সিবিআই তদন্তের যে দাবি আবেদনকারীরা জানিয়েছিলেন, বুধবার সুপ্রিম কোর্ট স্পষ্ট করে এখনই সিবিআই তদন্ত প্রয়োজন নেই। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে তত্কালীন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাসোয়াঁ ওলাঁদ এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে রাফাল চুক্তি হয়। এই চুক্তি অনুযায়ী, ১২৬টির পরিবর্তে ৩৬টি রাফাল দেবে ফরাসি যুদ্ধবিমান সংস্থা দ্যাসোঁ। বাকি রাফাল তৈরির ক্ষেত্রে অন্যান্য সংস্থার সঙ্গে বরাত মেলে অনিল অম্বানির সংস্থারও। বিরোধীরা অভিযোগ করে, রিলায়্যান্স সংস্থাকে অবৈধভাবে বরাত পাইয়ে দিয়েছে মোদী সরকার। পাশাপাশি, কত টাকায় রাফাল চুক্তি হয়েছে, তার জবাব দাবি করেন তাঁরা। কিন্তু কেন্দ্রের স্পষ্ট অবস্থান, দেশের নিরাপত্তার প্রশ্নে রাফাল চুক্তি প্রকাশ্যে আনা সম্ভব নয়।

31-10-2018 03:11:28 pm

ভারতীয় মুদ্রার দরে লাগাতার পতনের চাপে পদত্যাগ করতে পারেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর

মুম্বাই ৩১ অক্টোবর (এ.এন.ই ): ভারতীয় মুদ্রার দরে লাগাতার পতনের চাপে পদত্যাগ করতে পারেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর উর্জিত পটেল। সূত্রের খবর, কেন্দ্রের সঙ্গে সম্পর্কে অবনতির জন্যই পদ থেকে সরে যেতে পারেন তিনি। তবে এব্যাপারে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। সম্প্রতি তলানিতে ঠেকেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সঙ্গে কেন্দ্রের সম্পর্ক। উদ্ভূত আর্থিক পরিস্থিতি সামাল দিতে একমত হতে পারছে না দেশের ব্যাঙ্কিং নিয়ামক সংস্থা ও অর্থ মন্ত্রক। দুপক্ষের বিবাদ মাঝেমাঝেই প্রকাশ্যে চলে আসছে। সম্প্রতি 'কেন্দ্রের স্বশাসিত সংস্থার কার্যপ্রণালিতে হস্তক্ষেপ করা উচিত নয়' বলে মন্তব্য করেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ডেপুটি গভর্নর বিরল আচার্য। বলেন, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক টেস্ট খেলে কেন্দ্র টি২০ খেলতে চাইছে। জবাবে কেন্দ্রের এক আধিকারিক বলেন, 'টেস্ট খেললে ছয়ের দশকেই পড়ে থাকতে হবে।' এরই মধ্যে মঙ্গলবার অর্থনৈতিক স্থায়িত্ব ও প্রগতি কাউন্সিলের বৈঠকে মুখোমুখি হন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি ও রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর উর্জিত প্যাটেল। তার পরই গুঞ্জন শুরু হয়েছে পদত্যাগ করতে পারেন উর্জিত।

31-10-2018 03:08:33 pm

সোশ্যাল মিডিয়ারর দৌলতেই উত্তর প্রদেশে এক মহিলা কনস্টেবলের সমস্যা মিটল

ঝাঁসি ২৯ অক্টোবর (এ.এন.ই ): সোশ্যাল মিডিয়ার ক্ষমতা অসীম। এর দৌলতেই উত্তর প্রদেশে এক মহিলা কনস্টেবলের সমস্যা মিটল কয়েক দেনর মধ্যেই। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি প্রকাশিত হয় ঝাঁসির পুলিস কনস্টেবল অর্চনা জয়ন্তের। ছবিটি পোস্ট করেছিলেন তাঁর সিনিয়র রাহুল শ্রীবাস্তব। ছবিটি ছিল অর্চনা তাঁর ৬ মাসের বাচ্চাকে ডেস্ক শুইয়ে রেখেছেন। পাশ দাঁড করানো দুধের বোতল। নিজে মগ্ন ফাইলে। ওই ছবি প্রকাশ হওয়ার পরই তোলপাড় শুরু হয়ে যায় রাজ্যজুড়ে। অর্চনা কাজ করতেন ঝাঁসির একটি থানার রিসেপশনে। বাড়িতে বাচ্চা দেখার কেউ নেই। স্বামী থাকের গুরুগ্রামে। একমাত্র বোনের বিয়ে হয়েছে কানপুরে। বাবা-মা থাকেন আগ্রায়। ওই ছবি দেখার পরই অর্চনাকে আগ্রায় বদলি করে দেন রাজ্যের ডিজিপি ওম প্রকাশ সিং। ওম প্রকাশ সিং ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানিয়েছেন, ওই ছবি দেখা পর আমি ঝাঁসির আইজির সঙ্গে কথা বলি। জানতে পারি অর্চনা খুবই পরিশ্রমী। সন্তানের জন্য ছুটি না নিয়েই ডিউটি করছেন। ওর সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি ওকে ওর পরিবার কোনওভাবেই সাহায্য করে না। অর্চনার সমস্যার কথা বলতে গিয়ে ওম প্রকাশ সিং বলেন, ওর বাবা-মা থাকেন আগ্রায়। শ্বশুরবাড়ি কানপুরে। বোনও থাকে কানপুরে। কিন্তু ওখানে অর্চনাকে ট্রান্সফার করা যাবে না কারণ ওখানে ওর শ্বশুরবাড়ি। শেষপর্যন্ত ও বলে ওকে আগ্রায় ট্রান্সফার করা হলেও চলবে। ওর কথা মতো ওকে আগ্রাতেই ট্রান্সফার করে দিয়েছি। সংবাদামধ্যমে অর্চনা জানিয়েছেন, এবার বড় মেয়ে কনককে আগ্রায় আনব। বহুদিন বাবা-মা, স্বামীর সঙ্গে দেখা হয়নি। এবার দীপাবলিতে ওদের সঙ্গে থাকতে পারব। ঝাঁসিতে বহু সমস্যা হতো। কিন্তু সহকর্মীরা আমাকে খুবই সহায়তা করেছেন।

29-10-2018 03:07:43 pm

ট্রেন ১৮ এর পরীক্ষমূলক যাত্রা শুরু হচ্ছে আজ

চেন্নাই ২৯ অক্টোবর (এ.এন.ই ): জল্পনার অবসান। সম্পূর্ণ দেশীয় প্রয়ুক্তিতে তৈরি ট্রেন ১৮ এর পরীক্ষমূলক যাত্রা শুরু হচ্ছে আজ। সেমি হাইস্পিড এই ট্রেনের সর্বোচ্চ গতি হবে ঘণ্টায় ১৬০ কিলোমিটার। ট্রেনটি তৈরি করেছে চেন্নাইয়ের ইন্টিগ্রাল কোচ ফ্যাক্টরি। সংস্থার জেনারেল ম্যানেজার এ মানি সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ২৯ অক্টোবর ট্রেনের যাত্র শুরু হবে। আগামী ২-৩ মাস পরীক্ষামূলকভাবে চলাচল করবে এই ট্রেন। পরীক্ষায় সফল হলে এটিকে যাত্রী পরিবহণের কাজে লাগানো হবে। গতি ঘণ্টায় যদি ১৬০ কিলোমিটার হয় তাহলে কি শতাব্দীর মতো দ্রুতগতির ট্রেনের ছুটি হয়ে যাবে? এমনটাই প্রশ্ন উঠছে বিভিন্ন মহল থেকে। কোনও কোনও মহল থেকে সেটাই এখন বলা শুরু হয়েছে। ট্রেনটি তৈরি করতে খরচ হয়েছে ১০০ কোটি টাকা। গোটা ট্রেনটাই স্টেইনলেস স্টিলের। সবকটি কোচই শীততাপ নিয়ন্ত্রিত। এটিতে থাকছে মোট ১৬টি চেয়ারকার কোচ। এর মধ্যে ১৪টি নন একজিকিউটিভ ও ২টি একজিকিউটিভ চেয়ার কার। একজিকিউটিভ চেয়ার কারে বসতে পারবেন ৫৬ জন যাত্রী। নন একজিকিউটিভ চেয়ারকারে বসার জায়গা রয়েছে ৭৮ জনের। ট্রেনটিকে সম্ভবত চালানো হবে দিল্লি-আগ্রা-ভোপাল রুটে। মাত্র ১৬ মাসে ট্রেনটি তৈরি করে ফেলেছে চেন্নাইয়ের ইন্ট্রিগাল কোট ফ্যাক্টরি। ট্রেনটি চালাতে পৃথক কোনও ইঞ্জিন লাগে না। প্রতিটি কোচেই থাকছে ইঞ্জিন। একজিকিউটিভ ক্লাসে প্রতিটা আসন ঘোরানো ‌যাবে। জানালা অন্যান্য ট্রেনের থেকে অনেকটাই বড়। প্রতিটি কামরায় থাকছে এলইডি লাইট। থাকছে লাগেজ র‍্যাক। এছাড়াও ট্রেনটিতে রাখা হয়েছে ওয়াইফাই ব্যবস্থা, জিপিএস বেসড প্যাসেঞ্জার ইনফরমেশন সিস্টেম, মডিউলার টয়লেট।

29-10-2018 03:03:31 pm


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.